Logo
শিরোনাম

ক্ষতিপূরণ বিষয়ে ক্ষুব্ধ রাশিয়া

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

ইউক্রেনে হামলার জন্য ক্ষতিপূরণ দিতে আন্তর্জাতিক আহ্বান ক্ষোভের সাথে প্রত্যাখ্যান করেছে রাশিয়া। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে একটি রেজুলেশন পাস হওয়ার পর এই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানায় মস্কো।

ওই প্রস্তাবে বলা হয়েছে, রাশিয়াকে ক্ষতিপূরণ প্রদানসহ আক্রমণের পরিণতি ভোগ করতে হবে। রুশ প্রেসিডেন্টের কার্যালয় ক্রেমলিন বলেছে, পশ্চিমাদের জব্দকৃত রাশিয়ার আন্তর্জাতিক রিজার্ভ থেকে ক্ষতিপূরণ দেয়া ঠেকানোর জন্য কাজ করবে মস্কো। ক্রেমলিন মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ অভিযোগ করেছেন, পশ্চিমারা ডাকাতিকে বৈধতা দেয়ার চেষ্টা করছে এবং ব্যক্তিগত সম্পত্তি ও আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন করছে। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের এই রেজুলেশনের প্রতীকী গুরুত্ব রয়েছে। তবে এটি কার্যকর বা বাস্তবায়নের আবশ্যকতা নেই।


আরও খবর

থাইল্যান্ডে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ

মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২

হেরে গেলেন মাহাথির

রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22




শুষ্ক আবহাওয়া, পড়তে পারে হালকা কুয়াশা

প্রকাশিত:শনিবার ১২ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

আজ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। ভোরের দিকে দেশের কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারাদেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। পরবর্তী তিন দিনে রাত ও দিনের তাপমাত্রা কমতে পারে ।

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা শ্রীমঙ্গলে ১৬ দশমিক ০ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং পঞ্চগড়ের তেতুলিয়ায় ১৬ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। সেখানে শীত পড়েছে। ভোর রাতে কুয়াশাও পড়ছে। তবে মধ্যাঞ্চল ও অন্যান্য অঞ্চলে শীত আসতে কিছুটা সময় লাগবে। দক্ষিণাঞ্চলে শীত পড়বে আরও পরে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২০ দশমিক ০, রাজশাহীতে ১৮ দশমিক ৭, রংপুরে ১৯ দশমিক ৭, ময়মনসিংহে ১৮ দশমিক ৫, সিলেটে ১৯ দশমিক ২। এছাড়াও আজ দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা চট্টগ্রাম,কক্সবাজার ও শ্রীমঙ্গলে ৩৩ দশমিক ০ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, শ্রীলংকার উপকূলের অদূরে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি ঘণীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিনত হয়েছে এবং এটি বর্তমানে উত্তর-পূর্ব শ্রীলংকা উপকূলের অদূরে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে। ঢাকায় আজ উত্তর অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘন্টায় ৮ থেকে ১২ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে। সকালে ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৮৭ শতাংশ।

.. বাসস 


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২




ইটনায় জাতীয় যুব দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

মোজাহিদ সরকার‌‌‌, ইটনা, কিশোরগঞ্জ।

“প্রশিক্ষিত যুব উন্নত দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ”-এ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে কিশোরগঞ্জের ইটনায় উপজেলা প্রশাসন ও যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উদ্যোগে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

০১ নভেম্বর সকালে উপজেলার হল রুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাফিসা আক্তারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ মাইনুল ইসলাম, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার মোঃ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক ডাক্তার প্রসন সাহা, উপজেলা সহকারী প্রোগ্রামার মোঃ মহিবুর রহমান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা অভিজিৎ সরকার, ইটনা থানা পুলিশ কর্মকর্তা এস আই সাকীব, উপজেলার বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ সহ বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আমন্ত্রিত যুবক-যুবতী এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। আলোচনা সভায় যুব দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন বিষয়ে বক্তব্য রাখেন অতিথিরা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাফিসা আক্তার বলেন, আজকের যুবক-যুবতী আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। যুবক-যুবতীদের উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সম্পদে পরিণত করা হচ্ছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল সোনার বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে যুবক-যুবতীদের জন্য বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কর্মশালা হচ্ছে। 

বেলা ১২ টায় আলোচনা সভা শেষে উপজেলা প্রশাসনিক ভবনের সামন থেকে র‌্যালি নিয়ে বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে উপজেলা গেইটে গিয়ে শেষ হয়।


আরও খবর



জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে

আত্মহত্যার চেষ্টার ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে বসত ভিটা রক্ষার জন্য জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নিজের ও সন্তানদের শরীরে কোরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টার ঘটনায় ভুক্তভুগী শিরিন খান বাদি হয়ে রোববার সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রধান আসামী হান্নান সহ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার তাদের মদনপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃতরা হলো, হান্নান সাউদ ও আয়েছ আলী। তাঁরা দুজনেই রূপগঞ্জের তারাব পৌরসভার বরপা এলাকার বাসিন্দা। ভুক্তভোগী শিরিন খান সোনারগাঁ উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের ভারগাঁও গ্রামের জোনায়েদ আহাম্মেদের স্ত্রী। 

থানায় দায়ের করা মামলার বিবরনীতে বাদি শিরিন খান উল্লেখ করেন, তিনি উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের ভারগাঁও গ্রামে তার স্বামী ৮ বছর আগে ৬ শতাংশ জমি কিনে একটি দুইতলা পাকা ভবনের বাড়ি তৈয়ারী করে তিন সন্তানকে নিয়ে বসবাস করে আসছেন। গত তিন মাস আগে জানতে পারেন যে ব্যক্তি এ জমি বিক্রি করেছেন তিনি ১৫ বছর আগে জমিটি ব্যাংকে বন্ধকী রেখে ঋন গ্রহন করেছেন। সময় মতো ঋন পরিশোধ না করার কারনে এ সম্পতি ব্যাংক কর্তৃপক্ষ নিলামে তুলবে। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে রূপগঞ্জ উপজেলার বরপা গ্রামের আব্দুল হান্নান ও তার লোকজন তাদের বাড়ি ঘর ছেড়ে দেওয়ার জন্য হুমকি দেন। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে কোনো বিচার না পাওয়ার কারনেই আমি সন্তানদের নিয়ে আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলাম।  

সোনারগাঁ থানার ওসি মাহাবুব আলম জানান, প্রতারনা করে জমি বিক্রির ঘটনায় ভুক্তভোগী শিরিন খান বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে হান্নান সাউদ ও আয়েছ আলী নামে দুজনকে গ্রেফতার করেছ । 


আরও খবর

ই-টিকেটিংয়ে বন্ধ অতিরিক্ত ভাড়া

শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২




হজ ব্যবস্থাপনায় আসছে পরিবর্তন

প্রকাশিত:শনিবার ১২ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

নিবন্ধন করা প্রত্যেক হজযাত্রীর এখন থেকে আলাদা ‘হেলথ প্রোফাইল’ তৈরি করবে সরকার। এতে সংশ্লিষ্ট হজযাত্রীর রোগ ও চিকিৎসা সম্পর্কিত সব ধরনের তথ্য থাকবে। যা পাওয়া যাবে অনলাইনে। ওই তথ্যের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা দেবেন বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা। এ ধরনের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা অন্তর্ভুক্ত করে আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তথ্য ও প্রযুক্তির সমন্বয়ে হজ এবং ওমরাহ ব্যবস্থাপনায় আমূল পরিবর্তন আনা হচ্ছে। এমনকি প্রাক-নিবন্ধনে দেওয়া হজযাত্রীদের ট্র্যাকিং নম্বরের মাধ্যমে বাংলাদেশে বসেই সৌদি আরবে সংশ্লিষ্ট হজযাত্রীর তাৎক্ষণিক অবস্থান ও সার্বিক তথ্য জানা যাবে।

উল্লিখিত বিষয়সহ হজ ও ওমরাহ সংক্রান্ত যাবতীয় নতুন তথ্য জাতিকে জানাতে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে তিন দিনব্যাপী জাতীয় হজ-ওমরাহ সম্মেলন। আগামী ১৭-১৯ নভেম্বর রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে হবে এ মেলা। এজেন্সি মালিকদের সংগঠন হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) আয়োজনে এই সম্মেলনের প্রথম দিন সকাল ১০টায় উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সম্মেলনে আলোচনা সভা, সেমিনার এবং হজ ও ওমরাহ মেলা থাকবে।

মেলায় কয়েক শ স্টলে এজেন্সি মালিকরা নিজ নিজ এজেন্সির সুযোগ-সুবিধা সংবলিত হজ ও ওমরাহ প্যাকেজ প্রকাশ করবেন। হজ ও ওমরায় যেতে আগ্রহী ব্যক্তিরা সুবিধামতো প্যাকেজ বুকিং দিয়ে মেলায় তাৎক্ষণিক নিবন্ধন করতে পারবেন। এ জন্য মেলায় ব্যাংক ও আইটি সেবাসহ সব ধরনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও থাকবে। 

হাব সভাপতি বলেন, হজ ও ওমরাহ যাত্রীদের হয়রানির অভিযোগ নতুন কিছু নয়। রাজধানী ঢাকা থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রাম পর্যন্ত হজ ও ওমরাহ গমনেচ্ছুক ব্যক্তিদের কম টাকা নেওয়াসহ নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধার প্রলোভন দেখান এক ধরনের মধ্যস্বত্বভোগী দালাল। তাদের খপ্পরে পড়ে অনেক সময় প্রতারণার শিকার হন অনেক হজ ও ওমরাহযাত্রী। এসব ফড়িয়া ও দালালদের ঠেকাতে এবং হজযাত্রী ও এজেন্সি মালিকদের মধ্যে সরাসরি সম্পর্ক স্থাপন করতেই মূলত এই মেলার আয়োজন।

এই মেলায় এজেন্সি মালিকরা নিজেদের দেওয়া সুযোগ-সুবিধা সংবলিত নানা ধরনের হজ ও ওমরাহ প্যাকেজ ঘোষণা করবেন। এজেন্সি মালিকদের এক বা একাধিক স্টলও থাকবে মেলায়। এসব প্যাকেজের তুলনামূলক বিচার-বিশ্লেষণ করে যে কোনো ব্যক্তি হজ বা ওমরাহে যেতে তাৎক্ষণিক নিবন্ধন করতে পারবেন। এ ছাড়া হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনায় আরও কী ধরনের পরিবর্তন আনা হয়েছে বা আনা হবে সেসবেরও যাবতীয় তথ্য মিলবে ওই মেলায়।

এই আয়োজনে হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সেমিনার, উদ্ভাবনী বিষয়ে প্রদর্শন করা হবে। হজ এজেন্সিগুলোকে বাংলাদেশ ও সৌদি পর্বের আইটি ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে সম্যক ধারণা ও হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। মেলায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রকে ছয়টি জোনে ভাগ করা হবে।


আরও খবর

কুমিল্লায় ভাইফোঁটা উৎসব পালিত

বুধবার ২৬ অক্টোবর ২০২২




পরিকল্পিত ঢাকার জন্য ড্যাপ

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

রোকসানা মনোয়ার : ঢাকার সমস্যা কমিয়ে পরিকল্পিত শহর গড়ার লক্ষ্য নিয়েই এগোচ্ছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনা । শহরের বাসযোগ্যতা নিশ্চিত করতে নাগরিক সুবিধাদি ও পরিষেবার বিপরীতে জনসংখ্যা নির্ধারণ করে শহরের সার্বিক পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে কোন এলাকার উন্নয়নে কতটুকু অনুমোদন দেওয়া হবে, তা নির্ভর করবে ওই এলাকার সুবিধা প্রাপ্তির ওপর।

নতুন ড্যাপ অনুযায়ী, ঢাকায় ভবনের উচ্চতা নির্ধারিত হবে সংশ্লিষ্ট এলাকার নাগরিক সুবিধা ও সড়কের প্রশস্ততা অনুযায়ী। যেসব এলাকায় প্রশস্ত রাস্তা ও নাগরিক সুবিধা যেমন- পার্ক, উন্মুক্ত স্থান, খেলার মাঠ, পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থাসহ অন্য সুবিধা বেশি থাকবে সেসব এলাকায় বেশি উচ্চতার ভবন নির্মাণ করা যাবে। সেক্ষেত্রে ভবনের উচ্চতা নিয়ে বাধা থাকবে না। অন্যদিকে, যেসব এলাকায় বা প্লটের সামনে প্রশস্ত রাস্তা নেই সেসব এলাকার ভবন নির্মাণে বিভিন্ন ধরনের শর্ত বেঁধে দেওয়া হয়েছে নতুন ড্যাপে। প্লটের সামনে প্রশস্ত রাস্তা কম হলে সেসব ভবন নির্মাণে মানতে হবে ড্যাপের নতুন নিয়ম। এর মানে পাঁচ কাঠার একটি জমির সামনে যদি প্রশস্ত রাস্তা না থাকে তাহলে সেখানে চারতলা ভবন নির্মাণের অনুমতি পাওয়া যাবে। আগে একই পরিমাণ জমিতে আটতলা ভবন নির্মাণের অনুমতি পাওয়া যেত।

সার্বিক বিষয় নিয়ে ডিটেল এরিয়া প্ল্যানের (ড্যাপ) প্রকল্প পরিচালক ও রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) নগর পরিকল্পনাবিদ আশরাফুল ইসলাম বলেন, শহরে নাগরিক সুবিধাগুলো বিবেচনায় নিয়ে নতুন করে ড্যাপকে সাজানো হয়েছে। কোন এলাকায় কতটুকু সুবিধা আছে, সেসব বিবেচনা করে সেই এলাকায় উন্নয়নের অনুমোদন দেওয়া হবে। এলাকাভিত্তিক জনঘনত্ব নির্ধারণ করে জনঘনত্ব পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে। যদিও জনঘনত্বের পরিকল্পনা তিন বছর পরপর হালনাগাদের সুযোগ রাখা হয়েছে। আগে পাঁচ কাঠার একটি জমিতে আগে ৮ ও ১০ তলার নকশা পাওয়া যেত এখন পাওয়া যাবে পাঁচতলার। প্লট বা জমির সামনের রাস্তা যত প্রশস্ত হবে সেখানে ফ্লোর স্পেস বেশি হলে ভবনের উচ্চতাও বাড়ানো যাবে। রাস্তার প্রশস্ততা কম হলে ভবনের ফ্লোর কমিয়ে দেওয়ার বিধান রাখা হয়েছে ড্যাপে।

 যারা স্বল্প বেতনে বেসরকারি চাকরি করেন তাদের বেতনের ৬০ শতাংশ টাকা বাড়িভাড়া পরিশোধে চলে যায়। এমন সব মানুষের স্বপ্ন থাকে একটা ফ্ল্যাট কিনবেন সারা জীবনের সঞ্চয় দিয়ে। নতুন ড্যাপের কারণে দাম বেড়ে গেলে সাধারণ এসব মানুষের পক্ষে আর ফ্ল্যাট কেনা সম্ভব হবে না।

ভবনের উচ্চতা নির্ধারণের কারণে একটি ছোট জায়গায় চারতলার প্ল্যান অনুমোদন পেলে সেই জমির মালিক কিন্তু ডেভেলপার কোম্পানিকে ফিফটি ফিফটি রেশিওতে আর দেবেন না। নিজে যখন পারবেন তখন চেষ্টা করবেন। ফলে ফ্ল্যাট নির্মাণের সংখ্যাও কমে আসবে। এখনো ঢাকায় সিংহভাগ জায়গায় দুই থেকে তিনতলা করে বাড়ি আছে। সেসব জায়গায় আর ফ্লোর বাড়বে না। ফলে আবাসনের চাহিদার বিপরীতে ঘাটতি থেকে যাবে। এ কারণে ফ্ল্যাটের দাম বাড়বে। এছাড়া ভবন নির্মাণের সঙ্গে সম্পৃক্ত যারা শ্রম দেন তাদের কাজের পরিধিও কমে যাবে।

ড্যাপ পরিচালক আশরাফুল ইসলাম বলেন, ড্যাপে এফএআর বা ভূমির সাপেক্ষে ভবনের মোট মেঝের ক্ষেত্রফলের অনুপাত বৈশ্বিক শহরগুলোর তুলনায় বেশি দেওয়া হয়েছে। বিশ্বের অন্যান্য শহরে প্লটকেন্দ্রিক উন্নয়ন নিরুৎসাহিত করা হয়েছে।



আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২