Logo
শিরোনাম

নারায়ণগঞ্জে এসি বিস্ফোরণে আহত পাঁচ

প্রকাশিত:Monday ০৭ November ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি বসতবাড়িতে এসি বিস্ফোরণে পাঁচজন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়।

সোমবার (৭ নভেম্বর) দুপুরে গায়ক এস এ শামীম চৌধুরীর বসতবাড়ির একটি রুমে গান রেকর্ডিংয়ের সময়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ সময় এস এ শামীম, ছেলে বাবন , ছেলের বন্ধু মাহিন ও এস এ শামীমের নাতি রাজসহ আরও একজন দগ্ধ হন। তাদের মধ্যে গুরুতর দগ্ধ বাবন ও মাহিনকে প্রথমে শহরের খানপুর পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়।

এস এ শামীমের বড় ছেলে সাজু বলেন, আমাদের বাড়িতে গান রেকর্ডিংয়ের জন্য একটি রুম করেছেন আমার বাবা। সেই রুমে দুপুর ১টার সময় বিকট শব্দ হয়। তখন কাছে গিয়ে দেখি ওই রুমের ভেতর আমার ছোট ভাই বাবন ও তার বন্ধু মাহিন চিৎকার করছে। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছি। তাদের দুজনেরই বুক ও পিঠের কিছু অংশ দগ্ধ হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বিস্ফোরণে রুমের দরজা, জানালা ভেঙে দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। সেইসঙ্গে এসির ইনডোরের যন্ত্রাংশ ও আসবাবপত্র আগুনে পুড়ে গেছে। তাৎক্ষণিকভাবে নিজেরাই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি। তবে কী কারণে বিস্ফোরণ ঘটেছে তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।


আরও খবর



গৃহকর্মীকে গরম পানি দিয়ে ঝলসে দেয়া অধ্যক্ষের স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত:Wednesday ০৪ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

কুমিল্লা ব্যুরো :     

                 

কুমিল্লায় গৃহকর্মীকে (১২) মারধর করে গরম পানি দিয়ে শরীর ঝলসে দেওয়ার ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার পরদিন বুধবার (০৪ জানুয়ারি) মামলাটি দায়ের করেছেন ওই গৃহকর্মীর মামা ইব্রাহীম খলিল। এঘটনার বিষয়ে কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি আহমেদ সনজুর মোর্শেদ জানান, মামলার বাদী ইব্রাহীম খলিল অধ্যক্ষের স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে আমরা তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করি। মঙ্গলবার (০৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ৭টায় কুমিল্লা নগরীর ধর্মপুর ভিক্টোরিয়া কলেজ সংলগ্ন পূর্ব দৌলতপুর এলাকার এস আর টি প্যালেসে গৃহকর্মীকে (১২) মারধর করে গরম পানি দিয়ে শরীর ঝলসে দেয় তাহমিনা তুহিন। তিনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আবু তাহেরের স্ত্রী। নির্যাতন সইতে না পেরে ভুক্তভোগী দোতলা থেকে লাফিয়ে আত্মরক্ষা করে। পরে পাশের ভবনের কয়েকজন তাকে উদ্ধার করে ৯৯৯-এ কল দেন। পুলিশ এসে দগ্ধ কিশোরীকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে যায়। আর ভুক্তভোগীর বাড়ি কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার তেবাড়িয়া গ্রামে। ভুক্তভোগী গৃহকর্মী জানায়, সাবেক অধ্যক্ষ আবু তাহেরের মেয়ে ফাহমিদা তিমুর ঢাকার বাসা এবং আবু তাহেরের কুমিল্লার বাসায় চার বছর ধরে কাজ করছে সে। কাজে দেরি হলে তাহেরের স্ত্রী ও মেয়ে বেত দিয়ে মারধর করে এবং গরম পানি ঢালে। গত সোমবার গরম পানি ঢেলে পা ঝলসে দেয়। মঙ্গলবারও মারধরের পর গরম পানি ঢালতে গেলে দোতলা থেকে লাফ দেয় সে। এরপর পাশের মেয়েদের হোস্টেলে গিয়ে আশ্রয় নেয়।


আরও খবর



পাঠ্যপুস্তকের ভুল সংশোধনে দুটি কমিটি হচ্ছে

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

পাঠ্যপুস্তকের ভুল ও অসঙ্গতি সংশোধনে দুটি কমিটি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। একটি কমিটি ভুল সংশোধন করবে আর আরেকটি এনসিটিবির কোন গাফিলতি থাকলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।

রাজধানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী। রোববারের মধ্যে এসব কমিটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে বলেও জানান তিনি। এ সময় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, পাঠ্য পুস্তক নিয়ে মানুষের প্রতিক্রিয়াকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন তিনি।মন্ত্রী আরো জানান, গাইডগুলো এমন ভাবে করা হয়েছে যাতে করে নির্দেশিকা অনুসরণ করেই শিক্ষকরা পাঠদান করতে পারবেন।


আরও খবর



তৃণমূল গোছাতে ব্যস্ত আ.লীগ

প্রকাশিত:Wednesday ২৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

জহিরুল কবির আমজাদ :জাতীয় নির্বাচনের আগে দলকে সুসংগঠিত করার লক্ষ্যে তৃণমূল গুছিয়ে এনেছে আওয়ামী লীগ। দলের মেয়াদোত্তীর্ণ বিভিন্ন জেলা-উপজেলার সম্মেলন প্রায় শেষপর্যায়ে। এসব সম্মেলন স্থলে কেন্দ্র থেকে ছুটে যাচ্ছেন দলের কেন্দ্রীয় উচ্চপর্যায়ের নেতারা। দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দিয়ে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করার প্রচেষ্টা নেতাদের। নির্বাচনী প্রস্তুতি ও তৃণমূলে দলীয় নেতাকর্মীদের ঢেলে সাজাতে মূলত এসব পরিকল্পনা ক্ষমতাসীনদের।

দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা জানান, ২৪ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের আগে দলের অর্ধেকের বেশি জেলা-উপজেলাগুলোর সম্মেলন হয়েছে। দীর্ঘদিন সম্মেলন না হওয়া শাখাগুলোর সম্মেলন আয়োজন একটি বড় চ্যালেঞ্জ ছিল দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের। দলের গঠনতন্ত্র অনুসারে তিন বছর পরপর সম্মেলন হওয়ার কথা থাকলেও অনেক শাখার সম্মেলন হয়েছে দুই যুগ পর। এ মুহূর্তে দীর্ঘদিন ঝুলে থাকা জেলা ও উপজেলাগুলোর সম্মেলন করতেই ব্যস্ত রয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদকরা।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশে আওয়ামী লীগের ৭৮ জেলা ও মহানগর কমিটি রয়েছে। এর মধ্যে ৫৯টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৯টির সম্মেলন বাকি রয়েছে। খুলনা, রাজশাহী ও ময়মনসিংহ এই তিন বিভাগের কোনো সাংগঠনিক জেলার সম্মেলন বাকি নেই। চট্টগ্রাম বিভাগে সাতটি শাখা, ঢাকা বিভাগে ছয়টি, রংপুর বিভাগে চারটি, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের একটি করে জেলার সম্মেলন বাকি রয়েছে।

এদিকে সারা দেশে আওয়ামী লীগের ৬৮৪টি সাংগঠনিক উপজেলা রয়েছে। এসব সাংগঠনিক উপজেলার মধ্যে প্রায় ৫৫০টি কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৩০টির মতো উপজেলা ও উপজেলার মর্যাদাপ্রাপ্ত কমিটির সম্মেলন বাকি রয়েছে। এসব উপজেলার মধ্যে কিছু কমিটি যুগ পার করলেও সম্মেলন আর হয়নি। ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোনা ও ময়মনসিংহ জেলার একাধিক উপজেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ১৫ থেকে ২০ বছর পর। ঝুলে থাকা বাকি উপজেলাগুলোর কমিটি করতে কেন্দ্রীয় নেতারা জেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে আলাপ করে তারিখ ঘোষণা করবেন।

সংশ্লিষ্টদের দেওয়া তথ্য মতে, খুলনা বিভাগে ১১টি জেলা ও মহানগর কমিটি রয়েছে। সবগুলোরই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে সাতটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। বাকি চারটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি চলতি জানুয়ারি মাসের মধ্যেই কেন্দ্রে জমা দেওয়ার কথা রয়েছে। বিভাগটিতে ৮১টি সাংগঠনিক উপজেলা রয়েছে। এর মধ্যে ১১টির সম্মেলন বাকি আছে। ৭০টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলাগুলোর মধ্যে ১২টির পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন বাকি রয়েছে। কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের চিঠি দেওয়া হবে।

খুলনা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক জানান, এ সপ্তাহে তার খুলনায় যাওয়ার কথা। সেখানে গিয়ে জেলার নেতাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে ১২ উপজেলার সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হবে।

চট্টগ্রাম বিভাগের ১৫ সাংগঠনিক জেলার মধ্যে কক্সবাজার, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চট্টগ্রাম দক্ষিণ, রাঙামাটি, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ও কুমিল্লা মহানগরের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলন বাকি থাকা সাত জেলা হলো চট্টগ্রাম উত্তর, চট্টগ্রাম মহানগর, খাগড়াছড়ি, ফেনী, চাঁদপুর, বান্দরবান ও কুমিল্লা উত্তর। এর মধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরের সর্বশেষ সম্মেলন হয় ১৪ বছর আগে। আর চাঁদপুর জেলার সম্মেলন হয় ১১ বছর আগে।

ঢাকা বিভাগে আওয়ামী লীগের ১৭টি সাংগঠনিক জেলা রয়েছে। এর মধ্যে ১১টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলন বাকি থাকা ছয়টি সাংগঠনিক জেলা হলো কিশোরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর, মুন্সীগঞ্জ, শরীয়তপুর, ঢাকা মহানগর উত্তর ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ। সম্মেলন হওয়া ১১ জেলার মধ্যে গত বৃহস্পতিবার অনুমোদন দেওয়া হয় গোপালগঞ্জ ও নরসিংদী জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি। এ নিয়ে ঢাকা বিভাগে মোট চার জেলায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। ঢাকা বিভাগে সাংগঠনিক উপজেলা ১৭১টি; এর মধ্যে ১৩৫টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে, ৩৬টির সম্মেলন বাকি আছে। ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম বলেন, মেয়াদোত্তীর্ণ ছয় সাংগঠনিক জেলার সম্মেলন শিগগিরই অনুষ্ঠিত হবে। আর যে সাতটি জেলায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হয়নি, সেগুলো চলতি মাসের মধ্যে অনুমোদন হবে।

পূর্ণাঙ্গ কমিটির বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ বলেন, নির্বাচনের আগে আমাদের দলীয় নেতাকর্মীদের প্রস্তুতির অভাব নেই। আমরাও সেই লক্ষ্যে কাজ করছি। আমাদের জেলা কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার কাজ প্রায় শেষপর্যায়ে। চলতি মাসে পূর্ণাঙ্গ কমিটির ঘোষণা আসতে পারে।

রাজশাহী বিভাগে আওয়ামী লীগের ৯টি সাংগঠনিক জেলা ও ৮৩টি উপজেলা কমিটি রয়েছে। ৯ জেলা কমিটিরই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এগুলোর পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রে জমা দেওয়া হয়েছে। ৮৩টি উপজেলা কমিটির তিন থেকে চারটির সম্মেলন বাকি রয়েছে। ময়মনসিংহ বিভাগের পাঁচ সাংগঠনিক জেলার সবগুলোরই সম্মেলন হয়েছে। বিভাগের ৪০ সাংগঠনিক উপজেলার মধ্যে ৩২টি উপজেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ময়মনসিংহ বিভাগে এখন আটটি উপজেলা কমিটির সম্মেলন বাকি রয়েছে। বরিশাল বিভাগের সাতটি জেলা ও মহানগর কমিটি রয়েছে। এর মধ্যে ছয়টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুধু বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন বাকি রয়েছে। বিভাগটিতে ৫২টি সাংগঠনিক উপজেলা রয়েছে। সাংগঠনিক উপজেলাগুলোর মধ্যে ৪৮টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলন বাকি থাকা তিনটি উপজেলা হলো বরিশাল সদর, মঠবাড়িয়া ও পাথরঘাটা।

রংপুর বিভাগের ৯টি সাংগঠনিক জেলা রয়েছে। সম্প্রতি রংপুর জেলা ও মহানগর কমিটি ভেঙে দিয়ে আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ বিভাগে চার জেলার সম্মেলন বাকি আছে। বিভাগটিতে ৭৮টি সাংগঠনিক উপজেলা কমিটি রয়েছে। এগুলোর অর্ধেকের বেশি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাকিগুলোর সম্মেলন করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

সিলেট বিভাগে পাঁচ জেলা ও মহানগর কমিটি এবং ৪৯টি সাংগঠনিক উপজেলা কমিটি রয়েছে। বিভাগটির জেলাগুলোর মধ্যে শুধু সুনামগঞ্জের সম্মেলন বাকি রয়েছে। সিলেট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বলেন, সিলেটে বন্যার কারণে সুনামগঞ্জের সম্মেলন পিছিয়ে গেছে। এ ছাড়া কয়েকটি উপজেলার সম্মেলন বাকি রয়েছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এসব শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



রাজবাড়ীতে অসহায় ১৬ শত নারীকে কম্বল ও চিকিৎসা সেবা প্রদান

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Thursday ২৬ January ২০২৩ |
Image

রাজবাড়ী প্রতিনিধি : দেশের সব চেয়ে বড় যৌনপল্লি রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া (পূর্বপাড়ায়) অসহায় ১৬শত নারীকে কম্বল ও ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার ( ১৬ জানুয়ারী ) বিকেলে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পূর্বপাড়া এলাকায় অসহায় নারীদের কম্বল বিতরন ও ফ্রি চিকিৎসা সেবা আয়োজন করেন উত্তরন ফাউন্ডেশন।

কম্বল বিতরন ও ফ্রি চিকিৎসা সেবা ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ সালাহউদ্দিন, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি ) স্বপন কুমার দাস, উত্তরন ফাউন্ডেশনের সদস্য তানিয়া হক শোভা, পূর্বপাড়ার অসহায় নারী ঐক্য সংগঠনের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় দেশের সব চেয়ে বড় যৌনপল্লি রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া পূর্বপাড়ায় অসহায় ১৬ শত নারীকে কম্বল তুলে দেন আগত অতিথিরা। 

কম্বল বিতরন শেষে উত্তরন ফাউন্ডেশনের সদস্য তানিয়া হক শোভা বলেন, উত্তরন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি হাবিবুর রহমানের নীজ উদ্যোগে উত্তরন ফাউন্ডেশন সব সময় অসহায়, পিছিয়ে পড়া, বেদে, যৌনকর্মী ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের জীবনযাত্রা উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। আামীতেও এর ধারা অব্যাহত থাকবে। 

পরে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে আগত দশ সদস্যের একটি টিম দিন ব্যপী চিকিৎসা সেবা ও বিনামূল্যে ঔষুধ বিতরন করেন।


আরও খবর



নওগাঁয় সড়ক থেকে পুলিশের ''এএসআই'' এর মৃতদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:Sunday ০১ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ January ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁয় এএসআই এর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে জেলার পত্নীতলা থানা পুলিশ। নিহত এএসআই হলেন, রুহুল আমিন। তিনি নওগাঁর পত্নীতলা থানায় এএসআই হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

প্রাথমিক ধারনা, দ্রুতগামী অজ্ঞাত কোন গাড়ির সাথে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে দূর্ঘটনাস্থলে পত্নীতলা থানার এএসআই রুহুল আমিন এর মৃত্যু হয়।

স্থানিয় ও থানা সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো শনিবার দিবাগত রাত পৌনে ৯ টা থেকে সারে ৯ টারদিকে থানায় রোলকল হয়। রোলকলে সে থানায় উপস্থিত থেকে রোলকল করেছিল। এরপর সে কোন এক সময় থানা থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে বেরিয়ে যায়। রাতে পত্নীতলা মধইল আঞ্চলিক সড়কের কঞ্চিপুকুর নামক স্থানে রাস্তায় এএসআই রুহুল আমিনের মৃতদেহ পরে থাকতে দেখে থানায় খবর দেন স্থানিয়রা। খবর পেয়ে থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে মৃতদেহ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেয়।

নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করে পত্নীতলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, রাত সাড়ে ১০ টারদিকে স্থানীয়দের মাধ্যমে সংবাদ পাওয়ার পরই দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে মৃতদেহ উদ্ধার করে রবিবার ১ জানুয়ারী সকালে ময়না তদন্তের জন্য মৃতদেহটি নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। 


আরও খবর