Logo
শিরোনাম

হাঁটলে আয়ু বাড়বে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

রোগব্যাধি থেকে দূরে থাকতে এবং শরীর ভালো রাখতে নিয়মিত হাঁটার বিকল্প নেই। কেবল শরীর নয়, মন সতেজ রাখতেও এর তুলনা হয় না। এছাড়া যারা ওজন কমানো নিয়ে সমস্যায় রয়েছেন, তাদের জন্যও হাঁটার কোনো বিকল্প নেই।

প্রতি সপ্তাহে মাত্র ৭৫ মিনিটের হাঁটা ২০ মাস পর্যন্ত আয়ু বাড়ে। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ক্যানসার ইনস্টিটিউট ও ব্রিগহ্যাম উওমেন হাসপাতালের একটি যৌথ গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

গবেষকদের মতে, যদি কেউ প্রতি সপ্তাহে নিয়মিত ছোটখাটো শারীরিক পরিশ্রম করেন- যেমন ৭৫ মিনিট হাঁটেন- তাহলে তিনি ৪০ বছরের পর অন্যদের তুলনায় ন্যূনতম ২০ মাস বেশি আয়ু পেতে সক্ষম।

গবেষণায় সাড়ে ছয় লাখ মানুষের ১০ বছরের স্বাস্থ্য রেকর্ড নিয়ে পর্যবেক্ষণ করা হয়। এদের মধ্যে মাত্র ৮২ হাজার মানুষ উল্লিখিত বর্ধিত আয়ু শেষ হওয়ার আগে মারা যান।

তবে স্বাভাবিক ওজনের ব্যক্তিদের জন্য এ হাঁটা আরও উপকারি হতে পারে বলে গবেষণায় জানা যায়। তারা সপ্তাহে ১৫০ মিনিট হাঁটার মাধ্যমে ৭ বছর দুই মাস পর্যন্ত আয়ু বাড়াতে সক্ষম।

গবেষণা বলছে, যারা গতিতে হাঁটে তাদের আয়ু গড়ে ২০ শতাংশ বাড়ে, তাদের থেকে যারা সেভাবে কম গতিতে হাঁটেন। এছাড়াও পায়ের পেশী ভালো থাকে। 

নিয়মিত হাঁটলে কোলেস্ট্রল নিয়ন্ত্রণে থাকে। শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে। ডায়াবেটিস ও স্থুলতা নিয়ন্ত্রণে থাকে এবং মানসিক স্বাস্থ্য ভাল থাকে। পাশাপাশি হার্ট, উচ্চ রক্তচাপ এমনকি ক্যানসারের মতো রোগের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে নিয়মিত হাঁটার অভ্যেস। কেন আমাদের আরো বেশি হাঁটা প্রয়োজন এবং জেনে নিন হাঁটার উপকারিতা-

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করে

হাঁটলে শরীরের পেশিতে ইনসুলিনের কার্যকারিতা বাড়ে। ফলে রক্তের গ্লুকোজ কমে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে। সম্প্রতি গবেষকদের গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে, আপনি যত বেশি হাঁটবেন, তত আপনার ডায়াবেটিস হবার সম্ভাবনা কম হবে। যিনি সপ্তাহে ৫ দিন প্রতিদিন ১০,০০০ স্টেপ হাঁটেন, তিনি ডায়াবেটিস থেকে তত দূরে থাকেন যিনি প্রতিদিন ৩,০০০ স্টেপ হাঁটেন।

ক্যানসার প্রতিরোধ করে

সুস্থ থাকতে প্রতিদিন নিয়ম করে ৩০ মিনিট হাঁটা ও ব্যায়াম করতে হবে। স্তন, প্রোস্টেট, ফুসফুস, কোলন ও কিডনির ক্যানসার প্রতিরোধ নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে এবং ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

জয়েন্টে ব্যথার উপশম করে

গাঁটে গাঁটে ব্যথা বা জয়েন্ট পেইনে ভুগলে কিন্তু হাঁটার কোনও বিকল্প খোঁজা দায়। জয়েন্টে ব্যথার উপশমই শুধু নয়, এক গবেষণা বলছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে হাঁটার গুণাগুণ প্রচুর।

হার্ট ভালো থাকে

নিয়মিত হাঁটলে রক্তনালীর দেওয়ারগুলিতে চর্বি কম জমে। ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে। এছাড়াও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতেও কাজ দেয় হাঁটার অভ্যাস। এতে কমে যায় স্ট্রোকের সম্ভাবনা।

বাড়তি মেদ ঝরায়

ডায়টেশিয়ানদের মতে, প্রতি সপ্তাহে ২৫০ মিনিট ধরে হাঁটা উচিত। অর্থাৎ প্রতি দিনের নিরিখে আধ ঘণ্টার একটু বেশি। দীর্ঘক্ষণ হাঁটলে ক্যালোরি বার্নে সুবিধা হয়। আর তারফলেই শরীরের বাড়তি মেদ ঝরাতে সাহায্য হয়।

ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে থাকে

ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে রাখতে খাওয়া দাওয়ার নিয়মের পাশাপাশি দরকার নির্দিষ্ট সময় মেনে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী হাঁটা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ব্লাড প্রেশারের সমস্যা কমাতে ৩০ মিনিট নিয়ম করে রোজ হাঁটলে তা উপকার দেবে।

মানসিক সুস্থতা ভালো থাকে

অফিসে বা কাজে হেঁটে যাওয়া অনেক ভালো একটি উপায়। সকালে হাঁটার অভ্যাসের পাশাপাশি কাজের জায়গায় গিয়ে আপনাকে মানসিকভাবে ভালো থাকতে সাহায্য করবে।‘ইট দিস ডট কম’ ওয়েবসাইটের এক গবেষণায় অ্যাংলিয়াস নরউইচ মেডিকেল স্কুলের প্রধান গবেষক অ্যাডাম মার্টিন বলেন, যারা গাড়িতে যাতায়াত করেন, তাদের মানসিক সুস্থতা বেশি খারাপ হয়। আর যারা বেশি হাঁটেন, তাদের মানসিক সুস্থতা ততই ভালো হয়।

স্মৃতিশক্তি বাড়ায়

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই প্রভাব পড়ে মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর। কমে যায় স্মৃতি শক্তি। তাই স্মৃতি শক্তি ভাল রাখতে নিয়মিত হাঁটার অভ্যেস করুন। নিজেকে সুস্থ রাখুন।

হাঁটার সময় যেসব কৌশল মেনে চলবেন

জার্নাল অব হ্যাপিনেস স্টাডিজের একটি গবেষণায় তারা একদল স্বেচ্ছাসেবককে হাঁটার সময় তাদের সামনে থাকা ব্যক্তিদের সম্পর্কে তিনটি কৌশল মেনে চলতে বলেন। প্রথমটি হচ্ছে— তাদের দৃষ্টিভঙ্গিতে ভালোবাসা-দয়া রাখা; দ্বিতীয়টি হচ্ছে— পরস্পরের সঙ্গে সংযুক্ত থাকা এবং তৃতীয়টি হচ্ছে— কৌশলে বলা হয় অন্যান্য লোকদের বাহ্যিক উপস্থিতি এবং চেহারা বিবেচনা করতে। গবেষণাটিতে দেখা যায়, এ কৌশলগুলো অবলম্বন করার ফলে তারা কম উদ্বেগ, আরও সুখী, আরও সংযুক্ত, আরও যত্নশীল এবং আরও সহানুভূতি অনুভব করে।

হাঁটার মাঝে মাঝে শ্বাস প্রশ্বাস ঠিক রাখতে লম্বা ও গভীর দম নিন ও ছাড়ুন। নাক দিয়ে দম নিয়ে, মুখ দিয়ে ধীরে ছাড়ুন। এতে আপনার শরীর পর্যাপ্ত অক্সিজেন ও আরো হাঁটার শক্তি পাবে।

হাঁটার ১০ মিনিট আগে এক গ্লাস পানি পান করুন। সারাদিন এক ঘন্টা পর পর এক গ্লাস করে পানি খেলে হাঁটার সময় পানিশুন্যতা হবে না। হাঁটার সময় প্রতি ২০ মিনিটে এক কাপ করে পানি খাবেন। হাঁটার শেষে এক থেকে দুই গ্লাস পানি খাবেন।

প্রতিদিন যত বেশি হাঁটবেন, মনে হবে আপনি ততই বেশি ভাল আছেন। ভাল থাকার ব্যাপারে আপনার আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে। শরীরকে যথাযথভাবে কর্মক্ষম রাখার জন্যে এবং আয়ু বাড়াতে নিয়মিত হাঁটুন।


আরও খবর

যোগাসনে ব্যায়াম হবে পুরো শরীরের

সোমবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২

খালি পেটে কাঁচা রসুন কেন খাবেন

শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২




বিআরটিএ চেয়ারম্যানের হুঁশিয়ারি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

গণপরিবহনে বাড়তি ভাড়ার নেয়া হলে কোন ছাড় দেয়া হবে না বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন বিআরটিএর চেয়ারম্যান। সিটি সার্ভিসে ভাড়া নৈরাজ্য নিয়ন্ত্রণে আসা পর্যন্ত, ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চলবে বলেও জানান তিনি।

 মহাখালী টার্মিনালে আকস্মিক পরিদর্শনে গিয়ে এসব কথা বলেন বিআরটিএর চেয়ারম্যান। এ সময় তিনি বিভিন্ন কাউন্টারে ঘুরে দেখেন, নতুন ভাড়ার তালিকা রাখা আছে কিনা তা তদারকি করেন।এরপর তিনি সিটি সার্ভিসের বাসে উঠে যাত্রীদের সাথে ভাড়ার বিষয়ে কথা বলেন। যাত্রীদের বাড়তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ আসায় সিটি সার্ভিসের বাসের ভাড়া নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে কঠোর ববস্থা নিতে নির্দেশ দেন নির্বাহী হাকিমকে। 


আরও খবর

ঢাকায় বাড়ছে বন্যার ঝুঁকি

শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন বাজেট ঘোষণা

মঙ্গলবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০22




দুই মামলা আসামী ৫ হাজার

শাওনের মৃত্যু ‘বিএনপির অবৈধ অস্ত্রের গুলিতে’

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

 বুলবুল আহমেদ সোহেলঃ

নারায়ণগঞ্জে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সরকারি কাজে বাঁধা ও পুলিশের ওপর হামলা ভাংচুরের ঘটনায় ৭১ জনের নাম উল্লেখ করে ৫ হাজার আসামী করে পুলিশ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। অপরদিকে সংঘর্ষের সময় নিহত শাওন নিহত হওয়ার ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে তার ভাই মিলন প্রধান। এই এজাহারে বিএনপির নেতাকর্মীর ছোঁড়া অবৈধ গুলিতে শাওনের মৃত্যু হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। 

এজাহারে মিলন উল্লেখ করেন, তার ছোট ভাই শাওন ঘটনার দিন বেলা পৌনে ১২টায় নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ২ নম্বর রেলগেট এলাকার পাকা রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল। ওই সময় বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ চলছিল। এক পর্যায়ে বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের পাঁচ হাজারের অধিক নেতাকর্মী  পুলিশের ওপর ইট-পাটকেল, ককটেল ও অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্রের গুলি নিক্ষেপ করে। সেই অবৈধ অস্ত্রের গুলি ও ইটের আঘাতে শাওন আহত হয়ে রাস্তায় পড়ে যান। পরে তাকে সদর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে মিলন হাসপাতালে গিয়ে ভাইয়ের মরদেহ শনাক্ত করেন। 

তবে এই এজাহারের বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে দাবি করছেন নিহত শাওনের আরেক ভাই ফরহাদ। তিনি বলেন মামলার বিষয়ে তার কিছুই জানি নেই। শুনেছি আমার আরেক ভাই মিলনকে নাকি বাদী করা হয়েছে। কিন্তু মামলায় কী লেখা হয়েছে আমরা পরিবারের কেউ এই ব্যাপারে কিছু জানি না। ফরহাদ বলেন ছবিতে আমরা দেখেছি, শাওনকে রক্তাক্ত অবস্থায় বিএনপির মিছিলের লোকজনই উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া)  হাসপাতালে নিয়ে গেছে।

তিনি বলেন কাদের গুলিতে আমার ভাই মারা গেছে সেটা পুলিশ সঠিক তদন্ত করলই বেরিয়ে আসবে মৃত্যুর জন্য কারা দায়ী। ।

এদিকে মামলার বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. অমীর খসরু বলেন, বৃহস্পতিবার রাতেই নিহতের ভাই মিলন প্রধান বাদী একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। ভিডিও ফুটেজ দেখে শাওনের মৃত্যুর কারণ ও কারা এর সাথে জড়িত তা শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।  ময়নাতদন্তের  প্রতিবেদন পাওয়ার পর নিশ্চিত হওয়া যাবে কিসের আঘাতে তার মৃত্যু হয়েছে। মামলায় অজ্ঞাতনামা পাঁচ হাজার ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে। তবে পুলিশ এখন পর্যন্ত এই মামলায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি বলে জানিয়েছে।

অপরদিকে শুক্রবার দুপুরে সরকারি কাজে বাঁধা ও পুলিশের ওপর হামলা ভাংচুরের ঘটনায় ৭১ জনের নাম উল্লেখ করে ৫ হাজার আসামী করে পুলিশ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। তিনি জানান ঘটনার পর ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এই মামলায় তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হবে। 


আরও খবর



সাগরে ঘণীভূত হচ্ছে লঘুচাপ

প্রকাশিত:বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া লঘুচাপটি ঘণীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। এ অবস্থায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের দক্ষিণ ও উত্তরভাগে সক্রিয়। উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মৌসুমী বায়ু প্রবল অবস্থায় রয়েছে। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ভারি বর্ষণ এবং পরবর্তী তিন দিনে সারাদেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও এর আশপাশের এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি ঘণীভূত হয়ে একই এলাকায় সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে। এটি আরও ঘণীভূত হয়ে উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় বায়ুচাপ পার্থক্যের আধিক্য বিরাজ করছে। সমুদ্র বন্দরসমূহ, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝাড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষ উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে এবং গভীর সাগরে না যেতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় পটুয়াখালীতে সর্বোচ্চ ১৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়াও হাতিয়ায় ১৩, খেপুপাড়ায় ১২ এবং কক্সবাজার ও দিনাজপুরে ৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় ঢাকায় সামান্য বৃষ্টি হয় বলে আবহাওয়া অফিস জানায়।

সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। মঙ্গলবার রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ দশমিক সেলসিয়াস এবং টেকনাফে সর্বনিম্ন ২৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এ সময় ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।


সূত্র: বাসস


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




সোনারগাঁয়ে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

 নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে তিন হাজার অবৈধ গ্যাসের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে তিতাস কর্তৃপক্ষ। এছাড়া মিষ্টি তৈরির একটি কারখানাকে জরিমানা করা হয়।

মঙ্গলবার উপজেলার দুলালপুর ও মোগড়াপাড়া এলাকায় অভিযান চালায় উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত। সোনারগাঁ উপজেলা সহকারি কমিশনার ইব্রাহিম জানান, দুলালপুর এলাকায় একটি চুন কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগসহ তিন হাজার অবৈধ আবাসিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। পরে মোগড়াপাড়ায় দুটি খাবার হোটেলের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার পাশাপাশি অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরির কারণে একটি মিষ্টির কারখানাকে পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। 


আরও খবর



এলপিজির নতুন দাম নির্ধারণ

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ সেপ্টেম্বর 20২২ |
Image

দেশে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাসের (এলপিজি) দাম চলতি মাসে বাড়বে নাকি কমবে তা জানা যাবে আজ (রবিবার)। সরকারি সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) রান্না ও গাড়ির জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত এ এলপিজির মূল্য নির্ধারণ করবে।

বিইআরসির পক্ষ থেকে জানানো হয়, সৌদি আরামকোর ঘোষিত সেপ্টেম্বরের জন্য সৌদি সিপি অনুযায়ী ভোক্তাপর্যায়ে এলপিজির মূল্য সমন্বয় সম্পর্কে বাংলাদেশ অ্যানার্জি অ্যান্ড রেগুলেটরি কমিশনের আদেশ রবিবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৪টায় ঘোষণা করা হবে।

জানা গেছে, এলপিজি তৈরির মূল উপাদান প্রোপেন ও বিউটেন বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করা হয়। প্রতি মাসে এলপিজির এ দুই উপাদানের মূল্য প্রকাশ করে সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠান আরামকো। এটি সৌদি কার্গো মূল্য (সিপি) নামে পরিচিত। এই সৌদি সিপিকে ভিত্তিমূল্য ধরে প্রতি মাসে দেশে এলপিজির দাম সমন্বয় করে বিইআরসি।

খাত সংশ্লিষ্ট এক ব্যবসায়ী জানান, টাকার বিপরীতে ডলারের দাম বেড়েছে। এখন এলসি খুলতে বেশি অর্থ লাগছে। এছাড়া জ্বালানির দাম বাড়ায় পরিবহন খরচও বেশি লাগছে। সবমিলিয়ে এখন এলপিজির মূল্য বেশি পড়ছে। আগস্টের দামে বিক্রি করে লোকসান হচ্ছে। ইতোমধ্যে প্রতি এলপিজি সিলিন্ডারে ৫০ থেকে ৭০ টাকা বেশি নেওয়া হচ্ছে। তাই সেপ্টেম্বরে দাম বাড়ানো হবে বলে তিনি জানান।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২