Logo
শিরোনাম

বাসভাড়া কমবে কিনা জানা যাবে বিকালে

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

ডিজেলের দাম কমানোর পরিপ্রেক্ষিতে ডিজেলচালিত বাস ও মিনিবাসের ভাড়া পুনর্নির্ধারণ সংক্রান্ত বৈঠক ডেকেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)।

বুধবার বিকাল ৫টায় বনানীতে বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ে এ বৈঠক হবে। সোমবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর ঘোষণা দেয় বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়।

নতুন দাম অনুযায়ী, ভোক্তা পর্যায়ে প্রতি লিটার ডিজেল ১১৪ টাকা থেকে কমে ১০৯ টাকায় বিক্রি হবে। আর প্রতি লিটার কেরোসিন ১১৪ টাকা থেকে কমে বিক্রি হবে ১০৯ টাকায়, অকটেন ১৩৫ টাকা থেকে কমে ১৩০ টাকা এবং পেট্রল ১৩০ টাকা থেকে কমে ১২৫ টাকায় বিক্রি হবে। এ দাম কার্যকর হচ্ছে রাত ১২টার পর থেকে।

এর আগে গত ৬ আগস্ট জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে মহানগরে প্রতি কিলোমিটারে বাস ও মিনিবাসে ভাড়া ৩৫ পয়সা বাড়ায় বিআরটিএ। আর দূরপাল্লায় বাসভাড়া বাড়ায় ৪০ পয়সা।

বাড়ানোর আগে ভাড়া ছিল মহানগর পর্যায়ে কিলোমিটারে বাসে ২ টাকা ১৫ পয়সা, মিনিবাসে ২ টাকা ১০ পয়সা। দূরপাল্লার বাসে ভাড়া কিলোমিটারপ্রতি ১ টাকা ৮০ পয়সা ছিল। সর্বনিম্ন ভাড়া বাসে ১০ টাকা, মিনিবাসে ৮ টাকা।

জ্বালানি তেলের দাম কমায় ভাড়া সমন্বয়ের দাবি করেছেন যাত্রী সাধারণ। সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে বিকালে। 


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২




সরকারি কর্মকর্তাদের সিলমোহর ও তিন দেশের স্ট্যাম্পসহ দুই প্রতারক আটক

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

মহিনুল ইসলাম সুজন,নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি ঃ

নীলফামারীর ডিমলায় বিভিন্ন সরকারি দপ্তর,কর্মকর্তার সিলমোহর,নন জুটিসিয়াল স্ট্যাম্প,জাল দলিল ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত মালামালসহ দুই প্রতারককে আটক করেছে ডিমলা থানা পুলিশ।আকটকৃতদের নামে মামলা দায়েরের পর শুক্রবার(১১ নভেম্বর)বিকেলে আদালতে পাঠালে বিচারক তাদের কারাগারে প্রেরণ করেন।তারা হলেন-ডিমলা সদর ইউনিয়নের সরদারহাট গ্রামের মৃত,কছির উদ্দিনের পুত্র মাজেদুল ইসলাম(৫২) উত্তর তিতপাড়া গ্রামের নছিমুদ্দিনের পুত্র রফিকুল ইসলাম ভুট্টু(৫০)।দীর্ঘদিন যাবত তারা জাল দলিল তৈরি ও দলিলের বিশেষ কিছু অংশ পরিবর্তনের মাধ্যমে প্রতারনা করে আসছিলেন।

জানা যায়,বৃহস্পতিবার(১০ নভেম্বর)গভির রাতে শুক্রবার(১১ নভেম্বর ভোরে)গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সহকারী পুলিশ সুপার(ডোমার-ডিমলা সার্কেল)আলী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ'র দিক নির্দেশনায় ডিমলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)লাইছুর রহমান ও ওসি(তদন্ত)বিশ্বদেব রায়ের নেতৃত্বে এসআই প্রদীপ কুমার রায়,আখতারুজ্জামান,জহুরুল ইসলাম,জগদীশ রায়,জাহিদ হাসান,পিএসআই জয়ন্ত কুমার রায়সহ সঙ্গীয় ফোর্স অভিযান চালিয়ে প্রথমে মাজেদুলকে তারপর তার দেয়া তথ্য মতে ভুট্টুকে নিজ-বাড়ি থেকে আটক করেন।আটকের সময় তাদের কাছ থেকে সাবরেজিষ্টারসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তর ও দপ্তরের কর্মকর্তাদের ১৬৫টি তৈরি সিল ও বিভিন্ন মূল্যের ফাকা ২৮টি স্ট্যাম্প।২৩টি মুছেফেলা স্ট্যাম্প।২টি দলিলের জাবেদা নকলসহ তিন পাতার অস্পষ্ট ভারতীয় ১টি দলিল।চার আনা সমমান মুল্যের পাকিস্তান সময়ের ১টি স্ট্যাম্প।কালার লিগ্যাল কাগজ ২০ পিচ।দলিল লেখা তরল রাসায়নিক দ্রব্যের ১৮টি বোতল।লাল ও কালো রঙ্গের ২টি স্ট্যাম্প প্যাডসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম পাওয়া যায়।পরে আটককৃতদের বিরুদ্ধে ডিমলা থানার এসআই জাহিদ হাসান বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।ডিমলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)লাইছুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,আটককৃতদের মধ্যে ভুট্টু পুরোনো দলিল সংগ্রহ করে দলিলের লেখা কেমিক্যাল দিয়ে তুলে ফেলার কাজে পারদর্শী ও মাজেদ জাল দলিল তৈরির কাজে পারদর্শী।তাদের কাছে ছিলো বিভিন্ন দপ্তর ও দপ্তরের কর্মকর্তাদের অনেক সিলসহ জাল দলিল তৈরির নানান সরঞ্জাম।আটকের পর তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে শুক্রবার বিকেলে আদালতে সোপর্দ করা হলে বিজ্ঞ বিচারক তাদের কারাগারে প্রেরণ করেন।


আরও খবর



নওগাঁয় বিদ্যুৎ পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু, একজন আহত

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ


নওগাঁয় পুকুরে জাল দিয়ে মাছ ধরতে গিয়ে বিদ্যুৎ পৃষ্ট হয়ে শরিফুল ইসলাম (২৯) নামে এক যুবকের মর্মান্তিক ভাবে মৃত্যু হয়েছে। এসময় খোরশেদ আলী (৪৫) নামের অপর একজন গুরুতর আহত হয়েছেন। আহত খোরশেদ আলীকে পত্নীতলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার ১৬ নভেম্বর ভোর সকালে নওগাঁর ধামুরহাট উপজেলার মঙ্গোলিয়া গ্রাম এলাকায়। নিহত যুবক ধামুরহাট উপজেলার মঙ্গোলিয়া গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে। ঘটনার পর থেকে নিহত যুবকের ৮ মাসের অন্তসত্বা স্ত্রী ও স্বজনদের কান্নায় এলাকার লোকজনের মাঝে শোকের ছাঁয়া নেমে এসেছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত ব্যক্তি একই গ্রামের মৃত কেরামত আলীর ছেলে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সত্যতা নিশ্চিত করে ধামইরহাট থানার ওসি মোজাম্মেল হক কাজী জানান, এখন পর্যন্ত এঘটনায় কোন অভিযোগ করা হয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ পদক্ষেপ নেওয়া হবে।



আরও খবর



১২ দফা দাবি পরিবহন শ্রমিক নেতাদের

প্রকাশিত:শনিবার ১২ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

রোকসানা মনোয়ার ঃ সড়ক পরিবহন খাতে দিনে ১১ কোটি টাকার চাঁদাবাজি হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগ। 

সংগঠনটি বলছে, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন মালিকদের সঙ্গে আঁতাত করে দিনে ১১ লাখ গাড়ি থেকে ১১ কোটি চাঁদা আদায় করে। সে হিসাবে বছরে সড়কে ৪ হাজার ১৫ কোটি টাকা চাঁদা আদায় হয়। জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন শ্রমিক লীগ সভাপতি মোহাম্মদ হানিফ খোকন।

মোহাম্মদ হানিফ খোকন আরো বলেন, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন নামে শ্রমিকদের ফেডারেশন হলেও তা মূলত মালিকদের সমিতি। ওই ফেডারেশন ১০টি দাবি করলে ৮টি দাবিই থাকে মালিকদের। ফেডারেশনের নেতারা মালিক সমিতির সঙ্গে আঁতাত করে শ্রম আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজির নির্দেশিকা তৈরি করে। পরিবহন সেক্টরে কর্মরত শ্রমিকরা একটি মাফিয়া চাঁদাবাজ চক্রের হাতে নির্যাতিত। শ্রমিকদের শোষণ করে চাঁদাবাজরা শত শত কোটি টাকার মালিক বনে গেছে। রাজধানীর চারটি বড় টার্মিনালসহ দেশের প্রতিটি টার্মিনালের শ্রমিকরা এ মাফিয়া চক্রের হাতে জিম্মি। এরা সড়ক মহাসড়কে চাঁদাবাজির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করে নিজেদের প্রাসাদ-প্রতিপত্তি গড়ে তুলছে।


তিনি বলেন, আমরা আপনাদের মাধ্যমে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের নেতাদের বলতে চাই, পরিবহন শ্রমিকদের দাবি বাস্তবায়নে ব্যর্থতার দায় নিয়ে ট্রেড ইউনিয়ন থেকে বিদায় নিন। অথবা সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে ঘোষিত মজুরি বাস্তবায়ন ও শ্রম আইন অনুযায়ী নিয়োগপত্র প্রদানসহ পরিবহন শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি আদায়ে প্রকৃত অর্থে ট্রেড ইউনিয়নে ফিরে আসুন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শ্রমিক বান্ধব সরকার যে প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করেছে তা যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করা, শ্রম আইন অনুযায়ী নিয়োগপত্র প্রদান ও পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি বন্ধসহ বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের ঘোষিত ১২ দফা দাবি বাস্তবায়নে পরিবহন সেক্টরের সকল শ্রমিক ও মালিক সংগঠনগুলোর সহযোগিতা একান্তভাবে কামনা করছি।

দাবিগুলো হচ্ছে, সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ মোতাবেক সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের স্ব-স্ব মালিক কর্তৃক বাস, ট্রাক চালকদের নিয়োগপত্র প্রদান করা, প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী মাসিক বেতন প্রদান ও ৮ কর্ম ঘণ্টা নির্ধারণ করা; সড়ক পরিবহন শ্রমিক ও কর্মচারীদের মালিক কর্তৃক খোরাকি, চিকিৎসা ভাতা এবং ২ ঈদ ও পূজায় উৎসব বোনাস প্রদান করা; পরিবহন সেক্টরে সংঘবদ্ধ চাঁদাবাজ চক্রের বেআইনিভাবে চাঁদার আদায়ের নির্দেশিকা তৈরি করে পরিবহন সেক্টরে অবৈধ চাঁদাবাজি বন্ধ করার পদক্ষেপ গ্রহণ করা; যানজট নিরসন ও সড়ক দুর্ঘটনা রোধকল্পে মেয়াদোত্তীর্ণ সকল প্রকার ফিটনেসবিহীন যানবাহন বন্ধ করা; শরীয়তপুর-হরিনাঘাট, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া, মাওয়া-কেওড়াকান্দীসহ বিভিন্ন ফেরিঘাটে বাস, ট্রাক, কভার্ডভ্যান সিরিয়ালের নামে অবৈধ চাঁদা আদায় বন্ধ এবং ফেরিঘাটে যানজট নিরসনে একটি সমন্বয় কমিটি গঠন করা; বিআরটিএতে পরিবহন চালকদের লাইসেন্স নবায়নের ক্ষেত্রে রি-টেস্ট প্রথা বাতিল ও পরিবহন শ্রমিকদের সহজ পদ্ধতিতে লাইসেন্স প্রদান করা; হাইওয়ে সড়কে ট্রাক-ট্যাংকলরি ও কভার্ড ভ্যানের উপর অহেতুক পুলিশের হয়রানি বন্ধ এবং মানিকগঞ্জ, সীতাকুণ্ড, কুমিল্লা ময়নামতি, দাউদকান্দিসহ বিভিন্ন মহাসড়কে ওয়ে স্কেল (ওভার লোডিং) এর নামে বিনা রশিদে টাকা আদায় বন্ধ করা।

এছাড়া ঢাকায় সীমাহীন যানজট নিরসনে ফুলবাড়িয়া স্টপ-ওভার অস্থায়ী পরিবহন টার্মিনালটি কেরানীগঞ্জে স্থানান্তর করা; সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের জন্য শ্রমিক কল্যাণ তহবিল বিল অবিলম্বে বাস্তবায়ন করা; নাইট কোচ যাত্রীদের ডাকাতির হাত থেকে রক্ষা করার জন্য প্রতিটি পরিবহনের মালিকের মাধ্যমে ২ জন আনসার-পুলিশ নিয়োগ করা; বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের অন্তর্ভুক্ত সকল বেসিক ইউনিয়নের পরিচয়পত্র ব্যবহারকারী ভূমিহীন পরিবহন শ্রমিকদের সরকারি খাস জমিতে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা এবং ঢাকা মহানগরীতে যানজট নিরসনে মহানগরের মধ্যে যত্রতত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সকল বাস ও নাইট-কোচ কাউন্টার অবিলম্বে আন্তঃজেলা টার্মিনালে স্থানান্তর করা।

আগামী ৩১ জানুয়ারির মধ্যে ১২ দফা দাবি মানা হলে ওই দিন পরবর্তী কর্মসূচি জানানো হবে বলে জানিয়েছেন শ্রমিক লীগ সভাপতি মোহাম্মদ হানিফ খোকন।


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২




পাচঁদোনা সড়কে বাস-সিএনজির সংঘর্ষে প্রান ঝরলো ২ জনের আহত ৪

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

নরসিংদী প্রতিনিধি :-

এবার নরসিংদী-টংগী মহাসড়কের পাচঁদোনা চাকশাল নামক স্হানে বাস-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রান ঝরলো আমির হামজা (৩৬) ও মজিবর (৩৪) নামে দুই ব্যক্তির।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) সকাল ৯ টায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পাঁচদোনা-টংগী মহাসড়কের চাকশাল (ভাটপাড়া) নামক স্থানে ঢাকাগামী এনা পরিবহন ও বিপরীতদিক দিয়ে আসা নরসিংদীর পাচঁদোনাগামী সিএনজির সাথে মুখোমুখি  সংঘর্ষ হয়। এতে সিএনজিতে থাকা ১ জন যাত্রী ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। পরে গুরুত্বর আহত অবস্থায় সিএনজির চালক মজিবরকে নরসিংদী সদর হাসপালে নেওয়ার পথে মারা যান। তিনি আরও জানান সিএনজিতে থাকা চালকসহ ৬ জন যাত্রীই গুরুত্বর আহত হন এবং তাদের মধ্যে সিএনজির চালক ও একযাত্রী নিহত হয়। সিএনজিতে থাকা বাকী চার যাত্রীকে সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

নিহতরা হলেন আমানত শাহ স্পিনিং মিলসের কর্মচারী টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার সিংহ রানী গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে আমির হামজা (৩৬) ও নরসিংদীর মাধবদী থানাধীন আসমান্দীরচরের জারতলা গ্রামের মৃত আকবর মিয়ার ছেলে মোঃ মজিবর (৩৪)।


আরও খবর



র‌্যাবের পৃথক অভিযানে হত্যা মামলার আসামী সহ দু' জন আটক

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :

র‌্যাবের পৃথক অভিযানে হত্যা মামলার আসামী সহ দু' জন আটক।

জয়পুরহাটের সদর থানার পুরানাপৈল বাজার এলাকা থেকে রোববার সকাল পৌনে ৯ টারদিকে চাঞ্চল্যকর ক্লুলেস হত্যা মামলার আসামী মোঃ আব্দুল ওয়াহাব (২৪) ও আরেক অভিযানে জেলার সদর থানার কুঠিবাড়ি বাজার এলাকা থেকে বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে মোঃ কাউসার (৩৬) কে আটক করেছে র‍্যাব।


র‍্যাব কাম্প থেকে জানানো হয়, কোম্পানী কমান্ডার মেজর মোঃ মোস্তফা জামান আর্টিলারি ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মাসুদ রানার নেতৃত্বে জেলার সদর থানার চকবরকত ইউনিয়নের অন্তর্গত নওপাড়া গ্রামস্থ পল্লীবালা বাজারের পশ্চিম পার্শ্বে জনৈক জয়নাল আবেদীনের পুুকুরের দক্ষিণ পার্শ্বে গাছের ডালের সাথে একই গ্রামের মোঃ সাহেব আলীর ছেলে ওয়াজকুরুনী ওরফে সজীবের (২২) ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনায় সদর থানায় অপমৃত্য মামলা দায়ের করা হয়। থানা পুলিশ মামলার কোন সুরাহা করতে না পারায় মামলাটি সিআইডি‘র কাছে হস্তান্তর করা হয়।

অপর এক অভিযানে মাদক মামলার এজাহার নামীয় আসামী জেলার সদর থানার দোগর মোনারপাড়া গ্রামের মৃত তছির উদ্দিনের ছেলে মোঃ কাউসারকে আটক করে। 

পরবর্তীতে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে জেলার সদর থানায় জিডি মূলে হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরও খবর