Logo
শিরোনাম

মৃত্যুর পরও অমর সারাহ ইসলাম

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ জানুয়ারী 20২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ এপ্রিল ২০২৩ | ১৪২জন দেখেছেন

Image
রোকসানা মনোয়ার :সারাহ ইসলাম, বয়স মাত্র ২০। দশ মাস বয়সে তার ব্রেন টিউমার ধরা পড়ে। মেয়েকে সুস্থ করে তুলতে দীর্ঘ ১৯ বছর সংগ্রাম করেছেন তার বাবা মা। দেশে বিদেশে নানা রকম চিকিৎসাতেও কোন কাজ হয়নি। ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন; সদ্য জীবন শুরু করা ফুটফুটে এই মেয়েটি। বাবা মাকে সারাহ অনুরোধ করেছিলেন; মৃত্যুর পর তার দেহটি যাতে মানুষের কল্যানে দান করা হয়।
বুধবার রাত ১০টায় সারাহ মারা যান। তার দুটি কিডনী ও চোখের দুটি কর্নিয়া সরিয়ে নিয়ে প্রায় সাথে সাথেই চারজন মানুষের দেহে প্রতিস্থাপন করেন ডাক্তাররা। রাত ১০টা থেকে টানা ভোর পর্যন্ত চলেছে এই অস্ত্রপচার। চারজন রোগীই সুস্থ আছেন। এটি হয়তো দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার এগিয়ে যাওয়ার চিত্র। কিন্তু আমি বিস্মিত অন্য কারনে।
মৃত্যুর মতো একটি কঠিন সত্যকে মেনে নিয়ে; এমন আত্মত্যাগের জীবন গড়তে কে তোমাকে শেখালো মা ? এই সার্থপর সমাজ, চারপাশে লোভের-লাভের এতো এতো প্রতিযোগিতা; এই নষ্ট সময়ে তুমি এক তরতাজা ফুল।
স্যালুট তোমাকে মা। স্যালুট তোমার মতো বীরকন্যার জন্মদাত্রী মাকেও। যে কিনা এমন একটা পবিত্র সৌরভের জন্ম দিয়েছে।

মৃত্যুতেও অমর একজন সারাহ ইসলাম । দূরারোগ্য রোগের সাথে লড়াই করে নিজে হার মানলেও, কিডনি ও কর্নিয়া দান করে নতুন জীবন দিয়েছেন চারজনকে। সারাহর অঙ্গ নেয়া চার রোগীই এখন সুস্থ আছেন। সাহসিকা সারাহর গল্প জানালেন তার মা ।

পাঁচ বছর যাবত বোনের চিকিৎসা খরচ জোগাতে গিয়ে যখন প্রায় নি:স্ব শাহাজাদা আহমেদের পরিবার তখন সারাহ ইসলাম এসেছেন জীবনের বাক বদলকারী হিসেবে। শাহাজাদা ফিরে পেয়েছেন তার বোনকে আর দশ বছরের ছোট্ট সন্তানের কাছে তার মাকে ফিরিয়ে দিয়েছে সারাহর দান করা কিডনী।

বলছি সেই ২০ বছরের সারাহর কথা। মাত্র দশ মাস বয়স থেকেই লড়েছেন টিউবেরাস স্কেলোসিসের মত দুরারোগ্য ব্যাধির সাথে।এবার ব্রেনে বাঁধা বেসেছিলো টিউমার। হয়তো বুঝতে পরেছিলেন লড়াইয়ে এবার ফিরে নাও আসতে পারেন। মৃত্যুর পরও নিজেকে বিলিয়ে বাঁচতে চেয়েছেন সারাহ। মস্তিস্ক যখন আর সারা দিচ্ছিলো না তখন সারাহর দুই কিডনী আর চোখের কর্ণিয়া নতুন করে বাঁচার আশা যুগিয়েছে চার চারটা মানুষকে।

বড় আঁকিয়ে হবেন একদিন, এমন স্বপ্ন ছিলো সারাহর চোখে। জীবন তাকে সেই সময়টুকু না দিলেও মৃত্যুতেও থমকে যাননি সারাহ! এমন সাহসী আর মানবিক মেয়েই তো চেয়েছিলেন মা শবনম।

বিখ্যাত কেউ নন কিন্তু তারপরও এমন সিলিউট থেকে সারাহ ইসলামকে চিনে নিতে আর কষ্ট হয় না। তার এই দেখিয়ে যাওয়া পথে যেদিন এমন আরও অনেক মৃত্যুঞ্জয়ের কাহিনীযুক্ত হবে সেই দিনের অপেক্ষায় সারাহর পরিবার।




আরও খবর

নৌকার পালে নির্বাচনের হাওয়া

মঙ্গলবার ১৪ মার্চ ২০২৩




মেট্রোরেলের শেষ চালান নিয়ে মোংলা বন্দরে' এমভি ভেনাস ট্রাম্প

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ এপ্রিল ২০২৩ | ৮৪জন দেখেছেন

Image

এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট:

মোংলা বন্দরে মেট্রোরেলের শেষ চালান নিয়ে নোঙ্গর করেছে পানামা পতাকাবাহী জাহাজ এমভি ভেনাস ট্রাম্প। এতে  ৪টি রেলওয়ে কোচ ও ২টি ইঞ্জিন রয়েছে। মেট্রোরেলের মালামাল নিয়ে জাপানের কোবে বন্দর থেকে ছেড়ে আসা জাহাজটি আজ রোববার (১২ মার্চ) বিকেল ৪টায় মোংলা বন্দরের ৮ নম্বর জেটিতে নোঙ্গর করে।

 এমভি ভেনাস ট্রাম্পের স্থানীয় শিপিং এজেন্ট এনশিয়েন্ট স্টিম শিপ কোম্পানির ব্যবস্থাপক মো. ওয়াহিদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 তিনি জানান, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি জাপানের কোবে বন্দর থেকে মেট্রোরেলের ৪টি রেলওয়ে কোচ ও ২টি ইঞ্জিন নিয়ে মোংলা বন্দরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে জাহাজটি। জাহাজটিতে কোচ ও ইঞ্জিনসহ ৭৮ প্যাকেজের ৩৫৬ দশমিক ৮৬১ মেট্রিক টন ওজনের যন্ত্রপাতি এবং বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি রয়েছে। জাহাজ থেকে এ সব পণ্য খালাসের পরপরই নদী পথে লাইটার জাহাজে করে পাঠানো হবে ঢাকায়। এরপর উত্তরার দিয়াবাড়ি মেট্রোরেলের ডিপোতে এগুলো নেওয়া হবে।

মোংলা বন্দর কতৃপক্ষের হারবার মাষ্টার ক্যাপটেন শাহিন মজিদ জানান, এ পর্যন্ত জাপান থেকে ১৫টি জাহাজে করে মেট্রোরেলের ২৪টি সেটে ১৪৪টি কোচ ও ২টি ইঞ্জিন এসেছে মোংলা বন্দরে। মোট ১৪৪টি কোচ-ইঞ্জিনের মধ্যে কোচ ৯৬টি আর ইঞ্জিন হলো ৪৮টি। তিনি আরো বলেন, মেট্রোরেলের প্রথম চালান আসে গত বছরের ২৮ মার্চ। প্রথম চালানে এসেছিল ৬টি রেলওয়ে কোচ। আজ ৪টি রেলওয়ে কোচ ও ২টি ইঞ্জিন আসার মধ্য দিয়ে শেষ হলো মেট্রোরেলের শেষ চালানের পণ্যের আমদানি। মেট্রোরেলের সব মালামাল মোংলা বন্দর দিয়ে আমদানি, খালাস ও পরিবহন হয়েছে।


আরও খবর

বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ মডেল

শনিবার ০১ এপ্রিল ২০২৩




মোরেলগঞ্জে মধ্যরাতে বাগানে ঝুলন্ত অবস্থায় নারীর লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ এপ্রিল ২০২৩ | ৭৬জন দেখেছেন

Image

এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট প্রতিনিধি:

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বাগানে গাছের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে এক গৃহ পরিচারিকার মরদেহ। শুক্রবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর মিজানুর রহমানের বাড়ির বাগান থেকে হাওয়া বেগমের(৬০) মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

থানা পুলিশ ও স্থানীয়দের দেওয়া তথ্যমতে, বাদুরতলা গ্রামের স্বামী পরিত্যাক্তা হাওয়া বেগম ৩ দিন পূর্বে ওই কাউন্সিলরের বাড়িতে ২ হাজার টাকা বেতনে ঝি এর কাজ নিয়েছিলেন। শুক্রবার রাতে খাবার সময় তাকে খুজে না পেলে বাড়ির লোকজন এক পর্যায়ে ঘরের বাইরে বাগানে গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় পান হাওয়া বেগমের মরদেহ। 

হাওয়া বেগমের মেয়ে কমলা বেগম(৪০) বলেন, তার মা রুজির টানে ঝি এর কাজ নিয়েছিলেন। রাতে হঠাৎ শুনি সে আত্মহত্যা করেছে। তার গলায় দড়ি দিয়ে ফাঁস লাগানো ছিলো। 

এ বিষয়ে থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান বলেন, হাওয়া বেগমের মৃত্যুর ঘটনায় আজ শনিবার একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে। মৃত্যুর সঠিক কারন জানতে শনিবার তার মরদেহ উদ্ধার করে পোস্ট মর্টেম করানো হয়েছে। তদন্ত চলছে। ##


আরও খবর



ধামরাইয়ে মাদ্রাসা ও এতিমখানার নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মার্চ 20২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ এপ্রিল ২০২৩ | ৭৬জন দেখেছেন

Image

মাহবুবুল আলম রিপন(স্টাফ রিপোর্টার):


ঢাকার ধামরাইয়ে দত্তনালাই আয়েশা সিদ্দিকা (রা.) মহিলা মাদ্রাসা ও এতিমখানার পাঁচতলা নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করা হয়েছে।

বুধবার (২২ মার্চ) উপজেলার গাংগুটিয়া ইউনিয়নের দত্তনালাই গ্রামে মহিলা মাদ্রাসা ও এতিমখানার ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ঢাকা ২০ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ এবং গাংগুটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আব্দুল কাদের।

ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনের পর মাদ্রাসা ও এতিমখানার মঙ্গল কামনায় বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ধামরাই উপজেলা আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম কবির মোল্লা, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মো. সিরাজ উদ্দিন, গাংগুটিয়া ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ পারভেজ ও মাদ্রাসার মুহতামিমসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।


আরও খবর



ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত বুঝবেন কিভাবে ?

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ এপ্রিল ২০২৩ | ১০৭জন দেখেছেন

Image

লিভার শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। এটি শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে, চর্বি, প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেট বিপাক করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এমনকি গ্লাইকোজেন, ভিটামিন ও খনিজ পদার্থ সংরক্ষণেও কাজ করে।

শরীরের ভেতরে ও বাইরে পিত্ত উৎপন্ন ও নির্গত করার পাশাপাশি লিভার অ্যালবুমিন ও জমাট বাঁধার কারণগুলোর মতো প্লাজমা প্রোটিন সংশ্লেষণ করে। তাই লিভারে বিভিন্ন রোগ দেখা দিলে এর কার্যকারিতা কমে যায়। ফলে পুরো শরীরে এর ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে।

লিভারের বিভিন্ন রোগের মধ্যে ফ্যাটি লিভার অন্যতম। ফ্যাটি লিভার ডিজিজ হয়, যখন বিভিন্ন কারণে লিভারে খুব বেশি চর্বি জমা হয়। দুটি প্রধান ধরনের ফ্যাটি লিভার ডিজিজ হলো- ননঅ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার ডিজিজ (এনএএফএলডি)।

এটি হলো এক ধরনের ফ্যাটি লিভার ডিজিজ, যা ভারী অ্যালকোহল ব্যবহারের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়। অন্যদিকে অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার ডিজিজ, যাকে অ্যালকোহলিক স্টেটোহেপাটাইটিসও বলা হয়। এটি প্রচুর অ্যালকোহল সেবরেনর সঙ্গে যুক্ত।

ফ্যাটি লিভারের সাধারণ লক্ষণগুলো হলো-

>> পেটে ব্যথা বা পূর্ণতার অনুভূতি

>> বমি বমি ভাব

>> ক্ষুধা ও ওজন কমে যাওয়া

>> হলুদ ত্বক

>> চোখ হলুদ হওয়া

>> পেট ও পা ফোলা

>> ক্লান্তি ও মানসিক বিভ্রান্তি

>> দুর্বলতা

ফ্যাটি লিভার কীভাবে হাঁটাকে প্রভাবিত করে?

দুই ধরনের ফ্যাটি লিভার ডিজিজের মধ্যে, নন-অ্যালকোহলযুক্ত ফ্যাটি লিভার ডিজিজকে বলা হয় স্নায়বিক রোগের জন্য সবচেয়ে নতুন ভাস্কুলার রিস্ক ফ্যাক্টরগুলোর মধ্যে একটি।

এক্সপ্রেস.ইউকের রিপোর্ট অনুযায়ী, অস্বাস্থ্যকর লিভার যা কাজ করার জন্য লড়াই করছে তা বিভিন্ন ফাংশনকে প্রভাবিত করতে পারে।

আচরণ, মেজাজ, বক্তৃতা, ঘুম’সহ একজন ব্যক্তির চলাফেরায় পরিবর্তন আনে লিভারের এই ব্যাধি। রিপোর্টে বলা হয়েছে, হাঁটার ভঙ্গি পরিবর্তন ফ্যাটি লিভার রোগের সংকেত দিতে পারে।

লিভার ট্রাস্টের তথ্য অনুসারে, ফ্যাটি লিভার রোগের রোগীর হাঁটার মধ্যে দুটি সবচেয়ে সাধারণ পরিবর্তন হলো একটি স্তম্ভিত গতি ও পড়ে যাওয়ার প্রবণতা।

একটি স্তম্ভিত গতিপথকে সাধারণত একটি অ্যাট্যাক্সিক গাইট হিসাবে বর্ণনা করা হয়, যার অর্থ অসংলগ্ন হাঁটা। রিপোর্টে শেষ পর্যায়ের ফ্যাটি লিভার ডিজিজ ও পারকিনসন্সের মধ্যে মিল পাওয়া গেছে।

কীভাবে ঝুঁকি কমাবেন?

মায়ো ক্লিনিক পরামর্শ দিচ্ছে, ফ্যাটি লিভার রোগের ঝুঁকি কমাতে ফল, শাকসবজি, গোটা শস্য ও স্বাস্থ্যকর চর্বি অন্তর্ভুক্ত করতে হবে ডায়েটে।

এর পাশাপাশি শারীরিক স্বাস্থ্যকে অগ্রাধিকার দেওয়া অর্থাৎ স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখা, নিয়মিত ব্যায়াম করা ও স্বাস্থ্যকর খাবারের মাধ্যমে ফ্যাটি লিভারের ঝুঁকি কমানো সম্ভব।

আর অবশ্যই অ্যালকোহল পান ও ধূমপানের মতো অস্বাস্থ্যকর অভ্যাসগুলো পরিহার করাও গুরুত্বপূর্ণ।


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে পতাকা দিবসের দাবিতে জেএসডির সভা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ মার্চ 2০২3 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ মার্চ ২০২৩ | ৫৫জন দেখেছেন

Image

এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট প্রতিনিধি :

 ২ মার্চকে জাতীয় পতাকা দিবস হিসেবে ঘোষণার দাবিতে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সভা ও র‌্যালি করেছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল(জেএসডি)। বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে দলটির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মোরেলগঞ্জ উপজেলা শাখা র‌্যালি শেষে সরকারি এসএম কলেজ মোড়ে পথসভা করে। ‘এই মুহুর্তে দরকার জাতীয় ঐক্যমতের সরকার’ এ শ্লোগান নিয়ে অনুষ্ঠিত পথ সভায় দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ খান, উপজেলা শাখার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নীল রতন মিস্ত্রী, সাধারণ সম্পাদক রুবেল খান ও জাহাঙ্গীর আলম খান প্রমুখ বক্তৃতা করেন। 


আরও খবর