Logo
শিরোনাম

বাঙালির হৃদয়নন্দিত কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদ

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল :  ক্লান্তিহীন লেখালেখির মধ্যে কেটেছে জীবন। একাধারে ঔপন্যাসিক, ছোটগল্পকার, নাট্যকার, গীতিকার, চিত্রনাট্যকার ও চলচ্চিত্র নির্মাতা। সাহিত্য আর টিভি নাটকের মতো চলচ্চিত্রেও মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন কথার জাদুকর হুমায়ূন আহমেদ। তার বইয়ের ভাষায় কথার জাদুতে মোহিত হননি এমন বাঙালি পাঠক পাওয়া যাবে না। ক্ষণজন্মা এ কথাশিল্পীর জীবন ২০১২ সালে কেড়ে নেয় ক্যান্সার।

তার অসামান্য সাহিত্যকীর্তি আজ বাঙালি ও বাংলাদেশের সম্পদ। তাই হুমায়ূন-মুগ্ধ পাঠকের হৃদয়ে তিনি চিরায়ত হয়ে আছেন তার আশ্চর্যসুন্দর রচনাবলীর মাধ্যমে।
বাঙালির হৃদয়নন্দিত কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদের ৭৪তম জন্মবার্ষিকী আজ। জন্মদিনের আনুষ্ঠানিকতা তেমন পছন্দ ছিল না হুমায়ূন আহমেদের। তবু রাত ঠিক ১২টা ১ মিনিটে প্রিয়জনদের নিয়ে কাটতেন জন্মদিনের কেক। সকাল হলে ভক্তরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাতেন প্রিয় লেখককে। এছাড়া দিনব্যাপী নানা আয়োজন তো থাকতই।
এবারো নানা আয়োজনে উদ্যাপন হবে দিনটি। হুমায়ূন আহমেদকে হারানোর শোক আজও লালন করছে লাখো পাঠকের হৃদয়। তবু আনন্দ আয়োজনে ভক্ত-পাঠকরা আজ পালন করবেন তার জন্মদিন। তার জন্মদিন উপলক্ষে চ্যানেল আইয়ে আজ থাকবে দিনব্যাপী হুমায়ূন মেলা।
নুহাশপল্লীতে নানা আয়োজন ॥

শনিবার রাতেই হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন, ছেলে নিষাদ ও নিনিতকে নিয়ে নুহাশপল্লীতে অবস্থান করবেন। আজ সকাল ১১টায় তারা হুমায়ূন আহমেদের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। কবরের পাশে দোয়া ও ফাতেহা পাঠ শেষে নুহাশপল্লীর হোয়াইট হাউসের সামনে জন্মদিনের কেক কাটা হয়।
পাঠকমুগ্ধ এ লেখকের জন্ম  ১৯৪৮ সালের ১৩ নভেম্বর নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ নানার বাড়িতে। পিতার বাড়ি নেত্রকোনাতেই কেন্দুয়া উপজেলার কুতুবপুর গ্রামে। পিতা ফয়জুর রহমান আহমদ পুলিশ কর্মকর্তা ছিলেন। তার মায়ের লেখালিখির অভ্যাস না-থাকলেও একটি আত্ম জীবনী গ্রন্থ রচনা করেছেন যার নাম জীবন যে রকম।

নাটক ও চলচ্চিত্র পরিচালক হিসাবেও হুমায়ূন আহমেদ সমাদৃত। তার প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা দুই শতাধিক। বাংলা কথাসাহিত্যে তিনি সংলাপপ্রধান নতুন শৈলীর জনক। তার সৃষ্ট হিমু ও মিসির আলি চরিত্রগুলি বাংলাদেশের যুবকশ্রেণিকে গভীরভাবে উদ্বেলিত করেছে। তার নির্মিত চলচ্চিত্রসমূহ পেয়েছে অসামান্য দর্শকপ্রিয়তা। তবে তার টেলিভিশন নাটকগুলো ছিল সর্বাধিক জনপ্রিয়।

সংখ্যায় বেশি না হলেও তার রচিত গানগুলোও সবিশেষ জনপ্রিয়তা লাভ করে। তার অন্যতম উপন্যাস হলো নন্দিত নরকে’, ‘মধ্যাহ্ন, ‘জোছনা ও জননীর গল্প’, ‘মাতাল হাওয়াইত্যাদি। তার নির্মিত কয়েকটি চলচ্চিত্র হলো দুই দুয়ারী, ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’, ‘ঘেঁটুপুত্র কমলাইত্যাদি।
হুমায়ূন আহমেদ তার দীর্ঘ চার দশকের সাহিত্যজীবনে বহু পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। তার মধ্যে একুশে পদক, বাংলা একাডেমি পুরস্কার, হুমায়ূন কাদির স্মৃতি পুরস্কার, লেখক শিবির পুরস্কার, মাইকেল মধুসূদন দত্ত পুরস্কার, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও বাচসাস পুরস্কার উল্লেখযোগ্য। দেশের বাইরেও সম্মানিত হয়েছেন হুমায়ূন আহমেদ। ২০০৫ সালে প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটিয়ে মেহের আফরোজ শাওনকে বিয়ে করেন।
এই জননন্দিতশিল্পী ২০১২ সালে ১৯ জুলাই এক বর্ষণমুখর দিনে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন। তার অসামান্য সাহিত্যকীর্তি আজ বাঙালি ও বাংলাদেশের সম্পদ।

1

 


আরও খবর

মঞ্চ মাতালেন নোরা ফাতেহি

শনিবার ১৯ নভেম্বর ২০২২




আজ সেই ভয়াল ১২ নভেম্বর

প্রকাশিত:শনিবার ১২ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

আতোয়ার রহমান মনির ,লক্ষ্মীপুর :

আজ ভয়াল ১২ নভেম্বর ১৯৭০ সালের এই দিনে দেশের উপকূলীয় অঞ্চল দিয়ে বয়ে যায় ইতিহাসের সবচেয়ে প্রলয়ঙ্কারী প্রাণঘাতি ঘূর্ণিঝড়প্রাণ হারান প্রায় ১০ লাখ মানুষ কিন্তু ৫২ বছরেও উপকূলে টেকসই বেড়িবাঁধ না হওয়ায় আতঙ্কে লক্ষ্মীপুরের মানুষ রাতে লক্ষ্মীপুর ভোলাসহ উপকূলীয় ১৮ জেলায় আঘাত হানে মহা প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড় গোর্কি স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ ওই ঝড়ে প্রায় প্রাণ হারান প্রায় ১০ লাখ মানুষ

২৫ থেকে ৩০ ফুট উচ্চতার জলচ্ছাসে বিলীন হয়ে যায় লক্ষ্মীপুরের রামগতি কমলনগর বেড়িবাধ বিধ্বস্ত হয় ঘরবাড়ি ভেসে যায় গবাদি পশু হাঁস-মুরগী মুহূর্তেই ধ্বংসযজ্ঞে পরিণত হয় লক্ষ্মীপুরের উপকূলীয় জনপদ ক্ষতিগ্রস্ত হয় মাঠের ফসলসহ অসংখ্য গাছপালা সেই দুর্যোগের কথা মনে করে আজও শিউরে ওঠেন উপকূলের মানুষ

ঘূর্ণিঝড়ের গোর্কির ৫২ বছরেও টেকসই বাধ তৈরি হয়নি লক্ষ্মীপুর উপকূলে কারণে সাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি হলেই এখনও উপকূলবাসীকে থাকতে হয় আতঙ্কে তবে উপকুলের ভাঙন এলাকা ঘুরে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন, রামগতি-কমলনগরে টেকসই বেড়িবাধ তৈরিতে নেয়া ৩১শ কোটি টাকা প্রকল্প শিগগিরই দেখবে আলোর মুখ


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২




রাণীনগরে অভিযোগের কপি দেয়ালে দেয়ালে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) 

নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার আমিরপুর গ্রামের ১২জন ব্যক্তিকে এলাকার “কুখ্যাত সন্ত্রাসী,জেএমবি সদস্য”আখ্যা দিয়ে তাদের বিচার দাবি করে রাতের অন্ধকারে বিভিন্ন মোড়ে,দেয়ালে দেয়ালে পোস্টারিং করা হয়েছে। ৫টি দপ্তরে অভিযোগের আদলে বৃহস্পতিবার রাতে এসব কপি পোস্টারিং করা হয়।

দেয়ালে সাটানো অভিযোগে আমিরপুর গ্রামের মৃত আরফান আলীর ছেলে আফজাল সরদার (৬০)কে “সন্ত্রাসী” দলের সরদার উল্লেখ করে বলা হয়,গত ২০০৫-৬ ইং সালে গ্রামের ১২জন লালবাহীনি জেএমবি কায়দায় খুন,খারাপি ও চাঁদাবাজী এবং নারী ধর্ষণ কাজ সক্রিয়ভাবে পরিচালনা করেছিল। ওইসময় তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের নিকট অভিযোগ করলে প্রশাসনের কর্মকর্তা তাদের পক্ষীয় হওয়ায় কোন ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হয়নি। পরবর্তিতে প্রশাসন উক্ত কুখ্যাত জেএমবিদের বিভিন্ন কায়দায় খুন-খারাপি ও চাঁদাবাজী এবং নারী ধর্ষণ বন্ধ করে। বর্তমানে ২০২১সাল থেকে ওইসব সন্ত্রাসীরা আবারও অপকর্ম চালু করেছে। তাদের বিরুদ্ধে কেউ মূখ খোলার সাহস পাচ্ছেনা। যে কোন সময় এলাকায় ভয়াবহ অশান্তি বা খুন খারাপি হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। তাই “কুখ্যাত সন্ত্রাসী ও জেএমবি সদস্যদের” বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানানো হয়।এছাড়া গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ্য ও নির্যাতিত”আখ্যা দিয়ে ১৯জনের নাম ও ফোন নাম্বার দেয়া হয় ওই কপিতে। বৃহস্পতিবার রাতে কে বা কাহারা এলাকাবাসীর বরাদ দিয়ে আমিরপুর,গুয়াতা,চিলাগাড়ী এলাকায় বিভিন্ন মোড়ে,দেয়ালে দেয়ালে দূর্নিতী দমন অফিস,পুলিশ সুপার নওগাঁ,জেলা প্রশাসক নওগাঁ,রাণীনগর থানা এবং সাংবাদিক অফিস রাণীনগর বরাবর পৃথক পৃথক ৫টি দপ্তরে অভিযোগের আদলে এসব কপি লাগানো হয়।

পোস্টারে “ক্ষতিগ্রস্থ্য” অখ্যায়িত আলাউদ্দীন বলেন,জেএমবির সময়কালে আমি নির্যাতনের শিকার হয়েছি। কপিতে যাদেরকে সন্ত্রাসী হিসেবে বলা হয়েছে তাদের মধ্যে অনেকেই জেএমবি ছিল। কিন্তু বর্তমানে গ্রামে সবাই মিলে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করছি। তবে কারা এই পোস্টারিং করেছে বা পোস্টারে নাম দিয়েছে তা বলতে পারছিনা। 

এব্যাপারে পোস্টারে “কুখ্যাত সন্ত্রাসীর সরদার” আখ্যায়িত আফজাল হোসেন বলেন,প্রতিহিংসা বসত আমাদের নামে এসব পোস্টারিং করেছে। জেএমবি বা সন্ত্রাসী কোন সংগঠনের সাথে আমাদের কোন সম্পৃক্ততা নেই।

রাণীনগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সেলিম রেজা বলেন,খবর পেয়ে সকালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন পোস্টারে যাদেরকে ক্ষতিগ্রস্থ্য হিসেবে বলা হয়েছে আমরা তাদের অনেকের সাথে কথা বলেছি। সন্ত্রাসী কোন কর্মকান্ড নেই এবং শান্তিতে বসবাস করছি জানিয়ে তারা বলেছেন কারা পোস্টারিং করেছে বা পোস্টারে তাদের নাম দিয়েছে তা বলতে পারেনি। বর্তমানে রাণীনগর উপজেলায় এ রমক কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের নজির নেই। পোস্টারিং কারা করেছে,কেন করেছে তা ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান এই কর্মকর্তা


আরও খবর



কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

প্রকাশিত:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

নৌযান শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ও কর্মক্ষেত্রে মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ ১০ লাখ টাকা নির্ধারণসহ ১০ দফা দাবিতে শনিবার (২৬ নভেম্বর) দিনগত রাত থেকে সারাদেশে কর্মবিরতি পালন করছেন নৌযান শ্রমিকরা। কর্মবিরতির কারণে আজ রবিবার সকাল থেকে ঢাকার সদরঘাট থেকে কোনো লঞ্চ ছাড়ছে না। বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নৌযান শ্রমিক নেতারা জানিয়েছেন, প্রতি পাঁচ বছর পর নতুন মজুরি কাঠামো ঘোষণার বিধান থাকলে সর্বশেষ মজুরি কাঠামোর মেয়াদ গত বছরের ৩০ জুনে শেষ হয়েছে। কিন্তু নৌযান মালিকদের সংগঠনগুলো বিষয়টি আমলে নিচ্ছে না। এছাড়া এ ১৬ মাসে নৌ মন্ত্রণালয় ও শ্রম অধিদপ্তরসহ সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে বহুবার দেন-দরবার করেও ফল পাওয়া যায়নি।

গত সাত বছরে (৬ বছর ৪ মাস) কয়েক দফা দ্রব্যমূল্য বেড়েছে জানিয়ে শ্রমিক নেতারা বলেন, মজুরি-ভাতা বৃদ্ধি না হওয়ায় নৌযান শ্রমিকরা পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর দিন কাটাচ্ছে। এখন তাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। তাই সাধারণ শ্রমিকরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি দিতে বাধ্য হচ্ছে।

শ্রমিকদের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে নৌযান শ্রমিকদের বেতন সর্বনিম্ন মজুরি ২০ হাজার টাকা নির্ধারণ করতে হবে। ভারতগামী শ্রমিকদের ল্যান্ডিংপাস দিতে হবে। বাল্কহেডের রাত্রীকালীন চলাচলের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা শিথিল করতে হবে। বাংলাদেশের বন্দরসমূহ থেকে পণ্যপরিবহন নীতিমালা শতভাগ কার্যকর করতে হবে। চট্টগ্রাম বন্দরে প্রোতাশ্রয় নির্মাণ ও চরপাড়া ঘাটের ইজারা বাতিল করতে হবে। চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পাইপলাইনে জ্বালানি তেল সরবরাহের চলমান কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে। কর্মস্থলে ও দুর্ঘটনায় মৃত্যুজনিত ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। কন্ট্রিবিউটরি প্রভিডেন্ট ফান্ড ও নাবিক কল্যাণ তহবিল গঠন করতে হবে। এবং বাংলাদেশের বন্দরগুলো থেকে পণ্য পরিবহন নীতিমালা ১০০ ভাগ কার্যকর করতে হবে।


আরও খবর



রাণীনগরে দম্পতিসহ তিনজন আটক মাদক উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :

নওগাঁর রাণীনগর থানাপুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে দম্পতিসহ তিনজনকে আটক করেছে। আটককৃতদের নিকট থেকে ৩শ’গ্রাম গাঁজা এবং ১২পিস ট্যাপেন্ডাডল ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে। রাতেই আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদক মামলা রুজু করে শুক্রবার আদালতে প্রেরণ করেছে।

রাণীনগর থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন,বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার বড়গাছা উত্তর পাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে ওই গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে সুজন আলী (৩৪) ও সুজনের স্ত্রী রুবিনা বিবি (৩২) কে আটক করা হয়। আটককালে ওই দম্পতির নিকট থেকে ৩শ’গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এছাড়া একই রাতে উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে ওই গ্রামের সাইফুল মুন্সির ছেলে মিলন মুন্সি (৪১)কে আটক করা হয়েছে। মিলনের নিকট থেকে ১২পিস নেশাজাতীয় ট্যাপেন্ডাডল ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে। রাতেই তাদের বিরুদ্ধে মাদক মামলা রুজু করে শুক্রবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। 


আরও খবর



লংগদুর কাপ্তাই হ্রদে নিখোঁজ ২ জনের খোঁজ মেলেনি এখনো

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন,রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি 

রাঙ্গামাটির লংগদুর কাট্টলী বিল গাছখিলা এলাকায় কাপ্তাই হ্রদে যাত্রীবাহী স্পীড বোট ও বালু ভর্তি ইঞ্জিন চালিত বোর্টের সাথে সংর্ঘষে নিখোঁজ ২ জনের খোঁজ এখনো মেলেনি। শুক্রবার (৪ নভেম্বর) দুপুরে ৩টার দিকে এই দূর্ঘটনাটি ঘটে। এতে ৭জন আহত ও পানিতে পড়ে ২জন নিখোঁজ ছিলো।

স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার দুপুরে রাঙ্গামাটি থেকে যাওয়ার পথে লংগদুর কাট্টলী বিল গাছখিলা এলাকায় কাপ্তাই হ্রদে যাত্রীবাহী স্পীড বোট ও বালু ভর্তি ইঞ্জিন চালিত বোর্টের সংর্ঘষ হয়। এতে স্পীড বোটে থাকা ৯জনের মধ্যে ২জন পানিতে তলিয়ে যায়।

নিখোঁজ যাত্রীরা হলেন, লিটন চাকমা (২০) পিতা মুক্ত লাল চাকমা, গ্রাম-কেংড়াছড়ি বাঘাইছড়ি, এলিনা চাকমা মহিলা (২০) পিতা-সুরুত চাকমা, গ্রাম-হাজাছড়া সুবলং বরকল। তারা দুইজনেই সিজকে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের এইচএসসি পরীক্ষার্থী বলে জানা গেছে। 


এব্যাপারে লংগদু ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা এসি ল্যান্ড জনি রায় ও  লংগদু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরিফুল আমিন জানান, গতকাল শুক্রবার দুপুরে ঘটনার পরপরই তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং তাৎক্ষনিক নিখোঁজ ব্যক্তিদের উদ্ধারে রাঙ্গামাটি ফায়ার সার্ভিস ডুবুরী দল ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী উদ্ধার কাজ চালিয়ে রাত হয়ে যাওয়া উদ্ধার কাজ স্থগিত করা হয়। আজ শনিবার আবারো সকাল থেকে উদ্ধার কাজ পরিচালনা করে রাঙ্গামাটি ফায়ার সার্ভিস ডুবুরী দল ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তবে নিখোঁজ দুই জনের খোঁজ এখনো পাওয়া যায়নি। আগামীকাল আবারো উদ্ধার কাজ পরিচালনা করা হবে বলে জানান তারা। 

স্থানীয় আরো জানান, কাপ্তাই হ্রদে যাত্রীবাহী স্পীড বোটের চালকের চোখে চলন্ত অবস্থায় ময়লা পড়ার কারণে চোখ পরিস্কার করতে গিয়ে হঠাৎ বালু ভর্তি ইঞ্জিন চালিতে বোর্টেল সাথে সংর্ঘষ হয়। এসময় যাত্রীবাহী স্পীড বোটে ৯জন যাত্রী ছিলো। এর মধ্যে ২জন যাত্রী পানিতে তলিয়ে যায়। এতে যাত্রীবাহী স্পীড বোটের এক অংশ ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়। 


আরও খবর