Logo
শিরোনাম

ইউএনও রোমানা আফরোজ বনাম শীর্তাত মানুষের শরীরে গড়ম কাপড়

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁয় মানবিক ইউএনও রোমানা আফরোজ তীব্রশীতে শীর্তাত মানুষের শরীরে তুলে দিচ্ছেন গড়ম কাপড়।

নওগাঁয় কয়েক দিন ধরেই চলমান শৈত্য প্রবাহে দরিদ্র, ছিন্নমুল ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর মানুষের যখন যুবুথুবু অবস্থায়, ঠিক সে সময়-ই   শির্তাতদের শীত নিবারণের জন্য গড়ম কাপড় নিয়েএগিয়ে এলেন নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ রোমানা আফরোজ। তিনি বুধবার বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত হতদরিদ্র ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী বসবাসরত এলাকায় ঘুরে ঘুরে নিজ হাতে ৫ শতাধিক অসহায় শীতার্ত মানুষের শরীরে জড়িয়ে দিয়েছেন শীত নিবারনে গড়ম কাপড়। অপরদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হাতে শীত নিবারণের গড়ম কাপর, জামা পেয়ে নারী-পুরুষ ও শিশুরা আনন্দ প্রকাশ করেন। 

বুধবার সন্ধ্যায় পত্নীতলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ রোমানা আফরোজ নজিপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর ভুঁইয়া পাড়া, পাটিচরা ইউনিয়নের পাটিচরা ও ছালিগ্রাম গ্রামে গিয়ে ৫ শত শীর্তাত নারী-পুরুষ ও শিশুর মাঝে শীত নিবারণের জন্য গড়ম মোটা কাপড় বিতরণ করেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন, নজিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হাবিবুর রহমান, ঘোষনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক প্রমুখ। উল্লেখ্য এর আগেও রোমানা আফরোজ রাতের আঁধারে বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে ঘুরে ৫শত শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। 

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোমানা আফরোজ বলেন, এলাকার শীতার্ত মানুষকে সুরক্ষা দেওয়া সকলের নৈতিক দায়িত্ব। পর্যায়ক্রমে শীর্তাত আরো মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে 


আরও খবর



লালমনিরহাটে গণতন্ত্রী পার্টির কম্বল বিতরণ

প্রকাশিত:Saturday ০৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি,লালমনিরহাট :


উত্তর জনপদের সীমান্ত জেলা লালমনিরহাটে শৈত্য প্রবাহের দরুন কাবু হওয়া এই জেলার বিভিন্ন স্থানে গণতন্ত্রী পার্টির পক্ষ থেকে ধরলা নদী তীরবর্তী সহ চরাঞ্চল সহ সদর পৌরসভার শীতার্ত কিছু সংখ্যক মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করে।  

এসময় উপস্থিত ছিলেন,জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সংগ্রামী জননেতা উত্তম কুমার রায় লড়াই। তিনি এসকল মানুষের বাড়ী বাড়ী গিয়ে,বুমকা,ইটাপোতা ও পৌর এলাকার থানা পাড়ায় কেন্দ্র থেকে প্রেরিত ৪০ ও এই নেতার ব্যক্তিগত  তহবিল থেকে ৬১ টি মোট ১০১ টি মানসম্মত কম্বল বিতরণ করেন।


আরও খবর



রোহিঙ্গা ক্যাম্পে র‍্যাবের অভিযান

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : জঙ্গি সংগঠন 'জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া'র শীর্ষ দুই নেতাকে আটক করেছে র‍্যাব। রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও এর আশপাশের এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এছাড়া সংগঠনের বিভিন্ন স্তরের ৩৮জন সদস্য ও তাদের আশ্রয়দাতা ১৪জনকে আটক করেছে রেব।

তারপর কুতুপালং ক্যাম্পের পাশের রাবার বাগান থেকে আটক করা হলো নব্য জঙ্গি সংগঠন জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়ার শূরা সদস্য ও সামরিক শাখার প্রধান মাশেকুর রহমান ওরফে রনবীর এবং সংগঠনের বোমা বিশেষজ্ঞ আবুল বাশারকে। এ সময় দেশি-বিদেশি অস্ত্র, গোলাবারুদ ও নগদ আড়াই লাখ টাকারও বেশি দেশী মুদ্রা উদ্ধার করা হয়।

রেবের মিডিয়া উইং এর দাবি, নব্য জঙ্গি সংগঠনের সেকেন্ড ইন কমান্ড মানিক ও শাওনসহ সাতজনকে বান্দরবান থেকে আটকের পর পালিয়ে ক্যাম্পে আশ্রয় নিয়ে ছিলো সামরিক শাখার প্রধান রণবীর। এ তথ্য নিয়ে অভিযান চালিয়ে দু'জনকে আটক করা হয়।

তিনি বলেন, কুমিল্লায় তথাকথিত হিজরতের কথা বলে নিখোঁজ আটজনের অনুসন্ধান করতে গিয়ে নব্য জঙ্গি সংগঠন জামাতুল আনসার ফিল ইন্দাল শারক্বীয়ার গোড়ার খবর পায় রেব। তরুণদের দলে ভিড়িয়ে সামরিক ও অস্ত্র প্রশিক্ষণসহ নানা কাজ করে যাচ্ছে এই সংগঠন। 


আরও খবর

সুখবর নেই বাজারে

Saturday ০৪ February ২০২৩




অস্তিত্ব সংকটে কক্সবাজারের বাঁকখালী নদী

প্রকাশিত:Wednesday ২৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক :কক্সবাজারের প্রধান নদী বাঁকখালী দখল ও দূষণে পড়েছে রীতিমতো অস্তিত্ব সংকটে। এমন কঠিন পরিস্থিতিতে মৃতপ্রায় এ নদী উদ্ধারে এগিয়ে এসেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। নদীর ৫০০ একর ভূমি উদ্ধারে ১৫৭ জন প্রভাবশালী দখলদারের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে এই সংস্থা। ইতোমধ্যে কিছু দখলদারকে নোটিশও দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

দুর্নীতি দমন কমিশন চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়-২ এর উপসহকারী পরিচালক জানান, পর্যায়ক্রমে বাঁকখালী নদীর সব দখলদারের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর হাইকোর্ট বাঁকখালী দখলদারদের তালিকা তৈরি করে তাদের উচ্ছেদ এবং দূষণের উৎস চিহ্নিত করে তা বন্ধের নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে নদীর তীরে চিংড়ি চাষ, তামাক বা ভিন্ন কোনো উদ্দেশ্যে ইজারা প্রদান থেকে বিরত থাকতে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসকসহ ১০ সরকারি কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন আদালত।

কিন্তু আদালতের নির্দেশনার ছয় বছর পরও জেলা প্রশাসন, পরিবেশ অধিদপ্তর কিংবা কক্সবাজার পৌরসভা কার্যকর কোনো পদক্ষেপই নেয়নি। দখলবাজ চক্র নদী তীরে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তোলার পাশাপাশি বাঁকখালী নদীর জমি দেখিয়ে কোটি কোটি টাকার ব্যাংক ঋণ গ্রহণের নজিরও রয়েছে। ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসন থেকে নদী দখলদারদের যে তালিকা করা হয়েছে তাতে প্রভাবশালী অনেকের নাম বাদ পড়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। তবে ওই তালিকার বাইরে থাকা দখলদারদের বিরুদ্ধেও দুদক তদন্ত করবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

নদী তীরবর্তী বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, শহরের উত্তর নুনিয়াছড়া থেকে মাঝেরঘাট পর্যন্ত নদীর প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকায় ভরাট ও দখল তৎপরতা বেশি। কস্তুরাঘাটের বিআইডব্লিউআইটি টার্মিনাল সংলগ্ন নদীর ভরাট জমিতে গড়ে উঠেছে নানা স্থাপনা। তৈরি হয়েছে চিংড়িঘের, লবণ উৎপাদনের মাঠ, প্লট বিক্রির হাউজিং কোম্পানি, নৌযান মেরামতের ডকইয়ার্ড, ময়দা ও বরফ কল, শুঁটকি মহালসহ অসংখ্য ঘরবাড়ি।

শহরের চারটি পয়েন্টে ময়লা-আবর্জনা ফেলে নদীর তলদেশ ভরাট করছে খোদ পৌরসভা কর্তৃপক্ষ। ভরাট নদীতে ময়লা-আবর্জনা ও পলিথিনের কারণে কেওড়া ও বাইন গাছের প্যারাবন মরে যাচ্ছে। ধ্বংস হচ্ছে জীববৈচিত্র্য।

আদালতের নির্দেশের পর প্রশাসন কতিপয় দখলদারের একটি তালিকা তৈরি করে নোটিশ জারি করেছিল। এরপর কয়েক দফা লোকদেখানো উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত নদীতে বর্জ্য ফেলা বন্ধ হয়নি। উচ্ছেদ হয়নি অবৈধ দখলদারও। প্রায় ৮০ কিলোমিটারের এই নদীর বাংলাবাজার থেকে নুনিয়াছড়া পর্যন্ত ১৬ কিলোমিটার অংশে দখলের ঘটনা বাড়ছে। এসব এলাকায় দখলদারের সংখ্যা অন্তত এক হাজার।

জানতে চাইলে এ বিষয়ে কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) বলেন, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে বাঁকখালী নদীর অবৈধ দখলদারদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। খুব শিগগিরই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে।


আরও খবর

সুখবর নেই বাজারে

Saturday ০৪ February ২০২৩




প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার চেক পেলেন ২৬ জন সাংবাদিক

প্রকাশিত:Wednesday ০১ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁয় ২৬ জন সাংবাদিকদের মাঝে সাংবাদিক কল‍্যান ট্রাষ্ট থেকে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার চেক বিতরণ করা হয়েছে। 

বুধবার বিকাল সারে ৩টায় নওগাঁ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব চেক বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান পিএএ'। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ইব্রাহিম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) এস এম জাকির হোসেন, নওগাঁ জেলা প্রেস ক্লাব এর সভাপতি কায়েস উদ্দিন, নিয়ামতপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি শাহজাহান সাজু সহ অন্যান্য সাংবাদিকরা বক্তব‍্য রাখেন। পরে নওগাঁ জেলা সদর, নিয়ামতপুর ও পত্নীতলা উপজেলার মোট ২৬ জন সাংবাদিককে মোট ২ লাখ ৬০ হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হয়।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রীর সাথে আইএমএফ ডিএমডি

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

আসছে ৩০ জানুয়ারিতে নির্ধারিত সভায় আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল-আইএমএফ এর নির্বাহী পর্ষদ বাংলাদেশের ঋণ প্রস্তাবে চূড়ান্ত অনুমোদন দিতে পারে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতকালে এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন ঢাকা সফররত সংস্থাটির ডিএমডি অ্যান্তইনেত মনসিও সায়েহ। এসময় বেসরকারি বিনিয়োগ, রপ্তানি খাত এবং জলবায়ু ঝুঁকি মোকাবিলায় বাংলাদেশের পরিকল্পনা নিয়েও আলোচনা করেন তিনি ।

গণভবনে এই সাক্ষাত উপলক্ষে এক বিবৃতিতে বলা হয় মূল্যস্ফীতি ও জিডিপি'র তুলনায় ঋণের হার নিয়ন্ত্রণ সহ অর্থনৈতিক নানা ধাক্কা সামলাতে বাংলাদেশের উদ্যোগগুলোর প্রসংশা করছে আইএমএফ। অ্যান্তইনেত বলেন, রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে বাংলাদেশের অর্থনীতিও ঝুঁকিতে আছে তবে সংকট উত্তরণে সরকারের পদক্ষেপগুলো প্রসংশাযোগ্য। রির্জাভ ঘাটতি মেটাতে সহায়তার প্রশ্নে তিনি বলেন, এজন্য সরকারের নেয়া সংস্কার কর্মসূচিগুলো নিরিক্ষা করছে আইএমএফ কারণ আগামী দিনে রাজস্ব আয় আরও বাড়ানো এবং আর্থিক খাতে স্থিশীলতা জরুরি।  


আরও খবর

কমছে আয়, বাড়ছে ব্যয়

Saturday ০৪ February ২০২৩