Logo
শিরোনাম

খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে দেশের ৩৬ শতাংশ মানুষ

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ নভেম্বর ২০২৩ |

Image

দারিদ্র্য বিমোচনে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সত্ত্বেও পুষ্টির স্তর উন্নয়ন প্রত্যাশিত মাত্রায় হয়নি ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রামের ২০২৩ সালের সিকিউরিটি মনিটরিং অনুযায়ী বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ৩৬ শতাংশ মানুষ খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে দারিদ্র্য অপুষ্টি এখনও হাত ধরাধরি করে চলছে নিউট্রিশন ইন্টারন্যাশনালের তথ্য অনুযায়ী কক্সবাজার অঞ্চলে অপুষ্টির হার অত্যন্ত বেশি, যেখানে ২৯% শিশু কম ওজনসম্পন্ন এবং ৩৫ শতাংশ শিশুই খর্বাকৃতিতে ভুগে থাকে এই প্রেক্ষাপটে অপুষ্টি দূর করে জনসাধারণকে সচেতন করবার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে

কক্সবাজারের একটি হোটেলে আয়োজিত এক প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বক্তারা উল্লিখিত মত তুলে ধরেন। নিউট্রিশন ইন্টারন্যাশনালের অর্থায়নে, ব্র্যাক স্বাস্থ্য কর্মসূচি (বিএইচপি)- অ্যাডোপ্টিং মাল্টিসেক্টরাল অ্যাপ্রোচ ফর নিউট্রিশন প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। পুষ্টি উন্নয়নে বহুমাত্রিক পদক্ষেপের অংশ হিসেবে মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের মাল্টিসেক্টরাল মিনিমাম নিউট্রিশন প্যাকেজবাস্তবায়নে করণীয় ঠিক করতে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. সাহাব উদ্দিন। এতে অন্যদের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন রামু উপজেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. অসীম বরন সেন, সদর উপজেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আতিকুর রহমান মিঞা, বিএইচপি- পল্লী কর্মসূচির অপারেশন প্রধান ডা. মনোয়ারুল আজিজ প্রমুখ। প্রশিক্ষক ছিলেন নিউট্রিশন ইন্টারন্যাশনালের প্রকল্প কর্মকর্তা অমিত কুমার মালাকার। ব্র্যাকের পক্ষ থেকে প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএইচপি- এরিয়া ইনচার্জ মেহনাজ বিনতে আলম

ডা. মো. সাহাব উদ্দিন বলেন, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর পুষ্টির মান উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি বার্তাসমূহ সকলের নিকট পৌছে দেওয়া অত্যন্ত জরুরি। এক্ষেত্রে প্রাণিসম্পদ বিভাগের সকল মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের আরও সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে

ডা. মনোয়ারুল আজিজ বলেন, পুষ্টি উন্নয়ন খাদ্য নিরাপত্তা বিবেচনায় দরিদ্র পরিবারের জন্য পুষ্টিকর খাবার অপরিহার্য। সেজন্য বৈচিত্র্যপূর্ণ খাবারের পাশাপাশি পুষ্টিগুনসমৃদ্ধ খাবার গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করার জন্য প্রচারণা বাড়াতে হবে। তিনি অপুষ্টি দূরীকরণ সমস্যা মোকাবিলায় সরকারি সংস্থা, সুশীল সমাজ বেসরকারি সংস্থাকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান


আরও খবর

নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করা হবে

বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩




মাতারবাড়ি সমুদ্র বন্দর, তিন বিলিয়ন ডলার যোগ হবে

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ |

Image

কক্সবাজারের মহেশখালীর মাতারবাড়ি ধলঘাট এলাকায় নির্মণাধীন মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর চালু হলে দেশের অর্থনীতিতে দুই থেকে তিন বিলিয়ন ডলার যুক্ত হবে। সিঙ্গাপুর ও কলম্বো বন্দর থেকে পণ্য পরিবহন খরচ ১০ থেকে ২০ ভাগ কমে আসবে।
নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর দক্ষিণ এশিয়ার সিম্বল হয়ে থাকবে। আর দেশের অর্থনীতিতে দুই থেকে তিন বিলিয়ন ডলার যোগ হবে। বন্দর থেকে পণ্য পরিবহন খরচও কমে আসবে। এক কথায় অর্থনীতিতে নতুন দিগন্ত সূচিত হবে।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গোপসাগরের তীর ঘেঁষে ১ হাজার ৩১ একর জায়গার নির্মাণ করা হচ্ছে এই বন্দরটি। মাতারবাড়িতে গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ হলে ৮ হাজার ২০০ টিইইউএস ক্ষমতাসম্পন্ন কন্টেইনার বহনকারী জাহাজ নোঙ্গর করতে পারবে।
মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্রবন্দর দৃশ্যমান হয়ে গেছে-উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০২৬ সালে মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্রবন্দরের অপারেশনাল কার্যক্রম শুরু হবে। এখানে বড় ধরনের ফিডার ভেসেল আসবে। মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দরকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্নের জায়গায় নিয়ে গেছেন।  ১১ নভেম্বর শনিবার প্রধানমন্ত্রী মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দরের চ্যানেল উদ্বোধন এবং মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দরের প্রথম টার্মিনাল নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ সোহায়েল জানান, চট্টগ্রাম বন্দর হবে অর্থনীতির লাইফ লাইন। গভীর সমুদ্র বন্দর চালু হলে পণ্য নিয়ে সিঙ্গাপুর, কলম্বো ও মালয়েশিয়ার বন্দরে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের আর অপেক্ষায় থাকতে হবে না। বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে আমেরিকায় একটি পণ্যের চালান পাঠাতে সময় লাগে ৪৫ দিন। মাতারবাড়ি বন্দর চালু হলে মাত্র ২৩ দিনেই সরাসরি নির্ধারিত গন্তব্যে পৌঁছে যাবে।

মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দরের প্রকল্প পরিচালক মো. জাহিদ হোসেন জানান, গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণের লক্ষ্যে ৩৫০ মিটার প্রশস্ত ও ১৬ মিটার গভীরতা সম্পন্ন ১৪ দশমিক ৩০ কিলোমিটার দীর্ঘ অ্যাপ্রোচ চ্যানেলের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়াও অ্যাপ্রোচ চ্যানেলের উত্তর পাশে ২ হাজার ১৫০ মিটার দীর্ঘ ও দক্ষিণ পাশে ৬৭০ মিটার দীর্ঘ ব্রেক ওয়াটার (ঢেউ নিরোধক বাঁধ) নির্মাণের কাজ সমাপ্ত হয়েছে

তিনি আরও জানান, দেশের প্রথম ও একমাত্র গভীর সমুদ্রবন্দর স্থাপনের জন্য ১৭ হাজার ৭৭৭ কোটি ২০ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে মাতারবাড়ি বন্দর উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। মাতারবাড়ি টার্মিনাল বাস্তবায়িত হলে ১৬ মিটার বা ততধিক গভীরতাসম্পন্ন বাণিজ্যিক জাহাজ গমনাগমন করতে সক্ষম হবে।

প্রকল্প সূত্র জানায়, গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণের লক্ষ্যে ৩৫০ মিটার প্রশস্ত ও ১৬ মিটার গভীরতাসম্পন্ন ১৪ দশমিক ৩০ কিলোমিটার দীর্ঘ অ্যাপ্রোচ চ্যানেলের নির্মাণকাজ ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে। এছাড়া  অ্যাপ্রোচ চ্যানেলের উত্তর পাশে ২ হাজার ১৫০ মিটার দীর্ঘ ও দক্ষিণ পাশে ৬৭০ মিটার দীর্ঘ ব্রেক ওয়াটার (ঢেউ নিরোধক বাঁধ) নির্মাণকাজও শেষ হয়েছে। বর্তমানে ৪৬০ মিটার দীর্ঘ কন্টেইনার জেটি ও ৩০০ মিটার দীর্ঘ মাল্টিপারপাস জেটি নির্মাণ এবং কন্টেইনার ইয়ার্ডসহ বন্দর সুবিধাদি নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। ২০২৬ সালের মধ্যে আনুমানিক শূন্য দশমিক ৬ থেকে ১ দশমিক ১ মিলিয়ন টিইইউস (২০ ফুট দৈর্ঘেরে কন্টেইনার) এবং ২০৪১ সালের মধ্যে আনুমানিক ২ দশমিক ২ হতে ২ দশমিক ৬ মিলিয়ন টিইইউস কন্টেইনার কার্গো হ্যান্ডেল করা সম্ভব হবে। প্রকল্পের সড়ক ও জনপথ অংশে ২৭ দশমিক ৭ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণের মাধ্যমে মাতারবাড়ি বন্দরের সঙ্গে ন্যাশনাল হাইওয়ের সংযোগ স্থাপন করার কাজও চলমান রয়েছে ।

উল্লেখ্য, মাতারবাড়ি বন্দর উন্নয়ন প্রকল্প নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার ৭৭৭ কোটি ১৬ লাখ ১৩ হাজার টাকা। এর মধ্যে সমুদ্রবন্দর নির্মাণে ব্যয় হবে ৮ হাজার ৯৫৫ কোটি ৮২ লাখ টাকা। বন্দর নির্মাণে জাপানি উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা জাইকা ঋণ সহায়তা দিবে ৬ হাজার ৭৪২ কোটি ৫৬ লাখ ৭৯ হাজার টাকা। বাকি ২ হাজার ২১৩ কোটি ২৪ লাখ ৯৪ হাজার টাকা দিবে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ (চবক)।

এছাড়া বন্দর এলাকায় সড়ক নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৮ হাজার ৮২১ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে সড়ক নির্মাণে জাইকা ঋণ সহায়তা দিবে ৬ হাজার ১৫০ কোটি ১৯ লাখ টাকা। বাকি ২ হাজার ৬৭১ কোটি ১৫ লাখ সড়ক ও জনপথের (সওজ) ফান্ড থেকে ব্যয় করা হবে। বন্দর ও সড়ক নির্মাণে জাপান সরকার মোট ঋণ সহায়তা দিবে ১২ হাজার ৮৯২ কোটি ৭৬ লাখ টাকা।

আরও উল্লেখ্য যে, মাতারবাড়ি বন্দর উন্নয়ন প্রকল্প ২০২০ সালের ১০ মার্চ একনেক সভায় অনুমোদন দেয়া হয়। প্রকল্পে মেয়াদ ধরা হয়েছে ২০২০ সালে জানুয়ারি থেকে ২০২৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ (চবক)। এ ছাড়া প্রকল্প এলাকায় সড়ক নির্মাণ করছে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর (সওজ)।

বাসস :


আরও খবর

নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করা হবে

বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩




রাজধানীতে সন্ধ্যা পর্যন্ত ৩ বাসে আগুন

প্রকাশিত:সোমবার ২০ নভেম্বর ২০23 | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ |

Image

বিএনপি-জামায়াতের ৪৮ ঘণ্টা হরতালের দ্বিতীয় দিন সোমবার (২০ নভেম্বর) দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজধানীতে ৩টি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা পৃথক তিন স্থানে এসব আগুনের ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি

প্রথমে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটে মিরপুর ১০ নম্বর এলাকায়। দুপুর ২টা ৩৫ মিনিটে সেখানে বিআরটিসির একটি দোতলা বাসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা

ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মিডিয়া সেলের কর্মকর্তা তালহা বিন জসিম এটি নিশ্চিত করে বলেন, আমাদের দুটি ইউনিট সেখানে যায় এবং অল্প সময়ের মধ্যে বাসটির আগুন নির্বাপণ করে

এরপর বিকেল ৩টা ১৫ মিনিটের দিকে রাজধানীর মতিঝিলে মধুমিতা সিনেমা হলের গলিতে সোনালী ব্যাংকের একটি স্টাফ বাসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। তবে ফায়ার সার্ভিস যাওয়ার আগে স্থানীয়রা ওই বাসের আগুন নিভিয়ে ফেলেন

বিষয়ে পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার হায়াতুল ইসলাম খান ঢাকা পোস্টকে বলেন, মধুমিতা সিনেমা হলের পেছনের গলিতে দাঁড়িয়ে থাকা সোনালী ব্যাংকের বাসটিতে আগুন দেওয়া হয়েছে। আগুনে বাসের পেছনের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে

এছাড়া বিকেল ৫টা ১০ মিনিটের দিকে পল্টন এলাকায় যাত্রীবাহী একটি বাসে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। সদরঘাট থেকে মিরপুরগামী তানজিল পরিবহনের বাসটি পল্টন এলাকায় পৌঁছালে এটিতে আগুন দেওয়া হয়

আদালত প্রাঙ্গণে ককটেল বিস্ফোরণ

এদিকে বিকেল ৪টার দিকে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের সামনে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে এতে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল সাংবাদিকদের বলেন, আমি তখন আপনাদের কয়েকজনের সঙ্গেই কথা বলছিলাম। আমার ঠিক পেছনে কয়েক গজ দূরে বিকট শব্দে ককটেলের বিস্ফোরণ হয়। বিচার বিভাগকে কলঙ্কিত করার জন্য কোর্টের আঙিনায় ধরনের ঘটনা ঘটানো হয়েছে। যারাই ঘটনা ঘটিয়েছে তাদেরকে অবশ্যই আইন প্রয়োগকারী সংস্থা বিচারের আওতায় নিয়ে আসবে। এখানে কেউ থাকলে মারাত্মক আহত হতে পারত। এটা সেই ২০১৩-১৪ সালে যেভাবে কোর্টের ভেতরে হামলা হতো সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি বলে মনে করছি


আরও খবর

নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করা হবে

বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩




নওগাঁর ৬ টি আসনের মধ্যে ৪টিতে পুরাতন, ২টিতে নতুন মুখ

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, সিনিয়র রিপোর্টার :

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য দলীয় প্রার্থীদের চুড়ান্ত নাম ঘোষনা করেছে বাংলাদেশ আ’লীগ দল। 

নওগাঁর মোট ৬টি আসনের মধ্যে ৪টি আসনে পুরাতন মুখ আর দুটি আসনে নতুন মুখের প্রার্থীরা পেয়েছেন নৌকা প্রতীক। 

যারা পেলেন নৌকা প্রতিক :

নওগাঁ-১ (পোরশা-সাপাহার-নিয়ামতপুর) আসনে বর্তমান এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার, নওগাঁ-২ (ধামইরহাট-পত্নীতলা) আসনে বর্তমান এমপি এ্যাডঃ শহিদুজ্জামান সরকার বাবলু, নওগাঁ-৩ (মহাদেবপুর-বদলগাছী) আসনে নতুন মুখ সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী, নওগাঁ-৪ (মান্দা) আসনে নতুন মুখ এ্যাড. নাহিদ মোর্শেদ বাবু, নওগাঁ-৫ (সদর) আসনে বর্তমান এমপি ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন ও নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনে বর্তমান এমপি আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ার হোসেন হেলাল নৌকা প্রতিক পেয়েছেন। দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তে নৌকার মাঝি করায় আনন্দের জোয়ার বইছে এ জেলার আ'লীগ নৌকা প্রতিকের প্রার্থীদের সমর্থকদের মাঝে। রবিবার বিকেল ৪টার পর সরকার দলীয় প্রার্থীদের নাম ঘোষনা করার সঙ্গে সঙ্গেই আনন্দ মিছিল বের হয় নওগাঁর ৬টি আসন এলাকার বিভিন্ন স্থানে। এছাড়া নওগাঁ জেলার বিভিন্ন স্থানে  এবং জেলা উপজেলা আ’লীগের দলীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীরা মিষ্টি বিতরণ করেন। তারই ধারাবাহিকতায় সন্ধার পর (মহাদেবপুর-বদলগাছী) আসনে 

নতুন মুখ সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী নৌকা প্রতিক পাওয়ায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও সাবেক ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ হাসান আলী মন্ডল এর নের্তৃত্বে আনন্দ মিছিল বের হয়ে চৌমাশিয়া (নওহাটামোড়) বাজারের রাস্তায় আনন্দ উল্লাস প্রকাশ করেন।

নৌকা প্রতিক এর প্রর্থীর নেতা-কর্মীরা দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে আবারো শান্তিপূর্ন পরিবেশের মধ্যদিয়ে আগামী ৭জানুয়ারী পুনরায় উন্নয়ন আর শান্তির প্রতীক নৌকাতে ভোট দিয়ে প্রার্থীদেরকে বিজয়ী করার মাধ্যমে মানবতার মা শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার প্রতি আহ্বান জানান।


আরও খবর



মাভাবিপ্রবিতে নবগঠিত ছাত্রলীগের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ |

Image

মো: হৃদয় হোসাইন, মাভাবিপ্রবি প্রতিনিধি: 

টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী   বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের  মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

২০ নভেম্বর,  (সোমবার) বিকাল ৩.৩০ মিনিটে  বিশ্ববিদ্যালয়ের  তৃতীয় একাডেমিক ভবনের টপ ফ্লোরে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের  মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন ছাত্রলীগ সভাপতি মানিক শীল এবং সঞ্চালনা করেন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির। এছাড়াও এতে  উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীবৃন্দ।  

উক্ত অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগ সভাপতি মানিক শীল বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন কর্মকান্ডের চিত্র তুলে ধরে, মানুষের ভোটাধিকার নিশ্চিত করে ভোট উৎসবের মাধ্যেম সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে পঞ্চমবারের মত বঙ্গবন্ধু তনয়া দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপা কে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করতে আজকের আমাদের এই মতবিনিময় সভা। আজকের স্মার্ট ছাত্রসমাজ স্মার্ট রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য দেশের উন্নয়নের জন্য দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপার জন্য লড়ে যাবে৷

সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূন কবির বলেন, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সারাদেশে মাভাবিপ্রবি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা নৌকাকে জয়ী করতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবে । আমরা প্রান্তিক পর্যায় পর্যন্ত ভোটারদের নিয়ে কাজ করা সহ বিভিন্ন প্রচারণামূলক কাজের মধ্য দিয়ে এদেশের গণতন্ত্রের চলমান ধারাকে অব্যাহত রাখতে জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপার বিজয় সুনিশ্চিত করব।

প্রসঙ্গ, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ মাওলানা  ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ  এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে


আরও খবর



পুলিশকে হত্যা

মোরেলগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের মানববন্ধন

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ নভেম্বর ২০২৩ |

Image

বাগেরহাট প্রতিবেদক:স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসী কর্তৃক বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান পুলিশ সদস্য আমিরুল ইসলাম পারভেজকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা ও নগ্ন হামলার জড়িতদের দ্রæত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন মোরেলগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডের সন্তানেরা।

রবিবার বেলা ১১ টায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের বিজয় স্তম্ভ চত্ত¡রে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও  মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের মোরেলগঞ্জ শাখার আয়োজনে প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন যুদ্ধ কালিন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. লিয়াকত আলী খান। বক্তৃতা করেন বাগেরহাট জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান  কমান্ডের সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক মো. মাসুম হাওলাদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার তৈয়েবুর রহমান সেলিম, বীর মুক্তিযোদ্ধা এবি ছিদ্দিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আশ্রাব আলী শেখ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সন্তান কমান্ডের সহ-সভাপতি রনি, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড নেতা আব্দুল হালিম হাওলাদার,মামুনুর রহমান, সহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ। সভা পরিচালনা করেন মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সাধারণ সম্পাদক মো. আরিফুল ইসলাম।

  সভায় বক্তারা বলেন, ২৮ অক্টোবর সমাবেশের নামে বিএনপি-জামায়াত সন্ত্রাস নৈরাজ্য করে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান পুলিশ সদস্য আমিরুল ইসলাম পারভেজকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যার ঘটনার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতারসহ দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানান। 


আরও খবর