Logo
শিরোনাম
শবে বরাত পালন মুসলিম জাতিকে একতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ করে। ৫৭ তম খোশরোজ শরীফ ও মইনীয়া যুব ফোরামের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন বাঙালি সাংস্কৃতিতে মাইজভাণ্ডারী ত্বরীকার সাথে সম্পর্ক রয়েছে সীমান্তে হত্যা বন্ধের দাবীতে প্রতীকী লাশ নিয়ে হানিফ বাংলাদেশীর মিছিল লক্ষ্মীপুরে কৃষক কাশেম হত্যা: স্ত্রী, শ্বশুরসহ গ্রেপ্তার ৫ কুমিল্লা সিটি’র উপনির্বাচন: মেয়র পদে প্রতীক বরাদ্দ অবৈধ মজুদকারীরা দেশের শত্রু : খাদ্যমন্ত্রী ফতুল্লায় সিগারেট খাওয়ার প্রতিবাদ করায় কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা বকশীগঞ্জে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা নোবিপ্রবিতে সিএসটিই এলামনাই এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠন

জিমেইলে আসছে নীল টিক

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

জিমেইল নির্মাতা গুগল তাদের ইমেইল সেবায় নতুন বৈশিষ্ট্য যুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে। ইনবক্সে আসা ইমেইলের ডান পাশে নীল টিক চোখে পড়বে কিছুদিনের মধ্যেই। যা নিশ্চিত করবে ইমেইলটি প্রকৃত কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আসা কিনা।

নীল (চেকমার্ক) হচ্ছে গুগল ব্র্যান্ড ইন্ডিকেটর ফর মেসেজ আইডেন্টিফিকেশন (বিআইএমআই) প্রযুক্তির সবশেষ বাস্তবায়ন। ২০২০ সালে গুগল (বিআইএমআই) নিরাপত্তায় জিমেইলে পরীক্ষা শুরু করে। প্রেরকের ইনবক্সে আসা ইমেইলকে বিআইএমআই তালিকায় নথিভুক্ত করে ব্র্যান্ডগুলোকে প্রমাণযোগ্য লোগো হিসেবে ফিল্টার করবে। তখন নীল চেক বৈধ প্রেরকের সুস্পষ্ট সূচক হিসেবে বাড়তি নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।

ইনবক্সে আসা ইমেইলের পাশে পপ আপ দৃশ্যমান হলে তা পর্দায় দেখা যাবে। পপ আপে সঙ্গে থাকা লিঙ্ক ইমেইল ভোক্তাকে বার্তা প্রেরকের বিশদ তথ্য নিশ্চিত করবে।

মূলত শক্তিশালী যাচাই-বাছাইয়ে ইমেইল সুরক্ষায় স্প্যাম শনাক্ত ও বন্ধ করতে সহায়তা করবে জিমেইলের নতুন ফিচার। তা ছাড়া প্রেরকদের বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রতি পূর্ণ আস্থা নিশ্চিতেও সহায়ক হিসেবে কাজ করে।

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (AI) যুগে ইমেইলকে আরও বেশি গ্রহণযোগ্য করতে জিমেইল ইকোসিস্টেম তৈরি করতে চাইছে। ব্র্যান্ড ও ব্যক্তির কাছে আরও বেশি গ্রহণযোগ্য হতেই নতুন পদ্ধতির সূচনা করতে যাচ্ছে গুগল। সবার জন্য ফিচারটি এখনও উন্মুক্ত হয়নি। তবে তা চালু হতে খুব বেশি সময় অপেক্ষায় থাকতে হবে না বলে জানিয়েছে গুগল কর্তৃপক্ষ।

ইতিমধ্যে বিশ্বের নিবন্ধিত ভালো ব্র্যান্ডগুলো বিআইএমআই তালিকায় নিজেদের অন্তর্ভুক্ত করতে গুগলের সঙ্গে যোগাযোগ করছে বলে খবরে প্রকাশ।


আরও খবর



ব্যবসা শুরু করতে যাচ্ছেন পরীমণি

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

গত বছরের শেষের দিকে ব্যবসায়ীর হিসেবে নাম লেখালেন ঢাকাই সিনেমার অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস। নিজের পরিকল্পনায় তিনি শুরু করেছেন বুটিক ও বিউটি পারলার এবং রেস্টুরেন্টের ব্যবসা। এবার সেই পথে হাটতে যাচ্ছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের বর্তমান প্রজন্মের জনপ্রিয় নায়িকা পরীমণি।

অভিনেত্রীর পাশাপাশি এবার নতুন পরিচয়ে আসছেন তিনি। আসছে ঈদে একটি প্রসাধনীর পণ্যের ব্যবসা শুরু করতে যাচ্ছেন।

এ নিয়ে এক গণমাধ্যমকে পরীমণি বলেন, আসলে অনেক আগে থেকেই আমার ব্যবসা করার ইচ্ছে ছিল কিন্তু কি কিসের বিজনেস শুরু করবো তাই ভাবছিলাম। অবশেষে অনেক ভেবে আর সবদিক বিবেচনা করে প্রসাধনীর পণ্যের ব্যবসা শুরু করতে যাচ্ছি।

হালের এই জনপ্রিয় নায়িকা আরও বলেন, এখন সোশ্যাল মিডিয়াতে ঢুকলেই অনেকেই দেখি অনেক ব্যবসা করছে। সেগুলোর মাঝে মেয়েদের প্রসাধনীর পণ্যের ব্যবসা বেশ তুঙ্গে। অনেকেই বেশ ভালো পণ্য বিক্রি করছে। তবে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় একটু কম দামে অনেকেই ব্যান্ডের পণ্য অনলাইন থেকে ক্রয় করছে। সেক্ষেত্রে দেখা যায় তারা আসলে প্রতারিত হচ্ছে। কেননা ব্যান্ডের পণ্য বলে বিক্রি হচ্ছে ক্লোন পণ্য। যা আসলে আমাদের স্কিনের জন্য বেশ ক্ষতিকর। আর তাই স্কিন ভালো রাখতে অরজিনাল ব্যান্ডের পণ্য নিয়ে বাজারে আসছি।


আরও খবর

বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত মাহিয়া মাহির

শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




টেকনাফ সীমান্তে পড়ে আছে মরদেহ

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকায় একাধিক মরদেহ পড়ে আছে। আরকান আর্মির সঙ্গে মিয়ানমারের জান্তা সরকারের সংঘর্ষের ঘটনায় এ মরদেহের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এতে আতঙ্কে রয়েছে টেকনাফ সীমান্তের বাসিন্দারা।

শুক্রবার সকালে এসব মরদেহ পড়ে থাকার দাবি করেছে স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা জানান, উখিয়া সীমান্তের রহমতের বিল এলাকায় কয়েকজনের মরদেহ পড়ে আছে। কয়েকজন কৃষক তিন থেকে চারটি মরদেহ সীমান্তের পাশে পড়ে থাকতে দেখেছেন।

স্থানীয় শিক্ষক নুরুল বশর বলেন, রহমতের বিল থেকে ওপারে মিয়ানমারের ঢেঁকিবুনিয়া সীমান্তের দূরত্ব আধা কিলোমিটার। সীমান্তের এপারে তিন থেকে চারটি মরদেহ পড়ে আছে।

উখিয়া থানার ওসি শামীম হোসেন বলেন, স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে এমন খবর পেয়েছি। শুক্রবার দুপুরে পুলিশ সেখানে যায়। কিন্তু সীমান্তের একেবারে কাছাকাছি লাশগুলো থাকায় নিরাপত্তা জনিত কারণে পুলিশ তা উদ্ধার করতে পারেনি। তবে তা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।


আরও খবর



মিয়ানমারের ১১৭ সেনার বিজিবি ক্যাম্পে আশ্রয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

মিয়ানমারের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সঙ্গে পেরে না উঠে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপির আরও ১১ জন সদস্য। এ নিয়ে দেশ ছেড়ে সীমান্তের এপারে আশ্রয় নেওয়া বিজিপি সদস্যের সংখ্যা দাঁড়াল ১১৭ জনে।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে বিজিবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরীফুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, মিয়ানমারের অভ্যন্তরে ক্ষমতাসীন জান্তা বাহিনী ও বিদ্রোহীদের চলমান সংঘর্ষের জেরে এখন পর্যন্ত দেশটির বর্ডার গার্ড পুলিশের ১১৭ জন সদস্য বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। বিজিবি সদস্যরা তাদের সবাইকে নিরস্ত্রীকরণ করে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়েছে।

এদিকে, মিয়ানমার ইস্যুতে বাংলাদেশের সশস্ত্রবাহিনী ও বিজিবিকে (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) ধৈর্য ধারণ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর আইনমন্ত্রী বলেছেন, মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে বাংলাদেশ এবং এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অন্যদিকে, বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় চলমান অস্থিরতার কারণে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বিবেচনায় বান্দরবান পার্বত্য জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী ৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ করা হয়েছে। পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকবে বলে নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম ইরাবতী জানিয়েছে, জান্তা সামরিক বাহিনীর আরও বেশ কয়েকটি ঘাঁটি দখল করেছে আরাকান আর্মিসহ জাতিগত স্বাধীনতাকামীরা। এছাড়া গত চারদিনে তাদের হাতে প্রাণ হারিয়েছে দেশটির অন্তত ৬২ জন সেনা। জান্তার বিরুদ্ধে মিয়ানমারজুড়ে হামলা জোরদার করেছে সশস্ত্র এই জাতিগত স্বাধীনতাকামীরা।

গত পাঁচ দশকেরও বেশি সময় ধরে মিয়ানমারে সামরিক বাহিনীর সঙ্গে দ্বন্দ্ব-সংঘাত চলছে দেশটির বিভিন্ন সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠীর। ২০২১ সালে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে জান্তার রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের পর এ সংঘাত বেড়ে যায়। বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাংশে দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে মিয়ানমারের সঙ্গে।


আরও খবর



রামগড়ে কৃষি জমি থেকে মাটি কাটার অপরাধে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

মোহাম্মদ শাহেদ হোসেন রানা

রামগড়(খাগড়াছড়ি) :

রামগড়ে কৃষি জমি থেকে মাটি কাটার দায়ে ১ ব্যাক্তিকে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সোমবার ১২ জানুয়ারী রাত সাড়ে ৮টায় রামগড় পৌরসভাধীন মুহামনি বিজিবি ক্যাম্পের পিছনে কৃষি জমি থেকে মাটি কাটার অপরাধে রামগড় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মমতা আফরিন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ১ ব্যাক্তিকে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করেন।

জরিমানাপ্রাপ্ত ব্যাক্তি হলেন, ফেনীরকুল গ্রামের ০৮ ওর্য়াড়ের বাসিন্দা মো.হারুন চৌধুরী।

এ বিষয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মমতা আফরিন বলেন, মহামুনি বিজিবি ক্যাম্পের পিছনে কৃষি জমি থেকে মাটি কাটার অভিযোগ পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত ঘটনাস্থলে এসে সত্যতা পান। এসময় ভূমির মালিক ঘটনাস্থলে এসে নিজের অপরাধ স্বীকার করেন। পরে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুযায়ী উক্ত ভূমির মালিক মো.হারুনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। এবং এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সহায়তা করবে যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা কয়েক লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয়দানকারী দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে সহায়তা করতে দৃঢ় প্রতিশ্রুতির কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এক প্রশ্নের লিখিত জবাবে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর এ কথা জানায়।

মিয়ানমারের জান্তা ও বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সংঘাতের আঁচ এসে পড়েছে বাংলাদেশেও। এরই মধ্যে মিয়ানমার থেকে ছোড়া গোলায় প্রাণ হারিয়েছেন এক বাংলাদেশি নাগরিক। সংঘর্ষ আর ওপার থেকে ভেসে আসা তীব্র গোলা-বারুদের শব্দে আতঙ্কে দিন কাটছে মিয়ানমার সীমান্তে থাকা জনপদগুলোয়। আরাকান আর্মির সঙ্গে চলমান সংঘাতে টিকতে না পেরে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছে মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশের দুই শতাধিক সদস্য।

ওয়াশিংটনে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে মিয়ানমারে জান্তা বাহিনীর সঙ্গে বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর সংঘাত এবং বাংলাদেশে কয়েক লাখ রোহিঙ্গার আশ্রয়ের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান জানতে চাওয়া হয়। প্রশ্নের প্রায় এক সপ্তাহ পর এ বিষয়ে লিখিত জবাব দেন মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার।

মিলার বলেন, মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা লাখ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়া বাংলাদেশের পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র। রোহিঙ্গা ইস্যুতে অতীতের মতো সব ধরনের সহায়তা দেয়ার কথাও বলা হয়।

এ ছাড়া জান্তা বাহিনীর সামরিক অভ্যুত্থানের কারণে মিয়ানমারে চরম মানবিক সংকটের পাশাপাশি আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নষ্ট হচ্ছে বলেও মনে যুক্তরাষ্ট্র। অবিলম্বে মিয়ানমারের বেসামরিক নাগরিকদের ওপর দমনপীড়ন বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানায় দেশটি।

 


আরও খবর

অনুমতি ছাড়া হজ করলে শাস্তি ঘোষণা

শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪