Logo
শিরোনাম

ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের প্রতিবাদে মধ্যরাতে মহাসড়ক অবরোধ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

আশুলিয়ায় ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের প্রতিবাদে আবারও নবীনগর-চন্দ্রা সড়ক চার ঘন্টা অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে স্থানীয়রা। এসময় সড়কের দুপাশে দেখা দেয় তীব্র যানজট। পরে পুলিশ ও জনপ্রতিনিধির দেওয়া আশ্বাসের পর সড়ক থেকে সরে যায় তারা।

সোমবার রাত নয়টার দিকে একটি মোটরসাইকেল আরোহীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন ডাকাতরা। এর আগে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার একইভাবে ডাকাত চক্ররা আরও দুই মোটরসাইকেল আরোহীকে অপহরণ করে জঙ্গলে নিয়ে নির্যাতন করে সর্বস্ব কেড়ে নেয়। শুধু এ কয়েক দিনই নয় প্রতিনিয়ত এমন ঘটনাই ঘটছে। এমন ঘটনা বন্ধের দাবিতে রাতে স্থানীয়রা নবীনগর-চন্দ্রা সড়কে নেমে বিক্ষোভ করেন।

পরে সড়ক অবরোধের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বিক্ষোভকারীদের সড়ক থেকে সড়াতে চেষ্টা করেন। কিন্তু সড়ক পথে বাতি ও সড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ অব্যাহত রাখে স্থানীয়রা।

নাম প্রকাশ না করার অনুরোধে একাধিক ব্যাক্তি অভিযোগ করে বলেন, স্থানটিতে অনেক নারীর সম্ভ্রম হারাতে হয়েছে। এক সদস্যকে স্থানীয়রা আটক করে গণপিটুনি দিলে মামলার ভয় দেখিয়ে উল্টো পুলিশ কয়েকজনের কাজ থেকে জরিমানা আদায় করেন।
এদিকে চার ঘণ্টা সড়ক অবরোধ থাকায় নবীনগর-চন্দ্রা সড়কের দুই পাশে প্রায় ১০ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পড়েন সড়কে চলাচলরত যাত্রীরা।


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২




গজারিয়ায় অবৈধ গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

গজারিয়া প্রতিনিধি : মুন্সগঞ্জের গজারিয়ায় ছয় কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। লাইনটির মাধ্যমে প্রায় দশ হাজার অবৈধ সংযোগ চলতো বলে তিতাসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। 

গজারিয়া উপজেলার লস্করদী-ভবানীপুর এলাকা থেকে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গজারিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) জি.এম. রাশেদুল ইসলাম।

তিতাস গ্যাসের সোনারগাঁ আঞ্চলিক বিপণন বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সুরুজ আলম বলেন, গজারিয়া উপজেলার লস্করদী-ভবানীপুর এলাকার হোসেন্দী, হোসেন্দী বাজার এলাকা, ভবানীপুর, লস্করদী, নাজির চর গ্রাম পর্যন্ত প্রায় ছয় কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস বিতরণ লাইন বিচ্ছিন্ন করা হয়। লাইনটির মাধ্যমে অন্তত ১০ হাজার সংযোগ চালু ছিল। গজারিয়া উপজেলায় আরো কিছু অবৈধ গ্যাস লাইন চালু আছে বলে আমরা খবর পেয়েছি। পর্যায়ক্রমে অভিযান পরিচালনা করে সবগুলো লাইন বিচ্ছিন্ন করা হবে।

উল্ল্যেখ গজারিয়ার প্রায় প্রতিটি গ্রামে অবৈধ গ্যাস লাইনের ছড়াছড়ি ,তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ এর আগেও বেশ কয়েকবার

সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে গেলে মধ্য বাউশিয়া, লক্ষিপুর সহ বিভিন্ন গ্রামের মহিলা পুরুষ রাস্তায় নেমে অরাজগতা সৃষ্টি করে ।

আর এর সাথে সরকারি দলের নেতারা জড়িত ।


আরও খবর



নওগাঁয় হত্যা মামলায় ১০ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ


নওগাঁয় গভীর নলকুপ নিয়ে বিবাদে উজ্জল হোসেন হত্যা মামলায় ৫ সহোদর সহ ১০ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে বিজ্ঞ আদালত। এছাড়া প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরো দু' বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। এসময় আসামীরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বুধবার ২৩ নভেম্বর দুপুর ১২টায় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালত এর বিচারক ফেরদৌস ওয়াহিদ এ রায় প্রদান করেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলে, অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট আব্দুল বাকী এবং আসামীপক্ষের আইনজীবী ছিলেন, অ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ-২।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার সারঙ্গপাড়া মৌজায় সমবায় অফিস থেকে নিবন্ধিত গভীর নলকুপ পরিচালনা করতেন দূর্গাপুর গ্রামের নিহত উজ্জল হোসেন এর চাচা সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম। ২০১৩ ইং সালে ৯ মে ঐ নলকুপকে কেন্দ্র করে পূর্ব শত্রুতার জেরে নলকূপটি দখলে নেওয়ার জন্য দূর্গাপুর গ্রামের কামরুজ্জামান, ওয়াহেদ আলী, সামসুজ্জামান, রকেট, ডাবলু, আব্দুল হামিদ, এনামুল, মোশারফ হোসেন, বজলুর রহমান, এমদাদুল হক, কারিমা বেগম, জলি আক্তার এবং জয়পুরহাট জেলার বাঁশকাটা গ্রামের মোছা. জীবন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে নলকুপ ঘড়ের দরজার তালা ভেঙে তারা ভেতরে প্রবেশ করে কৃষকদের কাছ থেকে টাকা আদায়ের রশিদ ছিড়ে ফেলেন এবং বাক্সে রাখা কৃষকদের নিকট থেকে আদায়কৃত ১৭ হাজার ৫শ' টাকা নিয়ে যাওয়ার সময় উজ্জল হোসেন সহ কয়েকজন বাঁধা দিলে লাঠিসোটা ও লোহার রড দিয়ে মারপিট সহ মরিচের গুড়া মেশানো গরম পানি ছিটিয়ে দিলে উজ্জলের শরীর "পেটের বামপাশে" ঝলসে যায়। উজ্জল গুরুত্বর আহত হলে তাকে উদ্ধার করে বদলগাছী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরবর্তীতে রাজশাহী মেকিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে পরদিন মারা যান উজ্জল।

এঘটনায় নিহতের চাচা মাজহারুল ইসলাম বাদী হয়ে ১৩ জনকে আসামী করে থানায় মামলা করেন। মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিত্বে ১০ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড রায় দেয় আদালত। এছাড়া প্রত্যেক ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো দু' বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন আদালত। তবে মামলায় ৩ জন নারীর কোন সম্পৃক্ততা না থাকায় ঐ ৩ জন নারীকে বেকসুর খালাস দেয় আদালত।

ন্যায় বিচারে আদালতের প্রতি সন্তুষ্ট প্রকাশ করে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল বাকী জানান, দেশে যে ন্যায় বিচার আছে তা এই রায়ের মাধ্যমে আবারও প্রমাণিত হয়েছে।

অপরদিকে, আসামী পক্ষের আইনজীবী মামুনুর রশিদ-২ বলেন, এ মামলায় আমাদের বিপক্ষে যারা স্বাক্ষ্য প্রদান করেছেন তাদের প্রত্যেকের সাক্ষী হিসেবে জবানমন্দী ও জেরা এবং পুঙ্খানু-পুঙ্খ বিশ্লেষণে অবশ্যই আসামীদের বিপক্ষে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়নি। তারপরও আসামীদের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। এতে করে আমরা ক্ষুদ্ধ, খুন্ন ও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি। আমরা এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবে। 


আরও খবর



নওগাঁয় গৃহবধূ'র মৃত্যু, স্বামী সহ পরিবারের লোকজন পলাতক

প্রকাশিত:সোমবার ২১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ


নওগাঁয় মাত্র দু' বছর বয়সি এক শিশু সন্তানের মা গৃহবধূ'র মৃত্যু, স্বামী সহ পালিয়েছে পরিবারের লোকজন। মৃত্যু বরণকারী গৃহবধূ রিমা আক্তার রুমা (২১)

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার

দক্ষিণ আন্ধারকোঠা গ্রামের সুমন এর স্ত্রী। তাদের রিমন হোসেন নামে মাত্র দু' বছর বয়সি এক ছেলে সন্তান রয়েছে। এঘটনায় গৃহবধূ রিমা আক্তার রুমা'র বাবা বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, শুক্রবার ১১ নভেম্বর সন্ধার পর গৃহবধূ রিমা আক্তার রুমাকে গুরুতর অবস্থায় তার স্বামী সহ স্বামীর বাড়ির স্বজনরা নওগাঁ ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক রিমা আক্তার রুমাকে মৃত ঘোষনা করে বলেন হাসপাতালে নেওয়ার পূর্বে তার মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর বিষয় জানার পরই গৃহবধূ রিমা আক্তার রুমা'র মৃতদেহ হাসপাতালে রেখেই হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান তার স্বামীসহ স্বজনরা। এক পর্যায়ে মেয়ে হাসপাতালে আছেন এমন খবর পেয়ে নওগাঁ সদর উপজেলার কুমুরিয়া গ্রাম থেকে হাসপাতালে ছুটে আসেন রিমা আক্তার রিমা'র বাবা মা সহ স্বজনরা। হাসপাতালে এসে তারা তাদের মেয়েকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। স্বজনদের অভিযোগ যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ রিমা আক্তার রুমাকে তার স্বামী শ্বশুর ও শাশুড়ি মাঝে মাঝেই নির্যাতন করতো। এসময় তারা অভিযোগ করেন, রিমা আক্তার রুমাকে মারপিট 'নির্যাতন' করে মারার পর গলায় ওড়না'র ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রেখে এবং পরবর্তীতে হাসপাতালে এনে ঘটনাটি ভিন্ন খাতে নিতে অপচেষ্টা করেছে তার স্বামী, শ্বশুর সহ স্বজনরা।

গৃহবধূ রিমা আক্তার রুমার স্বামীর বাড়ি দক্ষিন আন্ধারকোঠা গ্রামের বেশ কয়েক জন তাদের নাম-পরিচয় গোপন রাখার শর্তে প্রতিবেদককে জানান, রিমা আক্তার রুমার স্বামী সুমন একজন মাদক সেবি। সে মাঝে মাঝেই তার স্ত্রীকে মারপিট করতো, এমনকি ঘটনার দিনও হাসপাতালে নেওয়ার পূর্বেও তাকে মারপিট করা হয় জানিয়ে তারা বলেন, প্রশাসন তদন্ত করলে সত্য ঘটনা উদর্ঘাটন হবে।

অপরদিকে হত্যার অভিযোগ অস্বিকার করে নিহত গৃহবধূ রিমা আক্তার রুমা'র চাচা শ্বশুর দক্ষিন আন্ধারকোঠা গ্রামের হারুন অর রশিদ (৪৫) প্রতিবেদক কে জানান, ঘটনার দিন বা সময় তার ভাইস্তা বউ নিজ শয়ন ঘড়ের ভেতর ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে ঝুলছিলো, দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এসময় প্রতিবেশি নারী সহ অপর একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ঘটনার দিন স্বামী-স্ত্রী বিবাদের এক পর্যায়ে রিমা আক্তার রুমাকে তার স্বামী নির্যাতন করেন। এর পরই তারা হৈ চৈ করেন এবং হাসপাতালে নিয়ে যান।

এঘটনায় ঐ দিন রাতেই রিমা আক্তার রুমার বাবা ইলিয়াস কবিরাজ বাদী হয়ে মহাদেবপুর থানায় রিমা আক্তার রুমার স্বামী সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এস আই জিয়াউর রহমান জানান, তদন্ত পূর্বক জড়ীতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



ইউক্রেনে আবারো রুশ মিসাইল বৃষ্টি

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

রাজধানী কিয়েভসহ ইউক্রেনজুড়ে আবারো ভয়াবহ মিসাইল হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। বিদ্যুৎ এবং পানি সংকটে রাজধানীর বাসিন্দারা। সোমবার কিয়েভে অন্তত দুটি মিসাইল হামলা হয়েছে। হামলার শিকার খারকিভের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। রুশ নৌবহরে হামলার পর বৃহৎ আকারে এ হামলা চালালো মস্কো।

এদিকে, রুশ গণমাধ্যমের খবর, ইউক্রেনের জাপোরিঝঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের পাশে আবারো গোলাগুলি শুরু করেছে ইউক্রেনের বাহিনী। তবে সেখানকার পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রণের মধ্য রয়েছে। এদিকে, পূর্বাঞ্চলীয় দোনেৎস্ক অঞ্চলে রুশ বাহিনীর ভয়াবহ হামলা প্রতিহত করেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী। রবিবার দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এ দাবি করেছেন। বর্তমানে দোনেৎস্কের বাখমুত এবং আভদিভকা শহরে দু'পক্ষের মধ্য তীব্র লড়াই চলছে। এছাড়া, শনিবার কৃষ্ণ সাগরে রুশ নৌবহরে হামলায় মস্কোর ফ্ল্যাগশিপ জাহাজ অ্যাডমিরাল মাকারোভ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ওইদিন তিনটি জাহাজ ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে গার্ডিয়ান।


আরও খবর

থাইল্যান্ডে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ

মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২

হেরে গেলেন মাহাথির

রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22




হেমন্তের প্রাণ নবান্ন উৎসব আজ

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শুরু হয়েছে নতুন ফসল ঘরে তোলার মাস অগ্রহায়ণ। হেমন্তের প্রাণ নবান্ন উৎসবে, এবারো নানা আয়োজন শিল্পকলা একাডেমিতে। গান, নাচ আর কবিতায় তুলে ধরা হয়েছে গ্রাম বাংলার নতুন ফসল ঘরে তোলার সংস্কৃতি।

এসো মিলি সবে নবান্নের উৎসবে, এই শ্লোগানে, সকাল সাড়ে ৭টায় শুরু হয় উৎসব। বাঁশির সুরে শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বাঙালির ঐতিহ্য আর শিকড় সন্ধানে কৃষকের ধানকাটা ও ফসল ঘরে তোলার এই উৎসব প্রতি বছর উদযাপন করে জাতীয় নবান্নোৎসব উদযাপন পর্ষদ। অনুষ্ঠানে নবান্ন কথন ছাড়াও থাকছে দলীয় নৃত্য, আবৃত্তি, সম্মেলক গান, রবীন্দ্র সঙ্গীত, লালন গীতি, আদিবাসী গান এবং নজরুল সঙ্গীতের পরিবেশনা। এছাড়াও রয়েছে নতুন ধানের খই, মুড়ি-মুড়কি ও পিঠা-পুলির আয়োজন।


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২