Logo
শিরোনাম

বিশ্বকাপ: প্রস্তুতি ম্যাচে টাইগারদের প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান-সাউথ আফ্রিকা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আগে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে এই আসরে অংশ নিতে যাওয়া দলগুলো। এই বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সঙ্গে একই গ্রুপে আছে সাউথ আফ্রিকা। আগামী ২৭ অক্টোবর সিডনিতে মুখোমুখি হবে দুই দল।

বিশ্বকাপের মূল লড়াইয়ে নামার আগেই প্রোটিয়াদের সাথে দেখা হচ্ছে টাইগারদের। দলটি বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে সাকিব আল হাসানের দল। বিশ্বকাপ প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ খেলবে আফগানদের বিপক্ষেও।

আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশসহ অংশগ্রহণকারী ১৬টি দলের বিশ্বকাপ ওয়ার্মআপ ম্যাচের সূচি ঘোষণা করেছে আইসিসি। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ডের খেলা শুরু হবে ১৬ অক্টোবর। দুটি গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে আটটি দল।

সেরা চারটি দল উঠবে দ্বিতীয় রাউন্ড বা সুপার টুয়েলভে, যেখানে আগের আসরের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে আগে থেকেই অবস্থান করছে আটটি দল। 


আরও খবর

ডু অর ডাই ম্যাচ মেসিদের

শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২

আর্জেন্টিনাকে মাটিতে নামাল সৌদি

বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২




আত্মা থেকে পরমাত্মার দূরত্ব কত ?

প্রকাশিত:বুধবার ০২ নভেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

গোবিন্দ শীল, সিনিয়র সাংবাদিক, রাজনৈতিক বিশ্লেষক ঃ

 যোগবিজ্ঞান বলে কোন দূরত্বই নেই । তাহলে প্রশ্ন জাগে আমরা আমাদের higher self কে দেখতে পাচ্ছিনা কেন? বা, তার জন্য এত সাধনা করতে হয় কেন ? আমরা আমাদের প্রকৃত রুপ দেখতে পাচ্ছিনা এজন্য যে, আমাদের তাবৎ বিনিয়োগ আমরা করে রেখেছি ইগো মাইন্ড বা lower self এর ওপর। এই ইগো মাইন্ড তৈরী হয়েছে যাবতীয় ‍ঋণাত্বক কন্ডিশনিং দিয়ে। আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা, ধর্ম ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্য সামাজিক প্রতিষ্ঠান lower self কে লালন ও উৎসাহিত করে। এত কিছুর মধ্যেও মাঝে মাঝে সুযোগ পেলে আমাদের higher self মনের কোণে উঁকি দেয়। গভীর ঘুম, soothing music, সুন্দর কোন স্থানে ভ্রমণ, মেডিটেশন--- এরকম কয়েকটি উদাহরণ। আমাদের নৈমত্তিক মন এতটাই শক্তিশালী যে আমরা তাকে ‘inner self’ বা ‘আসল আমি’ বলে ভুল করি। মনের ওপর থেকে ইগো মাইন্ডের প্রলেপ মুছে ফেলতে পারলে তবেই আত্ম জিজ্ঞাসা সুসম্পন্ন হয় ( Self-realization )। মেডিটেশন এই মুছে ফেলার কাজটি করে । তখন নতুন একটি মনের জন্ম হয়। পুরাতন মনটি ধীরে ধীরে নিস্তেজ ও কর্মহীন হয়ে পড়ে। কেননা পুরাতন মনটিতো আসলে নেতিবাচক ধারণা দিয়ে তৈরী ছিল । নতুন মেডিটেটিভ মনের কাছে পুরাতন মন পরাস্ত হয়। কতদিন মেডিটেশন করলে ইগো মাইন্ড দুর্বল হয়, তা ব্যক্তি বিশেষের ওপর নির্ভর করে। তবে, যোগবিজ্ঞান অনুযায়ী যে কোন কেউ তাঁর ‘প্রকৃত আমি’ কে দেখার ক্ষমতা রাখেন। আমাদের শরীরের নিচের দিকে যে তিনটি ধ্যান চক্র আছে, যথা, root chakra, solar plexus ও sacral chakra---সেসব আয়ত্ত্ব করতে পারলে আমাদের lower self দুর্বল হতে শুরু করে । এটিই আমাদের নতুন মনের রাস্তাটি তৈরী করে দেয়। তখনই আপনি সবকিছুতে শান্তি খুঁজে পেতে শুরু করেন। বাকি ৪ টি ধ্যান চক্র আপনাকে ’প্রকৃত আমি’র দিকে নিয়ে যেতে সাহায্য করে।


আরও খবর



বিএনপি আবারও জঙ্গিবাদের উস্কানি দিচ্ছে ... কাদের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

জঙ্গিবাদের আসল ঠিকানা বিএনপি। তাদের হাতেই আব্দুর রহমান, বাংলা ভাইয়ের সৃষ্টি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার,লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সমাবেশে যোগ দিয়ে তিনি একথা বলেন।

এসময়, বিএনপি আবারও জঙ্গিবাদে উস্কানি দিচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। আদালত প্রাঙ্গণ থেকে জঙ্গি ছিনতাইয়ের ঘটনায়, বিএনপি মহাসচিবের মন্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, জঙ্গি ছিনতাইয়ে কারা জড়িত, অপেক্ষা করলেই জনগণ জানতে পারবে। নতুন করে জঙ্গিবাদ নিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল না করার আহ্বান জানান তিনি। এসময়, রিজার্ভ নিয়ে মির্জা ফখরুল মিথ্যাচার করে জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন ওবায়দুল কাদের। বিএনপি আবার নাশকতা করতে চাইলে আওয়ামী লীগ তা শক্ত হাতে দমন করবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।


আরও খবর



বিদ্যালয়ের জমি বিক্রয়সহ নানা অনিয়মের অভিযোগ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে

প্রকাশিত:বুধবার ০২ নভেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ 

ফুলগাছ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহজাহান আলীর বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠানের জমি বিক্রয় করে অর্থ আত্মসাত, দ্বায়িত্বে অবহেলা সহ নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও তার নিকট তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী তথ্য জানতে চাইলেও তিনি তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

লালমনিরহাট সদর উপজেলার, ১ নং মোগলহাট ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নং ওয়ার্ডে অবস্থিত ফুলগাছ উচ্চ বিদ্যালয়টি। যা ১৯৯৪ সালে স্থাপিত হয়। এ সময় ফুলগাছ এলাকার বাসিন্দা মোঃ জালাল উদ্দিন বিদ্যালয়ের নামে ১১০ শতক জমি কবলা করে দেন। অভিযোগকারীর তথ্য মতে মোঃ জালাল উদ্দিন ১১০ শতক ও মোঃ জহির উদ্দিন ৪০ শতক জমি প্রতিষ্ঠানের নামে কবলা করে দেন। এতে মোট ১৫০ শতক জমি ফুলগাছ উচ্চ বিদ্যালয় ১৯৯৭ সালে ফুলগাছ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নামে খারিজ করেন।

জানা যায় , ফুলগাছ উচ্চ বিদ্যালয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি ১৯৯৯ সালে নিম্ন মাধ্যমিক ও ২০০১ সালে মাধ্যমিক শাখা এমপিও হয়। প্রতিষ্ঠাকালীন প্রধান শিক্ষক হিসেবে দ্বয়িত্ব পালন করেন মোঃ শাহজাহান আলী। সূচনা লগ্ন থেকেই প্রতিষ্ঠানকে নিজস্ব সম্পত্তি মনে করে আসছেন প্রধান শিক্ষক শাহজাহান আলী। তিনি নিজের ইচ্ছেমত সকল কাজ করে আসছেন বলেও বিভিন্ন জনের নিকট তথ্য পাওয়া যায়। তারই ধারাবাহিকতায় বিদ্যালয়ের ১১০ শতক জমি বিক্রয় করে সমুদয় অর্থ আত্মসাত করেন প্রধান শিক্ষক শাহজাহান আলী। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বিদ্যালয়ের নিজস্ব জমিতে বর্তমানে মুরগীর খামার রয়েছে। 

এবিষয়ে প্রধান শিক্ষকের সাথে সাক্ষাত করতে ৪ (চার) দিন স্বশরীরে বিদ্যালয়ে গেলেও তার দেখা পাওয়া যায়নি। বিভিন্ন অজুহাতে তিনি বিদ্যালয়ে থাকেন না। অবশেষে তার বিদ্যালয়ের দ্বায়িত্ব ছেড়ে তিনি বাড়িতে অবস্থানের কারন জানতে চাইলে সহকারি প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম শফি ও সহকারি শিক্ষক দীনেশ চন্দ্র জানান তিনি বাড়িতে বসে বোর্ডের খাতা মূল্যায়ন করতে বাসায় আছেন। সহকারি দীনেশ চন্দ্র আরও বলেন আমরাই প্রধান শিক্ষকের দ্বায়িত্ব পালন করি। তার বিদ্যালয়ে অবস্থান করা নিয়ে জানতে চাইলে স্থানীয় লোকজন জানান তিনি প্রতিদিনই দুপুর ১২ টা বা ১ টা বাজলেই বাড়িতে চলে যান আর আসেন না। মোবাইলে তার নিকট তথ্য জানতে চাইলে তিনি ব্যস্ত আছেন বলে ফোন কেটে দেন। 

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিবের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, জমি বিক্রয়ের বিষয়টি আমার জানা নেই। আমি বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবো।

জেলা শিক্ষা অফিসার জনাব আব্দুল বারি- এর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, জমি বিক্রয়ের বিষয়ে আমার নিকট তথ্যএসেছে, অচিরেই আমি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আরও খবর



৪২ টাকায় চাল, ২৮ টাকা দরে ধান কিনবে সরকার

প্রকাশিত:বুধবার ০২ নভেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

১০ নভেম্বর থেকে সরকারিভাবে ধান ও চাল সংগ্রহ কর্মসূচি শুরু হবে। চলতি আমন মৌসুমে অভ্যন্তরীণ বাজার থেকে আট লাখ টন ধান ও চাল কিনবে সরকার। প্রতি কেজি চাল ৪২ ও ধান ২৮ টাকা দরে কেনা হবে। মঙ্গলবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষে খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। মন্ত্রী বলেন, এ বছর পাঁচ লাখ টন চাল ও তিন লাখ টন ধান সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ হয়েছে। প্রতি কেজি চাল ৪২ টাকা ও ধান ২৮ টাকায় কেনা হবে। 

এর আগে গত বছর আমন মৌসুমে ২৭ টাকা কেজি দরে ধান ও ৪০ টাকা কেজি দরে চাল কিনেছিল সরকার।
ধান ও চালের দাম নির্ধারণে কৃষকের স্বার্থ দেখা হয়েছে কি না জানতে চাইলে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, তিন—চার বছর ধরে মধ্যস্বত্বভোগীদের মাধ্যমে কোনো ধান কেনা হচ্ছে না। যেমন আমরা অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকদের থেকে ধান ক্রয় করি, আবার কৃষকের তালিকা ধরে লটারির মাধ্যমে সংগ্রহ করি। টাকাও সরাসরি তাদের ব্যাংক হিসাবে চলে যায়। এখানে মধ্যস্বত্বভোগীদের কোনো সুযোগ নেই।
বিশ্বজুড়ে খাদ্য সংকট নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, সবকিছু আমাদের মাথায় আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দৃঢ়তার সঙ্গে পরিস্থিতি মোকাবিলা করছেন। আমাদের প্রস্তুতি আছে। বাংলাদেশে খাদ্যসংকট হবে বলে মনে করি না।
ওএমএসের আটায় আট টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে কি না এ বিষয়ে সাধন চন্দ্র বলেন, এমন কোনো প্রস্তাব হয়নি। বৃদ্ধিও করা হয়নি। প্রতি কেজি আটার দাম ১৮ টাকাই আছে। সরকারি আটার দাম না বাড়ানোর কারণ হলো, অন্ততপক্ষে যারা নিম্ন আয়ের তাদের জন্য এটা সহায়ক হবে।
আমনের লক্ষ্যমাত্রা ও উৎপাদন পরিস্থিতি নিয়ে কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমন আমাদের একটা বড় ফসল। এখন অবশ্য বোরো অনেক বেশি হয়েছে। দুই কোটি টন বা তার বেশি বোরো হয়। আমন হয় এক কোটি ৫০ টনের মতো। এ বছর শ্রাবণ মাসে একদিন বৃষ্টি হয়েছে। আমরা এটি নিয়ে খুবই উৎকণ্ঠার মধ্যে ছিলাম। প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে সবাই চিন্তিত ছিলাম যে ধান লাগানো যাচ্ছে না। আমন হলো ফটোসেনথেটিক। দিন ছোট হয়ে এলে আমন ধানে ফুল এসে যায়, ফুল আসলেই উৎপাদন কমে যায়। ধান বড় হতে পারে না। কিন্তু একদম শেষ দিকে কৃষকরা সেচ নিয়ে নানাভাবে মোটামুটি চাষ করেছেন।


আরও খবর



চনপাড়া পূনর্বাসন কেন্দ্রের মাদক সম্রাট ইউপি সদস্য বজলুর গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের চনপাড়া পূনর্বাসন কেন্দ্রের মাদক সম্রাট হিসেবে পরিচিত ইউপি সদস্য বজলুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। শুক্রবার বিকেলে তাকে পূর্বগ্রাম থেকে র‌্যাব-১-এর একটি দল তাকে গ্রেপ্তার করে। 

র‌্যাব–১–এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবদুল্লাহ আল মোমেন  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গত ২৭ সেপ্টেম্বর রাতে র‌্যাবের উপর হামলার ঘটনায় করা একটি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এবিষয়ে পরে বিস্তারিত জানানো হবে। 

বজলুর রহমান চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্রের ৬ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার নাদের বক্সের ছেলে। পুলিশের হিসাবে তিনি হত্যাসহ অন্তত ১০টি মামলার আসামি। তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশ ও র‌্যাবের ওপর হামলার অভিযোগও রয়েছে। স্থানীয়ভাবে তাকে চনপাড়া পুসর্বাসন কেন্দ্রের অপরাধ সাম্রাজ্যের নিয়ন্ত্রক হিসেবে পরিচিত তিনি।


আরও খবর