Logo
শিরোনাম

ধামরাই সুয়াপুর ইউনিয়নে ছয়শতাধিক পরিবারের মাঝে টিসিবির পণ্য বিতরণ

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ জুন ২০২৩ | ১৩৭জন দেখেছেন

Image

মাহবুবুল আলম রিপন (স্টাফ রিপোর্টার):

ঢাকার ধামরাই উপজেলার সুয়াপুর ইউনিয়নে ১৫ ই মার্চ বুধবার সকাল ১১ টায় ইউনিয়ন পরিষদের হল রুমে প্রায় ছয় শতাধিক মানুষের মাঝে টিসিবির পণ্য বিতরণ করা হয়।

এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কফিল উদ্দিন তিনিই বলেন সামনে রমজান উপলক্ষে নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে সারাদেশে এই টিসিবির পণ্য বিতরণ করা হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবসময় গরীব অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে বলেই স্বল্প আয়ের মানুষের মাঝে কিভাবে অল্প টাকায় মানুষকে ভালো খাওয়ানো যায় সে চিন্তা করে বলেই ২ লিটার সয়াবিন তেলে,১ কেজি চিনি, ২ কেজি মসুরের ডালও ২ কেজি করে ছোলা দেওয়া হচ্ছে। আওয়ামী লীগ সরকার সবসময় দেশের উন্নয়নে কাজ করে সুয়াপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে।যা অন্য কোন সরকারের আমলে হয়নি, তারপর ও একটা দল আছে তাদের চোখে এই উন্নয়ন চোখে পড়ে না। তাই আগামী সংসদ নির্বাচনে আপনারা অবশ্যই নৌকায় ভোট দিয়ে আবারও দেশের উন্নয়নের অংশীদার হন।তিনি সকলের কাছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া চান বলেন নেত্রী যদি ভালো থাকে ভালো থাকবে দেশ, নেত্রী যদি ভালো থাকে ভালো থাকবো আমরা সাধারণ মানুষ। 

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ৯ নং ওয়ার্ড মেম্বার ওয়াহিদুজ্জামান মোল্লা প্রিন্স,আওয়ামী লীগ নেতা আওলাদ হোসেন সহ উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন ওয়ার্ডের মেম্বার গণ।


আরও খবর



আবারও বাড়ল সয়াবিন তেলের দাম

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ জুন ২০২৩ | ১৫৭জন দেখেছেন

Image

আবারও বাড়ল বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম। লিটারে ১২ টাকা বাড়িয়ে নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯৯ টাকা। তেলের এ দাম নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফেকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন।

বোতলজাত সয়াবিন তেলের এ নতুন দাম কার্যকর করবে ভোজ্যতেল উৎপাদক সমিতি। ভোজ্যতেলের আমদানিতে সরকারের ভ্যাট অব্যাহতির মেয়াদ শেষ হওয়ায় এ দাম নির্ধারণ করেছে সংস্থাটি।

গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন শীর্ষস্থানীয় ভোজ্যতেল বিপণনকারী সিটি গ্রুপের পরিচালক বিশ্বজিৎ সাহা।

নতুন মূল্য অনুযায়ী খোলা সয়াবিন লিটারপ্রতি ১৭৬ টাকা, বোতলজাত সয়াবিন লিটারপ্রতি ১৯৯ টাকা, পাঁচ লিটারের বোতলজাত সয়াবিন তেল ৯৬০ টাকা, পাম সুপার খোলা সয়াবিন তেল লিটারপ্রতি ১৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।


আরও খবর



সরকারের উন্নয়ন-সাফল্যের প্রচারে রাঙ্গাবালীতে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা

প্রকাশিত:শনিবার ২০ মে ২০23 | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ জুন ২০২৩ | ১৯০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)

দেশজুড়ে আওয়ামী লীগ সরকারের ১৪ বছরের উন্নয়ন-সাফল্য প্রচারে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে  লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে।  উপজেলা সদরের বাহেরচর বাজারে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট ড. শামীম আল সাইফুল সোহাগের উদ্যোগে শনিবার বিকেলে এই লিফলেট বিতরণ করা হয়। 

এরআগে গত তিনদিন ধরে উপজেলার ছোটবাইশদিয়া, চরমোন্তাজ, চালিতাবুনিয়া, বড়বাইশদিয়া ও মৌডুবি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাট-বাজারে নেতাকর্মীদের নিয়ে ঘুরে ঘুরে সরকারের উন্নয়ন-সাফল্যের তথ্য তুলে ধরা এ লিফলেট বিতরণ করেছেন তিনি। 

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকার পক্ষে থাকার আহ্বান জানিয়ে প্রচারপত্র হিসেবে দেওয়া ওই লিফলেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে  পদ্মাসেতু নির্মাণ, মহাকাশে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট স্থাপন, সমুদ্র সীমানা বিজয়, কর্নফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ, রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র, রামপাল কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও পায়রা সমুদ্র বন্দর নির্মাণসহ আওয়ামী লীগ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন সাফল্য তুলে ধরা হয়। 

এতে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির তালুকদার, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) রিয়াজ হাওলাদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিলন হাওলাদার, প্রচার সম্পাদক তোতা মিয়া ও অ্যাডভোকেট গাজী তানিম প্রমুখ। 


আরও খবর



ইমরান খান গ্রেপ্তার, উত্তপ্ত পাকিস্তান

প্রকাশিত:বুধবার ১০ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ জুন ২০২৩ | ১২৪জন দেখেছেন

Image

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার ইসলামাবাদ হাইকোর্ট চত্বর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির আধা-সামরিক বাহিনী পাক রেঞ্জার্স।

দেশটির সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গ্রেফতার করেছে রেঞ্জার্স।

আল-কাদির ট্রাস্ট মামলার শুনানিতে অংশ নেওয়ার সময় ইসলামাবাদ হাইকোর্ট চত্বর থেকে পিটিআই চেয়ারম্যানকে হেফাজতে নিয়েছে পাক রেঞ্জার্স। তিনি তার বিরুদ্ধে নথিভুক্ত একাধিক এফআইআরে জামিন চাওয়ার জন্য আদালতে গিয়েছিলেন।

 এ ঘটনায় দেশটির রাজধানী ইসলামাবাদে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। খবর ডনের।

এদিকে ইমরান খানকে নির্যাতন করা হয়েছে এমন অভিযোগ তুলে দেশজুড়ে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে পিটিআই। তবে নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ।

পিটিআইর সহ-সভাপতি ফাওয়াদ চৌধুরী টুইটারে বলেন, ইসলামাবাদ হাইকোর্ট রেঞ্জার্সের দখলে। সেখানে আইনজীবীরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। ইমরান খানের গাড়ি ঘেরাও করা হয়েছে।

ইমরান খানকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে করাচিতে একটি রাস্তা অবরোধ করে পিটিআইয়ের সমর্থকরা। ছবি: এএফপি

পিটিআই নেতা মুসাররাত চিমা টুইটারে এক ভিডিওবার্তায় বলেছেন, তারা (রেঞ্জার্স) এখন ইমরান খানকে নির্যাতন করছে। তারা খান সাহেবকে মারছে। ওরা খান সাহেবের সঙ্গে কিছু করেছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের ভিডিওতে দেখা যায়, ইমরান খানকে গ্রেপ্তার করার পর ইসলামাবাদ হাইকোর্টের সামনে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। সেখানে পিটিআইয়ের কয়েকশ নেতাকর্মী জড়ো হলেপুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ।

পিটিআইয়ের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে শেয়ার করা ভিডিওতে দেখা যায়, বিপুল সংখ্যক রেঞ্জার্স সদস্য ইমরান খানকে ধাক্কাতে ধাক্কাতে দ্রুত গাড়িতে তুলছে। আরেকটি ভিডিওতে তার আইনজীবীকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখা গেছে। দলটি বলেছে, দেশকে রক্ষায় পাকিস্তানের জনগণকে এখনই বেরিয়ে আসতে হবে।

ইসলামাবাদ হাইকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে ইমরান খানকে গ্রেপ্তার করা হয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সাইফুল্লাহ জানিয়েছেন, আধাসামরিক বাহিনী রেঞ্জার্সের সহায়তায় মঙ্গলবার বিকালে ইসলামাবাদ হাইকোর্টের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ইমরানকে বেশ কয়েকবার নোটিশ দেওয়া সত্ত্বেও আদালতে হাজিরা দিতে ব্যর্থ হয়েছেন।

ইমরানকে নির্যাতন করা হয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, জাতীয় কোষাগারের ক্ষতি করার জন্য ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরো তাকে গ্রেপ্তার করেছে।


আরও খবর



বিদেশি কূটনীতিকদের নিরাপত্তায় প্রশিক্ষিত আনসার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ জুন ২০২৩ | ৯১জন দেখেছেন

Image

বাংলাদেশে অবস্থানকারী বিদেশি রাষ্ট্রদূতদের বাইরে চলাচলের ক্ষেত্রে পুলিশের এসকর্ট সুবিধা গত ১৪ মে প্রত্যাহার করে নিয়েছে সরকার। পুলিশের পরিবর্তে তাদের নিরাপত্তায় প্রস্তুত করা হয়েছে আনসারের বিশেষ প্রশিক্ষিত জনবল। তবে এসব আনসার সদস্যের মাধ্যমে নিরাপত্তা নিতে গেলে অর্থ খরচ করতে হবে কূটনীতিকদের। সেক্ষেত্রে জনপ্রতি আনসার সদস্যকে ৩০০ ডলার করে দিতে হবে।

আগে পুলিশি নিরাপত্তার জন্য কোনো অর্থ খরচ করতে হতো না বিদেশি কূটনীতিকদের। মূলত সরকারের পক্ষ থেকে তাদের বিনামূল্যে পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়া হতো। তবে গত ১৪ মে বিদেশি কূটনীতিকদের নিরাপত্তায় সরকার পুলিশের এসকর্ট সুবিধা তুলে নেওয়ায় এখন থেকে অর্থ খরচ করে নিরাপত্তা নিতে হবে তাদের।

বিদেশি কূটনীতিকদের নিরাপত্তার জন্য সরকারের কাছ থেকে গাড়ি নিলে জ্বালানি খরচ ছাড়াও সঙ্গে দিতে হবে আরো এক হাজার ডলার। এছাড়া অন্য কোনো লজিস্টিক সাপোর্ট লাগলে তাও বহন করতে হবে ওই দূতাবাসকেই।

গত ১৭ মে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আনসার ও গ্রামপ্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালকের সঙ্গে বৈঠক করেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন। বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, কূটনীতিকদের আনসার বাহিনী কীভাবে অতিরিক্ত নিরাপত্তা (এসকর্ট) দেবে, সেটি চূড়ান্ত হয়েছে। নোট ভার্বালের (কূটনৈতিক পত্র) মাধ্যমে দূতাবাসগুলোকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও আনসার বাহিনীর সদর দপ্তরের একাধিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দূতাবাসগুলোতে কূটনৈতিকপত্র পৌঁছে গেছে। পত্রে এসকর্ট সুবিধা পেতে হলে যোগাযোগের জন্য পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি ডিরেক্টরের (অপস) ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর দেওয়া হয়েছে। তবে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেননি কোনো বিদেশি কূটনীতিক।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রামপ্রতিরক্ষা বাহিনীর সদর দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দূতাবাসে ছয় বছর নিরাপত্তায় কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে বিশেষভাবে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত আনসার গার্ড ব্যাটালিয়নের (এজিবি)। পর্যাপ্ত অভিজ্ঞ ও প্রশিক্ষিত লোকবল সরবরাহের সক্ষমতাও রয়েছে বাহিনীটির।

১৭ মে বৈঠক শেষে আনসার ও গ্রামপ্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক বলেন, কূটনীতিকদের অতিরিক্ত নিরাপত্তা দিতে প্রস্তুত আছে আনসার বাহিনী। তবে এখন পর্যন্ত ঢাকায় অবস্থিত কোনো বিদেশি দূতাবাস থেকে কূটনীতিক নিরাপত্তার জন্য আনসারের এসকর্ট সুবিধা পেতে আনুষ্ঠানিক আগ্রহ দেখানো হয়নি, এমনকি জানানো হয়নি লিখিত চাহিদাও।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও আনসার সদর দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছায় আনসার গার্ড ব্যাটালিয়ন-এজিবি ইউনিট গঠন করা হয়। গঠন করা হবে আরো একটি ব্যাটালিয়ন, সে প্রক্রিয়া চলছে।

আনসার সদর দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, একজন পরিচালকের নেতৃত্বে আটজন কর্মকর্তা ও ৪১৬ জন আনসার সদস্যের সমন্বয়ে গঠিত এজিবি। এজিবির মতো প্রশিক্ষিত জনবলে রয়েছেন আরো তিন হাজার সদস্য। কূটনীতিকদের নিরাপত্তায় এজিবিকে ব্যবহার কিংবা প্রশিক্ষিত আনসার সদস্যদের নিয়ে আলাদা ব্যাটালিয়নও গড়া যেতে পারে। এতে পোশাকসহ কাঠামোগত পরিবর্তনও প্রয়োজন হবে না।

আনসার সদর দপ্তরের সহকারী পরিচালক জাহিদুল ইসলাম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আনসার গার্ড ব্যাটালিয়নের (এজিবি) সদস্যদের দেশে-বিদেশে কুইক রেসপন্স ট্রেনিং (কিউআরটি), স্পেশাল ট্যাকটিক্যাল ট্রেনিং (এসটিটি), স্পেশাল প্রটেকশন ট্রেনিং ও বিশেষ অস্ত্র চালনার ট্রেনিংও রয়েছে। আনসারের কর্মকর্তারা এসএসএফ ও র‌্যাব, সচিবালয়, প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা অধিদপ্তর (ডিজিএফআই) এবং দেশের গুরুত্বপূর্ণ সরকারি দপ্তরে প্রেষণে কর্মরত থেকে নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্ব পালন করছেন।

বুধবার (২৪ মে) সকালে আনসার ও গ্রামপ্রতিরক্ষা বাহিনীর পরিচালক (অপারেশনস) সৈয়দ ইফতেহার আলী বলেন, স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় আমাদের পক্ষ থেকে যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

 


আরও খবর

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় তেজ

রবিবার ০৪ জুন ২০২৩




আইনকে সুন্দরভাবে তুলে ধরা ও সঠিক ব্যাখ্যা দেওয়া আইনজীবীদের কাজ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ জুন ২০২৩ | ৯১জন দেখেছেন

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ

আইনকে সুন্দরভাবে তুলে ধরা সহ আইনের স্পষ্ট ও সঠিক ব্যাখ্যা দেওয়া আইনজীবীদের কাজ।

বর্তমান সরকার আইন এর শাসন বিশ্বাস করে বলেই দেশের বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা হয়েছে।

বুধবার পাবনা জেলা বারের আইনজীবীদের সাথে মতবিনিময় সভায় উপরোক্ত কথা বলেছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ সাহাবুদ্দিন।

সুশাসন নিশ্চিতে আইনজীবী দের যথাযথ ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি মোঃ সাহাবুদ্দিন আরো বলেন, সরকার দেশে সুশাসন নিশ্চিত করতে চায়, এক্ষেত্রে আইনজীবীরা তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব সুচারুভাবে পালন করবেন।

আইনজীবী ও বিচারকদের মধ্যে যদি সুসম্পর্ক বজায় থাকে, তাহলে আইনের শাসন নিশ্চিত হয় বলেও জানান রাষ্ট্র প্রধান।

আইনজীবীদের উদ্দেশে তিনি আরো বলেন, আইনজীবীরা বিচারকদের আইনি কাজে সহযোগিতাই শুধু করেন না, কখনো কখনো সঠিক পথও দেখান।

তিনি আরো বলেন, আইন প্রবর্তিত হয় সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য। সেই আইনকে সুন্দরভাবে তুলে ধরা, আইনের স্পষ্ট ও সঠিক ব্যাখ্যা দেওয়া আইনজীবীদের কাজ।

পাবনা জেলা বারের সভাপতি অ্যাডভোকেট আখতারুজ্জামান মুক্তের সভাপতিত্বে বারের নেতা সহ জ্যেষ্ঠ আইনজীবীগন মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় তেজ

রবিবার ০৪ জুন ২০২৩