Logo
শিরোনাম

১০ টাকায় চোখ পরীক্ষা প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:Tuesday ২৯ November ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

সাধারণ রোগীদের মতো ১০ টাকার টিকেট কেটে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও নিচতলায় বহিঃবিভাগে, টিকেট কেটে ডাক্তার দেখান তিনি। এসময় প্রধানমন্ত্রীকে হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফা অভ্যর্থনা জানান। হাসপাতালের বহিঃবিভাগের নার্স ও চিকিৎসা নিতে আসা রোগী এবং তাদের স্বজনদের সাথে কথা বলনে তিনি। এ সময় প্রধানমন্ত্রী সবার চিকিৎসার বিষয়ে খোঁজ খবর নেন ও তাদের সঙ্গে ছবি তোলেন।


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জে বিএনপির সভায় ড. আসাদুজ্জামান রিপন

দেশ তো খাদের কিনারে নাই খাদের মধ্যে পরে গেছে

প্রকাশিত:Monday ০৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল :


বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল - বিএনপির নির্বাহী কমিটির বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, নির্বাচন ব্যবস্থা, অর্থনৈতিক ব্যবস্থার পরিবর্তন করতে হবে, দেশে এখন তো একটি ভালো সরকার দরকার।

আজ সোমবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের একটি কমিউনিটি সেন্টারে বিএনপির ঘোষিত যুগপৎ আন্দোলনের ১০ দফা ও রাষ্ট্র কাঠামোর মেরামতের রূপরেখা ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, দেশের দুর্দশা যারা তৈরী করেছে, যারা এই দুর্দশার জন্য দায়ী তাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছি তাঁদেরকে ক্ষমতা থেকে নামাতে হবে। ক্ষমতা থেকে নামতে বললেই বলেন ষড়যন্ত্র করছি, তা আপনি কোন যন্ত্র নিয়ে বসে আছেন, ইভিএম যন্ত্র নিয়ে ক্ষমতায় থাকবেন আর আমরা আন্দোলনের কথা বললেই বলেন ষড়যন্ত্র এটাতো হতে পারেনা।

তিনি আরও বলেন, আমাদের একটা তত্ত¦াবধায়ক ব্যবস্থা আসা দরকার। আমার দেশের মানুষ যদি পছন্দ করে তত্ত¦াবধায়ক সরকার, তারা যদি মনে করে তত্ত¦াবধায়ক সরকার ব্যবস্থায় তারা খুশি তাহলে তত্ত¦াবধায়ক সরকার ব্যবস্থায়ই তো আমরা ইলেকশন করবো। আর ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেন যে পৃথিবীর কোন সভ্য দেশে নাকি তত্ত¦াবধায়ক সরকার ব্যবস্থা নেই, তো পৃথিবীর অন্য সভ্য দেশের মত আপনারা কি সভ্য কাজ করেন?

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন খান এর সভাপতিত্বে, সদস্য সচিব আবু আল ইউসুফ খান টিপুর সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক মাশুকুল ইসলাম রাজীব, রহিমা শরীফ মায়া, দিলারা মাসুদ ময়নাসহ অনেকে।


আরও খবর



বিশ্ব ইজতেমা শুরু

প্রকাশিত:Friday ১৩ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে ৫৬তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। শুক্রবার বাদ ফজর উর্দুতে পাকিস্তানের মাওলানা জিয়াউল হকের আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় ইজতেমার প্রথম পর্ব। এ বয়ান বাংলাসহ কয়েকটি ভাষায় অনুবাদ করে শুনানো হয়।

শুক্রবার জুমাবার হওয়ায় ইজতেমা ময়দানে একসাথে লাখো মুসল্লি জুমার নামাজ আদায় করবেন।বৃহত্তর এ জুমায় শরিক হতে গাজীপুর, ঢাকাসহ আশপাশের জেলা থেকে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা ইজতেমা ময়দানের দিকে আসতে শুরু করেছেন। বেলা দেড়টার দিকে জুমার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। নামাজে ইমামতি করবেন মাওলানা জুবায়ের আহমদ। এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরের মধ্যেই মুসল্লিদের পদচারণায় পূর্ণ হয়ে যায় ইজতেমা মাঠ। ইজতেমা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।


আরও খবর



স্মার্ট বাংলাদেশ-৪র্থ শিল্প বিপ্লব ..প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:Monday ৩০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

ডিজিটাল বাংলাদেশের পর ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকালে, গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে একযোগে ১১টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করে একথা বলেন তিনি।

 এসময় তিনি ১৪ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে মানুষকে মনে রাখার অনুরোধ জানান। সেইসঙ্গে, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্যও সবাইকে প্রস্তুত হতে বলেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন করা প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে রেলপথে কয়েকটি রুটে ট্রেন যোগাযোগ চালু, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের মোবাইল অ্যাপস ‘পল্লী লেনদেনের’ কার্যক্রম, তিতাস নদীর ওপর ৫৭৫ মিটার দীর্ঘ পিসি গার্ডার সেতু এবং মানিকগঞ্জ-সিঙ্গাইরে কালীগঙ্গা নদীর ওপর ৪৫৬ মিটার পিসি গার্ডার সেতু। এছাড়া, বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ১২ ঘণ্টা অনুষ্ঠান সম্প্রচার কার্যক্রমসহ চট্টগ্রাম ও খুলনা পানি শোধানাগার কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।


আরও খবর



ইরানে আরও ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

ইরানে পুলিশের হেফাজতে মাশা আমিনি নামে এক তরুণীর মৃত্যুর পর দেশটিতে হিজাববিরোধী বিক্ষোভের কারণে আরও তিনজনের মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে। বিক্ষোভের সময় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যকে হত্যার অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে । সোমবার ইরানের বিচার বিভাগ এই তথ্য জানায়।

খবর এনডিটিভির।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তীব্র সমালোচনা উপেক্ষা করে ইরানের বিচার বিভাগ ‘আল্লাহর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার’ অভিযোগে ওই তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড দিলো।

এর আগে গত শনিবার ইরান মোহাম্মদ মাহদি কারামি এবং সৈয়দ মোহাম্মদ হোসেইনি নামের দুই বিক্ষোভকারীকে ফাঁসি দেয়।

বিক্ষোভের সময় ইরানের আধাসামরিক বাহিনীর এক সদস্যকে হত্যার অভিযোগে তাদেরকে দোষী সাব্যস্ত ক‍রা হয়েছিল। এবার মৃত্যুদণ্ড পাওয়া তিনজন হলেন সালেহ মিরহাশেমি, মাজিদ কাজেমি এবং সাইদ ইয়াগৌবি।

ইসফাহান নগরীতে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ চলাকালে স্বেচ্ছাসেবী বাসিজ মিলিশিয়ার সদস্যদেরকে হত্যার অভিযোগে ওই তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। তবে এই মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন।

ইরানের অভিজাত রেভল্যুশনারি গার্ড বাহিনী সংশ্লিষ্ট বাসিজ মিলিশিয়া দেশে বিক্ষোভ দমনের অগ্রভাগে রয়েছে। বিক্ষোভকারীদেরকে মৃত্যুদণ্ড দিয়ে বিক্ষোভ দমনের জন্য সোমবার পোপ ফ্রান্সিস ইরানের নিন্দা করেছেন।

গত মাসে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, ইরানি কর্তৃপক্ষ কমপক্ষে ২৬ বিক্ষোভকারীর মৃত্যুদণ্ডের সাজা চাইছে। দেশ কাঁপানো গণঅভ্যুত্থানে অংশ নেয়া প্রতিবাদকারীদের ভয় দেখানোর জন্য প্রহসনমূলক বিচারের নীলনকশা করা হয়েছে বলে নিন্দা জানিয়েছে লন্ডনভিত্তিক এই মানবাধিকার সংস্থা।


আরও খবর



সৌদিতে প্রথম হজকারীদের অগ্রাধিকার

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ-বিষয়ক মন্ত্রী তৌফিক আল-রাবিয়াহ জানিয়েছেন, এ বছর হজ করার জন্য হাজির সংখ্যা নির্ধারিত থাকবে না। এছাড়া হজ করার ক্ষেত্রে যে নির্দিষ্ট একটি বয়স নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছিল, সেটিও থাকবে না।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর নিজ দেশে বিধিনিষেধ আরোপ করে সৌদি আরব। মানুষের সমাগম নিয়ন্ত্রণে রাখতে দেশটি হাজিদের সংখ্যা নির্ধারণ করে দেয়। অবশেষে তিন বছর পর সেসব বিধিনিষেধ তুলে দেওয়া হচ্ছে।

হজ ও ওমরাহ-বিষয়ক মন্ত্রী তৌফিক আল-রাবিয়াহ সোমবার হজ মেলা-২০২৩ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেখানেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার ঘোষণা দেন। তিনি বলেছেন, মহামারির আগে হাজির সংখ্যা যত ছিল, সেটি আগের সংখ্যায় ফিরে যাবে। 

তবে সৌদির স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, যেসব মানুষ এখন পর্যন্ত একবারও হজ করেননি, এবার তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। এ বছর ২৬ জুন থেকে হজের মৌসুম শুরু হবে।

করোনা মহামারির আগে ২০১৯ সালে প্রায় ২৬ লাখ মানুষ পবিত্র হজ পালন করেন। কিন্তু পরের দুই বছর নির্দিষ্ট সংখ্যক মানুষ হজের সুযোগ পান। যাদের প্রায় সবাই ছিলেন সৌদিতে বসবাসকারী।

এরপর ২০২২ সালে প্রায় ১০ লাখ মানুষ হজ পালন করার সুযোগ পান। কিন্তু সে সময় বয়স নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল, যাদের বয়স ১৮-৬৫ এবং পরিপূর্ণ সুস্থ শুধু তারাই হজ পালন করতে পারবেন। এছাড়া করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার বিষয়টি বাধ্যতামূলক ছিল।


আরও খবর