Logo
শিরোনাম

ইটনায় সরকারি স্কুলে বেলা ১২টায় শিক্ষক আসে নাই, ক্লাস নিচ্ছেন দপ্তরী

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মোঃ মুজাহিদ সরকার কিশোরগঞ্জ ঃ

কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার জয়সিদ্ধি ইউনিয়নের ভয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণির ক্লাস নিচ্ছেন দপ্তরী মোঃ নরু আলম। স্থানীয়দের অভিযোগ এটা শুধুমাত্র আজকের দৃশ্য না এই স্কুলে সচরাচর এমন দৃশ্য দেখা যায়। 

গত ২৪ আগস্ট ইটনায় মহামান্য রাষ্টপতি তার বক্তব্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে কঠোর নির্দেশনা দিয়ে বলেন গেছেন, যারা শিক্ষকতা করেন অনেকেই প্রতিদিন জেলা সদর থেকে শিক্ষকতা করতে ইটনায় আসেন আবার এইদিনই জেলা সদরে চলে যান, এতে করে ছেলে-মেয়েদের শিক্ষাগ্রহণ কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে, আপনারা যদি এলাকায় থেকে শিক্ষকতা করতে না পারেন, তাহলে চাকরি ছেড়ে চলে যান, এটা কোনভাবেই মেনে নেওয়া হবে না। 

২৮ আগস্ট রোজ রবিবার বেলা সাড়ে এগারোটায়(১১:৩০) ভয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সংবাদ প্রতিবেদক সরজমিনে উপস্থিত হলে এমন দৃশ্য দেখেন। প্রথম শ্রেণির ক্লাস নিচ্ছেন ঐ ব্যক্তির পরিচয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি স্কুলের শিক্ষক না আমি দপ্তরী। তিনিও আরও জানান, স্যার-ম্যাডাম এখনও আসেন নাই এই জন্য আমি প্রথম শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের একটু পড়াচ্ছি। প্রতিদিন এমন ভাবে ক্লাস নেন নাকি এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি মুচকি হাসি দিয়ে এড়িয়ে যান। 

বেলা সাড়ে এগারোটায় স্যার-ম্যাডাম এখনও স্কুলে আসেন নাই এই প্রশ্নের জবাবে দপ্তরী মোঃ নরু আলম বলেন, প্রধান শিক্ষকের আত্মীয়ের চিকিৎসার জন্য তিনি আসেন নাই, বাকি স্যার ম্যাডাম মনে হয় রাস্তায় আছে, আসতেছেন। নির্দেশনা আছে স্কুল শুরু হবে সকাল ৯টায় এবং সকাল সারে নয়টায় ক্লাস কার্যক্রম শুরু করতে হবে। 

ভয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ১৯৩৬ সালে প্রতিষ্ঠিত। স্কুলটিতে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা প্রায় ২১৫ জন। বর্তমানে স্কুলটিতে ০৬ জন সরকারি শিক্ষক আছেন। 

ভয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিদ্যোৎসাহী মোঃ মাহাতুবুদ্দিন বলেন, আমিও স্কুলে এসে দেখি কোন স্যার ম্যাডাম নাই। স্যার ম্যাডাম বেলা সাড়ে এগারোটায় উপস্থিত নাই এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এমন অভিযোগ আগেও শুনছি এখন আপনি, আমি এবং এলাকার মানুষ নিজ চোখে দেখলাম, এমন ভাবে হলে আমাদের সন্তানদের পড়াশোনা কীভাবে হবে। 

ভয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী তাহেরা আক্তারের অভিভাবক মোঃ শাহাবুদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, এই স্কুলে স্যার-ম্যাডামরা যার যেমন ইচ্ছামতো আসেন আবার যায়, স্যার-ম্যাডাম যদি কিশোরগঞ্জ থাকেন আর আসতে আসতে যদি বেলা ১১-১২টা বাজে তাহলে পড়াশোনা কখন করাবে। 

স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, আমরা এই স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থী, আমাদের ছোট ভাই-বোন এই স্কুলে পড়াশোনা করেন, তাদের খোঁজ খবর নিতে আসলে দেখি স্যার-ম্যাডাম ক্লাস রেখে মোবাইল ফোন নিয়ে ব্যস্ত আছেন। একজন বলেন, একদিন আমি একজন ম্যাডামকে ক্লাস রেখে মোবাইলে কথা বলতে দেখে আমি প্রতিবাদ করলে আমার সাথে খুব খারাপ ব্যবহার করেন। 

উল্লেখ্য যে, বেলা ১২ টা বাজলে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের ছুটির ঘন্টা বাজিয়ে ছুটি দিচ্ছেন দপ্তরী মোঃ নরু আলম। বেলা ১২টা পর্যন্ত স্কুলে উপস্থিত থেকে সংবাদ প্রতিবেদক কোন শিক্ষকদের দেখা না পেয়ে চলে আসার সময় একজন সহকারী শিক্ষক মোঃ ইকবাল হোসাইন আসেন। 

ভয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আমি একজন রোগী নিয়ে হাসপাতালে আছি, এই ছুটির ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার স্যার কে জানিয়ে আসছি। বাকি শিক্ষক বৃন্দ স্কুলে বেলা সারে এগারোটায় উপস্থিত নাই এই প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, আমি আসার আগে সবাই কে বলছি স্কুলে ঠিক সময় যাওয়ার জন্য। এখনও স্কুলে কেন আসে নাই, খোঁজ খবর নিতে হবে। কিছুক্ষণ পর তিনি ফোন দিয়ে জানান, দুইজন রাস্তায় আছে, আসতেছেন তখন ঘুরির কাঁটায় বেলা ১১:৪৭ বাজে। 

কিশোরগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সুব্রত কুমার বণিক কে উক্ত বিষয়ে অবগত করলে তিনি জানান, সাংবাদিকদের কে ধন্যবাদ জানাই আপনারা তথ্য পেয়ে, মাঠ পর্যায়ে গিয়ে তথ্যের সত্যতা যাচাই করে আমাদের কে জানানোর জন্য। আমি অভিযোগ এবং সংবাদ প্রকাশিত হবার পর তদন্ত করে বিভাগীয় আইনগত ব্যবস্থা নিব। সরকারি দায়িত্ব অবহেলা করলে কেউ ছাড় পাবে না।


আরও খবর

বিশ্বজয় করে দেশে ফিরল ক্ষুদে হাফেজ

শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২




সংকট সৃষ্টি করে বেশি দামে সার বিক্রির অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : চলতি বোরো মৌসুমে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে খুলনার পাইকগাছায় বিএডিসি ও বিসিআইসির ডিলাররা সারের দাম বাড়িয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, কৃষকরা যাতে সময়মতো জমিতে সার দিতে পারেন সেটা নিশ্চিত করতে সরকারের বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) এবং বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) সারাদেশের ডিলার নিয়োগের মাধ্যমে কৃষকদের কাছে সার বিপণনের কাজটি করে থাকেন। এছাড়া বিদেশ থেকে আমদানি করা সার বিপণনের জন্য বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোও ডিলার নিয়োগ করে তারা। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সারাদেশের জেলা-উপজেলায় সার-বীজ বিতরণ ও মূল্যায়ন কমিটির সার বিতরণ কার্যক্রম সমন্বয় করেন। উপজেলা পর্যায়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা পদাধিকার বলে এই মূল্যায়ন কমিটির প্রধান। কিন্তু বাস্তবতা বলছে ভিন্ন কথা।

কৃষকরা বলছেন, সংকট থাকলে অতিরিক্ত দামে ডিলারদের সারের উৎস কোথায়?

সার ডিলারদের অনেকেই জানান, সারের পর্যাপ্ত বরাদ্দ না থাকায় বিভিন্ন এলাকা থেকে অতিরিক্ত দামে সার ক্রয় করায় বাধ্যতামূলক সরকার নির্ধারিত মূল্যের বাইরে সার বিক্রি করতে হচ্ছে। তাছাড়া এলাকায় চিকন দানার ইউরিয়ার চাহিদা বেশি থাকলেও মূলত তাদেরকে ইচ্ছানুযায়ী মোটা দানার ইউরিয়া সরবরাহ করা হয়। এক্ষেত্রে দাম বেশি দিলে জোটে চিকন দানার ইউরিয়া।

বিএডিসি ও বিসিআইসির পাশাপাশি সাব ডিলাররা সরকার নির্ধারিত সারের খুচরা মূল্য তালিকা দোকানে টানিয়ে রেখে প্রকাশ্যে অধিক দামে সার বিক্রি করলেও কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, তাদের কাছে কৃষকদের পক্ষে কোন অভিযোগ-অনুযোগ কিংবা পর্যাপ্ত প্রমাণাদি নেই। প্রমাণস্বরূপ তারা দোকানের বিক্রি রশিদ বা প্রমাণপত্র চান। এদিকে ডিলারদের পক্ষে খুচরা বিক্রেতাদের নাকি কোন রশিদ দেওয়ার বাধ্যবাধকতা নেই। তারা বড় জোর সাব ডিলারদের চালান দিয়ে থাকেন। তাছাড়া ডিলাররা যেখানে মূল্য তালিকা টানিয়ে রেখে প্রকাশ্যে বেশি দামে কৃষকদের সার কিনতে বাধ্য করছেন, সেখানে অতিরিক্ত দামে সার বিক্রি করলেও রশিদে সরকারি দামের বাইরে অতিরিক্ত দাম উল্লেখ করার কথা না। এই সাধারণ বিষয়টিই বুঝতে চাইছেন না উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা থেকে শুরু করে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তারা।

ধারণা করা হচ্ছে, সিন্ডিকেটটি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের যোগসাজশে পরোক্ষ সহায়তা নিয়েই কৃষকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফায়দা নিচ্ছে।

তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, বোরোর ক্ষেতে এখন মূলত ইউরিয়া ও পটাশ সারের প্রয়োজন, গ্রীষ্মকালীন সবজি ক্ষেতে ইউরিয়া এবং টিএসপি/ডিএপি, ভুট্টা চাষে প্রয়োজন পটাশ সার। চলতি ফাল্গুন ও আসন্ন চৈত্র মাসে পাট চাষের জন্য প্রয়োজন ইউরিয়া, টিএসপি/ডিএপি আর পটাশ। সব মিলিয়ে চলতি ভরা ও আসন্ন কৃষি মৌসুমে সারের চাহিদাকে পুঁজি করে পাইকগাছায় কৃত্রিম সংকটে সারের দাম বৃদ্ধি করেছেন ডিলাররা।

জানা গেছে, সরকার নির্ধারিত মূল্য হলো ইউরিয়া প্রতি বস্তা ৮০০ টাকা, এমওপি প্রতি বস্তা ৭৫০, ডিএপি প্রতি বস্তা ৮০০ এবং টিএসপি প্রতি বস্তা ১ হাজার ১০০ টাকা।

চাষিদের অভিযোগ, ডিলাররা বস্তাপ্রতি ইউরিয়ায় ১০০, এমওপি ২০০, ডিএপি ১০০ এবং টিএসপিতে প্রকারভেদে ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা পর্যন্ত ইচ্ছা মাফিক অতিরিক্ত দাম নিচ্ছেন। দীর্ঘদিন যাবত পাইকগাছায় বিএডিসি ও বিসিআইসি ডিলারগুলো মূলত তিনটি পরিবারের নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত হওয়ায় সিন্ডিকেটের মাধ্যমেই তারা নিয়ন্ত্রণ করেন সার-বীজের বাজার দর।

 


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




যাত্রাবাড়ি'র ৪৮নং ওয়ার্ডে

সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় হাজী আতিকুর রহমান

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

স্টাফ রিপোর্টারঃ 

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যাত্রাবাড়ি থানা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আসছে ১৩ ই অক্টোবর। যাত্রাবাড়ি থানা আওয়ামীলীগের সম্মেলন কে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। এছাড়াও যাত্রাবাড়ি থানা অন্তর্ভুক্ত গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ওয়ার্ড যেমনঃ ৪৮, ৪৯, ৫০, ৬২, ৬৩ ও ৬৫ নং ওয়ার্ডের সম্মেলন হবে। 

এদিকে আসন্ন সম্মেলনে থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নতুন কমিটির সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক সহ গুরুত্বপূর্ণ পদ কারা পাচ্ছেন এ নিয়ে চলছে নানান গুঞ্জন। তবে অধিকাংশ নেতাকর্মীই মনে করেন, ভিন্ন দল থেকে উড়ে এসে জুড়ে বসা নেতৃত্ব বাদ দিয়ে দলের ত্যাগি ও পরীক্ষিত নেতাদের মধ্যে থেকে নবীন প্রবীণের সমন্বয়ে নতুন নেতৃত্বের হাতে দলের দায়িত্ব তুলে দিতে হবে। তাহলে দলের দুঃসময়ে তারা মাঠের কর্মীদের পাশে থাকবেন বলে তাদের প্রত্যাশা 

যাত্রাবাড়ি থানার ৪৮ নং ওয়ার্ডে সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনার শীর্ষে আ,লীগ নেতা হাজী আতিকুর রহমান সুমন। দলের এবং নেতাকর্মীদের প্রিয়মুখ হিসেবে পরিচিত হাজী আতিকুর রহমান সুমন দক্ষিণ সায়েদাবাদ এলাকায় ইতিমধ্যে মানবিক নেতা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন।তিনি সায়েদাবাদ এলাকার শত শত অসহায়, দারিদ্র্যপীড়িত মানুষের মাঝে নিজ অর্থায়নে শীতের সময় শীতবস্ত্র এবং বছরে দুই ঈদে জামা -কাপড় উপহার বিতরণ করে থাকেন। 

মানবিক নেতা হাজী আতিকুর রহমান সুমন'র ছাত্রলীগের মাধ্যমে রাজনীতি জীবনের যাত্রা শুরু। উল্লেখ যে, সাবেক ডেমরা থানা অন্তর্ভুক্ত ৮৪ নং ওয়ার্ড যা কিনা এখন যাত্রাবাড়ী থানা ৪৮ নং ওয়ার্ড। তিনি সাবেক ডেমরা থানা ৪৮নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের জসিম-আজিজ কমিটির একনিষ্ঠ ছাত্রলীগ কর্মী ছিলেন। সাবেক ডেমরা থানা ৪৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের বাতেন-আব্বাস আলী'র কমিটির যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। সাবেক ডেমরা থানা ৪৮নং ওয়ার্ড যুবলীগের মোঃ ওসমান-আবুল কালাম (অনু) কমিটির ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। এছাড়াও যাত্রাবাড়ি থানা ৪৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে আওয়ামীলীগের হাত কে শক্তিশালী করার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি সায়দাবাদ বাস টার্মিনাল শ্রমিক কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সায়দাবাদ বাইতুল জান্নাহ জামে মসজিদ ও আল হেরা মাদ্রাসার কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। বর্তমানে বীর মুক্তিযোদ্ধা ঢাকা-৫ আসনের সংসদ সদস্য এবং যাত্রাবাড়ি থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী মনুরুল ইসলাম মনু'র রাজনৈতিক জীবনের বিশ্বস্ত কর্মী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র ব্যারিষ্টার শেখ ফজলে নুর তাপসকে বিজয়ী করার লক্ষ্য তিনি ৪৮নং ওয়ার্ডে দায়িত্ব পালন করেছেন এছাড়া ও তিনি বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৪৮ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন কেন্দ্রে থেকে অগ্রনী ভুমিকা পালন করেন। 

এছাড়াও তৃণমূলের কর্মী বান্ধব জননেতা হাজী আতিকুর রহমান সুমন বিভিন্ন সামাজিক ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সাথে ও জড়িত রয়েছেন। বিভিন্ন সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উপদেষ্টা হিসেবে সততার সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছেন। 

যাত্রাবাড়ি'র ৪৮ নং ওয়ার্ডে কর্মীবান্ধব এ নেতাকে সাধারণ সম্পাদক করার লক্ষ্যে নেতাকর্মীদের বেশ তৎপরতা লক্ষ করা যাচ্ছে। তাকে ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও সরব রয়েছে। ৪৮ নং ওয়ার্ডের বেশির ভাগ নেতাকর্মীই আ,লীগ নেতা হাজী আতিকুর রহমান সুমন কে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পদায়নের জন্য মতামত ব্যক্ত করতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে। 

সায়েদাবাদ এলাকার জনগণ জানান, রাজপথের ত্যাগী নেতা আ,লীগ নেতা হাজী আতিকুর রহমান সুমন যোগ্য 'সাধারণ সম্পাদক' প্রার্থী। আ,লীগ নেতা হাজী আতিকুর রহমান সুমন ৪৮নং ওয়ার্ডের নেতা কর্মীদের সাথে সমন্বয় করে দলের ভাবমূর্তি সূদরপ্রসারী করছেন। এবারের সম্মেলনে তাকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করলে দল ও তৃনমূল কর্মীদের অনেক উপকৃত হবে। 

৪৮নং ওয়ার্ড যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা বলেন, এই ওয়ার্ডে আ,লীগ নেতা হাজী আতিকুর রহমান সুমন দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন রাজনৈতিক মিছিল, মিটিং ও সমাবেশে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে আসছেন। তাই সাধারন সম্পাদক পদটি তারই একমাত্র পাওয়ার যোগ্য। 

৪৮ নং ওয়ার্ডের সাধারন সম্পাদক পদপ্রার্থী আ,লীগ নেতা হাজী আতিকুর রহমান সুমন বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে কাজ করবো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ও রুপকল্প ভিশন-২০৪১ বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে কাজ করবো। দলের দূঃসময়ে রাজপথে ছিলাম। 

গত ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচনে নৌকার প্রার্থী কাজী মনুরুল ইসলাম মনুকে বিজয়ী করার লক্ষে দলের হয়ে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে বলে জানান। করোনা মহামারীর সময়ে ৪৮নং ওয়ার্ডে যাত্রাবাড়ি থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী মনুরুল ইসলাম মনু(এমপি) সার্বিক সহযোগিতায় ও নির্দেশে ঘরে ঘরে ত্রান বিতরণ ও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় কাজে সর্বদা নিয়োজিত ছিলেন বলে জানান


আরও খবর



জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পূণর্বাসিত করেছিল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, যখন বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল তখন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়। আমরা এখনো সেই প্রবৃদ্ধিতে পৌছাতে পারিনি। সে সময়ে খাদ্য সচিবের ষঢ়যন্ত্রে আমদানিকৃত চালের জাহাজ  ফেরৎ পাঠিয়ে খাদ্য শঙ্কট করেছিল। সে কারণে ১৯৭৪ সালে দেশে বাংলাদেশে খাদ্য শংকট দেখাদেয়।জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পূণর্বাসিত করেছিল। স্বাধীনতা বিরোধী শাহ আজিজুর রহমানকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছিল। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে বাংলাদেশকে হত্যা করার চেষ্টা করেছিল। ২১ আগস্ট শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গ্রেনেড হামলা হলো। ২৪ মানুষ মারা গেল, সেসময় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব আনা হয়নি। সংসদে বেগম খালেদা জিয়া হেসে বলেছিল তারাইতো ব্যানিটি ব্যাগে করে গ্রেনেড এনেছিল।


মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন,জাতির জনকের কন্যার পাশে থাকার জন্য আহবান জানান। ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে দেশকে এগিয়ে নেয়ার আহবান জানান।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিক ও অসচ্ছল সাংবাদিকদের মাঝে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়ন আয়োজিত আলী আহাম্মদ চুনকা নগর পাঠাগারে বুধবার সন্ধ্যার পর এ অনুষ্ঠানে

অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদ প্রশাসক আনোয়ার হোসেন, জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ, পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্য কাশেম হুমায়ুন, বিকেএমইএর নির্বাহী সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম।

অনুষ্ঠানে আটজন মৃত সাংবাদিকদের পরিবারের সদস্যদের ও অসুস্থ সাংবাদিকদের চিকিৎসার জন্য ১৯ লাখ টাকার চেক বিতরণ করা হয়।


আরও খবর



দুই গ্রামের মানুষের ভোগান্তি

মোড়েলগঞ্জে সরকারি খাল দখল করে মৎস্য চাষ

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদক :

 বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে লক্ষিখালী গ্রামে রেকর্ড়ীয় সরকারি খাল দখল করে মৎস্য চাষ করছেন প্রভাবশালীরা। পানি চলাচল বন্ধ হয়ে দুই গ্রামের শত শত পরিবারের ভোগান্তি এখন চরমে। স্থানীয় ক্ষমতাসীনদের পালা বদলে হাত বদল হয়েছে একাধিকবার। খাল অবমুক্ত হয়নি এখনও। প্রশাসন নির্বিকার।

সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, জিউধরা ইউনিয়নের বরইতলা লক্ষিখালী হয়ে ডেউয়াতলা অভিমুখি ১০ কিলোমিটারের সুন্দরবনের ভোলা নদীর প্রশাখা ভারানি খালটি এখন কালের বিবর্তনে হারিয়ে যেতে বসেছে। এ খালে মধ্যে ৮/১০টি বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা।

আবার পলি পড়ে অনেক অংশে মিশে গেছে জমির সাথে। মোরেলগঞ্জ-মোংলা এ দুই উপজেলার সিমান্তবর্তী বড় লক্ষিখালী গ্রাম অপরপ্রান্তে মোংলার মিঠাখালী ইউনিয়নের  সাহেবের মেট গ্রাম। এ খালের একটি অংশে বাঁধ দিয়ে স্থানীয় প্রভাবশালী মাসুদ রানা ৪/৫ বছর ধরে বে-দখল করে মাছ চাষ করছেন। পাসেই আরেকটি বাঁধ দিয়ে বাইজিদ সরদার মাছ চাষ করছেন। খালটি এখন পানি চলাচল বন্ধ হয়ে বর্ষা মৌসুমে প্রতিনিয়ত জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে ভোগান্তি শিকার হতে হচ্ছে লক্ষিখালী ও পালের খন্ড গ্রামের দুই শতাধিক পরিবারের। এদিকে পলি পরে ভরাট হয়ে যাওয়া জমিতে বসতবাড়ি করে ৭/৮ টি পরিবার বে-দখল করে রেখেছে। সরকারিভাবে এদের কোন দলিলপত্র নেই। রাজস্ব খাজনা দিতে হচ্ছে না ওইসব পরিবারকে।


স্থানীয় ভূক্তভোগী গ্রামবাসি স্বপন মিস্ত্রী, জবেদ আলী, দুলাল মন্ডল, নুরুন্নবী হাওলাদার, ইকবাল হাওলাদার, শর্বেশ্বর হালদার,  মজিবর শেখ সহ একাধিকরা বলেন, লক্ষিখালী হয়ে ডেউয়াতলা জনগুরুত্বপূর্ন এ খালটি পানি চলাচলের জন্য সরকারিভাবে কেটে অবমুক্ত করে দিলে ভোগান্তির শিকার হতে হবে না এসব ভূক্তভোগীরা খাল কাটার জোর দাবি জানিয়েছেন প্রশাসনের প্রতি।

সরকারি খাল দখল করে মাছ চাষী বাইজিদ সরদার বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ৩ হাজার টাকা বছরে ডাক নিয়ে মৎস্য চাষ করছেন ওই খালে তিনি। তবে, পরিষদ থেকে কোন কাগজপত্র দেয়নি।

এ সর্ম্পকে ইউপি চেয়ারম্যান  মো. জাহাঙ্গীর বাদশা বলেন, সরকারি খালে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে ডাক অথবা লিজ দেওয়া কোন ইখতিয়ার নেই। তারা কিভাবে ওই খাল ভোগদখল করছে তিনি অবহিত নন।  

এ বিষয়ে উপজেলা নিবার্হী অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সরকারি খাল দখল করে বাঁধ দিয়ে যারা মাছ করছেন  বিষয়টি খোঁজ নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শিগ্রই খাল কেটে জনভোগান্তি দূর করা হবে।


আরও খবর



মোল্লাহাটে রিজিক মিয়া ফুটবল টুর্নামেন্ট মোল্লাহাট চ্যাম্পিয়ন

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ

বাগেরহাটের মোল্লাহাটে রিজিক মিয়া চার দলিয় ফুটবল টুর্নামেন্ট -২০২২ এ মোল্লাহাট ফুটবল দল চ্যাম্পিয়ান হয়েছে। টুর্নামেন্টে বড়বাড়িয়া ফুটবল দলকে টাইব্রেকারে  ১-৩ গোলের ব্যাবধানে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয় মোল্লাহাট ফুটবল দল।

উপজেলা যুবলীগ নেতা ফজলে এলাহী লেবিন ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি আশিকুল আলম তন্ময়’র উদ্যাগে উপজেলার কেআর কলেজ মাঠে বুধবার দিনব্যাপি এ টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ও পুরস্কার বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ওয়াহিদ হোসেন, এসময় উপস্থিত ছিলেন, সহকারি কমিশনার (ভূমি) অনিন্দ্য মন্ডল, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম রেজা, থানা অফিসার ইনচার্জ সোমেন দাশ, অধ্যক্ষ এল জাকির হোসেন, প্রেসক্লাব মোল্লাহাটের সাধারণ সম্পাদক এম এম মফিজুর রহমান ও জৈষ্ঠ সহ-সভাপতি শরীফ মাসুদুল করিম, ইউপি চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) শহিদুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল্লাহীল কাফি প্রমূখ। খেলা পরিচালানা করেন তুষার খান।


আরও খবর

বিশ্বকাপ নিশ্চিত নারী ক্রিকেট দলের

শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

মুকুট নিয়ে আজ ফিরছে বাঘিনীরা

বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২