Logo
শিরোনাম

আধ্যাত্মিক শক্তি লাভের জন্য নারীর কবর খুড়তে গিয়ে যুবক আটক

প্রকাশিত:Wednesday ০২ November 2০২2 | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ


আধ্যাত্মিক শক্তি লাভের জন্য এক নারীর কবর খুড়তে গিয়ে এক যুবক আটক। এলাকার লোকজনের মাঝে চাঞ্চল্যকর সৃষ্টিকারি এ ঘটনাটি ঘটেছে নওগাঁর সাপাহার উপজেলার বাখরপুর "তালতলা" গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, নওগাঁর সাপাহার উপজেলার বাখরপুর "তালতলা" গ্রামের আমিন সরেন এর স্ত্রী তালামনি টুডু গত সোমবার ৩১ অক্টোবর রাত ১০ টারদিকে মৃত্যুবরণ করেন। পরের দিন মঙ্গলবার ১ নভেম্বর বিকেল ৩ টারদিকে ধর্মীয় বিধি মোতাবেক বাড়ি হতে প্রায় হাফ কিলোমিটার দূরে নির্ধারিত আদিবাসী সম্প্রদায়ের সমাধিস্থলে তার দাফনকার্য সম্পূন্ন করেন স্বজনরা। ঐ দিনই রাত ৯ টারদিকে মৃত তালামনি টুডু'র এর ছেলে মন্দন সরেন লোক মুখে জানতে পারেন, কে যেন তার মায়ের কবরে মাটি খুড়ছে। এমন খবর পেয়ে মন্দন সরেন লোক জন নিয়ে সমাধিস্থলের দিকে রওনা দেন। এসময় একই পথে বিপরিদ দিক থেকে শরীরে কাঁদামাটি মেখে উজ্জল টুডু (২০) নামের এক যুবককে আসতে দেখতে পান তারা। এক পর্যায়ে যুবক উজ্জল টুডু কে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে উজ্জল টুডু তাদেরকে জানান, আধ্যাত্মিক শক্তি "লাভ" অর্জন করার জন্য তালামনি টুডু'র কবর খুঁড়ে মাটি তুলে তার শরীরে তিনি মেখেছেন। যুবক উজ্জল টুডু'র এমন কথা শুনে স্থানীয় লোকজন সহ নিহতের ছেলে মন্দন সরেন তার মায়ের সমাধিস্থলে গিয়ে দেখতে পায় কবরের মাঝখানে প্রায় এক ফুট গর্ত করে মাটি খোঁড়া হয়েছে। পরে '৯৯৯' নম্বরে ফোন দিয়ে ঘটনাটি জানালে সাপাহার থানা পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে পৌছে যুবক উজ্জল টুডু কে আটক করে থানা হেফাজতে নেয়।

এঘটনায় অনুভূতি তে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে থানায় মামলা করেন মন্দন সরেন। মামলার পর উজ্জল টুডুকে গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার ২ নভেম্বর বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করেন সাপাহার থানা পুলিশ।

যুবককে আটক সহ মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন

সাপাহার থানার ওসি (তদন্ত) হাবিবুর রহমান 


আরও খবর



নওগাঁয় এক ছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

নওগাঁয় খুশি আক্তার (১৭) নামের একাদশ শ্রেনীতে পড়ুয়া এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেছে। এআত্নহত্যার ঘটনাটি ঘটেছে নওগাঁর সাপাহার উপজেলার বাবুপুর গ্রামে। খুশি আক্তার ঐ গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে।

থানা ও স্থানিয় সূত্রে জানা গেছে, মাদ্রাসার একাদশ শ্রেণীতে পড়ুয়া ছাত্রী খুশি আক্তার মঙ্গলবার সকালে তার মা’র সাথে কথা কাটাকাটি'র এক পর্যায়ে মায়ের উপর অভিমান করে নিজ শয়ন ঘরে যান। এসময় তার মা বাসার কাজে ব্যস্ত ছিলেন। দুপুরে খুশি আক্তারের মা ও বাবা খুশি'র ঘরে ভিতর থেকে দরজা বন্ধ রাখার বিষয় জানতে পেরে তাদের সন্দেহ হলে তারা ডাক চিৎকার দেন। এসময় লোকজন এসে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরের ভেতর ফ্যানের সাথে মেয়েকে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেখতে পান। ঘটনাটি থানা পুলিশকে জানালে, সাপাহার থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে প্রাথমিক সুরতহাল রির্পোট অন্তে ময়না তদন্তের জন্য সন্ধার দিকে ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়। এব্যাপারে সাপাহার থানার ওসি (তদন্ত) হাবিবুর রহমান মৃতদেহ সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহত ছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে মৃতদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এছাড়া ঘটনার ব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করার পক্রিয়া চলছে।


আরও খবর



নিলীমা দাসের শুভ জন্মদিন

প্রকাশিত:Sunday ০৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image
এড. মৃণাল কান্তি দাসের সহধর্মিণী নিলীমা দাসের জন্মদিন



আরও খবর



পাঠান সিনেমায় খলনায়িকা দীপিকা !

প্রকাশিত:Friday ১৩ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

সবাই জানত ‘পাঠান’ ছবিতে নায়িকা চরিত্রে থাকবেন দীপিকা। এখন শোনা যাচ্ছে, নায়িকা নন বরং খলনায়িকা অর্থাৎ ভিলেন রূপে এই ছবিতে ধরা দেবেন তিনি।

স্পাই-থ্রিলার জনরার মুভিগুলোতে দৃশ্যের বাঁকে বাঁকে টুইস্ট থাকে। ‘পাঠান’ নির্মাতা সিদ্ধার্থ আনন্দ তার আগের ছবি ‘ওয়ার’-এও এরকম টুইস্ট রেখেছিলেন। টাইগার শ্রফের ‘খালিদ’ চরিত্রটিকে তিনি পজিটিভ এবং নেগেটিভ দুই শেডেই দেখিয়েছিলেন। তাই ‘পাঠান’-এও এমনটা ঘটার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। অন্তত এমনটাই দাবি করছে নেটপাড়ার একাংশ। তাদের মতে, ‘টাইগার’ সিরিজে ক্যাটরিনা কাইফের চরিত্রের মতো এখানেও দীপিকাকে পাকিস্তানের এজেন্ট দেখানো হতে পারে।

মূলত দীপিকার নেগেটিভ চরিত্রের কথা উঠে এসেছে ফ্যান থিওরি থেকেই। আর সেটা আসছে ছবির ট্রেলার ও গানের কিছু সংলাপ যোগ করে। ভক্ত তত্ত্ব বলছে, জন আব্রাহাম নন পাঠানের আসল ভিলেন দীপিকা। কেন এমন কথা বলছে সেটার কারণও ব্যাখ্যা করেছে তারা। ‘ঝুমে জো পাঠান’ গানে ‘দুশমন গালে লাগ জায়ে’ দিয়ে শত্রু দীপিকার সঙ্গে বন্ধুত্বের বার্তাই দিচ্ছেন শাহরুখ! এরপর ট্রেলারে এক জায়গায় জনকে বলতে শোনা যায়, ‘পাঠান দ্য হান্টার… হান্টেড?’। তারমানে শিকারি শাহরুখ নিজেই এখন শিকারে পরিণত হয়েছে।

অবশ্য সবটাই ভক্তদের কল্পনাপ্রসূত ধারণা। আসলেই দীপিকার চরিত্র কী সেটা বোঝা যাবে আগামী ২৫ জানুয়ারি। ওইদিন হিন্দি, তামিল, তেলেগু ভাষায় মুক্তি পাবে ‘পাঠান’ ছবিটি। এতে ক্যামিও চরিত্রে দেখা যাবে সালমান খানকে। যশরাজ ফিল্মসের ‘স্পাই ইউনিভার্স’র অংশ হিসেবে থাকতে পারেন কবির চরিত্রে হৃতিক রোশনও।


আরও খবর



বগুড়ায় এক নারী মেম্বারকে গলাকেটে হত্যা

প্রকাশিত:Sunday ০৫ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক নারী সদস্য (মেম্বার) এর গলাকাটা মৃতদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। 

রবিবার বিকেল ৪টারদিকে সাবেক ইউপি সদস্য নারগিছ আরা বেগম (৫৫) এর গলাকাটা মৃতদেহ দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে খবর দেন স্থানিয়রা।

নারী ইউপি সদস্য হত্যাকান্ডের এ ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর মধ্যপাড়া গ্রামে। হত্যাকান্ডের শিকার নারগিছ আরা বেগম ঐ গ্রামের মৃত আব্দুল কাদের ফকির এর স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, হত্যকান্ডের শিকার সাবেক নারী সদস্য (মেম্বার) নারগিছ আরা বেগম বগুড়া উপ-শহর এলাকায় তার ছোট মেয়ে ডাঃ তানিয়ার বাসায় বসবাস করেন এবং মাঝে মাঝে গ্রামের বাড়িতে এসেও থাকতেন।

নারগিছ আরা বেগম শনিবার সকাল ১১টারদিকে রায়নগর মধ্যপাড়া গ্রামে স্বামীর বাড়িতে আসেন। পরের দিন রবিবার ৫ ফেব্রুয়ারী বিকালে তার গলাকাটা মৃতদেহ দেখতে পেয়ে থানা পুলিশ কে খবর দেন স্থানিয়রা।

মৃতদেহ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে বগুড়ার শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মনজুরুল আলম জানান, ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক নারী সদস্য’র গলাকাটা মৃতদেহর খবর পেয়ে থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট অন্তে ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। 

প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে কে বা কাহারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলাকেটে তাকে হত্যা করেছে। ঘটনা উদর্ঘাটনে ইতিমধ্যেই পুলিশ কাজ শুরু করছে এবং এব্যাপারে সংবাদ সংগ্রহকালে মামলার পক্রিয়া চলমান রয়েছে বলেও জানান ওসি।


আরও খবর



৪৭কোটি টাকা আত্মসাৎ! বুড়িচংয়ের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো :

ব্যাংক থেকে ৪৭ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগে কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান  জাকির এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী জাকির হোসেন জাহেরকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রানা বিল্ডার্সের কাগজপত্র জালিয়াতির মাধ্যমে পাওয়া টেন্ডার কার্যাদেশের বিপরীতে এ টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে বলেও দুদকের দায়েরকৃত মামলার এজাহারে বলা হয়েছে।

দুদকের উপপরিচালক ও জনসংযোগ কর্মকর্তা আরিফ সাদেক জানান, দুদকের প্রাথমিক অনুসন্ধানে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে ঋণ নিয়ে আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের পোর্ট কানেকটিং রোডের টেন্ডার কার্যক্রমে জালিয়াতির মাধ্যমে প্রাপ্ত কার্যাদেশের বিপরীতে ঋণ নিয়ে ব্যাংকের টাকা আত্মসাৎ করেন তিনি। কার্যাদেশের শর্ত অনুযায়ী কাজ শেষ না করে রাষ্ট্রীয় ক্ষতি সাধনের তথ্য পাওয়া গেছে তার বিরুদ্ধে।

পরে ২০২২ সালের ১০ মে জাকির হোসেনসহ আট জনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে দুদক দুটি মামলা দায়ের করে। মামলা দুটির তদন্তকালে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় তাকে  কুমিল্লা শহরের নিজ বাসভবন থেকে মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) ভোর রাতে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়।

দুদক জানায়, গ্রেফতার হওয়া সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রানা বিল্ডার্সের কাগজপত্র জালিয়াতির মাধ্যমে সিটি করপোরেশনের কার্যাদেশ পান। তার বিপরীতে ইউসিবিএল ব্যাংকের কুমিল্লা শাখা থেকে ৪৭ কোটি টাকা ঋণ নেন। কিন্তু কাজের বিপরীতে প্রাপ্ত বিলের চেক নগদায়ন করে ব্যাংকের ঋণ পরিশোধ না করে সম্পূর্ণ টাকা আত্মসাৎ করেন। অন্যদিকে সিটি করপোরেশনের কাজটি অসমাপ্ত রেখে চলে যাওয়ায় জনভোগান্তির সৃষ্টি হয়। পুনরায় টেন্ডার করে কাজটি সমাপ্ত করতে যেয়ে অতিরিক্ত সাত কোটি টাকার রাষ্ট্রীয় ক্ষতি হয় 

দুদক আ‌রো জানায়, জা‌কির হো‌সেন ঠিকাদার এর বিরুদ্ধে কুমিল্লা, ঢাকা- চট্টগ্রাম সহ বিভিন্ন জেলায় অর্থ আত্মসাৎ, চেক জালিয়াতি সহ বিভিন্ন অপরাধে ২০টির অধিক মামলা রয়েছে।


আরও খবর