Logo
শিরোনাম
শবে বরাত পালন মুসলিম জাতিকে একতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ করে। ৫৭ তম খোশরোজ শরীফ ও মইনীয়া যুব ফোরামের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন বাঙালি সাংস্কৃতিতে মাইজভাণ্ডারী ত্বরীকার সাথে সম্পর্ক রয়েছে সীমান্তে হত্যা বন্ধের দাবীতে প্রতীকী লাশ নিয়ে হানিফ বাংলাদেশীর মিছিল লক্ষ্মীপুরে কৃষক কাশেম হত্যা: স্ত্রী, শ্বশুরসহ গ্রেপ্তার ৫ কুমিল্লা সিটি’র উপনির্বাচন: মেয়র পদে প্রতীক বরাদ্দ অবৈধ মজুদকারীরা দেশের শত্রু : খাদ্যমন্ত্রী ফতুল্লায় সিগারেট খাওয়ার প্রতিবাদ করায় কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা বকশীগঞ্জে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা নোবিপ্রবিতে সিএসটিই এলামনাই এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠন

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায়

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

দেশের উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় বুধবার (০৬ ডিসেম্বর) দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরেই জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হচ্ছে। কমতে শুরু করেছে রাতের তাপমাত্রা। দিনের তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকলেও সন্ধ্যা নামলেই উত্তর হিমালয় দিকে থেকে বয়ে আসা হিমেল হাওয়ায় শীত অনুভূত হয়।

৬ ডিসেম্বর সকাল ৯টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায় ১৪ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল মঙ্গলবার রেকর্ড করা হয়েছে ১৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস আর সোমবার রেকর্ড হয়েছে ১৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী নভেম্বর থেকে উত্তরের পঞ্চগড় জেলার সীমান্তবর্তী উপজেলা তেঁতুলিয়ায় শীত পড়তে শুরু করেছে। তাপমাত্রা বর্তমানে ১৪-১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রেকর্ড হচ্ছে। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ে শীতের প্রকোপ।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সীতাকুণ্ড ও সন্দ্বীপে ৩১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ ছাড়া ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩০.৩ রাজশাহীতে ৩০.০, রংপুরে ২৯.৫, ময়মনসিংহে ২৮.৫, সিলেটে ২৯.৫, চট্টগ্রামে ৩০.৫, খুলনায় ২৮.০ ও বরিশালে ২৮.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাশেল শাহ্ জানান, জেলায় একটু একটু করে শীত বাড়ছে। প্রতিদিনই তাপমাত্রা ওঠানামা করছে। তিনি জানান, আজ বুধবার (৬ ডিসেম্বর) সকাল ৯টায় তেঁতুলিয়ায় ১৪ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে । যা গতকাল মঙ্গলবার রেকর্ড করা হয়েছে ১৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস আর গত সোমবার রেকর্ড হয়েছে ১৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কিন্তু এবার তেমন কুয়াশা নেই।

 


আরও খবর



মশার উপদ্রবে অতিষ্ঠ মাভাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

মো হৃদয় হোসাইন মাভাবিপ্রবি প্রতিনিধি :

সম্প্রতি মাভাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে মাত্রাতিরিক্ত হারে বেড়েই চলছে মশার উপদ্রব।প্রতিবছরের ন্যায় এবছর ও মশার উপদ্রপের অন্ত নেই।  এতে করে হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিক জীবনযাপন ব্যাহত হচ্ছে ।

মশার উপদ্রব রোধে  সম্মিলিত প্রচেষ্টা জরুরি। কেননা মশার অত‍্যাচারে রীতিমতো অতীষ্ঠ জনজীবন। সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে তাদের অত‍্যাচারের মাত্রা তীব্র হয়ে ওঠে। সন্ধ্যায় কোথাও একটু স্থির হয়ে বসা তো দূরের কথা দাঁড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে মশা নামক এই ক্ষুদে প্রাণীটি তার পরিবারসহ আক্রমণে নামে। শুধু সন্ধ্যা বা রাতে নয় বরং  এদের উপদ্রব এতটাই বৃদ্ধি পেয়েছে যে, দিনের দুপুরেও তাদের ভোঁ ভোঁ শব্দ থেকে রেহাই নেই। মশার মাধ্যমে ডেঙ্গু চিকুনগুনিয়া ছাড়াও ম‍্যলেরিয়া, ফাইলেরিয়া, জিকা, পীতজ্বর ইত্যাদি রোগসহ নানা মারাত্মক রোগে সংক্রমিত হতে পারে। মশার উপদ্রব রোধে ক্যাম্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা জরুরি। বিশেষ করে, হলের আবাসিক এলাকাসহ অনেক জায়গায় নোংরা পরিবেশে এডিস মশার উৎপাত বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে । বিষয়টি  কর্তৃপক্ষের নজরে আসবে বলে প্রত্যাশিত।

ফলে শিক্ষার্থীরা দিনেরবেলা ক্যাম্পাসে  ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিতে গিয়ে দুঃসহ যন্ত্রণার মুখে পড়ছেন।  আর রাতে হলে পড়াশোনা ও ঘুমে ব্যাঘাত ঘটছে। এতে মশার কামড়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন কয়েকজন।

জানা গেছে, হলের আশপাশের এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানের ড্রেনগুলো পরিষ্কার না করা ও ময়লা-আবর্জনার স্তূপ থাকায় মশার প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ ছাড়া প্রতি বছর শীতের শুরু থেকে বিভিন্ন সময় একাধিকবার মশক নিধন অভিযান হয়ে থাকলেও এ বছর তেমন কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। ফলে দিনের পর দিন মশার উপদ্রব বেড়েই চলছে।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত পদক্ষেপ নিবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করছি। এছাড়া শিক্ষার্থীদের উচিত পানি, ময়লা আবর্জনা নির্দিষ্ট স্হানে ফেলা। পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অবলম্বন করা।


আরও খবর



রাণীনগরে পিএফজি’র পরিকল্পনা প্রনয়ন সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :

নওগাঁর রাণীনগরে পিস ফ্যাসিলিটেটর গ্রুপ (পিএফজি)’র সম্মিলিত কার্যক্রম অগ্রগতি পর্যালোচনা ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দি হাঙ্গার প্রজেক্টের সার্বিক সহযোগিতায় পিএফজি’র রাণীনগর উপজেলা কমিটির আয়োজনে সকল বৈধ রাজনৈতিক ও নাগরিক সংগঠনের উপজেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দদের অংশগ্রহণে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায়, সাইবার ক্রাইম, যৌন হয়রানি, বাল্য বিবাহ, মাদক মুক্ত উপজেলা গড়তে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে পুলিশ প্রশাসনের সহয়তায় বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় প্রচার-প্রচরনার মাধ্যমে শান্তি সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যপূর্ণ সমাজ ও রাষ্ট্র নির্মাণে কাজ করার পরিকল্পনা প্রনয়ন করা হয়। 

বুধবার দুপুরে রাণীনগর উপজেলা জাতীয়তাবাদী দলের সাবেক আহবায়ক নজরুল ইসলাম’র সভাপতিত্বে রাণীনগর সদরের বন্ধু রেস্টটুরেন্ট এ্যান্ড ক্যাফে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ওবায়েদ, হিন্দু বৌদ্ধ খিষ্ঠান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রভাষক চন্দন কুমার মহন্ত, সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের পিন্টু, দি হাঙ্গার প্রজেক্টের এরিয়া কো-অডিনেটর আব্দুর রঊফ, ফিল্ড কো-অডিনেটর এনায়েতউল্লাহ, উপজেলা কমিটির কো-অডিনেটর সাইদুজ্জামান সাগর, পিস এম্বাসেডর শামীম হোসেন প্রমূখ।


আরও খবর



ঘাতক ট্রাকের ধাক্কায় সড়কে প্রাণ গেলো ৩ বন্ধুর

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, সিনিয়র রিপোর্টার :

মোটরসাইকেল যোগে নেহরি খেতে যাচ্ছিলেন ৩ জন বন্ধু। যাওয়ার পথে ঘাতক ট্রাকের ধাক্কায় ৩ জন বন্ধুর-ই মর্মান্তিক ভাবে মৃত্যু হয়েছে।

সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ বন্ধুর মৃত্যুর ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দিনগত রাত সারে ৮টারদিকে বগুড়া টু নওগাঁ মহা-সড়কের কাহালু উপজেলার দরগাহাট নামক স্থানে।

নিহত ৩ বন্ধু হলেন, বগুড়া জেলার কাহালু  উপজেলার ছয়ঘরিয়া গ্রামের তরিকুল ইসলাম (২১), রাকিব হোসেন প্রামাণিক (১৮) এবং মিজানুর রহমান মিজান (১৯)। নিহত ৩ বন্ধু কাঠ মিস্ত্রি ছিলেন।

সড়ক দূর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে

কাহালু থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা জানান, তারা ৩ জন বন্ধু একটি মোটরসাইকেল যোগে কাজিপাড়া নামক স্থানে হোটেলে নেহরি খাবারের জন্য যাচ্ছিলেন। পথে দরগাহাট এলাকায় পৌছালে এসময় নওগাঁ অভিমুখি একটি ট্রাক পেছন থেকে তাদের মোটরসাইকেল কে ধাক্কা দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে অজ্ঞাত ট্রাকটি নিয়ে তার চালক পালিয়ে যায়। অপরদিকে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পরে দূর্ঘটনাস্থলেই ৩ বন্ধুর মধ্যে তরিকুল ও রাকিব এর মৃত্যু হয় এবং অপর বন্ধু মিজান কে উদ্ধার পূর্বক বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর রাত ৯ টারদিকে মিজান এর মৃত্যু হয়। সংবাদ সংগ্রহকালে আইনানুগ পক্রিয়া চলমান রয়েছে বলেও জানিয়েছেন থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা l


আরও খবর



বকশীগঞ্জে শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

জামালপুর প্রতিনিধি :

নানা অনিয়ম,দুর্নীতির অভিযোগে জামালপুরের বকশীগঞ্জের পলাশতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আতাবুজ্জামান হেলালের অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে ছাত্রলীগ। বুধবার রাতে উপজেলা ছাত্রলীগ ও সরকারি কিয়ামত উল্লাহ কলেজ ছাত্রলীগ যৌথভাবে তার অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের করে। 

বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিলটি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। মিছিলে এই মুহুর্তে প্রয়োজন হেলালের অপসারণ, হেলালের দুই গালে জুতা মারো তালে তালে’সহ নানা স্লোগান দেয় নেতাকর্মীরা। মিছিলটি দলীয় কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম তালুকদার জুমান,ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান লাল, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক রাজন মিয়া,কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফরহাদ রেজা, পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক সাদ আহমেদ নয়ন,কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক প্রান্ত ও রাশেদুজ্জামান রনি প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। বক্তারা দ্রুত সময়ের মধ্যে সহকারী শিক্ষক আতাবুজ্জামান হেলালের অপসারণ দাবি করেন। 

ভাইস চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম তালুকদার জুমান তার বক্তব্যে বলেন, পলাশতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক খন্দকার আতাবুজ্জামান হেলাল শিক্ষক জাতির কলঙ্ক। তিনি দুর্নীতিবাজ,চরিত্রহীন ও একজন চিহ্নিত দালাল। তার কারনে এই উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষার মান ধ্বংস হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে তাকে অপসারণ না করা হলে লাগাতার কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে।  

সকল অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করে সহকারী শিক্ষক আতাবুজ্জামান হেলাল বলেন, কেনো কি কারনে তার বিরুদ্ধে মিছিল সমাবেশ করেছে ছাত্রলীগ তা তিনি জানেন না।


আরও খবর



বিশ্বে মাথা উঁচু করেই চলতে চাই: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, একুশ আমাদের শিখিয়েছে মাথা নত না করতে। কাজেই আমরা মাথা নত করে নয়, মাথা উঁচু করেই চলব এবং বিশ্ব দরবারে মর্যাদা নিয়ে এগিয়ে যাব।

আজ মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে জাতীয় জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২১ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির মাঝে ‘একুশে পদক-২০২৪’ প্রদানকালে  প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা আমাদের শুধু স্বাধীনতাই দিয়ে যাননি, তিনি আমাদের একটা মর্যাদাবোধ দিয়ে গেছেন। বিজয়ী জাতি হিসেবে সারা বিশ্বে আমরা মাথা উঁচু করেই চলতে চাই। এই কথাটা সকলকে মনে রাখতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতা বলেছিলেন, ‘১৯৫২ সালের আন্দোলন কেবলমাত্র ভাষা আন্দোলনের মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল না। এই আন্দোলন ছিল সামাজিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা আমাদের যে মর্যাদা দিয়ে গিয়েছিলেন সেই মর্যাদাটা ’৭৫ এর পর বাঙালি জাতি হারিয়ে ফেলেছিল। কিন্তু আজকে আমি অন্তত এইটুক দাবি করতে পারি আবার বাঙালি বিশ্বের দরবারে এখন মাথা উঁচু করে চলতে পারে।

সেই মর্যাদা আমরা ফিরিয়ে এনেছি। আর এই মর্যাদা আমাদের সমুন্নত রেখেই আগামীর দিনে এগিয়ে যেতে হবে। তিনি বলেন, কারো কাছে হাত পেতে নয়, ভিক্ষা করে নয়, আমরা আত্মমর্যাদা নিয়ে বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে চলব। কারণ, একুশ আমাদের মাথা নত না করা শিখিয়েছে। কাজেই, আমরা মাথা নত করে নয় মাথা উঁচু করে চলবো। এর আগে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় এবারের একুশে পদক ২০২৪ বিজয়ী ২১ জনের তালিকা প্রকাশ  করে প্রজ্ঞাপন জারি করে। 

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন পদক বিতরণ পর্বটি সঞ্চালনা করেন এবং পদক বিজয়ীদের সাইটেশন পাঠ করেন। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব খলিল আহমদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হাসনা জাহান খানম স্বাগত বক্তৃতা করেন।


আরও খবর