Logo
শিরোনাম

নওগাঁয় শিক্ষার্থীদের কাবাডি প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বুধবার ২৬ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :

“সুস্থ্য দেহে, সুন্দর মন” এই প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে নওগাঁর নিয়ামতপুরে অনূর্ধ্ব-১৬ বালকদের কাবাডি প্রতিযোগীতা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদেরকে মোবাইল গেমস থেকে দূরে রেখে দেশীয় খেলাধূলার প্রতি আগ্রহী করার লক্ষ্যে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে নওগাঁ জেলা ক্রীড়া অফিস। 



মঙ্গলবার বিকালে নিয়ামতপুর সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৪টি দল অংশ গ্রহণ করে। ফাইনাল খেলায় ২৯-২৬ পয়েন্টে নিয়ামতপুর ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসাকে পরাজিত করে নিয়ামতপুর সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয় বিজয়ী হয়।

বাংলাদেশ ক্রীড়া পরিদপ্তরের বার্ষিক ক্রীড়া কর্মসূচি ২০২২-২০২৩ এর আওতায় নওগাঁ জেলা ক্রীড়া অফিসের ব্যবস্থাপনায় অনূর্ধ্ব-১৬ বালকদের কাবাডি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।  প্রতিযোগীতা শেষে জেলা ক্রীড়া অফিসার আবু জাফর মাহমুদুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদ আহম্মেদ। এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। 


এসময় বক্তারা বলেন, একজন মেধাবী মানুষ হিসাবে নিজেকে গড়ে তুলতে চাইলে অবশ্যই নিয়মিত খেলাধুলা চর্চার কোন বিকল্প নেই। এক সময় জাতীয় পর্যায়ে কাবাডি প্রতিযোগীতায় কয়েক বার জেলা পর্যায়ে বিজয়ী হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিলো। এরপর নিয়মিত চর্চা আর পৃষ্ঠপোষকতা না থাকায় নওগাঁ থেকে হারিয়ে গেছে সেই ঐতিহ্য। দেশের কাবাডি ঐতিহ্যকে ফিরে আনতে হলে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে উদ্দ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।


আরও খবর

ডু অর ডাই ম্যাচ মেসিদের

শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২

আর্জেন্টিনাকে মাটিতে নামাল সৌদি

বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২




কিশোর ও স্কুল পডুয়া ছাত্রদের পর্ণো ভিডিও সরবরাহকারী ৬ জন আটক

প্রকাশিত:রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ


টাকার বিনিময়ে কিশোর ও স্কুল পডুয়া ছাত্রদের কাছে সরবরাহ করতো পর্নো ভিডিও। র‌্যাবের বিশেষ অভিযানে ৬ জন পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহকারি গ্রেফতার।

সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, কাম্প থেকে প্রতিবেদক কে জানানো হয়,

র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পের একটি চৌকস অপারেশনাল দল কোম্পানী অধিনায়ক মেজর মোঃ মোস্তফা জামান, আর্টিলারি এর নেতৃত্বে শনিবার ১৯ নভেম্বর সন্ধার পর জয়পুরহাট জেলার কালাই থানাধীন মোলাগাড়ী বাজারে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৬ টি মনিটর, ৬ টি সিপিইউ, ১১ টি হার্ড ডিস্ক, ৬ টি মাউস, ৬ টি কী-বোর্ড, বিভিন্ন ক্যাবল ১৮ টি ও ৬ টি মোবাইল ফোন সহ পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহকারি ১। মোঃ আকতারুল ইসলাম (৩১), পিতা-মৃত মনসুর রহমান, সাং-বাখড়া বেলগারিয়া, ২। মোঃ সাদেক আলী (২৩), পিতা-মোঃ আব্দুস সাত্তার, সাং- নানাহার, ৩। মোঃ সাজু মিয়া ওরফে সেলিম (২৬), পিতা-মোঃ ইশারত আলী, সাং-মহিরোম ৪। মোঃ সবুর ইসলাম (২৪), পিতা-মোঃ আব্দুল আজিজ, সাং-বাখড়া (উত্তরপাড়া), ৫। মোঃ শামসুল আলম (৩৪), পিতা- মোঃ আব্দুল মান্নান, সাং-নানাহার, ৬। মোঃ সাহেব আলী (৩২), পিতা-মৃত হারেজ প্রামানিক, সাং-মোলামগাড়ী হাট, সর্ব উপজেলা কালাই, জেলা জয়পুরহাট কে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব আরো জানান, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন যাবৎ তাদের নিজ দোকানের নিজস্ব কম্পিউটার এর হার্ডডিক্সে সংরক্ষণ করে টাকার বিনিময়ে বিভিন্ন ইলেকট্রিক ডিভাইসের মাধ্যমে স্থানীয় কিশোর ও স্কুল পডুয়া ছাত্রদের কাছে পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহ করে আসছিলেন।

পরবর্তীতে আসামীদের বিরুদ্ধে জয়পুরহাট জেলার কালাই থানায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রন আইন ২০১২ অনুযায়ী মামলা দায়ের করা রয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব।


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু 

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

 এম.পলাশ শরীফ,  নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে রমজান শেখ নামে দুই বছরের শিশু ও ফারজানা আক্তার আড়াই বছরের দুই শিশু পানিতে ডুবে মৃত্যু বরণ করেছে। 

সোনাখালী গ্রামের রাসেল শেখের ছেলে রমজান রবিবার বেলা ১টার দিকে সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে ঘর সংলগ্ন পুকুরে পড়ে ডুবে যায়। দুপুর দেড়টার দিকে একই গ্রামে ফারুক শিকদারের মেয়ে ফারাজানা আক্তার বাড়ি সংলগ্ন পুকুরে পড়ে মর্মান্তিক মৃত্যু হয়। 

খোঁজা খুজির এক পর্যায়ে পৃথকভাবে পুকুরে ডুবন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় রমজান ও ফারজানাকে। উভয়কে দ্রæত উপজেলা হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় থানায় দুইটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে। শিশু রমজানের মামা আলামীন শেখ বলেন, রমজান ৬ মাস বয়স থেকে তার নানা আব্দুল কাদের শেখের বাড়িতে থেকে বড় হচ্ছিলো। তার মা লাকি বেগম ও বাবা রাসেল শেখ চট্টগ্রামের একটি গার্মেন্টসে চাকুরি করেন। 


আরও খবর



সরকার মিথ্য বলে জনগণকে ভাউতা দিয়ে ক্ষমতায় টিকে আছে

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

সরকার মিথ্য বলে জনগণকে ভাউতা দিয়ে ক্ষমতায় টিকে আছে বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যর সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেছেন মানুষ এই সরকারের পরিবর্তন চায়। শুক্রবার বিকেলে নগরীর চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গনতন্ত্র মঞ্চ আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, দেশের ১৭ কোটি মানুষ। তার মধ্যে ৮ কোটি মানুষই গরিব, ২ কোটি শিক্ষিত যুবক বেকার। এই সরকারের পরিবর্তন চায় বলে  বিএনপির সামাবেশে মানুষ নানা ভাবে ছুটে গেছে। ঢাকায়ও মানুষকে আটকে রাখা যাবে না। 

রাজনৈতিক সভা-সমাবেশে বাধা, হামলা-মামলা, দমন-পীড়ন, গুলি-হত্যা বন্ধ করার দাবিতে ৭টি দলের রাজনৈতিক জোট ‘গণতন্ত্র মঞ্চ’ এ সমাবেশের আয়োজন করে।

সামবেশে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেছেন, আমরা সরকারের পদত্যাগ চাই। জনগন যদি চায় তাহলে কারো শক্তি নাই অবৈধ ভাবে নির্বাচন করার। সরকারের নানা সমালোচনা করে তিনি বলেন, বিদেশীরা এখন তাদের সাথে নেই। এ কারনে এখন সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই। এখন তারা ভয়ে আছে। কখন ক্ষমতা ছাড়তে হয়।

সমাবেশে আরও বক্ত্য রাখেন  বিপ্লবী ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহবায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী, হাসনাত কাউয়ুম। 

বক্তারা বলেন , সরকারি দলের নেতারা বলছেন ‘খেলা হবে’।  এই খেলার কথা বলতে- ক্ষমতাশীনরা মনে করে, গায়ের জোর ছারা ক্ষমতায় থাকার আর কোন পথ নাই।

কারণ এই সরকার ভোটে জিততে পারবে না। কেউ আর তাদের ভোট দিবেনা।


আরও খবর



স্কুল ব্যাগে মিললো গাঁজা, মাদক কারবারি গ্রেফতার

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image
নিজস্ব সংবাদদাতা, সোনাইমুড়ীঃ

নোয়াখালী সোনাইমুড়ীতে চার কেজি গাঁজাসহ আবুল বাশার নামে এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।   

বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে উপজেলার সোনাইমুড়ী পৌরসভার ৮নম্বর ওয়ার্ডের বিজয়নগর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।  

গ্রেফতারকৃত মো.আবুল বাশার (৫৫) কুমিল্লা জেলার সদর উপজেলার পশ্চিম জুরিকরন ইউনিয়নের বাটপাড়া গ্রামের জব্বার মিয়ার বাড়ির মৃত মো.আব্দুল জব্বারের ছেলে।

শুক্রবার (৪ নভেম্বর) সকালে গ্রেফতারকৃত আসামিকে নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করনে। তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক কারবারি বাশার কে আটক করা হয়।  পরে তার সাথে থাকা স্কুল ব্যাগ তল্লাশি করে চার কেজি গাঁজা জব্দ করা হয়। জব্দকৃত গাঁজার মূল্য ১লক্ষ ২০ হাজার টাকা। এ ঘটনায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। ওই মামলায় আসামিকে বিচারিক আদালতে সোপর্দ করা হবে।

আরও খবর



ফের বাড়লো তেল-চিনির দাম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

তেল চিনির দাম বাড়ার বিষয়টি জানিয়েছে বাংলাদেশ ভেজিটেবল য়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ সুগার রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশন।

সয়াবিন তেল চিনির দুষ্প্রাপ্যতার মধ্যেই পণ্য দুটির দাম বাড়িয়েছে সরকার।

দুটি সংগঠনের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন দাম সমন্বয় করেছে, যা কার্যকর হচ্ছে বৃহস্পতিবার থেকে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, লিটারে ১২ টাকা বাড়িয়ে বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯০ টাকা। অন্যদিকে কেজিতে ১৩ টাকা বাড়িয়ে প্যাকেটজাত চিনির দাম ঠিক করা হয়েছে ১০৮ টাকা।

সয়াবিন তেলের লিটারের বোতলের দাম ধরা করা হয়েছে ৯২৫ টাকা। ছাড়া লিটারপ্রতি খোলা সয়াবিন তেলের দাম ১৭২ এবং পাম তেলের দাম ১২১ টাকা করা হয়েছে।

এখন থেকে প্রতি কেজি খোলা চিনি কিনতে হবে ১০২ টাকায়। প্যাকেটজাত চিনি কিনতে কেজিপ্রতি খরচ করতে হবে ১০৮ টাকা।

আলাদা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তেল চিনির দাম বাড়ার বিষয়টি জানিয়েছে বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ সুগার রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশন।

তেলের দাম বাড়ার বিষয়ে ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, ভোজ্যতেলের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সংগতি রেখে সমন্বয় করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় নভেম্বর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিয়ে মূল্য সমন্বয়ের আবেদন করা হয়। পরে দুই দফায় বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড কমিশনের সঙ্গে মূল্য সমন্বয়ের বিষয়ে আলোচনা হয়। দাম সমন্বয়ে সম্মত হয় কমিশন।

চিনির দাম বাড়ার বিষয়ে সুগার রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, গত নভেম্বর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিয়ে মূল্য সমন্বয়ের আবেদন করা হয়। পরে দুই দফায় ট্রেড অ্যান্ড কমিশনের সঙ্গে মূল্য সমন্বয় নিয়ে আলোচনা হয়। বিষয়ে সম্মত হয় কমিশন।

বাজারে সংকট ছিল চিনি-তেলের

লম্বা সময় ধরেই চিনি নিয়ে সংকটে পড়েছে ক্রেতা। বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দেখা মিলছে না। যাও দুই-এক দোকানে পাওয়া যাচ্ছে, তার কেজি ১২৫ থেকে ১৩০ টাকা।

চিনি সংকটে ব্যাহত হচ্ছে ক্ষুদ্র মাঝারি ব্যবসা পরিচালনা। বাসাবাড়িতেও স্পষ্ট চিনির শূন্যতা, কিন্তু সরবরাহ নিশ্চিতে নেয়া হচ্ছে না কোনো পদক্ষেপ।

চলতি মাসের প্রথমেই দাম বৃদ্ধির আবেদন করা হলে ট্যারিফ কমিশনকে সার্বিক বিষয় পর্যালোচনার জন্য নির্দেশনা দেয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। সে অনুযায়ী দাম প্রস্তাব হলে মন্ত্রণালয় থেকে নতুন করে কোনো দাম নির্দিষ্ট করা হয়নি। ফলে দাম কার্যকর না করায় তেলের সরবরাহ কমিয়ে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

 


আরও খবর