Logo
শিরোনাম
লালমনিরহাটে গাছে বেধে মারপিটে

আহত করার অপরাধে ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

 নিজস্ব প্রতিনিধি লালমনিরহাট ঃ

লালমনিরহাটের আমিনুল(২৫) নামের এক মানসিক কিশোরকে গাছে বেধে বেধড়ক মারপিটে গুরুতর আহত করার ভিডিও একাত্তর টিভিতে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রচারের পর বৃহস্পতিবার বিকেরে ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে লালমনিরহাট সদর থানা পুলিশ। 


মানসিক ভারসাম্যহীন আমিনুলকে সদর উপজেলার দুরারকুঠী বাজারে ৯ নভেম্বর  সকাল সোয়া ১০টার দিকে তাকে গাছে বেধে বেধড়ক মারপিটের ঘটনাটি ঘটে।নিমিশেই তা ভাইরাল হয় নেট দুনিয়ায়।

প্রতক্ষদর্শী ও নির্ভরযোগ্য সুত্র জানায় লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার সাপ্টিবাড়ি ইউনিয়নের পুর্ব দৈলজোর গ্রামের নুর ইসলামের পুত্র আমিনুল দীর্ঘ দিন ধরেই স্থানীয় দুরারকুঠী বাজারে অহেতুক সময় কাটানো সহ ঘোরা ফেরা করে আসছিল।ছিল না তার স্বাভাবিক জীবন যাপন কিংবা ক্ষুধার অনুভুতিও।কখনো সে ওই বাজারের বারান্দা কিংবা গভীর রাতে বাড়ি ফিরতো।এঅবস্থায় আকর্ষিক অনাকাঙ্খিত ঘটনাটিতে বিক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছেন এলাকার মানুষ।

এদিকে আমিনুলের মা বৃহস্পতিবার বিকেলে লালমনিরহাট সদর থানায় ৪ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৪/৫ জনকে আসামী করে ১টি মামলা দায়ের করেন।পরে থানা পুলিশ ওই মামলায় ইসমাইল হোসেন(৬৩)ও মনজুকে (৪০)গ্রেফতার দেখিয়ে লালমনিরহাট জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে প্রেরন করেন।বিজ্ঞা আদালত তাদের জামিন না মন্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 

লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ এরশাদ আলম জানান,মানসিক কিশোরকে গাছে বেধে মারপিটের ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক।তিনি আরো জানান,মানসিক ভারসাম্যহীন কিশোরের মা মমেনা বেগমের দায়ের করা মামলায় এজাহার নামীয় আসামী ও ভাইরাল হওয়া ভিডিও ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করে জড়িতদের গ্রেপ্তারের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। 

মানসিক ভারসাম্যহীন আমিনুলের মা অভিযোগ করে বলেন,পাগল হলেও আমার আদরের সন্তানকে যারা নির্যাতন করেছে আল্লাহতাআলা তাদের ভাল করবে না এবং আমি এর ন্যায় বিচার চাই।


আরও খবর



রাণীনগরে ডিমান্ড চার্জ আদায়ে

অটো রাইস মিলের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নের অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

 কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :

নওগাঁর রাণীনগরে লোড বৃদ্ধির ডিমান্ড চার্জ আদায়ের অযুহাতে দীর্ঘ প্রায় তিন বছর পর এক সাথে ডিমান্ড চার্জ আদায়ে অটোমেটিক রাইস মিলের সংযোগ বিচ্ছিন্নের অভিযোগ ওঠেছে। রোববার দুপুরে উপজেলা সদরে আব্দুস ছাত্তার শাহার অটোমেটিক রাইস মিলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। মিল মালিক বলছেন,২০১৯ সালে মিলে লোড বৃদ্ধির আবেদন এবং ফি জমা দিলেও গত তিন বছরে বিদ্যুৎ বিলের কাগজে বৃদ্ধিকৃত চুক্তিবদ্ধ লোড এবং লোডের ডিমান্ড চার্জ বসানো হয়নি। 

রাণীনগর উপজেলার পশ্চিম বালুভরা গ্রামের মৃত সখিন উদ্দীনের ছেলে অটোমেটিক রাইস মিলের মালিক আব্দুস ছাত্তার শাহ অভিযোগ করে বলেন,আত্রাই-নওগাঁ সড়কের উপজেলা সদরে শাহি ফিলিংষ্টেশ সংলগ্ন অটোমেটিক রাইস মিল স্থাপন করে ব্যবসা করে আসছেন। মিলে বিদ্যুতের চাহিদা বেরে যাওয়ায় ২৮৩ কিলোওয়ার্ডের স্থলে আরো ১৬৭ কিলোওয়াড সংযুক্ত করে মোট ৪৫০কিলোওয়ার্ড লোড বৃদ্ধির জন্য গত ২০১৯ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর রাণীনগর জোনাল অফিস বরাবর আবেদন করেন। এর পর নিয়ম অনুযায়ী পল্লীবিদ্যুৎ কারিগরি বিভাগ পরিদর্শণ পূর্বক লোড বৃদ্ধির ডিজাইন ও প্রাক্কলন প্রস্তুত করে প্রাক্কলিত ফি জমা দিতে পত্র দেয়া হয়। পত্র অনুযায়ী ওই বছরের ১২ ডিসেম্বর নির্দিষ্ট ফি জমা করেন। এর পর দীর্ঘ দুই বছর অতিবাহিত হলেও অটোমেটিক মিলে লোড বৃদ্ধি করা হয়নি দাবি করে চুক্তিবদ্ধ লোর্ড বৃদ্ধির জন্য গত ২০২১ সালের ২ফেব্রুয়ারী আবারো আবেদন করেন। এর পর চলতি বছরের ৫জুন হঠাৎ করেই বিদ্যুৎ অফিস থেকে অতিরিক্ত চুক্তিবদ্ধ লোড বৃদ্ধি করা হয়েছে দাবি করে এক সাথে ২৯মাসের ডিমান্ড চার্জ দুই লক্ষ ৯০ হাজার ৫৮০টাকা পরিশোধের জন্য পত্র দেয়া হয়। এর পর আবারো তিনি চুক্তিবদ্ধ লোড বৃদ্ধি করা হয়নি দাবি করে রাণীনগর জোনাল অফিসের মাধ্যমে নওগাঁ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি জেনারেল ম্যানেজার বরাবর আবেদন করেন।এরপর রাণীনগর জোনাল অফিস থেকে আবারও ডিমান্ড চার্জ পরিশোধের জন্য পত্র দেন। ছাত্তার শাহ বলেন,বিদ্যুৎ অফিস থেকে পত্রের মাধ্যমে ২০১৯ সালের ১২ডিসেম্বর থেকে ১৬৭ কিলোওয়ার্ড লোড বৃদ্ধি করা হয়েছে দাবি করে গত জুন মাস থেকে ডিমান্ড চার্জ পরিশোধের জন্য কয়েকটি পত্র দেয়। কিন্তু লোড বৃদ্ধির টাকা জমার পর থেকে চলতি বছরের এপ্রিল পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিলের কাগজে আগের চুক্তিবদ্ধ ২৮৩কিলোওয়াড লোড দেখানো হয়েছে এবং নিয়মিত বিল পরিশোধ করেছি। এরপর দীর্ঘ প্রায় তিন বছর পর গত মে মাসে আবেদনকৃত অতিরিক্ত চুক্তিবদ্ধ ১৬৭ কিলোওয়ার্ড লোড যুক্ত করে মোট ৪৫০ কিলোওয়ার্ড লোডে ডিমান্ড চার্জ দেখানো হয়। তিনি বলেন,আবেদনের প্রেক্ষিতে মিটারে অতিরিক্ত চুক্তিবদ্ধ ১৬৭ কিলোওয়াড লোড এপ্রিল পর্যন্ত সংযুক্ত না হওয়ায় সরকারী খাদ্য বিভাগ হতে মিলের অনুকূলে চাল বরাদ্দ কম পেয়েছেন। যেহেতু পূর্বে মিটারে অতিরিক্ত চুক্তিবদ্ধ লোড সংযুক্ত করা হয়নি সে কারনে মে মাসের বিলে ডিমান্ড চার্জ দুই লক্ষ ৯০হাজার ৫৮০ টাকা বাদ দিয়ে বিল সংশোধনের জন্য জোনাল অফিসে আবেদন করলে অফিস অতিরিক্ত ডিমান্ড চার্জ বাদ দিয়ে বিল সংশোধন করে দেন। এর পর আবারো পত্রের মাধ্যমে ডিমান্ড চার্জ দাবি করলে বাধ্য হয়ে চলতি মাসের ৩নভেম্বর অতিরিক্ত ডিমান্ড চার্জ অবৈধ দাবি করে নওগাঁ সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ছাত্তার শাহ বলেন,মামলার নোটিশ পাওয়া মাত্রই ক্ষিপ্ত হয়ে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ রোববার আমার অটোমিলের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। তিনি বলেন গত মে মাসের পূর্ব পর্যন্ত কোন বিলেই অতিরিক্ত চুক্তিবদ্ধ লোড এবং লোডের ডিমান্ড চার্জ সংযুক্ত করা হয়নি। মিলের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় একদিকে যেমন ব্যবসায়ীকভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্থ্য হচ্ছেন,অন্য দিকে মিলের প্রায় অর্ধশত শ্রমীক বেকার হয়ে পরেছেন। আমি এঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন।

নওগাঁ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১এর রাণীনগর জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) আকিয়াব হোসেন বলেন, ছাত্তার শাহার অটোমেটিক রাইস মিলে ২০১৯ সালের ১২ডিসেম্বর চুক্তিবদ্ধ অতিরিক্ত ১৬৭ কিলোওয়ার্ড লোড বৃদ্ধি করা হয়েছে। অফিসিয়ালভাবে লোডবৃদ্ধির কাগজপত্র সদস্য সেবা বিভাগ থেকে বিলিং শাখায় প্রেরণ না করাই অতিরিক্ত লোডের ডিমান্ড চার্জ বিদ্যুৎ বিলের সাথে যোগ করা হয়নি। ফলে বিষয়টি নজরে আসায় মোট ২৯ মাসের অতিরিক্ত চুক্তিবদ্ধ লোডের ডিমান্ড চার্জ বিদ্যুৎ বিলের কাগজে এক সঙ্গে দেয়া হয়েছে। তবে দীর্ঘ সময় ধরে কেন বিলে ডিমান্ড চার্জ তুলে দেয়া হয়নি তা ক্ষতিয়ে দেখে দোষিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন ডিমান্ড চার্জ আদায়ে বার বার পত্র দেয়ার পরেও চার্জ পরিশোধ না করায় সংশ্লিষ্ঠ উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে মিলের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। 


আরও খবর



রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলা

আওয়ামীলীগের ভাঙ্গন ঠেকাতে লংগদু তৃণমুল নেতাকর্মীদের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

 উচিংছা রাখাইন কায়েস,রাঙ্গামাটি :

লংগদু আওয়ামীলীগের কোন্দল ও ভাঙ্গন ঠেকাতে রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়েছে লংগদু উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা।  আজ রাঙ্গামাটি প্রেস ক্লাবে লংগদু উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃণমুল নেতাকর্মীদের আয়োজিত  সংবাদ সম্মেলনে এই আহবান জানান নেতারা।    সংবাদ সম্মেলনে লংগদু উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম কামাল, উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা মোহাম্মদ নাসিমুল গনি, নজরুল ইসলাম, জমশেদ আলী, অমর আলী, রেজাউল করিমসহ তৃণমূল আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আওয়ামীলীগের অভ্যন্তরে বিভাজন সৃষ্টি করে ঐক্য ভাঙ্গন ধরিয়ে দলকে দূর্বল করার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। এই ষড়যন্ত্রকে মোকাবেলা করতে জেলা আওয়ামীলীগকে দ্রুত ব্যবস্হা নেয়ার আহবান জানানো হয়।  তা না হলে আগামী নির্বাচনে লংগদু আওয়ামীলীগের কাঙ্খিত বিজয় অর্জন করা কঠিন হয়ে পড়বে বলে আশংকা প্রকাশ করেন তৃণমূল নেত্রী বৃন্দরা। 


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জে থানার সামনেই সাংবাদিককে মারধর করেছে সন্ত্রাসীরা

প্রকাশিত:শনিবার ১২ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় থানার সামনেই এশিয়ান টেলিভিশনের ফতুল্লা প্রতিনিধি বদিউজ্জামানকে মারধর করেছে বক্তাবলীর চিহ্নিত সন্ত্রাসী জাকির বাহিনী। বিকালে ফতুল্লা মডেল থানার মূল ফটকের সামনেই এ ঘটনা ঘটে। এতে এশিয়ান টেলিভিশনের ফতুল্লা প্রতিনিধি বদিউজ্জামান খান গুরুতর আহত হয়েছে। 

ওইসময় সাংবাদিককে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে মেরে ফেলাসহ উল্টো আদালতে মামলা করে দেখে নেয়ার হুমকী দেয় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনার পর সাংবাদিক জামান ফতুল্লা মডেল থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেছেন।

ভুক্তভোগীর অভিযোগে জানা গেছে, থানা সংলগ্ন কাদির কম্পিউটার দোকানের সামনে সাংবাদিক জামান তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে পেশাগত কাজে বাধা দেয় সন্ত্রাসী জাকির, জালাল, আলমগীরসহ তার বাহিনী। এক পর্যায়ে কিছু বুঝে উঠার আগেই জাকির সাংবাদিক জামানের শার্টেল কলার চেপে ধরে এবং এলোপাথারি চর, কিল, ঘুষি ও লাথি মেরে আহত করে। মুঠোফোনে তা ভিডিও ধারণ করতে গেলে অন্যান্য বিবাদীগণ অংশ নিয়া সাংবাদিক জামানের পড়নের শার্ট ছিড়ে ফেলে। এছাড়া তার হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে মাটিতে ফেলে ডিসপ্লে নষ্ট করে দেয়। তার গলায় ঝুলানো এশিয়ান টিভির পরিচয়পত্রের ফিতাটিও ছিড়ে ফেলে। এরপর তাকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শণসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় অফিসার ইনচার্জ রিজাউল হক দিপু বলেছেন, আমরা বিষয়টা দেখছি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

উল্লেখ্য, বক্তাবলী এলাকার মৃত জাকির হোসেনের জামাতা জাকির হোসেন। সে বিভিন্ন সময় পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং প্রভাবশালীদের পরিচয়ে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করে আসছে। এছাড়াও স্থানীয় মানুষদের মামলায় জড়িয়ে হয়রানী অভিযোগ রয়েছে।


আরও খবর



ডিআইজি মিজানকে বরখাস্ত

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

দুর্নীতির মামলায় সাময়িক বরখাস্ত হওয়া দোষী সাব্যস্ত হয়ে কারাগারে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিআইজি) মিজানুর রহমানকে সরকারি চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ আদেশ জারি করা হয়।

মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে ৬ জুন দুর্নীতি দমন কমিশনের মামলার তদন্ত শেষে মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনসহ একাধিক অভিযোগে চার্জশিট দাখিল করা হয়। সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ তাকে তিন বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন। সেহেতু, সরকারি চাকরি আইন ২০১৮ এর ৪২(১) ধারা অনুযায়ী মো. মিজানুর রহমানকে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে চাকরি হতে বরখাস্ত করা হলো।

চলতি বছরের ২৩ ফেব্রুয়ারি ঘুস নেওয়ার মামলায় ডিআইজি মিজানুর রহমানকে তিনবছরের কারাদন্ড দেন আদালত। ৪০ লাখ টাকা ঘুস কেলেঙ্কারির অভিযোগে ২০১৯ সালের ১৬ জুলাই দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্লাহ বাদী হয়ে মামলা করেছিলেন।
ডিআইজি মিজান অস্ত্রের মুখে এক নারীকে তুলে নিয়ে বিয়ে করাসহ নানা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ থেকে সাময়িক বরখাস্ত হন। তখন তিনি ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। পরে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে পুলিশ সদরদপ্তরে সংযুক্ত করা হয়। 


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২




মোরেলগঞ্জে প্রতিবন্ধীর খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির যাচাই চুড়ান্ত

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

 বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে খাউলিয়া ইউনিয়নে হালনাগাদ প্রতিবন্ধীর তালিকা যাচাই-বাছাই ও খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির বাদ পড়া নতুন তালিকা চুড়ান্ত করা হয়েছে।

  বুধবার বেলা ১২টায় ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সুবিধাভোগীদের উপস্থিতিতে এ যাচাই-বাছাই করা হয়।  এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিসার মো. নাসির উদ্দিন, সমাজ সেবা অফিসার গৌতম কুমার বিশ্বাস, ইউপি চেয়ারম্যান মো. সাইদুর রহমান, সংবাদিক গনেশ পাল, ইউপি সদস্য মো. আলমঙ্গীর হোসেন, মো. কামরুজ্জামান, মশিউর রহমান, মো. মহিদুল ইসলাম, সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য জাহানারা বেগম, নাছিমা বেগম, শাহিনুর বেগমসহ স্থানীয় বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ। ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরে খাউলিয়া ইউনিয়নে যাচাই শেষে প্রতিবন্ধী ভাতার আওতায় ৭৫ জন প্রতিবন্ধী নতুন তালিকায় অন্তভূক্ত হয়েছে।

ওই ইউনিয়নে ৭৪৬ জন প্রতিবন্ধী সুবিধাভোগী মাসে ৭৫০ টাকা করে ভাতা পাবে। এ ছাড়াও খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় মৃত্যুজনিত ও বিভিন্ন কারনে তালিকা থেকে বাদ পড়া ২৩০ জনকে যাচাই-বাছাই করে সুবিধার আওতায় এসেছে। এ ইউনিয়নে মোট ২৬৯৯ জন সুবিধাভোগী পাচ্ছেন ১৫ টাকা কেজি দরে ৩০ কেজি চাল বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। 


আরও খবর