Logo
শিরোনাম

আমি কে’ তা খুঁজে বের করতে হবে !!

প্রকাশিত:শনিবার ১৬ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মাজহারুল ইসলাম মাসুম, সিনিয়র সাংবাদিক ও কলাম লেখক ঃ

এ যুগে ‘আত্মবিশ্বাস’ বিষয়ক বই পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি লেখা ও বিক্রি হচ্ছে । যে সমাজ হিংসা, রেষারেষি, প্রতিযোগিতা, শ্রেষ্ঠত্ব, ‘টাকাই সব’ ইত্যাদি ধার‌ণা ন্যাক্কারজনকভাবে (আমাদের স্কুল/কলেজের শিক্ষা তার প্রমাণ) প্রচার করে, সেখানে ‘আত্ম বিশ্বাস’ সবচেয়ে বিক্রয় যোগ্য ধারণা তো হবেই ! মজার বিয়য় পাশ্চাত্যে অর্থনীতির বৈচিত্রী-করণের আগ পর্যন্ত আত্মবিশ্বাসের ধারণাটি ছিল না । ধনতন্ত্র শক্তিশালী হবার পর থেকে সবাইকে ডিঙিয়ে ওপরে উঠার জন্য আত্মবিশ্বাসের ধারণাটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে । মাত্র ১৮৯০ সালে উইলিয়াম জেমস্ নামে একজন মনোবিজ্ঞানী ও দার্শনিক Principles of Psychology বইতে আত্মবিশ্বাস নিয়ে লেখালেখি করেন । প্রাচ্যে, বিশেষত ভারতবর্ষে কোন্ কৃষক কখন, কি চাষ করবেন, কতটুকু জমিতে ধান কতটুকু জমিতে পাট চাষ করবেন, তা নিয়ে তিনি মোটেও দ্বিধান্বিত নন । এই জনপদে কোন কৃষককে “আপনি পাট চাষের বিষয়ে কতখানি আত্মবিশ্বাসী” এমন প্রশ্ন করলে তিনি বুঝবেনই না তাঁকে কি জিজ্ঞেস করা হচ্ছে ! দুঃখজনকভাবে আজ আমাদেরকে আত্মবিশ্বাসী হওয়ার জন্য বিস্তর পড়াশনো করতে হচ্ছে, দৌড়াতে হচ্ছে মনোবিজ্ঞানীর কাছে !  । আত্মবিশ্বাস নিয়ে সমাজে দুটি ধারণা প্রচলিত---একটি জাগতিক (জীবনে অন্যদের থেকে বড় হতে হবে) এবং অন্যটি আত্মিক (’আমি কে’ তা খুঁজে বের করতে হবে )। আমার কাছে ‘আত্মবিশ্বাস’-এর বিষয়টি শেয়ার বাজারের মতই মনে হয়েছে, যেখানে বিভিন্ন লেখক নানান ধরণের ‘আত্মবিশ্বাস’ নামক পণ্যটি বিক্রয় করতে বসে গেছেন। প্রাচীন যোগবিজ্ঞানে, বিশেষত বেদে আত্মবিশ্বাসের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে বলা হয়েছে---যে কোন মানুষের পক্ষে মুক্তি অর্জন সম্ভব । মুক্তি অর্জনের প্রক্রিয়া (Self-realization process)-টিকে মানুষ যেন অসম্ভব মনে না করে সে কারণেই নিজের ও প্রকৃতির ওপর বিশ্বাস স্থাপনের কথা বলা হয়েছে । এই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে আপনার/ আমার জীবনে জাগতিক বিষয়াদি যতটুকু না হলেই নয়, তা অর্জন অসম্ভব নয় । প্রাণী জগতের কোন প্রাণীই আত্ম-অবিশ্বাসে ভোগে না । মানুষ ভোগে, কারণ প্রয়োজনের তুলনায় তার অনেক বেশি দরকার !!    

”যিনি আত্ম অনুসন্ধান ও গভীর উলদ্ধি দিয়ে নিজের মনের সক্ষমতা অর্জন করেছেন, তাঁর আত্ম বিশ্বাসের অভাব হবে না । মনের ওপর তাঁর নিয়ন্ত্রণ রয়েছে এবং তিনি সেটির পূর্ণ সম্ভাবনা ব্যবহার করতে পারবেন (সাম বেদ) । “


আরও খবর



কলড্রপের ক্ষতিপূরণ বাড়ছে ১ অক্টোবর থেকে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : মোবাইল ফোনে প্রতি কলড্রপের জন্য তিনটি পালস ৩০ সেকেন্ড ফেরত পাবেন গ্রাহক। আগামী ১ অক্টোবর থেকে তা কার্যকর হবে। বিটিআরসি থেকে মোবাইল অপারেটরদের এমন নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কলড্রপ নিয়ে সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর বিটিআরসি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন সংস্থার চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, জবাবদিহি এবং গ্রাহক সন্তুষ্টি নিশ্চিত করতে সব মোবাইল অপারেটর অভিন্ন ইউএসএসডি কোর্ডের (*১২১*৭৬৫#) মাধ্যমে একজন গ্রাহক-পূর্ববর্তী দিন, সপ্তাহ, মাসিক অননেট কলড্রপের জানতে পারবেন।

এত দিন কোনো অপারেটরই প্রথম কলড্রপের জন্য কোনো ক্ষতিপূরণ দিত না। উল্লেখ করার বিষয় হলো, গ্রাহকের যত কলড্রপ হতো তার ৬৫ শতাংশই হয় প্রথম কলড্রপ। দেখা যাচ্ছে, এতে কলড্রপের বেশির ভাগ অংশেরই ক্ষতিপূরণ পেত না গ্রাহক।

কলড্রপের বর্তমান পরিস্থিতি : চলতি বছরের মে মাস জুড়ে কলড্রপের পরিসংখ্যান বলছে, ওই ৩১ দিনে গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংকের অননেট কলড্রপ হয়েছে ৭ কোটি ৯৯ লাখ ৬৬ হাজার ৩৩২টি। যেখানে প্রথম কলড্রপ ৫ কোটি ১৪ লাখ ৪৬ হাজার ৩৪৭টি, দ্বিতীয় কলড্রপ ১ কোটি ৪৭ লাখ ৩০ হাজার ১৭৮টি, তৃতীয় ৫৬ লাখ ৬৮ হাজার ৫৬৬টি, চতুর্থ ২৭ লাখ ৪২ হাজার ৭৫৬টি, ৫ম ১৫ লাখ ৪১ হাজার ১৬০টি, ৬ষ্ঠ ৯ লাখ ৫০ হাজার ৩১০টি এবং ৭ম ১০ লাখ ২৬ হাজার। এর বাইরে ৮ম হতে আরো কলড্রপের পরিমাণ ১৪ লাখ ৬০ হাজার ৮৯২টি।

সংবাদ সম্মেলনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং ডাক ও টেলিযোযোগ সচিব মো. খলিলুর রহমান। কলড্রপ নিয়ে বিশদ উপস্থাপনা দেন বিটিআরসির সিস্টেম অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ। সম্মেলনে বিটিআরসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ও মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর

এক এনআইডিতে ১৫টির বেশি সিম নয়

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২




বাউফলে বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর শোভা যাত্রায় পুলিশি বাধা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর বাউফলে পুলিশি বাধায় আনন্দ শোভাযাত্রা করতে পারেনি বিএনপি। বিএনপির ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বাউফল পৌরসভা শাখা বিএনপির উদ্যোগে আজ বৃহস্পতিবার ১১ টার দিকে উপজেলা সদরের হাসপাতাল সড়কের অস্থায়ী দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন বাউফল পৌরসভা শাখা বিএনপির সভাপতি মো. হুমায়ন কবির। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি দলীয় সাবেক সাংসদ মো. শহিদুল আলম তালুকদার।

আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল শেষে দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে আনন্দ শোভাযাত্রা বের হলে পুলিশ বাধা দেয়। তখন সড়কের ওপর বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা মিছিল দিতে থাকে।এ সময় নেতা-কর্মীরা পুলিশের সঙ্গে বাগ্‌বিতণ্ডায় জড়ান এবং একপর্যায়ে নেতা-কর্মীরা দলীয় কার্যালয়ের মধ্যে ফিরে যেতে বাধ্য হন।

এদিকে বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে উপজেলা  বিএনপির উদ্যোগে বিকেলে পৌর শহরের মডেল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় সড়কের শৌলা লস ভবনের সামনে পৃথক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপজেলা বিএনরি আহ্বায়ক মো. আবদুল জব্বার মৃধার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহদপ্তর সম্পাদক মুহাম্মদ মুনির হোসেন। সঞ্চালনায় ছিলেন উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব আপেল মাহামুদ ওরফে ফিরোজ।


আরও খবর



এলপিজির নতুন দাম নির্ধারণ

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

দেশে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাসের (এলপিজি) দাম চলতি মাসে বাড়বে নাকি কমবে তা জানা যাবে আজ (রবিবার)। সরকারি সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) রান্না ও গাড়ির জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত এ এলপিজির মূল্য নির্ধারণ করবে।

বিইআরসির পক্ষ থেকে জানানো হয়, সৌদি আরামকোর ঘোষিত সেপ্টেম্বরের জন্য সৌদি সিপি অনুযায়ী ভোক্তাপর্যায়ে এলপিজির মূল্য সমন্বয় সম্পর্কে বাংলাদেশ অ্যানার্জি অ্যান্ড রেগুলেটরি কমিশনের আদেশ রবিবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৪টায় ঘোষণা করা হবে।

জানা গেছে, এলপিজি তৈরির মূল উপাদান প্রোপেন ও বিউটেন বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করা হয়। প্রতি মাসে এলপিজির এ দুই উপাদানের মূল্য প্রকাশ করে সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠান আরামকো। এটি সৌদি কার্গো মূল্য (সিপি) নামে পরিচিত। এই সৌদি সিপিকে ভিত্তিমূল্য ধরে প্রতি মাসে দেশে এলপিজির দাম সমন্বয় করে বিইআরসি।

খাত সংশ্লিষ্ট এক ব্যবসায়ী জানান, টাকার বিপরীতে ডলারের দাম বেড়েছে। এখন এলসি খুলতে বেশি অর্থ লাগছে। এছাড়া জ্বালানির দাম বাড়ায় পরিবহন খরচও বেশি লাগছে। সবমিলিয়ে এখন এলপিজির মূল্য বেশি পড়ছে। আগস্টের দামে বিক্রি করে লোকসান হচ্ছে। ইতোমধ্যে প্রতি এলপিজি সিলিন্ডারে ৫০ থেকে ৭০ টাকা বেশি নেওয়া হচ্ছে। তাই সেপ্টেম্বরে দাম বাড়ানো হবে বলে তিনি জানান।


আরও খবর

এক এনআইডিতে ১৫টির বেশি সিম নয়

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২




পরাজয়ের কারণ জানালেন বাবর আজম

প্রকাশিত:সোমবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

ইয়াশফি রহমান : টুর্নামেন্টের শুরু থেকে পাকিস্তানকে ফেবারিট মানা হচ্ছিল।তবে সুপার ফোরে টানা ৪ ম্যাচ জয়ে বাবর আজমদের উপর চোখ রাঙাচ্ছিল দাসুন শানাকারা। ফাইনালের তারই প্রতিফলন ঘটল। যদিও শ্রীলংকার শুরুটা ছিল একবারে নড়বড়ে। পাকিস্তানের দুই পেসার নাসিম শাহ ও হারিস রউফের তোপে ৫৮ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে শ্রীলংকা। ১০০ রানও পার হবে কি না তা নিয়ে সংশয় দেখা দেয়।

আর সেখান থেকে আর মাত্র ২ উইকেট খুইয়ে ১৭০ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর করে শ্রীলংকা, যা নির্ধারিত ২০ ওভারে পার করতে পারেনি পাকিস্তান। ২৩ রানে হেরে যায় বাবর আজমের দল।

বাজে ফিল্ডিং ও ক্যাচ মিসের মাশুল গুনেছে পাকিস্তান। ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সে কথাই জানালেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। তার মতে, বাজে ফিল্ডিংয়ের কারণেই ফাইনালে হেরেছে তার দল।

দাসুন শানাকাদের অভিনন্দন জানিয়ে বাবর আজম বলেন, ‘শ্রীলংকা দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছে। তবে আমাদের ফিল্ডিং আজ কোনোভাবেই ভালো ছিল না। খুবই বাজে হয়েছে। তাছাড়া আমাদের মিডল অর্ডার যেভাবে চেয়েছিলাম, সেভাবে ক্লিক করেনি। আমরা শুরুতে তাদের চেপে ধরেছিলাম। কিন্তু শেষটা হয়নি। আমরা যেভাবে চেয়েছি সেভাবে শেষ করতে পারিনি। একটা জুটিই সেখান থেকে বের করে নিয়েছে তাদেরকে। 



আরও খবর

বিশ্বকাপ নিশ্চিত নারী ক্রিকেট দলের

শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

মুকুট নিয়ে আজ ফিরছে বাঘিনীরা

বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২




বাগেরহাটের শরণখোলায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৭টি দোকান পুড়ে ছাই

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাগেরহাটের শরণখোলার রায়েন্দা বাজারে ভয়াভহ এক অগ্নিকান্ডে ৭টি দোকান পুড়ে সমপূর্ণ ভস্মিভুত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডে দোকান গুলির প্রায় কোটি টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে বলে জানাগেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ফজরের নামাজ শেষে রাস্তায় বের হয়ে ওই দোকানগুলিতে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলতে দেখেন। সাথে সাথে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনে খবর দিলে তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন। ততক্ষনে দোকানগুলি পুড়ে সম্পূর্ণ ভস্মিভ‚ত হয়ে যায়। তবে আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে কেউ কিছু বলতে পারেনি।

আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিক মোঃ ওহিদুজ্জামান লিটনের ফার্নিসারের দোকানের প্রায় ১০ লাখ ও মোঃ মোস্তফা হাওলাদারের ১২ লাখ, মোঃ জাহাঙ্গীর শাহ’র হাসান গার্মেন্টস এর ৫০ লাখ, মোঃ ওলিউল্লাহ হাওলাদারের পাখি হাউসের প্রায় ৮ লাখ এবং আঃ সালাম হাওলাদারের তিনটি গোডাউনের ১৮ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে বলে তারা জানান।

শরণখোলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ রায়হান উদ্দিন শান্ত বলেন, শরনখোলায় প্রায়ই বিভিন্ন বাজারে আগুন লাগে যা এই ২য় গ্রেডের ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন থেকে নিয়ন্ত্রন করতে বেগ পেতে হয়। তাই এই ষ্টেশনকে ৩য় গ্রেডে উন্নিত করার দাবী জানান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নুর ই আলম সিদ্দিকী বলেন, ক্ষদিগ্রস্তদের আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে বিধি অনুযায়ী আর্থিক সহায়তা করা হবে।


আরও খবর

ফকিরহাটের জন্য সম্মান বয়ে আনলেন

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২