Logo
শিরোনাম

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

প্রকাশিত:Sunday ২৭ November ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

নৌযান শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ২০ হাজার টাকা ও কর্মক্ষেত্রে মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ ১০ লাখ টাকা নির্ধারণসহ ১০ দফা দাবিতে শনিবার (২৬ নভেম্বর) দিনগত রাত থেকে সারাদেশে কর্মবিরতি পালন করছেন নৌযান শ্রমিকরা। কর্মবিরতির কারণে আজ রবিবার সকাল থেকে ঢাকার সদরঘাট থেকে কোনো লঞ্চ ছাড়ছে না। বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নৌযান শ্রমিক নেতারা জানিয়েছেন, প্রতি পাঁচ বছর পর নতুন মজুরি কাঠামো ঘোষণার বিধান থাকলে সর্বশেষ মজুরি কাঠামোর মেয়াদ গত বছরের ৩০ জুনে শেষ হয়েছে। কিন্তু নৌযান মালিকদের সংগঠনগুলো বিষয়টি আমলে নিচ্ছে না। এছাড়া এ ১৬ মাসে নৌ মন্ত্রণালয় ও শ্রম অধিদপ্তরসহ সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে বহুবার দেন-দরবার করেও ফল পাওয়া যায়নি।

গত সাত বছরে (৬ বছর ৪ মাস) কয়েক দফা দ্রব্যমূল্য বেড়েছে জানিয়ে শ্রমিক নেতারা বলেন, মজুরি-ভাতা বৃদ্ধি না হওয়ায় নৌযান শ্রমিকরা পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর দিন কাটাচ্ছে। এখন তাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। তাই সাধারণ শ্রমিকরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি দিতে বাধ্য হচ্ছে।

শ্রমিকদের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে নৌযান শ্রমিকদের বেতন সর্বনিম্ন মজুরি ২০ হাজার টাকা নির্ধারণ করতে হবে। ভারতগামী শ্রমিকদের ল্যান্ডিংপাস দিতে হবে। বাল্কহেডের রাত্রীকালীন চলাচলের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা শিথিল করতে হবে। বাংলাদেশের বন্দরসমূহ থেকে পণ্যপরিবহন নীতিমালা শতভাগ কার্যকর করতে হবে। চট্টগ্রাম বন্দরে প্রোতাশ্রয় নির্মাণ ও চরপাড়া ঘাটের ইজারা বাতিল করতে হবে। চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পাইপলাইনে জ্বালানি তেল সরবরাহের চলমান কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে। কর্মস্থলে ও দুর্ঘটনায় মৃত্যুজনিত ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। কন্ট্রিবিউটরি প্রভিডেন্ট ফান্ড ও নাবিক কল্যাণ তহবিল গঠন করতে হবে। এবং বাংলাদেশের বন্দরগুলো থেকে পণ্য পরিবহন নীতিমালা ১০০ ভাগ কার্যকর করতে হবে।


আরও খবর

সুখবর নেই বাজারে

Saturday ০৪ February ২০২৩




ধামরাই সোমভাগ ইউনিয়নে গরীব মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ

প্রকাশিত:Monday ০৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

মোঃ নাজমুল হাসান, ধামরাই :


ঢাকার ধামরাই উপজেলার সোমভাগ ইউনিয়ন পরিষদের ০৭নং ওয়ার্ডের গোয়ালদি গ্রামের কীর্তি সন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল লতিফ, তার নিজ বাসভবনে গরীব অসহায় মানুষের মাঝে প্রায় দুই হাজার কম্বল বিতরণ করেন। 

এসময় তিনি বলেন আমার সোমভাগ ইউনিয়ন বাসী যেন শীতে কষ্ট না করে তার জন্য আমার নিজের ব্যক্তিগত ভাবে প্রায় দুই হাজার লোকের জন্য কম্বল এর ব্যবস্থা করেছি। আমার আশা আছে আগামীতে আরও বেশি মানুষের মাঝে যেন এই শীতবস্ত্র দিতে পারি, এসময় তিনি আরও বলেন আগামীতে সংসদ নির্বাচন সোমভাগ ইউনিয়ন বাসীর কাছে আমার একটি চাওয়া তাহল আগামী নির্বাচনে আপানারা অবশ্যই বিপুল ভোটের মাধ্যমে নৌকার বিজয় এনে দেবেন, এসময় তিনি সাবেক সংসদ সদস্য ও সভাপতি ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগ বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ মালেকের জন্য সকলের কাছে দোয়া চান,ধামরাইয়ে একমাত্র কর্মী বান্ধব নেতা তিনি হলেন মালেক সাহেব আমরা আশা করি তিনি আগামীতে অবশ্যই নৌকা নিয়ে আসবে এবং আগামীতে ধামরাইয়ের এমপি হবে।

এসময় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ঢাকা ২০ ও সভাপতি ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগ বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ মালেক। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক ধামরাই উপজেলা যুবলীগ নেতা খায়রুল ইসলাম, সদস্য ঢাকা জেলা পরিষদ ও সাধারণ সম্পাদক ধামরাই পৌরসভা যুবলীগ নেতা সানাউল হক সুজন, সভাপতি ধামরাই পৌর যুবলীগ আমিনুর রহমান, ধামরাই উপজেলা যুবলীগ নেতা শাহিনুর ইসলাম শাহিন ও সমাজ সেবক মানিক মিয়া সহ উপস্থিত ছিলেন সোমভাগ ইউনিয়ন এর গণ্য মান্য ব্যক্তিবর্গ।


আরও খবর



বকশীগঞ্জের চন্দ্রাবাজ রশিদা বেগম শিক্ষা কমপ্লেক্সে নবীন বরণ অনুষ্ঠান

প্রকাশিত:Wednesday ০১ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

মাসুদ উল হাসান,জামালপুর :

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রাবাজ রশিদা বেগম শিক্ষা কমপ্লেক্সে ২০২৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বুধবার চন্দ্রাবাজ রশিদা বেগম শিক্ষা কমপ্লেক্স অডিটোরিয়াম নবীন বরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন অধ্যক্ষ মোঃ রফিকুল ইসলাম। নবীন বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য ও বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি জয়নাল আবেদীন। আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন ফতেহপুর কামিল মাদ্রাসার প্রভাষক ইকবাল হোসেন মিল্লাত। চন্দ্রাবাজ শেফালী মফিজ মহিলা আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আব্দুর রশিদের সভাপতিত্বে ও সহকারী শিক্ষক দিনুল ইসলাম সিরাজীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শিক্ষার্থী শরিফ মাহমুদ,সৈয়দা কামরুন্নাহার কনক ও আসমাউল হোসনা প্রমূখ। এ সময় চন্দ্রাবাজ রশিদা বেগম স্কুল এন্ড কলেজের সকল শিক্ষক-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহের কবর ফলক স্থানান্তর

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :

নওগাঁর মান্দায় ঐতিহাসিক কুসুম্বা মসজিদে যাতায়াতের রাস্তার ধারে থাকা সাংস্কৃতিক অঙ্গনের কালো পাথরের প্রাচীন নিদর্শনটি ''সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহের কবর ফলক বা শিরোনা'' স্থানান্তর করা হয়েছে। প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের উদ্যোগ ও স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় শনিবার ২১ জানুয়ারী দুপুরে কুসুম্বা মসজিদের উত্তর পাশে তেঁতুলতলায় এটি সরিয়ে নেওয়া হয়।

এসময় প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক ড. নাহিদ সুলতানা, প্রত্নতাত্ত্বিক যাদুঘর মহাস্থানগড়ের কাষ্টোডিয়ান রাজিয়া সুলতানা, প্রত্নতাত্ত্বিক যাদুঘর পাহাড়পুরের কাষ্টোডিয়ান ফজলুল করিম, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের গবেষনা সহকারী হাসানাত বিন ইসলাম, মান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু বাক্কার সিদ্দিক, উপজেলা প্রকৌশলী শাইদুল ইসলাম মিয়া, কুসুম্বা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নওফেল আলী মণ্ডল, কুসুম্বা শাহী মসজিদের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এ প্রসঙ্গে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক ড. নাহিদ সুলতানা বলেন, কালো পাথরের খণ্ডটি সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রাচীন একটি নিদর্শন। এটি সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহের কবর ফলক বা শিরোনা কিনা বলা যাচ্ছে না। লিপিটার পাঠোদ্ধার হলেই বিস্তারিত জানা যাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

জনশ্রুতি আছে সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহের স্ত্রী কুসুম বিবি সেই সময় মান্দার কুসুম্বা গ্রামে অবস্থান করতেন। সেই সুবাদে শেষ বয়সে সুলতান কুসুম্বা গ্রামে স্ত্রীর কাছে অবস্থান করাও বিচিত্র নয়। যেহেতু সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহ মৃত্যুর সময় কোথায় অবস্থান করছিলেন প্রচলিত গ্রন্থে তার উল্লেখ না থাকায় ধরে নেওয়া যায় তিনি কুসুম্বাতে সমাহিত রয়েছেন। প্রাচীন এ নিদর্শন সম্পর্কে ইতিহাসবিদ অধ্যাপক ইমরুল কায়েস চৌধুরী ‘কালান্তরে নওগাঁ’ গ্রন্থে উল্লেখ করেন লিপিযুক্ত প্রস্তর খণ্ডটি সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহ্রে কবর ফলক বা শিরোনা।


আরও খবর



মুখ বেঁধে এসিড দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা !

প্রকাশিত:Tuesday ৩১ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

কুমিল্লা ব্যুরো :

কুমিল্লায় মুখ বেঁধে এসিড দিয়ে পুড়ে হত্যার অভিযোগে দুই ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। সেই সঙ্গে উভয়ের দশ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে ৬ (ছয়) মাসের বিনাশ্রম কারাদÐের আদেশ দেয়া হয়। এসময় মামলার আরেক আসামীকে খালাস দেয়া হয়। মঙ্গলবার দুপুরে কুমিল্লার অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালত-৫ এর বিচারক জাহাঙ্গীর হোসেন এই রায় দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী রফিকুল ইসলাম।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, মো. জাহিদ হাসান (বাবু) ও মো. মাসুম মিয়া।

মামলার বিবরণনে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ১২ মার্চ দাউদকান্দি থানাধীন গৌরীপুরস্থ নিউ মাকের্টে চুরির সময় দেখে ফেলায় নাইট গার্ড শফিকুল ইসলামকে হত্যা করে তারা। পরে তার লাশ যেন চেনা না যায় তাই এসিড দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। এঘটনার শফিকুল ইসলামের স্ত্রী মোসা. জোসনা বেগম অজ্ঞাত আসামীদের বিরুদ্ধে দাউদকান্দি থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পরে তদন্ত করে আসামীদের পুলিশ গ্রেপ্তার করে। আসামীরা জবানবন্দী দিলে আদালত তাদের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দেয়। 

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী রফিকুল ইসলাম বলেন, একটি মোবাইল দোকানে চুরির সময় দেখে ফেলায় তাকে হত্যা করা হয়। হত্যা করেই তারা ক্ষান্ত হয়নি। পরিচয় যেন না সনাক্ত হয় তাই লাশ এসিড দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। আদালতের রায়ে আমরা সন্তুষ্ট।

কুমিল্লা কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. মুজিবুর রহমান জানান, রায় ঘোষণার সময় আসামীরা উপস্থিত ছিলেন। রায়ের পর আসামীদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



৭২ জন আরোহী নিয়ে নেপালে বিমান বিধ্বস্ত

প্রকাশিত:Sunday ১৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

৭২ জন আরোহী নিয়ে নেপালে একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ৪০ জনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ।

রবিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে ইয়েতি এয়ারলাইন্সের বিমানটি রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে পোখারার উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। পোখারায় অবতরণ করার সময় পুরাতন বিমানবন্দর ও নতুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মাঝামাঝি এলাকায় এটি বিধ্বস্ত হয় বলে জানিয়েছেন ইয়েতি এয়ারলাইন্সের মুখপাত্র সুদর্শন বারতুলা। বিমানটিতে ৬৮ জন যাত্রী এবং চারজন ক্রু ছিলেন। যাত্রীদের মধ্যে ৫৩ জন নেপালের, পাঁচজন ভারতের, চারজন রাশিয়ার, আয়ারল্যান্ডের একজন, দক্ষিণ কোরিয়ার দুইজন, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স এবং আর্জেন্টিনার একজন করে নাগরিক বলে জানিয়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। উদ্ধারকাজ চলছে। আপাতত বন্ধ আছে পোখারা বিমানবন্দরের কার্যক্রম।  


আরও খবর