Logo
শিরোনাম

আবারো অস্থির ডিমের বাজার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

আবারো অস্থির হয়ে উঠেছে ডিমের বাজার। প্রতি ডজন ডিম বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকায়। হালি বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকায়।

ব্যবসায়ীদের কেউ কেউ বলছেন, টানা বৃষ্টিতে সরবরাহ সংকটে এমন হয়েছে। আবার কেউ বলছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে মুরগির খাদ্যের উপকরণের দাম বেড়ে যাওয়া, জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি এবং ডলারের দাম বেড়ে যাওয়া এর বড় কারণ। এসব কারণে যখন গত মাসে ডিমের দাম বেড়েছে, সে সময় প্রশাসনের চাপে বাধ্য হয়ে দাম কমেছিল। কিন্তু সমস্যা সমাধান না হওয়ায় আবারো বাড়ছে। এদিকে খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন এসবই পাইকারদের কারসাজি। এই মুহূর্তে ডিমের দাম বাড়ার কোন যুক্তিসংগত কারণ নেই।  


আরও খবর

স্বর্ণের দাম কমেছে

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




ফুলবাড়িতে,জন্মপ্রতিবন্ধী মানিক মিয়া পা দিয়ে দিচ্ছেন এসএসসি পরীক্ষা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

উত্তম কুমার মোহন্ত ফুলবাড়ী,কুড়িগ্রামঃ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সদর ইউনিয়নের চন্দ্রখানা গ্রামের মোঃ মিজানুর রহমান এর ছেলে মানিক মিয়া( ৫)দুইহাত বিহীন জন্ম প্রতিবন্ধী। সে পা দিয়ে পিএসসি, জেএসসি পরীক্ষায় মেধা তালিকায  উত্তীর্ণের পর আজ ১৫(সেপ্টেম্বর) বৃহস্পতিবার বরাবরের মতো পা দিয়ে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। পা দিয়ে লিখলেও অন্যান্য শিক্ষার্থীর তুলনায় তার লেখার প্রশংসা না করলে নয়।

মানিকের বাবা মোঃ মিজানুর রহমান পেশায় একজন ঔষধ ব্যবসায়ী,মা মোছাঃ মরিয়ম বেগম একটি স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যাপিকা এই দুই দম্পতির বড়ছেলে মানিক মিয়া দুইহাত বিহীন জন্ম প্রতিবন্ধী।দুটি হাত নাকলেও পড়াশোনায় পিছিয়ে নেই সে। মহান সৃষ্টিকর্তা দুহাত বিহীন তাকে এমন মেধাবী করে তৈরি করেছে যে পরীক্ষার হলে অন্যান্য শিক্ষার্থীর চেয়ে পা দিয়ে দ্রুত লিখে সুন্দর ভাবে সকল প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছে মানিক।আরো একটি অবাক বিষয় পা দিয়ে মোবাইল ফোন ব্যবহার করে বন্ধু বান্ধব,আত্নীয় স্বজনের সাথে দিব্বি কথা বলতে পারে।

অবাক বিষয় মানিক মিয়া পা দিয়ে কম্পিউটার টাইপ, ইন্টারনেট ব্রাউজার সহ-বিভিন্ন বিষয়ে  পারদর্শী। সে ২০১৬সালে ফুলবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পিএসসিতে গোল্ডেন এ+প্লাস ২০২০সালে ফুলবাড়ী জছিমিয়া মল্ডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি জিপিএ ৫ পেয়ে মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ হয়েছেন।এজন্য মানিকের মা মরিয়ম বেগমের অবদান অনেক বেশি।কারণ একজন শিক্ষিত মা দিতে পারে একটি ভবিষৎত শিক্ষিত জাতি।

বৃহস্পতিবার ১৫(সেপ্টেম্বর)ফুলবাড়ী বালিকা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে বাংলা পরীক্ষায় অংশ গ্রহণের সময় মানিকের সাথে কথা বলে জানা যায় ,আমার দুটি হাত না থাকলেও আল্লাহ রহমতে আমি পিএসসিতে গোল্ডেন এ+প্লাসপাই জেএসসিতে জিপিএ ৫ পেয়েছি আপনারা সবাই দোয়া করবেন এসএসসিতেও গোল্ডেন এ+ প্লাস পেয়ে কৃতকার্য হতে পারি।আমার ইচ্ছা ভালো রেজাল্ট করে প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করার।কারণ আমি কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হয়ে বাবা মায়ের মুখ উজ্জ্বল করতে চাই।

মানিকের বাবা মিজানুর রহমান মা মরিয়ম বেগম বলেন,আমাদের দুই ছেলে মানিক বড় ছোট ফাহীম ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে পরে। মানিকের জন্মথেকে দুটি হাত নেই কিন্তূ আমাদের তা মনে হয় না ছোট থেকেই তাকে আমরা পাদিয়ে লেখার অভ্যাস করিয়েছি। সমাজে অনেক সুস্থ ও স্বাভাবিক ছেলে মেয়েদের পড়াশুনার চেয়ে আমাদের মানিকের মেধা অনেক ভালো। আল্লাহর রহমতে পিএসসি,জেএসসিতে অনেক ভালো রেজাল্ট করেছে এটা আমাদের গর্ব। আপনারা সবাই দোয়া করবেন আমার ছেলেটা যেন সুস্থ সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকে এবং পূর্বের ন্যায় এসে এসপি ভালো রেজাল্ট করতে পেরে তার মনের স্বপ্ন গুলো পূরণ করতে পারে।

ফুলবাড়ী জসিমিয়া মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবেদ আলী খন্দকার জানান, শারীরিক প্রতিবন্ধকতা থাকলেও মানিক অসাধারণ ছাত্র।সে আমাদের

সম্পদ সে ডান পায়ের বুড়ো আঙ্গুল দিয়ে কলম ধরে লিখে আর বা পায়ের আঙ্গুল দিয়ে প্রশ্ন ও খাতার পাতা উল্টায় এইভাবে লেখে সে বিগত পরীক্ষাগুলোতে ভালো রেজাল্ট করেছে। আমি দোয়া করি এসএসসি তে যেন ভালো রেজাল্ট করতে পারে এজন্য প্রান খুলে দোয়া করি।

ফুলবাড়ী বালিকা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে সচিব, মশিউর রহমান বলেন, মানিক প্রতিবন্ধী হলেও অন্যান্য শিক্ষার্থীর তুলনায় তার মেধা অনেক ভালো।তার বিগত পরীক্ষার রেজাল্ট অনেক ভালো,সে ব্রেঞ্চে বসে লিখতে পারেনা সেই জন্য তাকে চৌকিতে বসে পরীক্ষার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে নিয়ম অনুযায়ী তাকে বিশ মিনিট বাড়তি সময় দেওয়া সহ সকল সুবিধা দেওয়া হয়েছে। একটি অবাক বিষয় পা দিয়ে এত সুন্দর লেখা এটা আমার কাছে অদ্ভুত বিষয়। আমি দোয়া করি মানিক যেন পূর্বের ন্যায় ভালো রেজাল্ট করতে পারে বাবা মায়ের মুখ উজ্জ্বল করতে পারে। 


আরও খবর



বিশ্বম্ভরপুরে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রবাসীর পক্ষ থেকে ব্যাগ বিতরণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

শফিউল আলম,স্টাফ রিপোর্টার :

 সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ফতেপুর   ইউনিয়নের অনন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রবাসী জিয়াউল হক এর পক্ষ থেকে স্কুল ব্যাগ বিতরণ করা হয়েছে।২২ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) দুপুরে শ্রেণিকক্ষে ব্যাগ বিতরন করা হয়।


এদিকে স্কুল সভাপতি মাইন উদ্দিন এর সভাপতিত্বে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক  আলমগীরের সঞ্চালনায় আলোচনা সভা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান  অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জিয়াউল হক বলেন, এক সময় আমি এ  বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেছি।এ গ্রামের সন্তান আমি, সুখে-দুঃখে সবসময় গ্রামবাসীর পাশে থাকব ইনশাআল্লাহ। লেখাপড়া করে তোমরা মানুষের মত মানুষ হও এই প্রত্যাশা সব সময়। আলোচনা সভা শেষে প্রধান অতিথি কে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এ-সময় উপস্থিত বিদ্যালয়ের ভূমি দাতা ও ম্যানেজিং কমিটির  সহ-সভাপতি নুর আলম সুমন,সদস্য শাহিনুল ইসলাম, তৌহিদা বেগম, সহকারি শিক্ষক পিংকি তালুকদার,চঞ্চলী রানী দে,সাবেক সভাপতি বেলায়েত হোসেন তালুকদার, জাহাঙ্গীর আলম,সাংবাদিক শফিউল আলম, শাহ আলম, শাহিন মিয়া প্রমুখ।


আরও খবর



সোনারগাঁয়ে ৫০ শয্যা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের উদ্বোধন

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

সোনারগাঁ প্রতিনিধি: 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫০ শয্যার নব নির্মিত ভবন  উদ্বোধন করা হয়েছে।  রোববার স্থানীয় সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা ভবনটি উদ্বোধন করে স্বাস্থসেবার জন্য খুলে দেওয়া হয়। পরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও আরোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের বিভাগীয় পরিচালক ফরিদ হোসেন মিঞাঁ, নারায়ণগঞ্জের সিভিল সার্জ আবুল ফজল মোহাম্মদ মুশিউর রহমান, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সাবরিনা হক, সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান, উপজেলা আ'লীগের নবনির্বাচিত সহ-সভাপতি ও পিরোজপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম ইকবাল। 

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, জামপুর ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবির ভুইয়া, সনমান্দী ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ, উপজেলা প্রকৌশলী আরজুরুল হক, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুল জব্বার, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা ইয়াসিনুল হাবীব প্রমূখ। 

নবনির্মিত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নির্মাণ কাজে ব্যয় হয়েছে ১ কোটি ৮৮ লাখ টাকা।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সটি ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করায় সাধারন মানুষ আগের চেয়ে বেশী স্বাস্থ্য সেবা পাবেন। বর্তমান সরকার মানুষের দৌড় গোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা পৌছে দিয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সেই এখন সাধারন মানুষ মাতৃত্বকালীন অস্ত্রোপচার, ইসিজি করা যাচ্ছে। 


আরও খবর

অক্টোবরের ৪ থেকে টিকার প্রথম ডোজ বন্ধ

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

করোনায় এক দিনে ৫ জনের মৃত্যু

বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২




মোরেলগঞ্জে কৃষকলীগের আহবায়ক কমিটি গঠন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদক :

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। নেতৃবৃন্দরা হলেন মোরেলগঞ্জ উপজেলা কৃষকলীগের  আহবায়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, সদস্য সচিব সরদার হাফিজুর রহমান লাভলু।

অন্যান্যেরা হলেন সদস্য খান মো. গোলাম মোস্তফা, সদস্য মো. রেজাউল ইসলাম রাজু। বাগেরহাট জেলা কৃষক লীগের সভাপতি শেখ আবুল হাশেম শিপন ও সাধারণ সম্পাদক মো. মনি মল্লিকের স্বাক্ষরিত ৯ সেপ্টম্বর শুক্রবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর নিশ্চিত করেছেন। 


আরও খবর



লক্ষ্মীপুরে ব্রিজ ভেঙে ঝুঁকিপূর্ণ দুর্ভোগে এলাকাবাসী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি ঃ

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চর মন্ডলগ্রামের ব্রিজটি দীর্ঘদিন ধরে ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় ব্রিজের দুই পাড়ের প্রায় ৫ হাজার লোকের দুর্ভোগ চরমে পৌঁচেছে। প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে যাত্রীবাহি যানবাহন। 

সরজমিনে দেখা গেছে, সদর উপজেলার চরমন্ডল ও চর লামচী গ্রামের সীমানায় ওহাবদা খালে একটি সাখা খাল রয়েছে। এ খালের দুই পাশে রয়েছে চর লামচী-চর মন্ডল,দালাল বাজার,চররুহিতা বাজারসহ ১০টি গ্রাম। গ্রামের মানুষদের চলাচলের একমাত্র যাতায়াতের রাস্তা এ ঝুঁিকপূর্ণ ব্রিজটি। 

এ ছাড়া ব্রিজ দিয়ে প্রতিদিন চলচল করছে রসূলগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়,মাদ্রসা,প্রাথমিক বিদ্যালয়,দালাল বাজার কলেজ,লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ,আলীয়া মাদ্রাসা,কাজী ফারুকী স্কুল এন্ড কলেজ এবং লক্ষ্মীপুর ন্যাশানাল স্কুল এন্ড কলেজ এর অসংখ্য শিক্ষার্থী।

এ ব্রিজ দিয়ে যাতায়াতকারী লক্ষ্মীপুর আলীয়া মাদ্রাসার ছাত্র ইয়ামিন হোসাইন বলেন, ব্রিজ ভাঙার আগে লক্ষ্মীপুর ও রায়পুর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বাস ছাত্র-ছাত্রীদের আনা নেয়ার কাজে এখানে আসতো। ব্রিজ ভাঙার কারনে গাড়ী চলতে না পারায় বাস আসছেনা। 

এলাকার বসবাসরত এলাকাবাসি সিরাজ মিয়া,আবুল কাশেমসহ অনেকেই জানান,অনেক সময় কেউ অসুস্থ হয়ে গেলে রোগীনিতে কোন যানবাহন পাওয়া যাচ্ছে না। অনেক কষ্ট করে চিকিৎসার জন্য রোগী নিতে হচ্ছে। 

স্থানীয় এলাকাবাসি জানান,ব্রিজটির মাঝখানে ভাঙা থাকায় প্রতিনিয়তই গাড়ী চলাচলে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে গাড়ী উল্টে যায়। প্রায় দুর্ঘটনায় আহত যাত্রীরা। ব্রিজটি পুন: নির্মাণ করার দাবী তাদের। তবে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও মেম্বাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে কাজ হয়নি এমন অভিযোগ স্থানীয়দের।

তবে স্থানীয় ( ওয়ার্ডের  ) মেম্বার নুরে আলম পাটওয়ারী ও অপর ওয়ার্ডের মেম্বার আবুল বাশার জানান,ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ায় গত ছয়মাস ধরে এলাকার মানুষ খুব কষ্টে যাতায়াত করছেন। 

এ সড়ক দিয়ে ব্রিজ হয়ে যাতায়াতকারী টিপু পাটোওয়ারী জানান, তিনি ইতিপূর্বে এ ব্রিজটি ব্যাক্তি উদ্যোগে কাঠ দিয়ে মেরামত করেন। ভারি যানবাহন চলাচল করায় সেই মেরামতটিও ভেঙে যায়। এর পর থেকে আর ব্রিজ নির্মাণে কেউ এগিয়ে আসে নাই। ব্রিজটি নির্মাণের ব্যাপারে এলজিইডি কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। 

রসূলগঞ্জ বাজারের সেক্রেটারি মো: নুরল ইসলাম টিপু জানান,আগে চর অঞ্চলের মানুষ রসূলগঞ্জ বাজারে আসতো তখন ব্যাবসা বাণিজ্য ভালো ছিলো। ব্রিজ ভাঙার কারনে অনেকেই এ বাজারে না এসে অন্য বাজারে চলে যাচ্ছে। এতে করে বাজারে ব্যবসায়ীদের দিন দিন বেচাকেনা কমে যাচ্ছে।  

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেন পাটোওয়ারি জানান,ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ায় মানুষ আসা-যাওয়ায় কষ্ট পাচ্ছে। ব্রিজটি নির্মাণের জন্য এলজিইডির নির্বাহি প্রকৌশলীর নিকট আবেদন করা হয়েছে। 

এলজিইডির নির্বাহি প্রকৌশলী মো: শাহ আলম পাটোওয়ারি জানান, বরাদ্ধ আসলে ব্রিজটি নির্মাণের জন্য টেন্ডার আহবান করা হবে। 


আরও খবর