Logo
শিরোনাম
লালমনিরহাট আদিতমারিতে যৌতুকের জন্য

ছোটভাইয়ের স্ত্রীকে নির্যাতন বাড়ী থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত:Friday ২৫ November ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ 

লালমনিরহাট আদিতমারি থানার ভাদাই টাউরাশের বাজার নামক এলাকায় সদ্য বিবাহিত ছোটভাইয়ের স্ত্রীকে নির্যাতন করে বাড়ী থেকে বের করে ওই এলাকার চেয়ারম্যান কৃষ্ণ কান্ত রায় বিধুরের সহযোগিতায় ওই নববধূকে প্রথমে  জোড় পূর্বক ভাদাই ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসেন৷ এবং হুমকি প্রদান করার অভিযোগ উঠছে।  

অভিযোগ এও উঠছে যে, লালমনিরহাট সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মচারী অশোক দীর্ঘদিন ধরে লালমনিরহাট সদরের নবীনটারি রাধা নগরের মানসিক ভারসাম্যহীন সুনিল চন্দ্র রায়ের একমাত্র কন্যা নমিতার সাথে প্রেমের সম্পর্কে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয়। পরে অশোকের বড়ভাই গোপাল মেয়ের বাপ ও প্রতিবেশীদের উপস্থিতিতে ২০লাখ টাকা যৌতুক হিসেবে দাবি জানায়। 


এ বিষয়ে টাকা দিতে অসম্মতি জানালে অশোক পারিবারিক ভাবে মিমাংসা করে তার স্ত্রী নমিতাকে তার বাড়ীতে নিয়ে যাবার কথা বলে তালবাহানা শুরু করলে অদ্য ২৫ নভেম্বর সকালে নমিতা অশোকের বাড়ীতে যায়। অশোক তার বড়ভাইয়ের বেধে দেয়া কুড়ি লাখ টাকা যৌতুক না দিলে কয়েকজন কুচক্রী মহলের ইন্ধনে বিবাহিত স্ত্রীকে গ্রহন করতে অসম্মতি জানায়। 

উক্ত নারী তার স্বামীর স্বীকৃতি ও  অধিকার আদায় করতে চান।  

তাতেও বাঁধ সাজে গোপাল সহ কয়েকজন কুচক্রী মহল।  খবর দেয় আদিতমারি থানা পুলিশকে।  উক্ত বিষয়ে ওই থানার ওসি মোক্তারুল ইসলামের সাথে একাধিকবার মুঠো ফোনে কথা বলার চেষ্টা করলে তিনি এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত ফোন রিসিভ না করাশ তার মতামত পাওয়া যায়নি।


আরও খবর



দশমিনায় ইসলামী ছাত্র আন্দোলনের থানা সম্মেলন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

মোঃ নাঈম হোসাইন ,দশমিনা(পটুয়াখালী) :

ভারসাম্যপূর্ন অর্থনীতি, কল্যাণমুখি রাজনীতি এবং ইনসাফপূর্ন রাষ্ট্র ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠায় নীতির পরিবর্তন চাই স্লোগানে পটুয়াখালীর দশমিনায় ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ উপজেলা শাখার আয়োজনে থানা সম্মেলন করেছেন। শনিবার বেলা ১১টায় উপজেলা ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন কেন্দ্রীয় কেরাতুল কোরআন মাদ্রাসা অডিটোরিয়ামে-এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা ইসলামী ছাত্র আন্দোলন উপজেলা শাখার সভাপতি মুহা. ইমাম হোসেন খান'র সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মো. আব্দুল কাইয়ুম এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী ছাত্র আন্দোলন পটুয়াখালী জেলা শাখার সভাপতি মুহাম্মদ ইমাম হোসেন। বিষেশ অতিথি ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দশমিনা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব মুজিবুর রহমান, বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির  থানা শাখার সভাপতি মুহাম্মাদ কবির আলম, ঢাকা যাত্রাবাড়ি বড় মাদ্রাসার সাবেক সভাপতি মো. রবিউল ইসলাম মাহামুধীসহ আরো অনেকে। 


আরও খবর



টানা ৭ দিন বায়ু দূষণের শীর্ষে ঢাকা

প্রকাশিত:Monday ৩০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

টানা সাতদিন বায়ু দূষণের শীর্ষে রাজধানী ঢাকা। যানবাহনের কালো ধোঁয়া ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ধুলায় ঢাকা পড়ছে রাজধানীর আকাশ। গাড়ির কালো ধোঁয়া নিয়ন্ত্রণে কার্যকর উদ্যোগ নেই। প্রকল্পে দূষণ কমানোর জন্য অর্থ বরাদ্দ থাকলেও নেই নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা। এনিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে বন ও পরিবেশমন্ত্রী আশ্বস্ত করলেন যে, দূষণ নিয়ন্ত্রণে কাজ চলছে।

কুয়াশাচ্ছন্ন রাজধানীর আকাশ। তবে আসলে এটি শীতের কুয়াশা নয়। বরং গাড়ির কালো ধোয়া ও ধুলার কারনেই আকাশে তৈরী হয়েছে কুয়াসার মতো আবরন।

কালো ধোয়া ছড়ানো গাড়ির চলাচলে আইনে নিষিদ্ধ হয়েছে অনেক আগেই। কিন্তু এখনও রাজধানীর গণপরিহনে কালো ধোয়ার দাপট। প্রতিদিন আইন শৃংখলা রক্ষাকারি বাহিনীর সামনেই রাস্তায় চলছে বায়ু দূষণকারি এসব পরিবহন।

বিএসটিআই মান অনুযায়ী দেশের গণপরিবহণ ও ট্রাকে ব্যবহৃত ডিজেলে সালফারের পরিমাণ থাকার কথা ৫০ পিপিএম। কিন্তু বাস্তবে তা দু’শ থেকে তিন’শ পিপিএম। বায়ু দূষণের অন্যতম উপাদান এই সালফার।

রাজধানী জুড়ে চলছে নানা রকম উন্নয়ন কর্মকাণ্ড। দূষণ রোধে প্রতিটি প্রকল্পেই আছে অর্থ বরাদ্দ। কিন্তু সেই অর্থ প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা কতোটা ব্যয় করেন; তা নিয়েও নেই কোন নজরদারি। কিন্তু পরিণতিটা ভোগ করতে হচ্ছে নগরবাসিবে। বাতাসে ভাসা দূষিত সুক্ষ বা অতি সুক্ষ কণা রক্তের সাথে মিশে পৌছে যাচ্ছে মানুষের মস্তিকে। ফলাফল শ্বাস কষ্ট, উচ্চ রক্ত চাপ, কিডনী, বা হৃদরোগ।

আন্তর্জাতিক জরিপে টানা গেলো সাতদিন ধরে দেশের বায়ুর বিশ্বের সবচে দূষিত বলে উঠে আসছে। যা নিয়ে দু:খ প্রকাশ করে বন ও পরিবেশমন্ত্রী বলেছেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে নোটিশ দেয়া হয়েছে কিন্তু কাজ হচ্ছে না। এই অবস্থা থেকে বের হয়ে আসাকে কঠিন চ্যালেঞ্জ বলে স্বীকার করলেন মন্ত্রী। 


আরও খবর



স্ট্রোকের বিশ্বমানের চিকিৎসা হচ্ছে দেশেই

প্রকাশিত:Wednesday ০১ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

রোকসানা মনোয়ার :স্ট্রোক একটি ঘাতক ব্যাধি। প্রতি বছর প্রায় দেড় কোটি মানুষ এ রোগের আক্রান্ত হন। এর মধ্যে মারা যান অর্ধ কোটি মানুষ আর অর্ধ কোটি পঙ্গুত্ব বরণ করেন। বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর দ্বিতীয় কারণ এটি। মারা যাওয়াদের দুই-তৃতীয়াংশ আমাদের মত দেশে ঘটে। দিন দিন স্ট্রোক আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

গবেষণায় দেখা গেছে ২০৫০ সালের মধ্যে এ হার প্রায় ৮০ গুন বেড়ে যাবে। বাংলাদেশেও এ হার কিন্তু কম নয়। গবেষণায় দেখা গেছে দেশে প্রতি ১ হাজার জনে প্রায় ১২ জন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। ঘাতক এ ব্যাধি থেকে বেঁচে থাকতে সচেতনতার বিকল্প নেই।

স্ট্রোক নিয়ে জাতীয় স্ট্রোক কনফারেন্সের আয়োজন করে বাংলাদেশ সোসাইটি অব স্ট্রোক ও নিউরোইন্টারভেনশন (বিএসএসএনআই)। কনফারেন্সে প্রধান অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক শারফুদ্দিন আহমেদ। সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রখ্যাত নিউরোলজিস্ট অধ্যাপক কাজী দীন মোহাম্মদ, অধ্যাপক আনোয়ার উল্লাহ, অধ্যাপক ফিরোজ আহম্মেদ কোরাইশি, অধ্যাপক মো. বদরুল আলম ও অধ্যাপক আবু নাসার রিজভী।

উপাচার্য অধ্যাপক শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, স্ট্রোকের চিকিৎসা যত দ্রুত করা সম্ভব তত ফলাফল ভালো হয়। স্ট্রোকের চিকিৎসায় দেরি করলে উন্নতি হওয়ার সম্ভবনা কমে যায়। তাই দেরি না করে দ্রুত হাসপাতালে নিতে হবে। জাতীয় পর্যায়ের একজন নেতা স্ট্রোকের তিন ঘণ্টার মধ্যে বিএসএমএমইউ-তে আসলে তাকে স্ট্রোকের আধুনিক চিকিৎসা দেয়া হয়। সাত দিন পরই তিনি হেঁটে বাড়ি চলে যান।

বাংলাদেশ সোসাইটি অব স্ট্রোক ও নিউরোইন্টারভেনশনের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক কাজী মহিবুর রহমান বলেন, আমাদের দেশে স্ট্রোক রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। স্ট্রোকের আধুনিক সব চিকিৎসা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স (নিনস) হাসপাতালে হচ্ছে। সরকারি ভাবে অনেক কম খরচেই স্ট্রোকের সব আধুনিক চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ সোসাইটি অব স্ট্রোক ও নিউরোইন্টারভেনশনের উপদেষ্টা অধ্যাপক শরীফ উদ্দিন খান বলেন, বাংলাদেশে সরকারিভাবে একমাত্র নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে নিয়মিতভাবে আইভি থ্রোম্বলাইসিস করা হচ্ছে। শুধু তাই নয় এ হাসপাতালের ইন্টারভেনশনাল নিউরোলজি বিভাগ স্ট্রোকের অত্যাধুনিক চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছে। তিনি ঢাকার বাইরের মেডিকেল কলেজগুলোকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

সোসাইটি অব নিউরোলজিস্ট অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ফিরোজ আহম্মেদ কোরাইশি, স্ট্রোকের আধুনিক চিকিৎসা আইভি থ্রোম্বলাইসিস জেলা পর্যায়ে ছড়িয়ে দিতে ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের আহবান জানান।

নিউরোসায়েন্সস হাসপাতালের যুগ্ম- পরিচালক অধ্যাপক বদরুল আলম মন্ডল বলেন, নিউরোসায়েন্স হাসপাতাল স্ট্রোক চিকিৎসায় দিকপালের কাজ করছে। স্ট্রোকের অত্যাধুনিক চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছে এটি।


আরও খবর



গজারিয়ায় যুব মহিলা লীগের পক্ষ থেকে শীতবস্ত্র বিতরণ

প্রকাশিত:Saturday ২৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

গজারিয়া প্রতিনিধি :


গজারিয়া উপজেলা আওয়ামী যুব মহিলা লীগের পক্ষ থেকে শীতার্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল শনিবার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক, জাতীয় সংসদ সদস্য, আধুনিক মুন্সীগঞ্জের রুপকার, মুন্সীগঞ্জের মাটি ও মানুষের নেতা এ্যাড. মৃণাল কান্তি দাস। প্রধান পৃষ্ঠপোষক মো. রেফায়েত উল্লাহ খাঁন তোতা (সিআইপি),  সাবেক চেয়ারম্যান গজারিয়া উপজেলা পরিষদ। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইঞ্জিন সাহিদ মোঃ লিটন, চেয়ারম্যান ভবেরচর ইউনিয়ন পরিষদ, ইমামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মোঃ হাফিজুজ্জামান খাঁন জিতু প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, অধ্যাপিকা ফরিদা ইয়াসমিন, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আহবায়ক, আওয়ামী যুব মহিলা লীগ গজারিয়া উপজেলা। এসময় প্রধান অতিথি গরীব ও অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল তুলে দেন। 


আরও খবর



নওগাঁয় সারে ৬ হাজার শিক্ষার্থী পেলো শিক্ষা উপকরণ

প্রকাশিত:Wednesday ০১ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

এফবিসিসিআই এর পরিচালক, নওগাঁ চেম্বার অব কর্মাস এ্যান্ড ইন্ড্রাষ্টিজের সভাপতি ও ইথেন এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড এর কর্ণধার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল এর ব্যক্তিগত উদ্যোগে পৌর এলাকায় ৩২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সারে ৬ হাজার শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে নওগাঁ শহরের বোয়ালিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শিক্ষা উপকরন বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, নওগাঁ জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান পিএএ। অনুষ্ঠানে বোয়ালিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুলতানা সাবিনা সিদ্দিকার সভাপতিত্বে ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির রহমান রিজভীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই এর পরিচালক ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সিদ্দীক মোহাম্মদ ইউসুফ রেজা, সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ওয়াহেদুল্লাহ প্রমূখ। 

ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীর হাতে বই তুলে দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। বর্তমান সরকারের অনন্য উদ্যোগে শিক্ষায় জাতি এগিয়ে যাচ্ছে। সেই গতি আরো তরান্বিত করতে জেলা শহরের পৌর এলাকার সবগুলো প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকল শিক্ষার্থীর মাঝে দুটি করে খাতা ও কলম বিতরণ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামীতেও এই ধরনের কর্মকান্ড অব্যাহত রাখা হবে। প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান বলেন, মানবিক গুনাবলীর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। ২০৪১ সালের মধ্যে একটি সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়তে আজকের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাই আজকের শিশুদের সঠিকভাবে গড়ে তুলতে পারলে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে বর্তমান সরকারের গৃহিত মিশন ও ভিশন বাস্তবায়ন করতে অনেক সহজতর হবে। তাই সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগেও এই ধরনের কল্যাণকর কর্মকান্ড আরো বেশি বেশি সম্পাদন করার প্রতি তিনি আহবান জানান। পরে প্রধান অতিথি শিক্ষার্থীদের হাতে শিক্ষা উপকরণ হিসেবে দুটি করে খাতা ও কলম তুলে দেন।


আরও খবর