Logo
শিরোনাম

ইটনায় প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ততা চলছে পূজা মণ্ডপে মণ্ডপে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মোঃ মুজাহিদ সরকার, কিশোরগঞ্জঃ

দুর্গা পূজাকে ঘিরে কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা তৈরির কারিগররা। কে কত ভালো প্রতিমা তৈরি করে ভক্তদের হৃদয় ছুঁতে পারেন তারই প্রতিযোগিতা চলছে মণ্ডপে মণ্ডপে। সামর্থ্য অনুযায়ী স্থানীয় ও অন্য জেলা থেকে কারিগর এনে প্রতিমা তৈরি করছে পূজা মণ্ডপ কমিটি।  

এবারের দুর্গাপুজোর মহাসপ্তমী পড়েছে ০২ অক্টোবর, মহাঅষ্টমী পড়েছে ০৩ অক্টোবর, মহানবমী পড়েছে ০৪ অক্টোবর, বিজয়া দশমী পড়েছে ০৫ অক্টোবর। 

উপজেলার সদর ইউনিয়নের বিভিন্ন মণ্ডপ ঘুরে দেখা যায়, শিল্পীর নিপুণ হাতে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। রাতদিন পরিশ্রম করে মাটি দিয়ে দেবীর অবয়ব নির্মাণ করছেন কারিগররা। পাশাপাশি চলছে লক্ষ্মী, সরস্বতী, গণেশ ও কার্তিকের প্রতিমা তৈরির কাজ। 

সদর ইউনিয়নের নগরহাটি যুব সংঘের সার্বজনীন দুর্গা মণ্ডপে প্রতিমা তৈরি করছেন পরিমল পাল। তিনি প্রায় ৪০ বছর ধরে প্রতিমা তৈরির করে আসছেন। এই বছর উপজেলার ০৯ টা দুর্গা পুজোর প্রতিমা তৈরির কাজ পেয়েছেন, এই নিয়ে ব্যস্ততায় রাত দিন কাটাচ্ছেন। 

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ইটনা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কৌশিক দেব নাথ জয় বলেন, ‘উপজেলার সদর ইউনিয়নের ১২টা সহ ৩৬টি পূজা মণ্ডপ রয়েছে। প্রতিটি কমিটিকে ডিজে পার্টির নামে অশ্লীলতা বন্ধের কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। মণ্ডপগুলোতে কেউ যেন বিশৃঙ্খলা ঘটাতে না পারে সে জন্য পুলিশ প্রশাসন সর্বদা দায়িত্ব পালন করবে। আমরা সতর্কতার সঙ্গে বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করবো।’ 

ইটনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.কামরুল ইসলাম মোল্লা জানান, অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে থানা পুলিশের পাশাপাশি পূজা মণ্ডপে থাকবে আনসার, গ্রাম পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবী সদস্য।


আরও খবর



মোংলা বন্দরের জেটিতে ভিড়েছে এমভি ইউনিউইসডম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর রাশিয়া থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের তৃতীয় চালানের মালামাল নিয়ে সরাসরি মোংলা বন্দর জেটিতে এসে ভিড়েছে এম,ভি ইউনিউইসডম।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ জাহাজটি বন্দর জেটিতে ভিড়ে। রাত ১০টার পর থেকে এ জাহাজ থেকে এ মালামাল খালাসের কাজ শুরু হয়। মালামাল খালাসের পর আজ সকালে সড়ক পথে যাবে রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, সরাসরি রাশিয়া থেকে রুপপুর পারমাণবিক কেন্দ্রের মূল্যবান বৈদ্যুতিক মালামাল নিয়ে বিদেশি জাহাজ এম,ভি ইউনিউইসডম সোমবার সন্ধ্যায় মোংলা বন্দরের ৭ নম্বর জেটিতে এসে পৌঁছায়। এ চালানে রয়েছে ১৪২১ মেট্টিক টনের ২৮০ প্যাকেজ মেশিনারি পণ্য। এর আগে গত পহেলা আগস্ট এম,ভি কামিল্লা ও ৫ আগস্ট এম,ভি ড্রাগনবল রাশিয়া থেকে রুপপুর পারমাণবিক কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মোংলা বন্দরে আসে। 


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




বিবিসিকে প্রধানমন্ত্রী

সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সংগ্রাম করছি

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

প্রয়াত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে যুক্তরাজ্যে অবস্থানকালে বিবিসিকে দেয়া এক একান্ত সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তিনি নিজে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া এবং অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করেছেন। বাংলাদেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছিল শুধুমাত্র আওয়ামী লীগের শাসনামলে।

বিবিসি সাংবাদিক লরা কুনেসবার্গের আগামী নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে তার সরকারের প্রতিশ্রুতি সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অবশ্যই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা এবং অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন প্রতিষ্ঠার জন্যই আমার সংগ্রাম।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, গুমের বিষয়ে অনেকেই অভিযোগ করতে পারেন, কিন্তু তা কতটা সত্য তা বিচার করতে হবে। এটা জানার আগে কেউ কোনো মন্তব্য করবেন না।

প্রধানমন্ত্রী বিবিসিকে বলেন, তার দেশে দীর্ঘদিন ধরে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে, প্রকাশ্যে বা গোপনে সামরিক শাসক ছিলেন।

তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালে আমার বাবাকে (জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান) হত্যা করা হয়। তিনি তখন দেশের রাষ্ট্রপতি ছিলেন এবং আপনি জানেন যে আমার পুরো পরিবার, আমার মা, আমার তিন ভাই, দুই ভাতৃবধু, পরিবারের অন্যান্য সদস্যসহ মোট ১৮ জন সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, তারপর থেকে ২১ বছর ধরে, যে দেশটি বারবার অভ্যুত্থান প্রত্যক্ষ করেছে। তিনি যোগ করেন যে প্রায় ২০ বার অভ্যুত্থানের চেষ্টা হয়েছে এবং প্রতিবার রক্তপাত হয়েছে।

শেখ হসিনা বলেন, সেখানে গণতন্ত্র ছিল না, গণতান্ত্রিক অধিকার ছিল না, তাই আমি আমার দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করেছি।

বিবিসিকে বলেন, সামরিক শাসকরা দীর্ঘদিন ধরে দেশ শাসন করেছে এবং তারা দল গঠন করেছে এবং ভোটের জন্য তারা কখনো জনগণের কাছে যায়নি।তারা সেনাবাহিনীকে ব্যবহার করেছে, প্রশাসনকে ব্যবহার করেছে এবং ক্ষমতায় থাকার জন্য সবকিছু ব্যবহার করেছে।

নিখোঁজের অভিযোগের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বিবিসি সাংবাদিককে প্রশ্ন করেন, আপনার দেশে এবং অন্যান্য দেশে কত লোক নিখোঁজ হয়েছে? আপনি বিচার করতে পারেন। এই সমস্ত বিষয় আমি মনে করি, প্রথমে আপনাকে বিবেচনায় নিতে হবে। সমস্ত তথ্য আপনার সংগ্রহ করা উচিত, তারপর আপনি অভিযুক্ত করতে পারেন।

আপনার এবং বাংলাদেশের কাছে কমনওয়েলথের গুরুত্ব কতটা, এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অবশ্যই এর মূল্য অনেক বেশি, যখন আমরা একসাথে থাকি, সেখানে অনেক সুযোগ থাকে, তাই, এটা ভালো এবং গুরুত্বপূর্ণ কারণ আমাদের একটা জায়গা আছে যেখানে আমরা আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি বিনিময় করতে পারি। কিছু ধারণা গ্রহণ করতে পারি বা দেশ বা জনগণের জন্য কিছু ভাল কাজ করতে পারি। তাই, আমার মনে হয় এটা ভালো।

তিনি বলেন, বর্তমানে, আপনি দেখতে পাচ্ছেন, যে একটি দেশ একা চলতে পারে না। কারণ, এটি একটি আন্তঃনির্ভর বিশ্ব। সুতরাং, এই পরিস্থিতিতে সদস্য দেশগুলোর জন্য কমনওয়েলথের অর্থ অনেক বড়। প্রতিটি দেশ একসাথে কাজ করতে পারে-কারণ, অনেক দেশ আছে উন্নত দেশ, উন্নয়নশীল দেশ এবং দরিদ্র দেশ, ছোট দ্বীপ দেশ।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সাথে ব্যক্তিগত স্মৃতি নিয়ে, তিনি বলেন, এটি ১৯৬১ সালে যখন তিনি (রানি) তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সফর করেছিলেন এবং তিনি তাকে ব্যক্তিগতভাবে প্রথমবার দেখার সুযোগ পেয়েছিলেন।

তিনি বলেন, তখন আমরা খুব ছোট এবং আমার বাবার অফিসে গিয়েছিলাম। কারণ, আমরা জানতাম যে তিনি সেই রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন। তাই, আমরা পুরো পরিবার দূরবীন নিয়ে জানালায় অপেক্ষা করেছি। ফলে, আমরা তাকে আরও স্পষ্টভাবে দেখতে পেয়েছি।

তিনি যোগ করেন যে যখন প্রধানমন্ত্রী হন, তিনি প্রতিটি কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলনে রানির সাথে দেখা করেছেন।

আমি প্রায় সাতটি কমনওয়েলথ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়েছি। প্রতিবারই আমি তার সাথে কথা বলার সুযোগ পেয়েছি। প্রয়াত রানির আমন্ত্রণে তিনি অলিম্পিক গেমসে যোগ দিতে গিয়েছিলেন বলে তারা দীর্ঘদিন ধরে একে অপরের সাথে আলাপ আলোচনা করেছেন।

প্রয়াত রানির সঙ্গে সুন্দর স্মৃতির কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন,তার (রাণী) চমৎকার স্মৃতিশক্তি ছিল এবং তিনি আমাকে না দেখলে হাসিনা কোথায় ছিলেন বলতেন।

যুক্তরাজ্যের একজন রাণী ছিলেন এতে কোনো সন্দেহ নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, রানি কমনওয়েলথেরও একজন নেতা। কমনওয়েলথ দেশগুলোর একজন সদস্য হিসেবে তিনি আমাদের কাছে অনেক মূল্যবান ছিলেন।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




নতুন রাজনৈতিক জোট গড়ছে জাতীয় পার্টি

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বাইরে গিয়ে নতুন একটি রাজনৈতিক জোট গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এই নতুন নির্বাচনী জোট গঠনের চেষ্টা করছে সংসদে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি । এ প্রসঙ্গে জাপা নেতাদের ভাষ্য, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি থেকে সমদূরত্ব বজায় রাখা দলগুলো নিয়েই তাদের এই জোট হবে। 

জাতীয় পার্টির একজন প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, জাতীয় পার্টি ক্ষমতার কাছে থাকতে চায়। এজন্য তারা নির্বাচনের আগে একটি বড় বিরোধী রাজনৈতিক জোট করতে চায়। এ জোট ভারী করে আগামী সংসদ নির্বাচনের আগেই আত্মপ্রকাশ করবে এই জোট। বড় দুই দলের বাইরে নতুন জোটের মাধ্যমে ভোটের আগে দর কষাকষিতে গুরুত্ব বাড়াতে চায় জাপা। এছাড়া জাতীয়-আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যোগাযোগ করছে দলটি। পাশাপাশি বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের শরিক দুটি দলের সঙ্গে তাদের কথাবার্তা চলছে।

দেশের মানুষের কাছে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রতিষ্ঠিত জাতীয় পার্টির মার্কাকে (লাঙ্গল) আবারও সামনে তুলে ধরার পরিকল্পনা থেকেই সব আসনে প্রার্থী নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে জাতীয় পার্টি। দলের চেয়ারম্যান জি এম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধ। ব্যক্তি হিসেবে ক্লিন ইমেজ রয়েছে তার। সব মহলে জনপ্রিয়তাও রয়েছে। দলকে চাঙ্গা করতে তিনি এরই মধ্যে ব্যাপক তৎপরতা চালাচ্ছেন। দলীয় নেতাকর্মীরাও তার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছেন। বিভিন্ন আসনে ক্লিন ইমেজের আর্থিকভাবে স্বয়ংসম্পূর্ণ প্রার্থী খোঁজা হচ্ছে। আর সামনের নির্বাচনে কেমন কীভাবে হবে কার সঙ্গে রাজনৈতিক জোট হবে এগুলো পরে ঠিক হবে, তবে এ নিয়ে নীতিনির্ধারণী কাজ করছেন জি এম কাদের।

জাপা সূত্র জানিয়েছে, চরমোনাই পীরের নেতৃত্বাধীন ইসলামী আন্দোলন, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, বিএনপি জোট থেকে বেরিয়ে যাওয়া মাওলানা মুহম্মদ ইসহাকের নেতৃত্বাধীন খেলাফত মজলিসসহ কয়েকটি ইসলাম ধর্মভিত্তিক দলের জোট হতে পারে।

২০০১ সালে নির্বাচনে জাপার সঙ্গে জোট করে ভোট করে ইসলামী আন্দোলন (তখন নাম ছিল ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন)। আবারও জোট হবে কিনা এমন প্রশ্নে জাপা মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু বলেছেন, জাতীয় পার্টি ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী দল। ইসলামী দলগুলোর সঙ্গে জাতীয় পার্টির নৈকট্য রয়েছে। তবে ইসলামী আন্দোলনের সঙ্গে এখনো আলোচনা হয়নি। জাপার সঙ্গে আলোচনা হবে তা স্বীকার করেছেন ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ ইউনূস আহমদ। তিনি বলেন, বিভিন্ন ইসলামী দলের সঙ্গে রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে মতবিনিময় চলছে।

একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিক হয়ে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ধানের শীষ প্রতীকে ভোট করে। ভোটের পর বিএনপির সমালোচনা করে জোট ছাড়েন কাদের সিদ্দিকী। সরকারের সমালোচনা করলেও বিএনপির সঙ্গে দূরত্ব মেটেনি তার দলের। 

জাপা চেয়ারম্যানের বনানীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে বৈঠকে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের বাইরে গিয়ে সব রাজনৈতিক দলকে নিয়ে একটি জোট করার প্রয়োজনীয়তার কথা বলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী। 

কাদের সিদ্দিকী বলেন, মানুষের মর্যাদা ও অধিকার আদায়ের জন্যই এখন বিএনপি ও আওয়ামী লীগ থেকে সমদূরত্ব বজায় রেখে সব রাজনৈতিক শক্তিকে এক মোহনায় পৌঁছতে হবে। 

বিরোধীদলীয় উপনেতা বলেন, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে। যারা সরকারের সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছে তারাই শুধু সরকারি জোটে ভোট দেবে। আর নির্বাচন সুষ্ঠু হলে নির্যাতিত-নিপীড়িত বিশাল জনগোষ্ঠী বিরোধী জোটে ভোট দেবে। তাই জাতীয় পার্টির অবস্থান পরিষ্কার। জাতীয় পার্টি সাধারণ মানুষের কাতারে নেতৃত্ব দেবে।


আরও খবর



তীব্র যানজটে নাকাল ঢাকাবাসী

প্রকাশিত:সোমবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : রাজধানীর সড়কে যানজটে নাকাল নগরবাসী। কোনোভাবেই এ ভোগান্তি থেকে মিলছে না মুক্তি। অতিষ্ঠ নগরবাসী বলছেন, যানজটে কর্মঘণ্টা নষ্ট হওয়ায় চাকরি হারানোর ঝুঁকি দেখা দিয়েছে। নির্দিষ্ট সময় গন্তব্যে যেতে পারছেন না তারা। রবিবার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে সকাল থেকেই তীব্র যানজটে নাকাল হতে হয় রাজধানীবাসীকে।

নগরীতে গণপরিবহন, ব্যক্তিগত যানবাহনের পাশাপাশি অটোরিকশা, মোটরসাইকেলের চলাচলও বেড়েছে। এদিকে সড়কে বিভিন্ন পয়েন্টে যাত্রী তোলার জন্য গণপরিবহনগুলো সড়কের অনেকটা জায়গাজুড়ে দাঁড়িয়ে যাচ্ছে। যাত্রী-পথচারীদের তাড়া বেড়েছে। সব মিলিয়ে রাজধানীর সড়কগুলোতে ছিল তীব্র যানজট।

যানজটের কারণে রাজধানীতে গাড়ির গতি কমে যায়। এ কারণে নির্দিষ্ট সময়ে গাড়ি না আসায় দীর্ঘ সময় স্ট্যান্ডে অপেক্ষায় থাকেন যাত্রীরা। এতে নষ্ট হয় কর্মঘণ্টা। বিলম্ব হয় অফিস যেতে। নগরবাসীর ভোগান্তির পাশাপাশি যানজটে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবহন শ্রমিকরাও ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

রবিবার রাজধানীর প্রবেশদ্বার যাত্রাবাড়িতে দেখা যায় গণপরিবহনের তীব্র চাপ। এই মোড়ে সারি সারি বাস সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। সেই সঙ্গে মোড়ের শেষপ্রান্তে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে দূরপাল্লার গণপরিবহনগুলোকে।

অপরদিকে, রাজধানীর হাউস বিল্ডিং, আজমপুর, জসীম উদ্দীন মোড় হয়ে বিমানবন্দর পর্যন্ত সড়কে রয়েছে যানজট। খিলক্ষেত থেকে কুড়িল, নতুনবাজার, বাড্ডা হয়ে রামপুরা-মালিবাগ, খিলক্ষেত থেকে র‌্যাডিসনের সামনে দিয়ে বনানী-কাকলী, মহাখালী হয়ে সাতরাস্তা, মগবাজার হয়ে রমনা, গুলশান-১ ও ২ নম্বর সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এসব এলাকায় বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সামনেও যানবাহন ও পথচারীর চাপ রয়েছে।

আরমান আরিফ নামে এক পথচারী বলেন, যানজট বড় সমস্যা। রাজধানীতে থাকতে হলে যানজটকে সঙ্গে নিয়েই থাকতে হবে। কারণ যে পরিমাণে গাড়ি সড়কে বেড়েছে তা যাত্রীদের তুলনায় অনেক বেশি এবং এসব গাড়ি একসঙ্গে চলাচলে পর্যাপ্ত সড়ক নেই। যেটুকু আছে সেখানেও সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ চলছে বছরের পর বছর। এখনো বিভিন্ন সড়কের পাশে ব্যক্তিগত গাড়ি পার্কিং করে রাখা হচ্ছে। অথচ অধিকাংশ ভবনের ভেতরে সঠিক পার্কিংয়ের ব্যবস্থা নেই। এতেও যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

পুলিশের ট্রাফিক সদস্যরা বলছেন, যানবাহন চালকরা সঠিক নিয়ম মেনে চলাচল করেন না। এতে সড়কে নানা ধরনের জটিলতার সৃষ্টি হয়। তাছাড়া সড়কে চলাচলে যাত্রী-পথচারী ও যানবাহনের চালক কেউই আইন মেনে চলেন না।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




বাসভাড়া কমবে কিনা জানা যাবে বিকালে

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

ডিজেলের দাম কমানোর পরিপ্রেক্ষিতে ডিজেলচালিত বাস ও মিনিবাসের ভাড়া পুনর্নির্ধারণ সংক্রান্ত বৈঠক ডেকেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)।

বুধবার বিকাল ৫টায় বনানীতে বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ে এ বৈঠক হবে। সোমবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর ঘোষণা দেয় বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়।

নতুন দাম অনুযায়ী, ভোক্তা পর্যায়ে প্রতি লিটার ডিজেল ১১৪ টাকা থেকে কমে ১০৯ টাকায় বিক্রি হবে। আর প্রতি লিটার কেরোসিন ১১৪ টাকা থেকে কমে বিক্রি হবে ১০৯ টাকায়, অকটেন ১৩৫ টাকা থেকে কমে ১৩০ টাকা এবং পেট্রল ১৩০ টাকা থেকে কমে ১২৫ টাকায় বিক্রি হবে। এ দাম কার্যকর হচ্ছে রাত ১২টার পর থেকে।

এর আগে গত ৬ আগস্ট জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে মহানগরে প্রতি কিলোমিটারে বাস ও মিনিবাসে ভাড়া ৩৫ পয়সা বাড়ায় বিআরটিএ। আর দূরপাল্লায় বাসভাড়া বাড়ায় ৪০ পয়সা।

বাড়ানোর আগে ভাড়া ছিল মহানগর পর্যায়ে কিলোমিটারে বাসে ২ টাকা ১৫ পয়সা, মিনিবাসে ২ টাকা ১০ পয়সা। দূরপাল্লার বাসে ভাড়া কিলোমিটারপ্রতি ১ টাকা ৮০ পয়সা ছিল। সর্বনিম্ন ভাড়া বাসে ১০ টাকা, মিনিবাসে ৮ টাকা।

জ্বালানি তেলের দাম কমায় ভাড়া সমন্বয়ের দাবি করেছেন যাত্রী সাধারণ। সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে বিকালে। 


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২