Logo
শিরোনাম

বিদ্যুৎ চালিত অবৈধ যানবাহন বন্ধ করলে অনেকখানি বিদ্যুৎ সাশ্রয় করা সম্ভব

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : রাজধানীর মূল সড়কে না চললেও স্থানীয় সড়কগুলোতে বেশ বেপরোয়া ভাবেই চলছে ব্যাটারি চালিত রিক্সা। ২০১৭ সালে রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত রিক্সা বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশনা থাকলেও তা উপেক্ষা করে বিভিন্ন অলিতে-গলিতে এখনো চলছে এই ব্যাটারিচালিত রিক্সা। যার ফলে যানজট লোডশেডিংয়ের পাশাপাশি ছোট-বড় দুর্ঘটনাও ঘটছে অহরহ।

 

অলিতে-গলিতে চলাচল থাকলেও শুধু ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনেই এই ধরণের রিক্সার সংখ্যা দুই লাখের বেশি। আর রাজধানী জুড়ে ধরণের ব্যাটারি চালিত রিক্সার সংখ্যা চার লাখেরও বেশি।  এবং সারাদেশে ষাট লাখেরও বেশি। 

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশে যন্ত্রের প্রতি  নির্ভরযোগ্যতা বেড়েছে। কিন্তু টমটম বা পঙ্খিরাজ নামে পরিচিত ধরণের অটোরিক্সা মানুষের জীবনকে সহজ করার বদলে কোন কোন ক্ষেত্রে আরো জটিল সমস্যার সৃষ্টি করছে। নিয়ন্ত্রণহীন গতি এবং চালকদের বেপরোয়া আচরণ এবং হর্নের মাধ্যমে শব্দ দূষণের কারণে বেশ সমালোচিত এই যানবাহনের কদর বেড়েছে দ্রুতযান ভাড়া কম হবার কারণে।

আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও স্থানীয় ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক নেতাকর্মী আইন প্রয়োগকারী সংস্থার ছত্র ছায়ায় এখনো চলমান এই রিক্সাগুলোর নিয়ন্ত্রণ মহাজনদের হাতে।

এই সকল রিক্সাগুলো ব্যাটারি চালিত হওয়ায়, এতে বৈদ্যুতিক খরচ বাবদ মাস প্রতি গুনতে হয় ১৫০০-২০০০ টাকা। আর এই সকল বৈদ্যুতিক লাইন অবৈধ হওয়ায় লোডশেডিংয়ে ভুগতে হয় নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল প্রদান করা গ্রাহকদের । যার ফলে প্রতি মাসে বিপুল পরিমান বিদ্যুৎ বিল থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার  ।

বিদ্যুৎ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মতে, বর্তমানে চাহিদা অনুসারে বিদ্যুৎ সরবরাহে কোন ঘাটতি ছিলনা। কিন্তু তারপরও মাঝে মধ্যে লোডশেডিং ছিল, যার মূল কারণ অবৈধ সংযোগ। নিয়মিত অভিযান চালিয়ে অবৈধ সংযোগ বন্ধ করা হলেও আবারো তা চালু হয়ে যায়।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপস বলেছিলেন ব্যাটারি চালিত কোনো যান আর সড়কে চলবে না। ঢাকা দক্ষিণ সিটির সড়ক গুলোতে এই সকল যান পাওয়া গেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আইন করা হলেও আইনি ভাবে তেমন পদক্ষেপ না নেয়ার ফলে ঢাকা দক্ষিণ সিটির আওতায় খিলগাঁও, বাসাবো, রামপুরা, বনশ্রী, মাদারটেক, যাত্রাবাড়ী, মান্ডা, ডেমরা, পুড়ান ঢাকা সহ বিভিন্ন এলাকাতে চলছে এই ব্যাটারি চালিত রিক্সা। উত্তর সিটি করপোরেশন ভুক্ত মিরপুরের বেশ কিছু এলাকায়, ভাটারা, আশকোনা উত্তরার কিছু স্থানেও বিনা বাঁধায় চলছে ব্যাটারি চালিত রিক্সা।

প্রাথমিক পর্যায়ে দরিদ্র প্রতিবন্ধীদের আয়ের উৎস হিসাবে এই সকল রিক্সা চলতে দেওয়া হলেও বর্তমানে তা ব্যবহার করছে সকলে। এই যান চালাতে সহজ হওয়ায় অনেক সুস্থ মানুষ প্যাডেল চালিত রিক্সা ছেড়ে বেছে নিচ্ছে এই ব্যাটারি চালিত রিক্সা।

অনেক যাত্রী সময় বাঁচাতে বা সাশ্রয়ী হওয়ায় ব্যাটারি রিক্সা ব্যবহারে আগ্রহী হয়, আবার অনেকে ধরণের রিক্সার বেপরোয়া গতি দেখে অনিচ্ছাও প্রকাশ করে।

অনেকে এদের বলে বিপদজনক। অজস্র দুর্ঘটনার জন্য দায়ী এরা। বেশ গতিমান এবং কাঠ ও লোহার তৈরি দেহের কারণে ভরবেগও এদের মন্দ না। অন্যদিকে এদের গতিনিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা খুবই খারাপ, আধুনিক বাহনের বৈশিষ্ট্য সুলভ অন্যান্য নিরাপত্তা বন্দোবস্ত এই গাড়িগুলোতে নেই বললেই চলে। দেশের বহু অঞ্চলে বাস-ট্রাক-লরিসহ সকল প্রকার পরিবহণ মালিক ও শ্রমিকরা বেশ কয়েকবার ধর্মঘট করেছেন মহাসড়কে এদের চলাচলের বিরুদ্ধে। বহু স্থানে কঠোর পুলিশী বন্দোবস্ত করেও এদের নিয়ন্ত্রণ করা যায়নি। 

 

 

 


আরও খবর

এক এনআইডিতে ১৫টির বেশি সিম নয়

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২




মোরেলগঞ্জে পিআইওর দপ্তরের অর্ধ দিবস কলম বিরতি

প্রকাশিত:সোমবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট প্রতিনিধি :

সারাদেশের ন্যায় বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জেও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের ন্যায্য দাবী আদায়ের লক্ষে অর্ধ দিবস কলম বিরতি কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তরে স্বারকলিপি প্রদান।

 সোমবার উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে এ কর্মসূচির অংশ হিসেবে সকাল ৮টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত অর্ধ দিবসে কলম বিরতি পালন করেছেন প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. রোকনুজ্জামানসহ সকল কর্মকর্তা-কর্মচারিবৃন্দ।

এ সময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. রোকনুজ্জামান বলেন, কর্মকর্তা-কর্মচারি কল্যাণ পরিষদের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি অনুযায়ী নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তরে স্বারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলমান থাকবে। তাদের সকল ন্যায্য দাবি মেনে না নেওয়া হলে পরবর্তীতে লাগাতার কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। 


আরও খবর

ফকিরহাটের জন্য সম্মান বয়ে আনলেন

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২




অসুস্থ রানি এলিজাবেথ, নেওয়া হয়েছে চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথে শারীরিকভাবে কিছুটা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। ফলে স্কটল্যান্ডের বালমোরালে চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে তাকে। বৃহস্পতিবার বাকিংহ্যাম প্যালেস জানিয়েছে এ তথ্য।  

গ্রীষ্মকালীন সময় কাটাতে বর্তমানে স্কটল্যান্ডের প্রাসাদে রয়েছেন ৯৬ বছর বয়সী রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন মেডিকেল কর্মকর্তারা। এরপর তাকে চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে রাখার জন্য বলা হয়। 

এ ব্যাপারে একটি বিবৃতিতে বাকিংহ্যাম প্যালেস বলেছে, আজ সকালে আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে, রানির চিকিৎসকরা তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে শঙ্কার কথা প্রকাশ করেন এবং তাকে চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে থাকার জন্য প্রস্তাব দেন। 

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, বালমোরালে বর্তমানে স্থিতিশীল আছেন রানি। তার পরিবারের কাছের সদস্যদের খবর দেওয়া হয়েছে। এদিকে রানির অসুস্থতার খবর শোনার পর নতুন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস বলেন, পুরো দেশ এমন খবরে চিন্তিত থাকবে। 

তিনি আরও বলেন, এ মুহূর্তে রানি ও তার পরিবারের জন্য আমার, ব্রিটেনের জনগণের শুভকামনা থাকবে।বুধবার ভার্চ্যুয়ালি হওয়া প্রিভি কাউন্সিলে যোগ দেননি রানি এলিজাবেথ। কারণ চিকিৎসকরা তাকে বিশ্রামে থাকার জন্য বলেন। 

সূত্র: বিবিসি


আরও খবর

তেলের দাম কমে ৯ মাসে সর্বনিম্ন

মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

মিয়ানমারে জান্তার গোলায় নিহত ২ শিশু

মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২




মোরেলগঞ্জে একশ’ হেক্টর সবজি ফসলের ক্ষতির সম্ভাবনা

৫০০ হেক্টর রোপা আমন পানির নিচে নিমজ্জিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদক :

সাগরের সৃষ্ট লঘুচাপ ও বৈরি আবহাওয়ায় টানা ৪ দিনের অতি বর্ষনে জলাবদ্ধতায় বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে ৫শ’ হেক্টর রোপা আমন ফসলী জমি পানির নিচে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে। ১০০ হেক্টর সবজি ফসলের ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। সবজি চাষীরা এখন দিশেহারা। কৃষি দপ্তরের পাঠ পর্যায়ে কর্মকর্তারা পরবর্তী করনীয় বিষয়ে দিচ্ছেন পরামর্শ।

   সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন সহ পৌরসভায় টানা বর্ষন ও বৈরি আবহাওয়ার কারনে অতিরিক্ত জোয়ারের পানি প্রবেশ করে নিম্নঅঞ্চল প্লাবিত হয়ে মোরেলগঞ্জ সদর, নিশানবাড়িয়া, বারইখালী, হোগলাবুনিয়া, বহরবুনিয়ারসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামগুলোতে জলাবদ্ধ সৃষ্টি হয়ে ৫শ’ হেক্টর রোপা আমন ধান এখনও পানির নিচে নিমজ্জিত হয়ে রয়েছে। জলাবদ্ধতা দূর করতে গেইট খুলে পানি অপসারনের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন প্রশাসন।


নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের গুলিশাখালী, পিসি বারইখালী গ্রামে ঘেরের চারপাশে উচুঁ জমিতে সবজি চাষে উল্লেখ্যযোগ্য শসা চাষে ব্যাপক ফলন হলেও জলাবদ্ধতায় পানি জমে শসা গাছের গোড়ায় পচন ধরে বিপর্যয় ঘটছে অধিকাংশ ক্ষেতে। কৃষক এখন দিশেহারা। বছরে বিঘায় ৮০ থেকে ১ লাখ টাকা বিক্রি হতো শসায়। এ বছরে জমিতে খরচকৃত টাকা উঠাতে পারবেনা বলে জানিয়েছেন একাধিক ক্ষতিগ্রস্ত চাষিরা।  

গুলিশাখালি গ্রামের বিধান চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, ৮ বছর পূর্বে লাইফ ইন্সুরেন্সের চাকুরি ছেড়ে দিয়ে  পৈত্রিক ৩৩ শতক জমিতে কৃষিকাজ শুরু করেন। প্রতি বছর এ কৃষি থেকে বিভিন্ন সবজি উৎপাদন করে লাভবান হতেন। শুধুমাত্র শসা সবজিই বিক্রি করতেন ৫০-৬০ হাজার টাকা।

এ বছরে প্রাকৃতিক দুর্যোগে জমির খরজের টাকা ঘরে তুলতে পারবে না। একই গ্রামের লিটন বিশ্বাস, উত্তম বিশ্বাস, মিজানুর রহমানসহ একাধিক কৃষকরা বলেন, অতিরিক্ত জলাবদ্ধতায় এবারে শসা ফসলে লোকশান গুনতে হবে অধিকাংশ চাষিদের।

  এ বিষয়ে উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম জানান, নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নে সাড়ে ৩শ’ বিঘা জমিতে শসা, মিষ্টি কুমড়া, করলা, বরবটি, সবজি চাষ করেছে ১৫শ’ কৃষক। এর মধ্যে শসা চাষে বাম্পার ফলন হয়েছে দেড় হেক্টর জমিতে। তবে, গুলিশাখালী, পিসি বারইখালী গ্রামে অধিকাংশ জায়গায় জলাবদ্ধতার কারনে আংশিক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। চাষিদের পরবর্তী করনীয় বিষয়েও পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

 এ সর্ম্পকে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ আকাশ বৈরাগী জানান, বৈরি আবহাওয়ার কারনে জলাবদ্ধতায় পানির নিচে ৫ শ’ হেক্টর রোপা আমন ফসলী জমিতে ২/১ দিনের মধ্যে পানি নেমে গেলে ক্ষতি পুশিয়ে উঠতে পারবে কৃষক। তবে, সবজি ফসলের চাষিদের জন্য মাঠ পর্যায়ে উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তাদের মাধ্যমে খোঁজ খবর নিয়ে উচুঁ জমিতে পরবর্তীতে বেড ও নালা পদ্ধতিতে ফসল উৎপাদনের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। একই সাথে নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের পানি নিষ্কাশনের জন্য ¯স্লুজগেটগুলো খুলে দেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। 


আরও খবর

ফকিরহাটের জন্য সম্মান বয়ে আনলেন

বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২




পর্যটন শিল্পের স্বার্থে অ্যারাইভাল ভিসা সহজ করতে হবে

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেছেন, দেশের পর্যটনশিল্পকে এগিয়ে নিতে অন অ্যারাইভাল ভিসা সহজ করতে হবে। এবিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা হয়েছে। যাতে লোকজন খুব সহজে বাংলাদেশে আসতে পারে।

মাহবুব আলী বলেন, ইতোমধ্যে আপনারা দেখেছেন হাওরে একটা সড়ক তৈরি করা হয়েছে সেখানে বিপুল সংখ্যক পর্যটক নিয়মিত যাচ্ছে। মাস্টারপ্ল্যানে হাওরকে কীভাবে সাজাতে হবে সেই সুপারিশ করা হয়েছে। দেশে পর্যটনের অপার সম্ভাবনা রয়েছে। বিপুল সংখ্যক রিসোর্ট হচ্ছে। হাওর হাওরের মতো থাকবে, পাহাড় পাহাড়ের মতো থাকবে। পাহাড় কেটে হাওর নষ্ট করে রিসোর্ট এমন পর্যটন হতে পারে না।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ্ববাসী যখন দেখবেন আমাদের লেক, নদী, পাহাড়, সমুদ্র, চা বাগান, পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, কক্সবাজার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর তখন এখানে আসতে আরও আগ্রহী হবেন। এসব আমাদের পর্যটনকে বিকশিত করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। এ পদক্ষেপের কারণেই একজন পর্যটক এসে বাংলাদেশের সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে পারবে।

বেসামরিক বিমান ও পর্যটন সচিব মোকাম্মেল হোসেন বলেন, সুন্দর সময়ে এই পর্যটন মেলা আয়োজন করা হয়েছে। এখন পর্যটনশিল্প খুব খারাপ সময় অতিবাহিত করেছে। তবে অভ্যন্তরীণ ট্যুরিজম আমরা অনেকটা সাফল্য অর্জন করেছি। এই মেলার মাধ্যমে বিশাল সুযোগ তৈরি হয়েছে বাংলাদেশকে তুলে ধরার জন্য। আমরা চাই সবাই মিলে বাংলাদেশ যেন এগিয়ে যায়।



আরও খবর



নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি হলে তিনশ’ আসনে প্রার্থী দিব.. ববি হাজ্জাজ

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

দেশে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি হলে তিনশ’ আসনে প্রার্থী দিয়ে আগামি জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার ঘোষণা দিয়েছে জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন-এনডিএম। শনিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাব ভবনে একটি রেস্টুরেন্টে ত্রি-বার্ষিক জেলা সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন দলের চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ। তিনি বলেন, অগণতান্ত্রিক সরকারের অধীনে দেশ চলতে পারে না। তাই দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে এনডিএম আগামি ২০২৪ সালের নির্বাচনে অংশ নিতে প্রস্তুত রয়েছে। সেই লক্ষ্যে সারা দেশে জেলা কমিটি গঠন করে দলের সাংগঠনিক অবস্থাকে শক্তিশালী করা হচ্ছে। 

বর্তমান নির্বাচন কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না দাবি করে ববি হাজ্জাজ বলেন, নির্বাচন কমিশনকে নিরপেক্ষ ভূমিকায় থাকতে হবে। ইভিএম মেশিনে ভোট গ্রহণের ব্যাপারেও প্রশ্ন তোলেন তিনি। সরকারের সমালোচন করে ববি বলেন, এই সরকার সারা দেশে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে চায়। তাই অচিরেই নারায়ণগঞ্জ থেকে রাজপথে সন্ত্রাসবিরোধি আন্দোলন শুরু করবে এনিিডএম। 

ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে মিঠু আলীকে সভাপতি ও আনিসুর রহমান জহিরকে সাধারণ সম্পাদক করে একুশ সদস্যবিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটি ঘোষণা করা হয়।


আরও খবর