Logo
শিরোনাম

হাতিবান্ধা সীমান্তে বাংলাদেশীকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:Sunday ২৭ November ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি : 

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা সীমান্তে মোঃ শরিফুল ইসলাম সাদ্দাম (২৮) নামে এক বাংলাদেশীকে বিএসএফের বন্দুকের বাট দিয়ে পিটিয়ে হত্যার  অভিযোগ উঠেছে।

রোববার (২৭ নভেম্বর) সকালে সীমান্ত এলাকা থেকে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে সে নিহত হয়। এর আগে ওই দিন ভোরবেলা উপজেলার গেন্দুকরি সীমান্ত থেকে বিএসএফ তাকে ধরে নিয়ে যায়। পরে তাকে তাদের ক্যাম্পে নিয়ে বন্দুকের বাট ও লাঠি দিয়ে পিটুনি দিলে সে গুরুতর আহত হয়।

নিহত শরিফুল ইসলাম সাদ্দাম গোতামারী এলাকার আছিম উদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, প্রকৃতির ডাকে শনিবার ভোরবেলা শরিফুল বাংলাদেশের অভ্যন্তরের ৯০১ নম্বর পিলারের কাছে গেলে বিএসএফ সদস্যরা তাকে চোর সন্দেহে ক্যাম্পে ধরে নিয়ে যায়। পরে ক্যাম্পের সদস্যরা তাকে লাঠি ও বন্দুকের বাট দিয়ে দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে। এতে শরিফুল অসুস্থ হয়ে পড়লে বিএসএফ সদস্যরা তাকে বাংলাদেশের গোতামারী ইউনিয়নের ভুটিয়ামঙ্গল নামক সীমান্ত এলাকায় তাকে ফেলে দিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে রবিবার সকালে শরিফুলের পরিবারের লোকজন তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

হাতীবান্ধা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহা আলম জানান, সীমান্ত এলাকা থেকে আহত অবস্থায় শরিফুলকে উদ্ধার করা হলেও বিএসএফ’র প্রহারে তার মৃত্যু হয়েছে কি না তিনি নিশ্চিত নন। তবে মরদেহের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হলেই মৃত্যুর কারন জানা যাবে।


আরও খবর



মেট্রোরেলের পল্লবী স্টেশন চালু

প্রকাশিত:Wednesday ২৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

পল্লবী স্টেশনেও থামছে মেট্রোরেল। সকাল থেকে সবার জন্য খুলে দেয়া হয়েছে স্টেশন। তবে অন্যান্য স্টেশনের চেয়ে এখানে যাত্রীদের চাপ কম।

এই স্টেশন থেকে যাত্রীরা উত্তরা ও আগারগাঁও পর্যন্ত যাতায়াত করতে পারবেন। এ নিয়ে তিনটি স্টেশনে থামবে মেট্রোরেল।উদ্বোধনের পর দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত সরাসরি চলাচল করছে মেট্রোরেল। এই দুটি স্টেশনের সঙ্গে এবার পল্লবী স্টেশনও যুক্ত হলো। এটি চালুর ফলে যাতায়াতে অনেক সুবিধা পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন যাত্রীরা। এদিকে, আজ থেকে মেট্রোরেল চলাচলের সময়েও কিছুটা পরিবর্তন করা হয়েছে। সকাল ৮টার পরিবর্তে সাড়ে ৮টা থেকে শুরু হয়ে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত চলবে ট্রেন।


আরও খবর



৪৭কোটি টাকা আত্মসাৎ! বুড়িচংয়ের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো :

ব্যাংক থেকে ৪৭ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগে কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান  জাকির এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী জাকির হোসেন জাহেরকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রানা বিল্ডার্সের কাগজপত্র জালিয়াতির মাধ্যমে পাওয়া টেন্ডার কার্যাদেশের বিপরীতে এ টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে বলেও দুদকের দায়েরকৃত মামলার এজাহারে বলা হয়েছে।

দুদকের উপপরিচালক ও জনসংযোগ কর্মকর্তা আরিফ সাদেক জানান, দুদকের প্রাথমিক অনুসন্ধানে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে ঋণ নিয়ে আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়া গেছে। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের পোর্ট কানেকটিং রোডের টেন্ডার কার্যক্রমে জালিয়াতির মাধ্যমে প্রাপ্ত কার্যাদেশের বিপরীতে ঋণ নিয়ে ব্যাংকের টাকা আত্মসাৎ করেন তিনি। কার্যাদেশের শর্ত অনুযায়ী কাজ শেষ না করে রাষ্ট্রীয় ক্ষতি সাধনের তথ্য পাওয়া গেছে তার বিরুদ্ধে।

পরে ২০২২ সালের ১০ মে জাকির হোসেনসহ আট জনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে দুদক দুটি মামলা দায়ের করে। মামলা দুটির তদন্তকালে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় তাকে  কুমিল্লা শহরের নিজ বাসভবন থেকে মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) ভোর রাতে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়।

দুদক জানায়, গ্রেফতার হওয়া সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রানা বিল্ডার্সের কাগজপত্র জালিয়াতির মাধ্যমে সিটি করপোরেশনের কার্যাদেশ পান। তার বিপরীতে ইউসিবিএল ব্যাংকের কুমিল্লা শাখা থেকে ৪৭ কোটি টাকা ঋণ নেন। কিন্তু কাজের বিপরীতে প্রাপ্ত বিলের চেক নগদায়ন করে ব্যাংকের ঋণ পরিশোধ না করে সম্পূর্ণ টাকা আত্মসাৎ করেন। অন্যদিকে সিটি করপোরেশনের কাজটি অসমাপ্ত রেখে চলে যাওয়ায় জনভোগান্তির সৃষ্টি হয়। পুনরায় টেন্ডার করে কাজটি সমাপ্ত করতে যেয়ে অতিরিক্ত সাত কোটি টাকার রাষ্ট্রীয় ক্ষতি হয় 

দুদক আ‌রো জানায়, জা‌কির হো‌সেন ঠিকাদার এর বিরুদ্ধে কুমিল্লা, ঢাকা- চট্টগ্রাম সহ বিভিন্ন জেলায় অর্থ আত্মসাৎ, চেক জালিয়াতি সহ বিভিন্ন অপরাধে ২০টির অধিক মামলা রয়েছে।


আরও খবর



লালমনিরহাটে গণতন্ত্রী পার্টির কম্বল বিতরণ

প্রকাশিত:Saturday ০৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি,লালমনিরহাট :


উত্তর জনপদের সীমান্ত জেলা লালমনিরহাটে শৈত্য প্রবাহের দরুন কাবু হওয়া এই জেলার বিভিন্ন স্থানে গণতন্ত্রী পার্টির পক্ষ থেকে ধরলা নদী তীরবর্তী সহ চরাঞ্চল সহ সদর পৌরসভার শীতার্ত কিছু সংখ্যক মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করে।  

এসময় উপস্থিত ছিলেন,জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সংগ্রামী জননেতা উত্তম কুমার রায় লড়াই। তিনি এসকল মানুষের বাড়ী বাড়ী গিয়ে,বুমকা,ইটাপোতা ও পৌর এলাকার থানা পাড়ায় কেন্দ্র থেকে প্রেরিত ৪০ ও এই নেতার ব্যক্তিগত  তহবিল থেকে ৬১ টি মোট ১০১ টি মানসম্মত কম্বল বিতরণ করেন।


আরও খবর



ধামরাইয়ের বিখ্যাত মিষ্টি ক্ষীরমোহন

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

মাহবুবুল আলম রিপন (স্টাফ রিপোর্টার):


ঢাকার ধামরাইয়ের কাওয়ালীপাড়া বাজারের ইসমাইল সুইটস এর ক্ষীরমোহন অনন্য এক মিষ্টান্নের নাম। অনেকেই ভীষণ ভোজনপ্রিয় মানুষ। খাবারের নাম শুনলেই জিভে জল চলে আসে। আর যদি সেটা হয় মন জুড়ানো মিষ্টি গন্ধ, তাহলে তো কথাই নেই। এই সুস্বাদু মুখরোচক খাবারটি হচ্ছে কাওয়ালীপাড়ার ‘ক্ষীরমোহন’। দুধ, চিনি, ঘি, দুধের ছানা, ময়দা, তেজপাতা, ছোট এলাচ ইত্যাদি দিয়ে তৈরি ঘন রসযুক্ত মিষ্টান্ন।

ধামরাই উপজেলার গ্রামাঞ্চলে প্রাকৃতিক উপায়ে বেড়ে ওঠা সবুজ ঘাস, লতা-পাতাসহ নানা গো-খাদ্য বাড়িতে পালা গাভিকে খেতে দেয়া হয়। তাই এই এলাকার গরুর দুধ খাঁটি দুধের গুনাগুণ সমৃদ্ধ। সেই দুধ থেকে তৈরি হয় এই ক্ষীরমোহন।

প্রসঙ্গত,ক্ষীর ও মোহনের সংমিশ্রণে তৈরি হয় ক্ষীরমোহন। দুধ ক্ষীরে পরিণত হলে ও মিষ্টির ভেতরে ক্ষীর ঢুকে গেলে তৈরি হয় অমৃত স্বাদের ক্ষীরমোহন।

ইসমাইল সুইটস এর কর্মচারী মোঃ বাদশা মিয়া বলেন, খাঁটি ছানা থেকে তৈরি মিষ্টি প্রথমে গরম চিনির রসে জ্বাল দেয়া হয়। মিষ্টি হয়ে এলে তা থেকে রস ঝরিয়ে নিয়ে দুধে জ্বাল দেয়া হয়। দুধ ক্ষীরে পরিণত হলে ও মিষ্টির ভিতরে ক্ষীর ঢুকে গেলে তৈরি হয় লোভনীয় ‘ক্ষীরমোহন’। সাধারণত ১ মণ দুধ জ্বাল দিয়ে ১৭ থেকে ১৮ কেজি ক্ষীর তৈরি করা হয়। এতে যুক্ত হয় ২৫০ গ্রাম ঘী। এর সাথে ৮ কেজির মত মিষ্টি ক্ষীরে জ্বাল দিয়ে ২৪/ ২৫ কেজি ক্ষীরমোহন বানানো হয়। এর স্বাদ নিতে আসেন ছোট-বড় সকলেই। প্রতিটি ক্ষীরমোহন ৫০ টাকা এবং ৩৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হয় ।

ক্ষীরমোহন খেতে আসা ভোজনপ্রিয় মানুষ মোঃ বাবুল হোসেন বলেন, ক্ষীরমোহনের স্বাদ ও গন্ধ থেকেই জিভে পানি আনার মতো। এই খাবার খেতে খুবই সুস্বাদু আত্মীয় স্বজনদের বাড়ি নিয়ে গেলেও এই রসমালাইকে গুরুত্ব দেয়।


আরও খবর



'ফারাজ' এর আগে 'শনিবার বিকেল' মুক্তির দাবি

প্রকাশিত:Friday ১৩ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

৩ ফেব্রুয়ারি ভারতের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে বলিউড ফিল্ম ‘ফারাজ’, এদিকে একই ঘটনার উপর নির্মিত মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ছবি ‘শনিবার বিকেল’ এর মুক্তি গেলো ৪ বছর ধরে আটকে আছে। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ফারুকী। তিনি দাবি তুলেছেন, ছবিটি যেনো ফারাজ মুক্তি পাবার ঘন্টাখানেক আগে হলেও বাংলাদেশে মুক্তি দেয়া হয়।

রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে ২০১৬ সালেরে ১ জুলাই জঙ্গি হামলায় নিহত হন ফারাজ আইয়াজ হোসেন। বন্ধুদের বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ দিয়েছিলেন তিনি। তার সেই সাহসিকতা ও ত্যাগ নিয়ে ভারতীয় প্রেক্ষাগৃহে ৩ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে বলিউড সিনেমা ফারাজ।

এদিকে সেই ঘটনাকে অন্য দৃষ্টিভঙ্গিতে পর্দায় তুলে এনেছেন মোস্তফা সরয়ার ফারুকী যা গেলো চার বছর ধরে সেন্সর বোর্ডে আটকে আছে। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে সোমবার নিজের ফেসবুক আইডিতে একটি স্ট্যাটাস দেন ফারুকী। ফারূকীর মন্তব্যের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে পরমুহূর্তেই সেই স্ট্যাটাসটি শেয়ার দিয়েছেন একাধিক পরিচালক, শিল্পী কলাকুশলী। একই সাথে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কেউ কেউ।

 এই গুণী পরিচালক বলেন, শনিবার বিকেল ছবিটি মুক্তি না পাওয়াটা কষ্টের। যেখানে ফারাজ মুক্তি পাচ্ছে সেখানে শনিবার বিকেল ছবির মুক্তি আটকে থাকায় নিজেকে এদেশের তৃতীয় শ্রেণীর নাগরিক মনে হচ্ছে তার।

বহিবিশ্বের বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে ছবিটি ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে। ফারুকী বলেন, ছবিটি সেখানে ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে দেশের। তার প্রশ্ন তাহলে বাংলাদেশে কেনো তার ছবিটি আটকে রাখা হচ্ছে?

ফারুকী বলেন, যেই ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর জন্যে ‘শনিবার বিকেল’ ছবিটি আটকে আছে তাদের এদেশে নিন্দিত হতে হবে।

পরিচালকের প্য়ত্য়াসা ভারতে ‘ফারাজ’ ছবির ঘন্টাখানেক আগে হলেও বাংলাদেশে শনিবার বিকেল আলোর মুখ দেখবে।  


আরও খবর