Logo
শিরোনাম

মোরেলগঞ্জে চালের বাজার নিয়ন্ত্রনে রাখতে প্রশাসনের অভিযান

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ. নিজস্ব প্রতিবেদক :    

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে দ্রুব্যমূল্যে স্থীতিশীল রাখার জন্য চালের বাজারে আকর্ষিক অভিযান করেছেন উপজেলা প্রশাসন। রোববার সকাল ১০ টায় শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে চালের দোকানগুলোতে সরকারিভাবে আজ থেকে নির্ধারিত চালের দাম অনুযায়ী চার্ট টাঙ্গানো, পলিথিনের প্যাকেটে চাল ক্রয় না করে পাঠজাতীয় বস্তায় চাল সংগ্রহ। এ ছাড়াও ফুটপাত অবৈধ দখলমুক্ত রাখা পলিথিন টাঙ্গীয়ে জনসাধারনের চলচলে ভোগান্তি না করার জন্য বাজার ব্যবসায়ী কমিটির নেতৃবৃন্দকে মাইকিং করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সহকারি কমিশনার (ভূমি) আব্দুল মালেক।

গত এক সপ্তাহ পূর্বে বাজারে বিভিন্ন প্রজাতির চাল দর যাচাই করে ৫০ কেজি বস্তা নূরজাহান চাল ২৩শ’ টাকা বর্তমানে সে চাল ২১শ’ টাকা, স্বর্না পূর্বে ছিলো ২৪শ’ বর্তমানে ২২শ’ দেশি মোটা পূর্বে ৪৮শ’ বর্তমানে ৪৪ শ’ টাকা দরে বাজারে বিক্রি করছে ব্যবসায়ীরা।  

এ সময় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সহকারি কমিশনার (ভূমি) আব্দুল মালেক বলেন, সরকারিভাবে চালের বাজারে নির্ধারিত দামের বেশি অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করা হলে এবং সিন্ডিকেট সৃষ্টি করে বাজারে অস্থিতিশীল পরিবেশ করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।


আরও খবর



সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে ডেমরায় সমাবেশ ও চার থানা কমিটি ঘোষণা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

হাসিবুল ইসলাম: সোমবার বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের রাজধানীর ওয়ারী জোনের আওতাধীন ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার মাঠে আয়োজিত সাংবাদিক নির্যাতন ও সুরক্ষা আইন প্রণয়নের দাবিতে আয়োজিত আলোচনা সভায় আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আহমেদ আবু জাফর। তিনি সরকারকে সাংবাদিক সুরক্ষা আইন প্রণয়ণসহ ১৪ দফা দাবি বাস্তবায়ন করতে জোড়ালো আহবান জানান। দেশে অহরহ সাংবাদিক নির্যাতন ঘটনা যেন থামছেইনা। সাংবাদিক সুরক্ষা আইন না থাকায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন। 

উদ্বোধনী বক্তব্যে রাখেন অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মো. শফিকুল ইসলাম সাদ্দাম যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম, কেন্দ্রীয় কমিটি। সদস্য সচিব সেলিম নিজামির সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথি ছিলেন এশিয়ান টিভির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ (সিআইপি)। বিশেষ অতিথি ছিলেন ডেমরা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শফিকুর রহমান, ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ৬৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান পলিন, চিত্রনায়ক যুবরাজ খান, বিএমএসএফের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবুল খায়ের খান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ খায়রুল আলম,সদস্য আমির হোসেন, পূর্বাঞ্চল সাংবাদিক ইউনিটির সভাপতি ওমর ফারুক জালাল, স্বাস্থ্য এন্ড পরিবেশ মানবাধিকার সাংবাদিক সোসাইটির চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম খান, শরিফুল ইসলাম বিপ্লব।


অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক মুন্সি মোঃ আল ইমরান, রফিকুল ইসলাম, রেজাউল করিম,  মোঃ সাইফুল ইসলাম পারভেজ, রেভা খান, সুমন খান,  মনির হোসেন, সভায় নেতৃবৃন্দ সারাদেশে সাংবাদিকদের ওপর অব্যাহত হামলা, নির্যাতন, জেল জরিমানার নীল নকশার কালো আইন বাতিল, সাংবাদিক সুরক্ষা আইন প্রণয়নসহ ১৪ দফা দাবি বাস্তবায়নে সরকার এবং গণমাধ্যম মালিকদেরকে আন্তরিক হওয়ার আহবান জানানো হয়। সমাবেশে ওয়ারী জোনের ৪টি থানার কমিটি ঘোষণার মধ্য দিয়ে সাংবাদিকদের মাঝে একটি বৃহৎ ঐক্যের সুচনা করা হয়। যাত্রাবাড়ী থানা কমিটির সর্বসম্মতিক্রমে সভাপতি  মোঃ সাইফুল ইসলাম পারভেজ ও সাধারণ সম্পাদক মুন্সি আল ইমরান নির্বাচিত হন, শ্যামপুর থানার সভাপতি মোঃ সহিদুল ইসলাম জনি সাধারণ মোঃ মনির নির্বাচিত হন। ডেমরা থানার সভাপতি সেলিম নিজামী ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, কদমতলী থানার সভাপতি অ্যাডভোকেট মহিউদ্দিন  ও ইঞ্জিনিয়ার হাসান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

সমাবেশ শেষে বিভিন্ন শিল্পীর অংশগ্রহনে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


আরও খবর



জাতিসংঘে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

গণভোটের মাধ্যমে ইউক্রেনের যেসব অঞ্চল রাশিয়ার সাথে যুক্ত হবে, তাদের পূর্ণ নিরাপত্তা দেয়া হবে। আর এসব অঞ্চল পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করলে পরমাণু অস্ত্র প্রয়োগ করবে রাশিয়া। এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছের রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ।

জাতিসংঘ অধিবেশনে দেয়া ভাষণে ল্যাভরভ বলেন, ইউক্রেনের গণভোটের যে সমালোচনা করছে পশ্চিমারা, তা ভিত্তিহীন। শুধু তাই নয়, অনেক বছর ধরে নাৎসী সমর্থক শাসনের নির্যাতনে জর্জরিত ইউক্রেনবাসীর ইচ্ছাকে অবশ্যই সম্মান জানাবে রাশিয়া। ল্যাভরভের বক্তব্যকে দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং অগ্রহনযোগ্য বলেছেন ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্র কুলেবা। ইউক্রেনের মানুষকে জোর করে রাশিয়ার পক্ষে ভোট দেয়ানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

 


আরও খবর

জাতিসংঘের ভূমিকায় হতাশ মালয়েশিয়া

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




চা শ্রমিকদের দৃষ্টি প্রধানমন্ত্রীর দিকে

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে ১৮ দিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন দেশের ২৪১টি চা বাগানের শ্রমিকরা। এরই মধ্যে ঘোষণা আসে শনিবার গণভবনে চা শ্রমিকদের মজুরির বিষয়ে চা সংসদের সঙ্গে বসছেন প্রধানমন্ত্রী। আর এ সংবাদ শোনার পর মৌলভীবাজাররের ৯২টি চা বাগানে শুক্রবার কোন আন্দোলন করেননি চা শ্রমিকরা।

এখন চা শ্রমিকদের দৃষ্টি গণভবনের দিকে। তাদের ধারণা, মালিকপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে প্রধানমন্ত্রী তাদের জন্য একটা সুফল এনে দিবেন।

এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল কালিঘাট চা বাগানের ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য অনিল তন্তবাই বলেন, আমরা এখন প্রধানমন্ত্রীর দিকেই তাকিয়ে আছি। প্রধানমন্ত্রী আমাদের দুঃখ-দুর্দশার কথা জানেন। আমরা ২শ’ বছর ধরে যে জায়গায় বসবাস করছি সে জায়গার ভূমি অধিকার আজও আমরা পাইনি। সব বাগানে এখনও স্কুল হয়নি।

শ্রীমঙ্গল আমরইল চা বাগানের চা শ্রমিক জনিস বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের শেষ ভরসার স্থল। তাঁর দিকেই এখন আমরা তাকিয়ে আছি। শনিবারের মিটিংয়ে নিরাশ করবেন না প্রধানমন্ত্রী।

শ্রীমঙ্গল কালাপুর ইউনিয়নের ফুলছড়ি চা বাগানের বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি লক্ষন বাউরি জানান, আমরা আন্দোলন করছি পেটের দায়ে। যে মজুরি দেওয়া হয় তা থেকে কারেন্ট বিল, রেশন, ভবিষত তহবিল ও চা শ্রমিক ইউনিয়নের চাঁদা সব কিছু কেটে নগদ হাজিরা দাঁড়ায় ১০০ টাকারও কম। এই টাকা দিয়েই দৈনন্দিন সকল চাহিদা পুরণ করতে হয়। তেল আনতে নুন পুরায়’ অবস্থা আমাদের।

তিনি আরও বলেন, ২ টাকা কেজিতে আটা দেওয়া হয় যা সকালে চা-রুটিতেই চলে যায়। দুপুরে ও রাতে ৪-৫ জনের একটি পরিবারে দুই কেজি চাল লাগে। চালের দামেই দৈনিক হাজিরার টাকা চলে যায়। বাকীটা কিভাবে সামাল দেয় চা শ্রমিকরা সে খবর কেউ রাখে না।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




রাজধানীর বাড্ডায় পানির তীব্র সঙ্কট

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় এখনো তীব্র পানির সংকট রয়েছে। এ নিয়ে ওয়াসার কাছে বারবার অভিযোগ করেও কোন সমাধান মিলছে না। 

উত্তর বাড্ডার বেশকিছু এলাকাজুড়ে প্রায় একমাসজুড়ে তীব্র পানির সংকট রয়েছে। সারাদিন পানির অপেক্ষায় থেকেও, অধিকাংশ সময় হতাশ হতে হয় বাসিন্দাদের। মধ্যরাতে কিছু সময়ের জন্য পানি আসলেও,তা অপ্রতুল। 

পানির সংকটের কারণে গোসল, পানিপান, দৈনন্দিন সকল কাজ ব্যহত হচ্ছে। যাদের পানি সংরক্ষণের ব্যবস্থা নেই, তাদের অবস্থা আরও ভয়াবহ। 

যদিও ঢাকা ওয়াসার তথ্য বলছে, রাজধানীতে দৈনিক সর্বোচ্চ ২৬৫ কোটি লিটারের চাহিদার বিপরীতে ২৭৫ কোটি লিটার পানি সরবরাহ করা হচ্ছে।

বাড্ডার বাসিন্দারা বেশ কিছু দিন ধরে দূষিত পানি ব্যবহার করে ভয়াবহ পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হওয়ার কবলে রয়েছে বলে মৌখিক অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা।

দূষিত পানি পানের কারণে মানুষ ডায়রিয়া, কলেরা, জন্ডিস, টাইফয়েড, হেপাটাইটিস, কিডনি, লিভারসহ নানা জটিল ও প্রাণঘাতী সংক্রামক রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কায় ধাবিত হচ্ছে।

বাড্ডার বাসিন্দাদের অভিযোগ, ওয়াসার পানিতে মাত্রাতিরিক্ত দুর্গন্ধ ও ময়লা পাওয়া যায়। দীর্ঘ সময় ফোটানোর পরেও কিছু কিছু এলাকার পানি থেকে দুর্গন্ধ দূর হয় না। ওই পানি পুরোপুরি পানের অযোগ্য।গোসলে পানি ব্যবহার করে ইতিমধ্যে অনেকে চুলকানি চর্ম রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসকদের দারস্ত হচ্ছেন। বিশুদ্ধ পানির সংকট দিন দিন প্রকট হচ্ছে।
২০১০ সালের মধ্যে সবার জন্য স্বাস্থ্যসেবার পাশাপাশি নিরাপদ পানির ব্যবস্থা করার বিষয়ে সরকার ঘোষণা দিয়েছিল। কিন্তু আজও বাস্তবায়ন হয়নি। দূষিত পানি পান করে লাখ লাখ মানুষ, বিশেষ করে শিশুরা অধিক হারে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।
মাঠ পর্যায়ে কর্মরত বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থার হিসাব অনুযায়ী, দেশে প্রতিদিন ১০ কোটি লিটার বিশুদ্ধ পানির ঘাটতি রয়েছে। রাজধানীতে প্রতিদিন ২২০ থেকে ৩০০ কোটি লিটার পানির প্রয়োজন।

গত তিন দশকে ভূগর্ভস্থ পানির জন্য প্রায় ৫০ কোটি টাকা ব্যয় করা হলেও বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা নিশ্চিত করা যায়নি। বর্তমানে সারাদেশে বছরে প্রায় ৩ কোটি ২০ লাখ মানুষ পানি সংকটে ভুগছে।

কেবল বিশুদ্ধ ও পরিচ্ছন্ন পানি ব্যবহারের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে পানিবাহিত রোগ এবং এ কারণে মৃত্যুঝুঁকি প্রায় ২১ শতাংশ পর্যন্ত কমানো যেতে পারে বলে মত দিয়েছে সংস্থাটি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আরো বলছে, উন্নয়নশীল ও অনুন্নত দেশগুলোতে প্রতি ৫ জনে ৩ জন নিরাপদ খাবার পানি পায় না। স্বল্পমাত্রায় পানি সরবরাহ ও অপ্রতুল স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য এসব দেশে ৮০ শতাংশ রোগব্যাধি হয়ে থাকে।

একটি বিশেষ মাধ্যমে সংশ্নিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দেশে মানুষের প্রতিদিন সুপেয় পানির যে চাহিদা রয়েছে, ভূগর্ভস্থ পানি থেকে সেই চাহিদা পুরোপুরি মেটানো সম্ভব নয়। অপরিকল্পিতভাবে পানি উত্তোলনের কারণে প্রতি বছরই ভূর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নামছে। 

বিশেষ করে এই গরমের মৌসুমে তীব্র ভোগান্তি হয় পানি নিয়ে।যেমন এই বছর মাঘ মাসের শেষ দিক থেকে শুরু হয়েছে দুর্গন্ধযুক্ত পানি। যাও মধ্যরাত পর্যন্ত অপেক্ষা করে পানি সংগ্রহ করি তাও অত্যন্ত ব্যবহার অনুপযোগী।

  কিন্তু কি করার পানির তো দৈনন্দিন প্রয়োজন রয়েছে।অপর এক বাড়িওয়ালা বলছেন গত কয়েক মাস ধরে এসব দূষিত পানি ব্যবহার করে পরিবারের সবাই অতিষ্ঠ হয়ে গেছে ।

তার উপরে সুপেয় পানি সরবরাহের দামে গত কয়েক মাস ধরে দূর্গন্ধযুক্ত পানি ব্যবহার করে সুপেয় পানির বিল দিতে হচ্ছে এ ভাবে কতো দিন আমরা ভোগান্তিতে ভুগবো।

 


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




লালমনিরহাটে যুবদলের সম্মেলন ও র‍্যালী

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি লালমনিরহাট ঃ

জাতীয়তাবাদী যুবদল লালমনিরহাট জেলা শাখার দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সম্মেলন উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু।

প্রধান অতিথি বক্তব্যে কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, শেখ হাসিনা দেশকে ও দেশের মানুষকে ভালোবাসেন না। তার বাবার মৃত্যুর প্রতিশোধ নিতেই তিনি দেশে ফিরেছিলেন। ভোটচোর করে ক্ষমতায় এসে এখন উন্নয়নের কথা বলে তেলসহ অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়িয়ে দিয়ে কোনঠাসা করে রেখেছে দেশের মানুষকে। তিনি প্রধানমন্ত্রী হয়ে দেশের অর্থনৈতিক মুক্তি দিতেন পারেননি। যেভাবে সার ও ডিজেলের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাতে কৃষকের উৎপাদন খরচ উঠে না। আগামীতে কৃষক ধান চাষ বন্ধ করে দেবে। এছাড়াও তিনি সরকারের নানামুখী সমালোচনা করে বক্তব্য দেন।

এসময় সম্মেলনের আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটি (রংপুর বিভাগ) অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু। সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সম্পাদক আব্দুল মোনায়েম মুন্না। বক্তব্য দেন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি মামুন হাসান, সহ সভাপতি মোহাম্মাদ নুরুল ইসলাম নয়ন, সাংগঠনিক সম্পাদক ইসাহাক সরকার, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার হাসান রাজিব প্রধান। লালমনিরহাট জেলা যুবদলের আহ্বায়ক সাইদুর রহমান মিঠুলের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য দেন, জেলা যুবদলের সদস্য সচিব আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

এরআগে আগে সম্মেলন উপলক্ষে জেলা যুবদলের এক বর্ণাঢ্য র্যালী জেলা বিএনপি কার্যালয় থেকে বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে সম্মেলন কেন্দ্র জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে পৌঁছে শেষ হয় এবং আলোচনা সভা শুরু হয়।

আলোচনা শেষে যুবদলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের সমর্থনে জেলা যুবদলের নেতা নির্বাচনের কথা রয়েছে।যুবদলের এই সম্মেলনের র্যালী ও আলোচনা সভায় বিভিন্ন ইউনিটের বিভিন্ন স্তরের প্রায় ৫ হাজার নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর