Logo
শিরোনাম

নওগাঁর সাপাহারে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ 


"উদ্ভাবনী জয়োল্লাসে স্মার্ট বাংলাদেশ" প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে নওগাঁর সাপাহারে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার ১৪ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৯ টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা এবং উদ্ভাবনী অলিম্পিয়াড উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ চত্তর হতে একটি র‍্যালি বের হয়ে উপজেলা সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‍্যালি শেষে ফিতা কেটে মেলার উদ্বোধন ঘোষনা করা হয়। মেলা উদ্বোধনের পর মেলার মাঠে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহণে কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্যাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উক্ত মেলায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সরকারি দপ্তরের ২০ টি স্টল তাদের ডিজিটাল উদ্ভাবনী বিষয়গুলো প্রদর্শন করেন। পরে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দিন ব্যাপী মেলার 

সমাপ্তি করা হয়। এসময়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহজাহান হোসেন মন্ডল, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ রুহুল আমিন,মৎস্য কর্মকর্তা রোজিনা পারভীন,কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মুনিরুজ্জামান টকি, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ান কবীর, এলজিইডি প্রকৌশলী তাহাজ্জদ হোসেন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা কামরুজ্জামান, প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ গোলাম রাব্বানী,সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী মোল্লা সহ সরকারি দপ্তরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



মির্জাগঞ্জে বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে ব্র্যাকের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

মির্জাগঞ্জ(পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ

বেসরকারী সংস্থা ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনি সুরক্ষা কর্মসূচি (সেল্প) মির্জাগঞ্জ শাখার উদ্যোগে নারীর ক্ষমতায়ন এবং সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠীর আইনি অধিকার নিশ্চিত করন ও বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে সমন্বিত কর্মকৌশল নির্ধারন বিষয়ে এক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (৩১ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত সভার সভাপতিত্ব করেন ইউএনও মোসাঃ তানিয়া ফেরদৌস।

এ্যাসোসিয়েট অফিসার প্রকাশ কুমার মজুমদার এর সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য দেন দেউলী সুবিদখালী ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন খাঁন, মির্জাগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট মোঃ আবুল বাসার নাসির হাওলাদার,বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ আজিজ মল্লিক,মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন তালুকদার, এনজিও  প্রতিনিধি মোঃ কাওসার হোসেন, সেল্প এর উপজেলা সমন্বয়কারী মোঃ ইদ্রিস আলী বিশ্বাস ও সাংবাদিক কামরুজ্জামান বাঁধন প্রমূখ।


আরও খবর



রাণীনগর-আত্রাই থানা পুলিশের অভিযানে ৬জন মাদক কারবারী-জুয়ারী আটক

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

 কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :

নওগাঁর রাণীনগর এবং আত্রাই থানাপুলিশ পৃথক পৃথকভাবে অভিযান চালিয়ে ৩জন মাদক কারবারী ও ৩জন জুয়ারীসহ ৬জনকে আটক করেছে। এর মধ্যে দুইজনের নিট থেকে মাদক উদ্ধার করেছে পুলিশ। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে বুধবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

রাণীনগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সেলিম রেজা বলেন,মঙ্গলবার রাতে উপজেলার পূর্ব বালুভরা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় পূর্ব বালুভরা গ্রামের আক্কাছ আলীর ছেলে মুঞ্জ প্রামানিক (৪৮) ও আফজাল মন্ডলের ছেলে ইউনুছ মন্ডল (৪৫) কে ৯০গ্রাম গাঁজা আটক করা হয়। রাতেই তাদের বিরুদ্ধে মাদক মামলা রুজু করা হয়েছে। এছাড়া একই রাতে মাদক মামলায় আদালতের পরোয়ানাভুক্ত আসামী খট্রেশ্বর গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে আব্দুর রশিদ (৩৮)কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অপর দিকে আত্রাই থানাপুলিশ মঙ্গলবার সন্ধায় উপজেলার জাত আমরুল গ্রাম এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘোষপাড়া গ্রামের মিন্টু খামারু (৩২),জাত আমরুল গ্রামের নজরুল ইসলাম (৫০) ও সুজন (৪০) কে আটক করেছে। তাসের মাধ্যমে জুয়া খেলা হচ্ছিল জানিয়ে থানার ওসি তারেকুর রহমান সরকার বলেন রাতেই আটককৃতদের বিরুদ্ধে জুয়া আইনে মামলা রুজু করে বুধবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


আরও খবর



জনবল সংকটে নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা ব্যাহত

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ


প্রায় ২৮ লাখ মানুষের চিকিৎসার জন্য একমাত্র ভরসাস্থল নওগাঁ সদর ২৫০ শয্যা আধুনিক হাসপাতাল। এ হাসপাতালে প্রতিদিন আউটডোরে প্রায় ১ হাজার ৭শ’ জন ও ইনডোরে আরও ৩ শতাধিক রোগীর চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। নওগাঁর ১১ উপজেলা ছাড়াও পাশের বগুড়া জেলার আদমদীঘি ও জয়পুরহাটের আক্কেলপুর থেকেও লোকজন আসেন এ হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে। কিন্তু আশানুরুপ সেবা না পাওয়ায় নওগাঁ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন রোগীরা।

এ জেলার মানুষকে উন্নত চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে ১০০ শয্যাবিশিষ্ট থেকে ২৫০ শয্যায় উন্নীত করা হয় হাসপাতাল টি। তবে আগের ১০০ শয্যা হাসাপাতালের যে জনবল সেটা দিয়েই ২৫০ শয্যার কার্যক্রম চলছে এখনো। এতে করে রোগীদের চাপে হিমশিম খাচ্ছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সরা। আর উন্নত চিকিৎসা সেবা থেকেও বঞ্চিত হচ্ছেন মানুষ।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ১০০ শয্যার হাসপাতালে উপ-পরিচালক, শিশু, মেডিসিন, সার্জারি, ফরেনসিক, চক্ষু, অর্থোপেডিকস, রেডিওলজি ইমেজিং, কার্ডিওলজি, চর্ম ও যৌন, গাইনি এ্যান্ড অবস, নাক-কান-গলা, প্যাথলজি, নিউরোসার্জারি, নেফ্রোলজি, ও মেডিকেল অফিসারসহ মোট ৪৫ চিকিৎসকের মধ্যে আছেন মাত্র ৩২ জন। ৮৬ জনের মধ্যে নার্স রয়েছেন ৭৮ জন। বর্তমানে ১৩ জন মেডিকেল অফিসার দিয়ে আউটডোর ও ইনডোরে সেবা দেয়া হচ্ছে। 

প্রতিদিন আউটডোরে প্রায় ১৬/১৭শ’ এবং ইনডোরে প্রায় ৩ শতাধিক রোগীর চিকিৎসাসেবা দেয়া হয়।

এছাড়াও ১০০ শয্যার জন্য মঞ্জুরি করা পদের মধ্যে সিনিয়র কনসালটেন্ট মেডিসিন, চক্ষু, অর্থোপেডিকস ও রেডিওলজি ইমেজিং, জুনিয়র কনসালটেন্ট গাইনি এ্যান্ড অবস, মানসিক, প্যাথলজি ও নেফ্রোলজি, ডেন্টাল সার্জন, মেডিকেল অফিসার চক্ষু, রেডিওলজিস্ট এবং ইনডোর মেডিকেল অফিসার কার্ডিওলজি ও মেডিসিন প্রতি পদে একটি করে শূন্য রয়েছে। হাসপাতাল পরিচালনার জন্য ১৭৬ মঞ্জুরি পদের বিপরীতে জনবল আছে ১২১ জন।

নওগাঁ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল ঘুরে দেখা যায়, র্দীঘ লাইনে দাঁড়িয়ে চিকিৎসা সেবা না পেয়ে অনেক সেবা প্রত্যাশীরা বাধ্য হয়ে ফিরে যাচ্ছেন। আবার অনেকে বেড না পেয়ে মেঝে এমনকি বারান্দায় ভর্তি হয়ে চিকিৎসা সেবা গ্রহন করছেন। অন্যদিকে, রোগীর চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছেন হাসপাতালের দায়িত্বরতরা। অভিযোগ রয়েছে, হাসপাতাল থেকে রোগীদের ওষুধ সরবরাহের পাশাপাশি বাড়তি ওষুধ বাইরে থেকে কিনতে হয়।

ইনডোরে রোগী দেখার পর ডাক্তার আউটডোরে গিয়ে রোগী দেখা শুরু করেন। এতে হাসপাতালের আউটডোরে চিকিৎসা সেবা নিতে আসাদের দীর্ঘসময় অপেক্ষা করতে হয়। আবার চিকিৎসক না থাকায় হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে সেবা নিতে আসা রোগীদেরও।

নওগাঁর নিয়ামতপুর থেকে পায়ের চিকিৎসা করাতে এসেছেন রমজান আলী। তার সঙ্গে আসা মেয়ে নিলুফা খাতুন বলেন, অর্থোপেডিক ডাক্তারের কক্ষের সামনে এতই ভিড় বাবাকে যে পাশে কোথাও বসিয়ে রাখবো সেই ব্যবস্থাও নেই। ২ ঘণ্টা অপেক্ষা করেও বাবাকে ডাক্তার দেখাতে পারিনি। বাধ্য হয়ে বাসায় ফিরে যাচ্ছি। অন্যকোনো দিন আবার আসবো আর না হয় রাজশাহীতে নিয়ে যাবো।

একই অবস্থা মেডিসিন বিভাগের সামনেও, দীর্ঘ লাইনে প্রায় ৫০-৬০ জনের মত সেবাপ্রত্যাশী দাঁড়িয়ে আছেন। আমেনা বেগম নামে এক সেবা প্রত্যাশী বলেন, দুইদিন হলো ঘুরে গেলাম। সেই সকাল ১০টায় এসেছি এখন ১২টা বেজে গেল। কিন্তু এখনও ডাক্তারের কাছে যেতেই পারলাম না। অনেকে বাধ্য হয়ে ফিরে গেছে। আমি চলে যাবো। আর কিছুক্ষণ এভাবে দাঁড়িয়ে থাকলে আমি আরও অসুস্থ্য হয়ে পড়বো। একসাথে তিন -চারটি কক্ষে যদি মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা রোগী দেখতেন, তাহলে এতো ভোগান্তি পোহাতে হতো না।

হাসপাতালের নতুন ভবনের সার্জারী ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, অনেকে মেঝেতে ও বাড়ান্দায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। কামরুল হোসেন নামে একজন বলেন, আমার ভাইকে ভর্তি করা হয়েছে। বেড সংকট তাই মেঝেতেই চিকিৎসা সেবা নিতে হচ্ছে। কি আর করার, বাধ্য হয়েই এসেছি সরকারি হাসপাতালে।

রেনুকা বেগম নামে এক রোগী বলেন, বেড নাই তাই বারান্দা থেকেই চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। চিকিৎসা পাওয়াতো আমাদের মৌলিক অধিকার। কিন্তু চিকিৎসাটাও ভালো ভাবে পাই না আমরা। বারান্দায় এভাবে থাকা যে কতটা কষ্টের, তা বুঝাবো কি করে? টাকা খরচ করে প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা করার মত সামর্থ্য নেই। তাই বাধ্য হয়েই এখানে থেকেই চিকিৎসা নিতে হচ্ছে।

জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর থেকে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার কারণে মিলাদুল ইসলাম এসে ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছেন। তিনি বলেন, হঠাৎ করে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি। হাসপাতাল থেকে কিছু ওষুধ দেয়া হয়েছে। আর বেশি ভাগ ওষুধ বাইরে থেকেই কিনতে হয়েছে।

নওগাঁ নাগরিক কমিটির সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট এ.কে.এম ফজলে রাব্বী বকু জানান, ২৮ লাখ মানুষের ভরসা নওগাঁ সদর হাসপাতাল। চিকিৎসক সংকটের কারণে যদি কেউ সময়মত সেবা না নিতে পারে তাহলে এর চেয়ে দুঃখজনক কি আর হতে পারে। হাসপাতালে যদি সেবার মান ভালো না হয় তাহলে সাধারণ মানুষ কোথায় যাবে সেবা নিতে? চিকিৎসক সংকটসহ হাসপাতালের সার্বিক সমস্যা দূর করে যেন সেবার মান বৃদ্ধি করা হয় সেই দাবি জানান তিনি।

নওগাঁ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক (উপ-পরিচালক) ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, ২৫০ শয্যা বলা হলেও ১০০ শয্যার হাসপাতাল চালাতে যে পরিমাণ জনবল দরকার তাও এখানে নেই। এতে করে চিকিৎসাসেবা ব্যাহত হচ্ছে। প্রতিদিন আউটডোরে প্রায় ১৬শ' জন ও ইনডোরে প্রায় ৩ শতাধিক রোগীর চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের জন্য প্রশাসনিক অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সেবার মান বৃদ্ধির জন্য চাহিদা পত্রের মাধ্যমে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে। আশা করছি চাহিদা গুলোর অনুমোদন পেলে ডাক্তার, সেবিকা, ওষুধ ও অবকাঠামো সহ সার্বিকভাবে সেবার মান আরো ভালো হবে বলে জানান তিনি।


আরও খবর

জন্মনিয়ন্ত্রণে আগ্রহ কমছে

শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২




কিশোর ও স্কুল পডুয়া ছাত্রদের পর্ণো ভিডিও সরবরাহকারী ৬ জন আটক

প্রকাশিত:রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ


টাকার বিনিময়ে কিশোর ও স্কুল পডুয়া ছাত্রদের কাছে সরবরাহ করতো পর্নো ভিডিও। র‌্যাবের বিশেষ অভিযানে ৬ জন পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহকারি গ্রেফতার।

সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, কাম্প থেকে প্রতিবেদক কে জানানো হয়,

র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পের একটি চৌকস অপারেশনাল দল কোম্পানী অধিনায়ক মেজর মোঃ মোস্তফা জামান, আর্টিলারি এর নেতৃত্বে শনিবার ১৯ নভেম্বর সন্ধার পর জয়পুরহাট জেলার কালাই থানাধীন মোলাগাড়ী বাজারে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৬ টি মনিটর, ৬ টি সিপিইউ, ১১ টি হার্ড ডিস্ক, ৬ টি মাউস, ৬ টি কী-বোর্ড, বিভিন্ন ক্যাবল ১৮ টি ও ৬ টি মোবাইল ফোন সহ পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহকারি ১। মোঃ আকতারুল ইসলাম (৩১), পিতা-মৃত মনসুর রহমান, সাং-বাখড়া বেলগারিয়া, ২। মোঃ সাদেক আলী (২৩), পিতা-মোঃ আব্দুস সাত্তার, সাং- নানাহার, ৩। মোঃ সাজু মিয়া ওরফে সেলিম (২৬), পিতা-মোঃ ইশারত আলী, সাং-মহিরোম ৪। মোঃ সবুর ইসলাম (২৪), পিতা-মোঃ আব্দুল আজিজ, সাং-বাখড়া (উত্তরপাড়া), ৫। মোঃ শামসুল আলম (৩৪), পিতা- মোঃ আব্দুল মান্নান, সাং-নানাহার, ৬। মোঃ সাহেব আলী (৩২), পিতা-মৃত হারেজ প্রামানিক, সাং-মোলামগাড়ী হাট, সর্ব উপজেলা কালাই, জেলা জয়পুরহাট কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব আরো জানান, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন যাবৎ তাদের নিজ দোকানের নিজস্ব কম্পিউটার এর হার্ডডিক্সে সংরক্ষণ করে টাকার বিনিময়ে বিভিন্ন ইলেকট্রিক ডিভাইসের মাধ্যমে স্থানীয় কিশোর ও স্কুল পডুয়া ছাত্রদের কাছে পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহ করে আসছিলেন।

পরবর্তীতে আসামীদের বিরুদ্ধে জয়পুরহাট জেলার কালাই থানায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রন আইন ২০১২ অনুযায়ী মামলা দায়ের করা রয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব।


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে বহরবুনিয়া দাখিল মাদ্রাসা ১ টা বাজলেই ছুটি!

প্রকাশিত:বুধবার ০২ নভেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

 এম. পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বহরবুনিয়া দাখিল মাদ্রাসা অনিয়ম যেখানে নিয়মে পরিনত হয়েছে। দুপুর ১টা বাজলেই মাদ্রাসাটি হয় ছুটি, সকল শ্রেনীকক্ষ থাকে তালাবদ্ধ!। সরকারি নিয়ম রয়েছে সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত প্রতিষ্ঠান খোলা থাকবে। নিয়ম নীতির কোন তোয়াক্কা না করে এ ভাবেই চলছে। শিক্ষকরা আসছেন-যাচ্ছেন নিজেদের ইচ্ছামাফিক। স্থানীয়দের রয়েছে ক্ষোভ।     

 সরেজমিনে বুধবার দুপুর ১টা ২০ মিনিট উপজেলার বহরবুনিয়া  ইউনিয়নের সিরাজ মাষ্টার বাজার সংলগ্ন “বহরবুনিয়া দাখিল মাদ্রাসার প্রতিটি শ্রেনীকক্ষে ঝুলছে তালা” ! জাতীয় পতাকা নেই ফ্লাক ষ্ট্যান্ডে। মাদ্রাসাটির অপরপ্রান্তে ২৮৯ নং বহরবুনিয়া মধ্যপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্লাশ চলছে। ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাজমা আক্তার বলেন,  কোন প্রতিষ্ঠান বন্ধ বা খোলা সেটি জানার বিষয় নয়। আমি কি করছি আমার প্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছে কিনা। তবে, বিদ্যালয়ের সামনে থেকে বড় শিক্ষার্থীরা অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকগন ছুটি দিয়ে আগে চলে গেলে প্রত্যন্ত গ্রামের কোমলমতি শিশুদের মাঝেও এর একটি প্রভাব পড়ে।

  এ বিষয়ে মাদ্রাসা সুপার আবু হানিফ মোহাম্মদ বদরুদ্দোজা বলেন, মাদ্রাসা প্রতিদিন ১টায় ছুটি হয় বিষয়টি সঠিক নয়। বুধবার প্রতিষ্ঠান থেকে তিনি সাড়ে ১২ টার দিকে জরিপ কাজের জন্য বেড়িয়ে পড়েন। পরবর্তীতে মাদ্রাসা ছুটি হয়ে যাওয়ার সর্ম্পকে তিনি অবহিত নন। তবে, এ বিষয়ে খোজ খবর নেওয়া হচ্ছে।  

 বহরবুনিয়া দাখিল মাদ্রাসার সভাপতি টিএম বিপ্লব বলেন, মাদ্রাসা সময় সূচি অনুযায়ী চলছে। আজকে দুপুর ১টার ছুটির বিষয়ে তিনি অবহিত নন। আগামী দিন মাদ্রাসায় গিয়ে  তিনি খোজ খবর নিবেন।

 এ সর্ম্পকে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. জিয়াদ হাসান বলেন, শিক্ষামন্ত্রনালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত মাদ্রাসা ও বিদ্যালয় চলবে। তবে, এ উপজেলায় ৯টা থেকে ৩ টা পর্যন্ত অর্থাৎ ৬ ঘন্টা খোলা থাকবে প্রতিষ্ঠান। এর ব্যতিক্রম হলে প্রতিষ্ঠান প্রধানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 


আরও খবর

আগামীকাল এসএসসি সমমানের ফল

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২

ঢাবির ৫৩তম সমাবর্তন আজ

শনিবার ১৯ নভেম্বর ২০২২