Logo
শিরোনাম

আমিরাতে আল আইনে বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার ঐক্য পরিষদের ইফতার বিতরণ

প্রকাশিত:Saturday ৩০ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

মো নূরুল্লাহ  খান, আরব আমিরাত থেকে 

সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার ঐক্য পরিষদের ধারাবাহিক ইফতার বিতরণ ও দোয়া মাহফিলের অংশ হিসেবে গতকাল আল আইন সানাইয়াতে ইফতার বিতরণ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের  উপদেষ্টা কালাম মাহমুদ ।

 প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব কালাম মাহমুদ 

প্রবাসীদের বাংলাদেশ এয়ারপোর্টে নানান রকম হয়রানি, এবং ৭০% বিমানের সিট খালি যাওয়ার পরেও টিকিট মূল্য না কমানোর প্রতিবাদে বক্তব্য রাখেন।

জিয়া  উদ্দিন বাবলুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে  উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের 

কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম মজুমদার।

এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন,  বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার ঐক্য পরিষদের সহ সভাপতি সহিদ সারওয়ার, সহ সভাপতি নাছির উদ্দীন,সহ সাধারণ  সম্পাদক শাহ আলাম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক নুর নবীসহ ইউএই বিভিন্ন অঞ্চলে নেতৃবৃন্দ। 

পরে দেশ, জাতি ও প্রবাসীদের কল্যাণে দোয়া করা হয়। 


আরও খবর



তৃণমূল গোছাতে ব্যস্ত আ.লীগ

প্রকাশিত:Wednesday ২৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

জহিরুল কবির আমজাদ :জাতীয় নির্বাচনের আগে দলকে সুসংগঠিত করার লক্ষ্যে তৃণমূল গুছিয়ে এনেছে আওয়ামী লীগ। দলের মেয়াদোত্তীর্ণ বিভিন্ন জেলা-উপজেলার সম্মেলন প্রায় শেষপর্যায়ে। এসব সম্মেলন স্থলে কেন্দ্র থেকে ছুটে যাচ্ছেন দলের কেন্দ্রীয় উচ্চপর্যায়ের নেতারা। দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দিয়ে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করার প্রচেষ্টা নেতাদের। নির্বাচনী প্রস্তুতি ও তৃণমূলে দলীয় নেতাকর্মীদের ঢেলে সাজাতে মূলত এসব পরিকল্পনা ক্ষমতাসীনদের।

দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা জানান, ২৪ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের আগে দলের অর্ধেকের বেশি জেলা-উপজেলাগুলোর সম্মেলন হয়েছে। দীর্ঘদিন সম্মেলন না হওয়া শাখাগুলোর সম্মেলন আয়োজন একটি বড় চ্যালেঞ্জ ছিল দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের। দলের গঠনতন্ত্র অনুসারে তিন বছর পরপর সম্মেলন হওয়ার কথা থাকলেও অনেক শাখার সম্মেলন হয়েছে দুই যুগ পর। এ মুহূর্তে দীর্ঘদিন ঝুলে থাকা জেলা ও উপজেলাগুলোর সম্মেলন করতেই ব্যস্ত রয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদকরা।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশে আওয়ামী লীগের ৭৮ জেলা ও মহানগর কমিটি রয়েছে। এর মধ্যে ৫৯টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৯টির সম্মেলন বাকি রয়েছে। খুলনা, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ এই তিন বিভাগের কোনো সাংগঠনিক জেলার সম্মেলন বাকি নেই। চট্টগ্রাম বিভাগে সাতটি শাখা, ঢাকা বিভাগে ছয়টি, রংপুর বিভাগে চারটি, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের একটি করে জেলার সম্মেলন বাকি রয়েছে।

এদিকে সারা দেশে আওয়ামী লীগের ৬৮৪টি সাংগঠনিক উপজেলা রয়েছে। এসব সাংগঠনিক উপজেলার মধ্যে প্রায় ৫৫০টি কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৩০টির মতো উপজেলা ও উপজেলার মর্যাদাপ্রাপ্ত কমিটির সম্মেলন বাকি রয়েছে। এসব উপজেলার মধ্যে কিছু কমিটি যুগ পার করলেও সম্মেলন আর হয়নি। ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোনা ও ময়মনসিংহ জেলার একাধিক উপজেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ১৫ থেকে ২০ বছর পর। ঝুলে থাকা বাকি উপজেলাগুলোর কমিটি করতে কেন্দ্রীয় নেতারা জেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে আলাপ করে তারিখ ঘোষণা করবেন।

সংশ্লিষ্টদের দেওয়া তথ্য মতে, খুলনা বিভাগে ১১টি জেলা ও মহানগর কমিটি রয়েছে। সবগুলোরই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে সাতটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। বাকি চারটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি চলতি জানুয়ারি মাসের মধ্যেই কেন্দ্রে জমা দেওয়ার কথা রয়েছে। বিভাগটিতে ৮১টি সাংগঠনিক উপজেলা রয়েছে। এর মধ্যে ১১টির সম্মেলন বাকি আছে। ৭০টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলাগুলোর মধ্যে ১২টির পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন বাকি রয়েছে। কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের চিঠি দেওয়া হবে।

খুলনা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক জানান, এ সপ্তাহে তার খুলনায় যাওয়ার কথা। সেখানে গিয়ে জেলার নেতাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে ১২ উপজেলার সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হবে।

চট্টগ্রাম বিভাগের ১৫ সাংগঠনিক জেলার মধ্যে কক্সবাজার, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চট্টগ্রাম দক্ষিণ, রাঙামাটি, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ও কুমিল্লা মহানগরের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলন বাকি থাকা সাত জেলা হলো চট্টগ্রাম উত্তর, চট্টগ্রাম মহানগর, খাগড়াছড়ি, ফেনী, চাঁদপুর, বান্দরবান ও কুমিল্লা উত্তর। এর মধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরের সর্বশেষ সম্মেলন হয় ১৪ বছর আগে। আর চাঁদপুর জেলার সম্মেলন হয় ১১ বছর আগে।

ঢাকা বিভাগে আওয়ামী লীগের ১৭টি সাংগঠনিক জেলা রয়েছে। এর মধ্যে ১১টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলন বাকি থাকা ছয়টি সাংগঠনিক জেলা হলো কিশোরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর, মুন্সীগঞ্জ, শরীয়তপুর, ঢাকা মহানগর উত্তর ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ। সম্মেলন হওয়া ১১ জেলার মধ্যে গত বৃহস্পতিবার অনুমোদন দেওয়া হয় গোপালগঞ্জ ও নরসিংদী জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি। এ নিয়ে ঢাকা বিভাগে মোট চার জেলায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। ঢাকা বিভাগে সাংগঠনিক উপজেলা ১৭১টি; এর মধ্যে ১৩৫টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে, ৩৬টির সম্মেলন বাকি আছে। ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম বলেন, মেয়াদোত্তীর্ণ ছয় সাংগঠনিক জেলার সম্মেলন শিগগিরই অনুষ্ঠিত হবে। আর যে সাতটি জেলায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হয়নি, সেগুলো চলতি মাসের মধ্যে অনুমোদন হবে।

পূর্ণাঙ্গ কমিটির বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ বলেন, নির্বাচনের আগে আমাদের দলীয় নেতাকর্মীদের প্রস্তুতির অভাব নেই। আমরাও সেই লক্ষ্যে কাজ করছি। আমাদের জেলা কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার কাজ প্রায় শেষপর্যায়ে। চলতি মাসে পূর্ণাঙ্গ কমিটির ঘোষণা আসতে পারে।

রাজশাহী বিভাগে আওয়ামী লীগের ৯টি সাংগঠনিক জেলা ও ৮৩টি উপজেলা কমিটি রয়েছে। ৯ জেলা কমিটিরই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এগুলোর পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রে জমা দেওয়া হয়েছে। ৮৩টি উপজেলা কমিটির তিন থেকে চারটির সম্মেলন বাকি রয়েছে। ময়মনসিংহ বিভাগের পাঁচ সাংগঠনিক জেলার সবগুলোরই সম্মেলন হয়েছে। বিভাগের ৪০ সাংগঠনিক উপজেলার মধ্যে ৩২টি উপজেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ময়মনসিংহ বিভাগে এখন আটটি উপজেলা কমিটির সম্মেলন বাকি রয়েছে। বরিশাল বিভাগের সাতটি জেলা ও মহানগর কমিটি রয়েছে। এর মধ্যে ছয়টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুধু বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন বাকি রয়েছে। বিভাগটিতে ৫২টি সাংগঠনিক উপজেলা রয়েছে। সাংগঠনিক উপজেলাগুলোর মধ্যে ৪৮টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলন বাকি থাকা তিনটি উপজেলা হলো বরিশাল সদর, মঠবাড়িয়া ও পাথরঘাটা।

রংপুর বিভাগের ৯টি সাংগঠনিক জেলা রয়েছে। সম্প্রতি রংপুর জেলা ও মহানগর কমিটি ভেঙে দিয়ে আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ বিভাগে চার জেলার সম্মেলন বাকি আছে। বিভাগটিতে ৭৮টি সাংগঠনিক উপজেলা কমিটি রয়েছে। এগুলোর অর্ধেকের বেশি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাকিগুলোর সম্মেলন করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

সিলেট বিভাগে পাঁচ জেলা ও মহানগর কমিটি এবং ৪৯টি সাংগঠনিক উপজেলা কমিটি রয়েছে। বিভাগটির জেলাগুলোর মধ্যে শুধু সুনামগঞ্জের সম্মেলন বাকি রয়েছে। সিলেট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বলেন, সিলেটে বন্যার কারণে সুনামগঞ্জের সম্মেলন পিছিয়ে গেছে। এ ছাড়া কয়েকটি উপজেলার সম্মেলন বাকি রয়েছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এসব শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



বকশীগঞ্জ সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে পিঠা উৎসব

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

জামালপুর প্রতিনিধি :

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উলফাতুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শীতকালিন পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিদ্যালয় মাঠে দিনব্যাপী এ পিঠা উৎসবের আয়োজন করে স্কুল কতৃপক্ষ। উৎসবে বিভিন্ন স্টলে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রকমারি পিঠার পসরা সাজিয়ে বসে। বাহারী রকমের পিঠার মধ্যে ছিলো হৃদয় হরণ পিঠা,ডিম সুন্দরী, বিবি খানা, চালতাপাতা, জামাই পিঠা,গোলাপ পিঠা, মালপোয়া,তালের পিঠা,দুধ পুলি,ভাপা, চিতই,ডিম পিঠা, নকশি পিঠা, মুগপাকন, পাটিসাপটা ও লবঙ্গ লতিকা পিঠা। শিক্ষক শিক্ষার্থী ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ পিঠা উৎসবে অংশ নেয়। দিনভর পিঠা মেলায় দর্শনাথীদের ভীড় ছিলো চোখে পড়ার মত। 

পিঠা উৎসব পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুন মুন জাহান লিজা, বকশীগঞ্জ সরকারি কিয়ামত উল্লাহ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নুরুল ইসলাম আব্দুল্লাহ,সহকারী কমিশনার (ভূমি) আতাউর রাব্বী, পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর, প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান, সহকারী শিক্ষক আব্দুল্লাহ মাহবুব তানভী ও আজিম উদ্দিন খন্দকার প্রমূখ। 

দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী রোদেলা জান্নাত মিথিলা জানায়,জমকালো পিঠা উৎসব হয়েছে। স্যারদের সাথে আমরা বেশ মজা করেছি। দর্শনার্থীও ছিলো অনেক। 

প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান বলেন,পিঠা উৎসবে দর্শনার্থীর উপস্থিতি ছিলো অনেক বেশি। দিনব্যাপী শিক্ষার্থীরা বেশ করেছে। সাথে শিক্ষক কর্মচারীরাও পিঠা উৎসবে আনন্দ করেছে।


আরও খবর



২৮৬ শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দিয়েছে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌরসভা

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

চাঁদপুর প্রতিনিধি :

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌরসভার আয়োজনে ২০২২ইং সনের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ (এ প্লাস) প্রাপ্ত ২৮৬ জন কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। সোমবার দুপুরে পৌরসভার মাঠে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের সাবর্বিক তত্বাবধান করেন পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন। এতে পৌর এলাকার শিক্ষার্থীদেরকে এ সংর্ধনায় ক্রেষ্ট ও  সনদ প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাশেদুল ইসলাম, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মোস্তাফিজুর রহমান, মালেক গাজী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মো. বাবর গাজী।

শিক্ষক জাহিদ হাসানের সঞ্চালনে এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন, হাজীগঞ্জ সরকারি মডেল পাইলট হাই স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. আবু ছাইদ, বলাখাল জেএন উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কারিগরি কলেজের অধ্যক্ষ খোদেজা বেগম, হাজীগঞ্জ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. দেলোয়ার হোসেন, পৌরসভার শহর সমন্বয় কমিটির সদস্য ডাঃ পেয়ারা বিল্লাল প্রমুখ।

 বক্তব্য শেষে প্রধান অতিথির পক্ষে কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে সংবর্ধনা ক্রেস্ট ও সনদপত্র তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। 

এসময় পৌর প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম আযহার আলম বেপারীসহ পৌরসভার সকল কাউন্সিলর, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও সহকারী শিক্ষক, আগত অতিথিবৃন্দ, সাংবাদিক, কৃতি শিক্ষার্থী, অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, ২০১৯ সাল থেকে হাজীগঞ্জ পৌরসভার আয়োজনে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান করা হচ্ছে । 


আরও খবর



ঢাকার ধামরাইয়ে শীতার্তদের মাঝে যুবলীগ নেতার কম্বল বিতরন

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

মাহবুবুল আলম রিপন (স্টাফ রিপোর্টার) :

ঢাকার ধামরাইয়ে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক ঢাকা জেলা আওয়ামী যুবলীগের সদস্য আব্দুল লতিফ এর নিজস্ব অর্থায়নে উপজেলার আমতা ইউনিয়নে( ৬ শতাধিক) নিন্মআয়ের পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরন করা হয়েছে।

রবিবার (২২জানুয়ারি) আমতা ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন হরলাল উচ্চ বিদ্যালয় খেলার মাঠ প্রাঙ্গনে আমতা ইউনিয়ন পরিষদের নিন্মআয়ের পরিবারের মাঝে এই কম্বল বিতরণ করা হয়। এসময় আমতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আরিফ হোসেন এর সভাপতিত্বে

প্রধান অতিথি হিসাবে এই শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরন করেন ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঢাকা (২০) আসনের সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এমএ মালেক।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ধামরাই উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ খায়রুল ইসলাম, ভাড়ারিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মোঃ মানসুর রহমান, নান্নার ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আব্দুল হাকিম, আমতা ইউনিয়ন পরিষদের সকল মেম্বারগন, ছাত্রলীগের তুষার আহমেদ শান্ত, শাহিন হোসেন সহ আরও অনেকে।


আরও খবর



কু‌মিল্লায় গু‌লিভ‌র্তি পিস্তলসহ ২ সন্ত্রাসী‌ গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো :

 কু‌মিল্লায় গু‌লিভ‌র্তি বি‌দেশী পিস্তলসহ ২ সন্ত্রাসী‌কে গ্রেপ্তার করেছে ‌ডি‌বিপুলিশ।

সোমবার (০৯ জানুয়া‌রি) দুপু‌রে  জেলা গো‌য়েন্দা (‌ডি‌বিপু‌লি‌শের) ওসি রা‌জেশ বড়ুয়া বি‌পিএম এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা ডি‌বি পুলিশ সোমবার সকা‌ল সোয়া ১০টার দিকে সদ‌রের সাতরা চম্পকনগর প‌শ্চিমপাড়া এলাকায় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী শামী‌মের বা‌ড়ি‌তে অভিযান চালিয়ে তারঁ ঘ‌রের সো‌কে‌সের বক্স থে‌কে প‌লি‌থি‌নে সোগা‌নো এক‌টি সচল 7.65 বি‌দেশী পিস্তল,২‌টি ম‌্যাগ‌জিন,এক‌টি ম‌্যাগ‌জি‌নে ৮রাউন্ড গু‌লি ভ‌র্তিসহ জব্দ ক‌রে।এর আ‌গে শাসনগাছা  থে‌কে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী আলী হাসান রিয়াদ‌কে আটক ক‌রে।‌রিয়াদ‌কে জিজ্ঞাসাবা‌দে শাসনগাছা ক‌পি হাউজ থে‌কে শামীম‌কে আটক ক‌রে ডি‌বিপু‌লিশ।

আটককৃতরা হলো সদর উপ‌জেলার শিমপুরের ম‌ফিজুল ইসলা‌মের ছে‌লে আলী হাসান রিয়াদ (২৯) তারঁ সহযোগী সাতরা চম্পকনগর পশ্চিম পাড়ার আলী আহম্মদের‌ ছে‌লে মোঃ শামীম (২৮)।                               ও‌সি ডি‌বি রা‌জেশ বড়ুয়া জানান এ ব‌্যাপা‌রে কু‌মিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় গ্রেপ্তারকৃত দুই অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে এক‌টি অস্ত্র মামলা দায়ের করা হ‌য়ে‌ছে । মামলা নং-৩৭, ডি‌বি পু‌লিশের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার ও সনাক্ত করণে জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় ডি‌বি পু‌লি‌শের অভিযান অব্যাহত র‌য়ে‌ছে ব‌লে জানান


আরও খবর