Logo
শিরোনাম

বিশ্বাস অনেকটা মাটির মতো

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান চৌধুরী

বিশ্বাস অনেকটা মাটির মতো, ছোট ছোট পিঁপড়াদের  মতো |  মানুষ আধুনিক চামড়ার হাই-হিলের জুতো পড়ে মাটির উপর হাটতে হাটতে মাটিকে আঘাতে আঘাতে রক্তাত্ত্ব করে | মাটি গুমরে গুমরে  কাঁদে তবে সে কান্নার কোনো শব্দ থাকেনা | কিংবা মাটির কান্নার শব্দ স্বার্থপর মানুষের কানে পৌঁছেনা | অথচ এই মাটি মানুষের খাদ্যের মতো মৌলিক চাহিদা মেটাতে এতটুকু কার্পণ্য করেনা | মাটির  উপর মানুষ ঘর বাঁধে | জীবনের এমন অনেক মৌলিক চাহিদার  যোগান দেয় মাটি অথচ বিনিময়ে পায় অবহেলা | ত্যাগীরা সব কিছু এমন করে দিতে দিতে একসময় মূল্যহীন হয়ে পড়ে মানুষের পৃথিবীতে | 

অথচ মানুষ খালি পায়ে যদি মাটিতে পা ফেলতো তবে হয়তো সেখানে জন্ম হতো আনন্দের, গড়ে উঠতো ভালোবাসার বন্ধন  | হয়তো এটাই বিশ্বাস যা সব সময় সহজাত প্রকৃতির হয়  | যা কৃত্রিমতাকে ঝেড়ে ফেলে দিয়ে মানুষের মতো মানুষদের অনুসন্ধানে বের হয় | 

যেখানে বিশ্বাস গড়ে উঠে মনুষ্যত্ব চর্চায় | মনুষ্যত্ব খুব কঠিন একটা বিষয়, এটা অনেকটা অন্ধকারে লুকানো একটুকরো আলোর মতো | সে আলো যখন বিন্দু বিন্দু করে মানুষের ভিতরে জন্ম নিতে থাকে তখন মনুষ্যত্বের জন্ম হয় |  

মানুষ নিজেকে খুব বড় ভাবতে গিয়ে ভুলে যায় ছোট ছোট পিঁপড়াদের কথা | পিঁপড়ার মতো খুব নগন্য  একটা প্রাণীর  মূল্য মানুষের পৃথিবীতে হয়তো নেই |  অথচ পিঁপড়াদের  বেঁচে থাকার লড়াইটা খুব কঠিন হয় | সেটা হয়তো মানুষের চোখে কখনো পড়েনা | কারণ বড় বড় মানুষেরা ছোট ছোট পতঙ্গদের কথা কখনো ভাবেনা |  মানুষের জুতোর আঘাতে ক্ষত-বিক্ষত হয় পিঁপড়ারা  | কখনো কখনো মৃত্যুর মুখে পড়তে হয়, কখনো আহত হয়ে জীবন বিপন্ন হয় তাদের | কিন্তু পিঁপড়ার কষ্টের কথা শোনার  মতো মানুষ কি আর এখন আছে | হয়তো নেই  | তারপরও সময় ও প্রকৃতির জন্য  অপেক্ষা 

সময় সব সময় চোখ খুলে জেগে থাকে | প্রকৃতি ঘুমায় | সময় প্রতীক্ষার পর প্রতীক্ষা করতে থাকে কখন ভাঙবে প্রকৃতির ঘুম | একদিন প্রকৃতি ঘুম থেকে জেগে উঠে | তখন সব হিসেবে নিকেশ পাল্টে যায়, যেমন পাল্টে যায় বিশ্বাসগুলো 


আরও খবর



সীমান্তে কাঁটাতার নির্মাণে কাজ করবে দুই দেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

বাংলাদেশ-ভারতের ত্রিপুরা থেকে শুরু করে সীমান্তের কাঁটাতারবিহীন অংশে কাঁটাতার নির্মাণের কাজ শেষ করার বিষয়ে একমত হয়েছে দুই দেশ। এছাড়া সীমান্ত রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বিজিবি বিএসএফের পদক্ষেপের মাধ্যমে সীমান্তে মৃত্যু কমিয়ে আনা, অস্ত্র, মাদক ও জাল টাকার চোরাচালান এবং পাচার রোধে পারস্পরিক সহযোগিতাও প্রশংসিত হয়েছে। ভারতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাষ্ট্রীয় সফরে দুই দেশের মধ্যে যৌথ সম্মতিতে নেওয়া হয়েছে সিদ্ধান্তগুলো। কূটনৈতিক সূত্রগুলো এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্মিলিতভাবে লড়াইয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ : উভয় নেতাই সন্ত্রাসবাদের সব রূপ ও অভিব্যক্তি নির্মূলে তাদের দৃঢ় অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন। এই অঞ্চল ও এর বাইরে সন্ত্রাসবাদ, সহিংস চরমপন্থা এবং মৌলবাদের বিস্তার প্রতিরোধে ও সে সম্পর্কিত পদক্ষেপে সহযোগিতা আরো জোরদার করার বিষয়ে সম্মত হয়েছে।

প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা সহযোগিতা : বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জন্য যানবাহন সংগ্রহের পরিকল্পনাসহ ৫০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের প্রতিরক্ষা লাইন অব ক্রেডিটের অধীনে প্রকল্পগুলোর প্রাথমিক চূড়ান্তকরণে রাজি হয়েছে। বর্ধিত সামুদ্রিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে ২০১৯ সালে স্বাক্ষরিত উপকূলীয় রাডার সিস্টেম সমঝোতা স্মারকের প্রাথমিক কার্যকারিতা চূড়ান্তকরণ।

মানুষ ও পণ্যের স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ চলাচলের সুবিধা নিশ্চিতকরণ : আন্তর্জাতিক সীমান্তের ১৫০ গজের মধ্যে চলমান উন্নয়নমূলক কাজগুলো দ্রুত সম্পন্ন করার বিষয়ে একমত হয়েছে দুই দেশ, যার মধ্যে চার হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্তের বিভিন্ন ক্রসিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ অভিবাসন ও বাণিজ্য-সম্পর্কিত অবকাঠামো রয়েছে।

আঞ্চলিক সমস্যা : মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে জোর করে বাস্তুচ্যুত ১০ লাখেরও বেশি মানুষকে আশ্রয় দেওয়া এবং মানবিক সহায়তা প্রদানে বাংলাদেশের উদারতার প্রশংসা করেছে ভারত। জোর করে বাস্তুচ্যুত এসব লোককে নিরাপদ, টেকসই ও দ্রুত স্বদেশ প্রত্যাবর্তন নিশ্চিতে তারা অব্যাহত প্রতিশ্রুতির ওপর জোর দিয়েছে।

উন্নয়ন সহযোগিতা : বাংলাদেশ ভারত সরকারের সঙ্গে যুক্ত লাইন অব ক্রেডিটের অধীনে, বিশেষ করে গত বছরের তহবিল বিতরণের কার্যকারিতা এবং গতির জন্য ভারতের প্রশংসা করেছে। বাংলাদেশকে প্রায় ১ দশমিক ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রেয়াতি ঋণ দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ভারতের শীর্ষ উন্নয়ন সহযোগী। ভারত কর্তৃক অন্যান্য দেশকে দেওয়া সব উন্নয়ন অর্থায়নের প্রায় এক-চতুর্থাংশ বা ২৫ শতাংশ করে বাংলাদেশকে প্রদান করে।

বঙ্গবন্ধু ও ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা : বঙ্গবন্ধুর ওপর যৌথভাবে নির্মিত বায়োপিক  শিগগিরই শেষ হবে এবং আগামী বছর মুক্তি পেতে পারে। মুক্তিযুদ্ধের ওপর একটি প্রামাণ্যচিত্রের যৌথ প্রযোজনা এবং দুর্লভ ভিডিও ফুটেজের যৌথ সংকলনে সম্মত হয়েছে উভয় পক্ষ। 


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




বাসভাড়া কমবে কিনা জানা যাবে বিকালে

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

ডিজেলের দাম কমানোর পরিপ্রেক্ষিতে ডিজেলচালিত বাস ও মিনিবাসের ভাড়া পুনর্নির্ধারণ সংক্রান্ত বৈঠক ডেকেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)।

বুধবার বিকাল ৫টায় বনানীতে বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ে এ বৈঠক হবে। সোমবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর ঘোষণা দেয় বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়।

নতুন দাম অনুযায়ী, ভোক্তা পর্যায়ে প্রতি লিটার ডিজেল ১১৪ টাকা থেকে কমে ১০৯ টাকায় বিক্রি হবে। আর প্রতি লিটার কেরোসিন ১১৪ টাকা থেকে কমে বিক্রি হবে ১০৯ টাকায়, অকটেন ১৩৫ টাকা থেকে কমে ১৩০ টাকা এবং পেট্রল ১৩০ টাকা থেকে কমে ১২৫ টাকায় বিক্রি হবে। এ দাম কার্যকর হচ্ছে রাত ১২টার পর থেকে।

এর আগে গত ৬ আগস্ট জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে মহানগরে প্রতি কিলোমিটারে বাস ও মিনিবাসে ভাড়া ৩৫ পয়সা বাড়ায় বিআরটিএ। আর দূরপাল্লায় বাসভাড়া বাড়ায় ৪০ পয়সা।

বাড়ানোর আগে ভাড়া ছিল মহানগর পর্যায়ে কিলোমিটারে বাসে ২ টাকা ১৫ পয়সা, মিনিবাসে ২ টাকা ১০ পয়সা। দূরপাল্লার বাসে ভাড়া কিলোমিটারপ্রতি ১ টাকা ৮০ পয়সা ছিল। সর্বনিম্ন ভাড়া বাসে ১০ টাকা, মিনিবাসে ৮ টাকা।

জ্বালানি তেলের দাম কমায় ভাড়া সমন্বয়ের দাবি করেছেন যাত্রী সাধারণ। সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে বিকালে। 


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




মোরেলগঞ্জে অন্তসত্ত্বা গৃহবধুসহ ৫ জনকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদক :

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে একটি হত্যা মামলা তুলে নিতে জের হিসেবে একই পরিবারের ৫ মাসের অন্তসত্তা গৃহবধুসহ ৫ জনকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। এদের মধ্যে গুরুত্বর জখমী তুহিন মোল্লা (২৮) ও জহিরুল মোল্লা (৩৫ কে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বলইবুনিয়া ইউনিয়নের দোনা গ্রামে। এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

অভিযোগে জানাগেছে, দোনা গ্রামের ব্যবসায়ী এনামুল মোল্লার স্কুল পড়–য়া ছাত্র লিমন মোল্লা (১০) কে গত এক বছর পূর্বে হাত পা বেঁধে নিমমভাবে হত্যা করে পানিতে ফেলে দেয় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় তখন ইমরান কাজীকে প্রধান আসামি করে মামলা দায়ের করা হলে মামলাটি থেকে জামিনে এসে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে বাদির পরিবারকে হুমকি ও চাপ সৃষ্টি করে আসছে।  

ঘটনারদিন শুক্রবার একই গ্রামের প্রতিপক্ষ ওই মামলার আসামির পিতা জহিরুল কাজীর নেতৃত্বে ৭/৮ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল হত্যা মামলার বাদি এনামুল মোল্লার স্ত্রী ৫ মাসের অন্তসত্তা গৃহবধু লিমা বেগম (২৫), তার ভাই জহিরুল মোল্লা (৩৫), বোনের ছেলে তুহিন মোল্লা (২৮), শিক্ষার্থী আজিজুল বেপারি (১৯), নাসরিন বেগম (২০)কে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুত্বর রক্তাক্ত জখম করে ফেলে রেখে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন আহতদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা অবনতি হলে খুমেক মেডিকেলে স্থান্তরিত করা হয়েছে। আহত দু’জনের মাথায় হাড় কাটা একজনের ডান হাত জয়েন্ট ভাঙ্গা গৃহবধুর ৫ মাসের অন্তসত্ত¡া বলে জরুরী বিভাগের দায়িত্বে থাকা কর্তাব্যরত চিকিৎসক মনিকা মল্লিক জানিয়েছেন। এদিকে ভূক্তভোগী পরিবারের এনামুল মোল্লা বাদি হয়ে ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।  

এ বিষয়ে থানা অফিসার ইনচার্জ মো. সাইদুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আরও খবর



রাঙ্গামাটিতে ওএমএস ও টিসিবি কার্যক্রমের উদ্বোধন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন কায়েস, রাঙ্গামাটি ঃ

খাদ্য শস্যের বাজার মূল্যের উর্দ্ধগতির প্রবনতা রোধ কল্পে নিম্ন আয়ের

জনগোষ্ঠীকে মূল্য  সহায়তা দেয়া এবং বাজার দর স্থিতিশীল রাখতে সারাদেশের

ন্যায় রাঙ্গামাটিতে  ওএমএস ও টিসিবি ৫ কেজি করে প্রতি কেজি ৩০ টাকা এবং

খাদ্য বান্ধব ৩০ কেজি করে ১৫ টাকা হারে ইউনিয়ন পর্যায়ে খাদ্য বান্ধব

কর্মসূচীর মাধ্যমে চাল বিক্রি কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে।

আজ সকালে রাঙ্গামাটি স্টেডিয়ামে ওএমএস ও টিসিবি এবং সদর উপজেলার সাপছড়ি

ইউনিয়নে কেজি প্রতি ১৫ টাকা দরে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচী কার্যক্রমের

উদ্বোধন করেন, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মোঃ হাবিবুর রহমান হোসাইনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান,

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাইফুল

ইসলাম, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কানিজ জাহান বিন্দু, উপজেলা নির্বাহী

কর্মকর্তা নাজমা বিনতে আমিন প্রমূখ।

এ কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মোঃ হাবিবুর

রহমান হোসাইনি বলেন, বাজারদর স্থিতিশীল রাখতে সারাদেশে ওএমএস, টিসিবি ও

খাদ্য বান্ধব কর্মসূচী আওতায় সরকার ডিলারদের মাধ্যমে চাল বিক্রির

কার্যক্রম শুরু করেছে। এটি একটি জনবান্ধব কর্মসূচী এবং এ কর্মসূচীর

মাধ্যমে সাধারন মানুষ উপকৃত হবে বলে জানান তিনি।

পরে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব, জেলা প্রশাসক, জেলা খাদ্য

নিয়ন্ত্রকসহ উর্ধতন কর্মকর্তারা শহরের বিভিন্ন ডিলারদের দোকানে ওএমএস,

টিসিবি ও খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় চাল বিক্রি কার্যক্রম পরিদর্শন

করেন।

শহরের প্রতিটি ডিলারের দোকানে সাধারণ মানুষ ও টিসিবির কার্ড ধারীদের চাল

সংগ্রহ করতে দেখা গেছে।

প্রতিটি ওয়ার্ডে সপ্তাহে ৫ দিন ২ মেট্রিক টন চাল বিক্রি করা হবে বলে

জানিয়েছেন জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কানিজ জাহান বিন্দু।


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জে বিজিএমইএ’র যক্ষ্মা নির্ণয় কেন্দ্রের উদ্বোধন

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

শনিবার নারায়ণগঞ্জের জামতলায় বিজিএমইএ’র যক্ষ্মা নির্ণয় কেন্দ্রের উদ্বোধন করেছেন বিজেএমই’র সভাপতি ফারুক হাসান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিজিএমইএ’র অন্যতম পরিচালক নিলা হোসনে আরাকে  ধন্যবাদ জানিয়ে সভাপতি বলেন, নিলা হোসনে আরা তাঁর নিজ বাসার জায়গা ছেড়ে দিয়ে এই মেডিকেল কেন্দ্রটি করেছেন। তার সহযোগিতা না পেলে হয়তো এই সেন্টারটি করতে আমাদের আরো দেরি হতো। এই অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য আমি ক্রোনি গ্রুপকেও আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

তৈরী পোশাকশিল্পের সূদুরপ্রসারী কল্যাণ ও লক্ষ্য মাত্রাকে সামনে রেখে বিজিএমইএ এর যক্ষ্মা নির্ণয় কেন্দ্রের নারায়ণগঞ্জ শাখার উদ্বোধন পোশাকশিল্পে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে জানান তিনি। এসময় তিনি আরো বলেন, বিগত ২৮ জুন ২০০৯ সালে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সাথে সমঝোতা স্মারক এর মধ্যে দিয়ে বিজিএমইএ’র যক্ষ্মা নির্ণয় এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়েছিল। 

এই দীর্ঘ ১৩ বৎসরে অর্থাৎ ২০২২ সালের জুন মাস পর্যন্ত ঢাকা, বিজিএমইএ’র নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, কোনাবাড়ি, আশুলিয়া, হেমায়েতপুর এবং চট্টগ্রামের মোট ১১ টি  যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের মাধ্যমে বিভিন্ন পোশাকশিল্প কারখানার ১৪,২০৫ জন যক্ষ্মা রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। তার মধ্যে ১০,৫০১ জন সম্পূর্ণ সুস্থ হয়েছেন এবং বাকীরা চিকিৎসাধীন আছেন। এ ছাড়াও যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের এর মাধ্যমে শ্রমিক, ম্যানেজার এবং সুপারভাইজারদের নিয়ে ১০৮৯ টি যক্ষ্মা সংশিষ্ট সচেতনামূলক ওয়ার্কশপ করা হয়েছে যেখানে ৫৩,৭৪০ জন অংশগ্রহণকারী ছিলেন।  উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ক্রোনি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এএইচ এম আসলাম সানী ও চেয়ারপার্সন নীলা হোসনে আরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২