Logo
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামী

নূর হোসেনকে অস্ত্র মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

 বুলবুল আহমেদ সোহেল; নারায়ণগঞ্জঃ

আলোচিত সাত খুন মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামী নূর হোসেনকে একটি অস্ত্র মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক সাবিনা ইয়াসমিন এই রায় ঘোষণা করেন।

জেলা ও দায়রা জজ কোর্টের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট মো. সালাহ উদ্দীন সুইট বলেন, সাক্ষীদের সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত আসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেছেন। 

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান বলেন, একটি অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা করেছে আদালত। রায় ঘোষণার আগে তাকে কড়া নিরাপত্তায় কাশিমপুর কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে আনা হয় সেই সাথে বিচারকি কার্যক্রম শেষে তাকে আবার কড়া নিরাপত্তায় কাশিমপুর কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

২০১৪ সালে ১৫ মে দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকায় নুর হোসেনর স্টোর রুমের নীচ তলা থেকে থেকে একটি রিবালভার, ৮ রাউন্ড গুলি ও ৮ কাটুসের গুলি উদ্ধার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এঘটনায় পরদিন সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় অস্ত্র আইনের মামলা হয়। মামলাটি তদন্ত শেষে ওই বছরেই প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। আদালত ৪ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহন শেষে আসামী নূর হোসেনকে দুটি ধারায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন। 

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ আদালতে মামলায় হাজিরা দিয়ে ফেরার পথে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের লামাপাড়া এলাকা থেকে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম ও আইনজীবি চন্দন সরকারসহ সাতজনকে অপহরণ করা হয়। 

জেলা ও দায়রা জজ আদালত ২০১৭ সালের ১৬ জানুয়ারী রায় প্রদান করেন। রায়ে ২৬ জনকে মৃত্যুদন্ড ও ৭ জনকে ১০ বছর করে এবং ২ জনকে ৭ বছর করে কারাদন্ড প্রদান করা হয়। ওই রায়ের বিরুদ্ধে আসামিপক্ষ আপিল করলে দীর্ঘ শুনানি শেষে ২০১৮ সালে ২২ আগস্ট হাই কোর্ট ১৫ জনের মৃত্যুদন্ডের আদেশ বহাল রাখেন। আর বাকিদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করেন


আরও খবর



গবেষণা ও উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিচ্ছি... প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার সরকার আগামী বছর একটি নতুন জাতীয় পাঠ্যক্রম চালু করবে। বাংলাদেশি শিশুদের চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য উপযুক্ত বৈশ্বিক নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলাই এই পাঠ্যক্রমের লক্ষ্য।

২০ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে জাতিসংঘ মহাসচিবের শিক্ষা রূপান্তর সম্মেলনে প্রচারিত রেকর্ড বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আমাদের শিশুদের প্রকৃত বৈশ্বিক নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। আগামী বছর থেকে আমরা নতুন জাতীয় পাঠ্যক্রম প্রবর্তন করছি। নতুন এই পাঠ্যক্রম আমাদের শিক্ষার্থীদের চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য প্রস্তুত করবে।

তিনি বলেন, ‘এই পাঠ্যক্রম শিশুদের জলবায়ু সহিষ্ণু হতে সচেতন করবে এবং বাংলাদেশকে উন্নত ও জ্ঞানভিত্তিক অর্থনীতির দেশে পরিণত করতে তার ভিশন-২০৪১-এর প্রকৃত এজেন্টে পরিণত করবে।

উচ্চশিক্ষার বিষয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা গবেষণা ও উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিচ্ছি। কারিগরি শিক্ষার জন্য আমরা ভালো শিল্প সংযুক্তির পরিকল্পনা করছি।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশি শিশুদের দক্ষতা থাকবে, ফলে তারা বিশ্বের যেকোনো স্থানে কাজ করতে পারবে। আমাদের প্রয়োজন যোগ্যতার দ্বিপক্ষীয় স্বীকৃতির ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা মৌলিক এবং আজীবন শিক্ষার প্রাপ্যতা উন্নত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

বহু ভাষায় শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে বাংলাদেশে কয়েকটি নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠীর মাতৃভাষায় পাঠ্যবই প্রণয়ন করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারের রাখাইন থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে আমাদের দেশে আশ্রয় নেওয়া কয়েক লাখ শিশুকে তাদের ভাষায় শিক্ষাদান করছি 

শিক্ষা রূপান্তর সম্মেলন আয়োজনের জন্য জাতিসংঘ মহাসচিবকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘এই সম্মেলন কর্মক্ষেত্রে আগামীর পরিবর্তন সম্পর্কে চিন্তাভাবনার নতুন উপায় চিহ্নিত করবে।’

সূত্র : বাসস।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জে

ছাত্রলীগ কর্মী হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ তিনজন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জের ছাত্রলীগ কর্মী রাকিব হোসেন হত্যা মামলার পলাতক প্রধান আসামি দেলোয়ারসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। শনিবার বিকেলে র‌্যাব ১১'র মিডিয়া কর্মকর্তা রিজওয়ান সাঈদ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন

গ্রেফতারকৃতরা হলো, শ্রমিক লীগের নেতা দেলোয়ার তার সহযোগি সজিব মিয়া ও রুবেল হোসেন। তাদের সকলের বাড়ি রূপগঞ্জ উপজেলায়।

র‌্যাব জানায়, রূপগঞ্জ থানাধীন গোলাকান্দাইল এলাকায় আধিপত্য বিস্তার এবং পূর্ব শত্রুতার জেরে গত বুধবার (২১ সেস্পেম্বর) রাতে দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে যুবলীগকর্মী রাকিবকে হত্যা করে। পরে নিহতের বোন আখি আক্তার বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন। ঘটনার পরপরই হত্যাকারীরা আত্মগোপন করে। র‌্যাব মামলার আসামীদের গ্রেফতারে গোয়েন্দা নজরধারী শুরু করে।

র‌্যাব ১১'র মিডিয়া কর্মকর্তা রিজওয়ান সাঈদ জানান, শুক্রবার রাতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামি সহ তিনজানকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীরা হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। পাশাপাশি হত্যাকান্ডে জড়িত অন্যান্য পলাতক আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলমান রয়েছে।


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে নারী ইউপি সদস্য’র জমি দখল, পিটিয়ে আহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

 বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য জাহানারা বেগম (৪৮) কে পিটিয়ে আহত করে জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে পশুরবুনিয়া গ্রামে। আহত ওই ইউপি সদস্যকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযোগে জানাগেছে, খাউলিয়া ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নং সংরক্ষিত আসনের ইউপি সদস্য পশুরবুনিয়া গ্রামের মো. ফকরুল ইসলাম ফকিরের স্ত্রী জাহানারা বেগম দীর্ঘদিন ধরে ক্রয়সূত্রে বসতবাড়ি সংলগ্ন ১৭ শতক জমি ভোগ দখল করে আসছে।

উক্ত জমি জোরপূর্বক দখলের জন্য দু’দফা হামলা চালায় একই গ্রামের প্রভাবশালী আব্দুল খালেক হাওলাদারের নেতৃত্বে বহিরাগত ২০/২৫ জন লোক জমিতে ঘেরাবেড়া দিয়ে দখলে নেয়। এ সময় হামলাকারিদের বাঁধা দিলে ইউপি সদস্য জাহানারা ও তার ছোট ছেলে জহিরুল ইসলাম ফকিরকে বেধড়ক মারপিট করে আহত করে। গুরুত্বর জখমী জাহানারা বেগমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসারত মেম্বার জাহানারা বলেন, চিকিৎসা নিতে আসার পথিমধ্যে ওরা বাঁধা প্রদান করেছে। বিষয়টি চেয়ারম্যান সাহেব ও ফাঁড়ি পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে।  

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মাষ্টার মো. সাইদুর রহমান বলেন, ইউপি সদস্যকে মারপিটের ঘটনা শুনে তাৎক্ষনিক পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। পরিষদে একটি লিখিত অভিযোগও দিয়েছেন। শনিবার উভয় পক্ষকে ডাকা হয়েছে।

সন্ন্যাসী ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই অনুপ রায় বলেন, পশুরবুনিয়া গ্রামে ইউপি মেম্বারের ওপর হামলা ঘটনা শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়েছে। মেম্বার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। লিখিত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। 


আরও খবর



পাকিস্তানের প্রশংসা কোহলির মুখে

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

ইয়াশফি রহমান : অর্ধশতরান করেছেন বিরাট কোহলি। তবুও এশিয়া কাপের সুপার ফোরে পাকিস্তানের কাছে হেরে গেছে ভারত। দলের এ হারের জন্য কোনো ক্রিকেটারকে দোষ দিতে চাইলেন না কোহলি। ম্যাচের মোড় ঘোরানো মুহূর্ত বেছে নিয়েছিলেন ভারতের সাবেক এই অধিনায়ক। রবিবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাতে দুবাইয়ের মাঠে বাবর আজমদের বিপক্ষে নিজে অর্ধশতরান করেও দলকে জেতাতে পারলেন না কোহলি।

সংবাদ সম্মেলনে কোহলি বলেছেন, ‘মোহাম্মদ নেওয়াজের ইনিংসটাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিল। ওকে আগে পাঠিয়ে একটা চমক দেখাল পাকিস্তান, যাতে পরের দিকে পরিস্থিতি কঠিন হলে তাদের হাতে উইকেট থাকে। সবাই বাবর বা রিজওয়ানের থেকে বড় ইনিংসের প্রত্যাশা করে। নেওয়াজ যদি ১৫-২০ রানের ইনিংস খেলত, তা হলে কিছু হতো না। কিন্তু তিনি ৪২ রানের ইনিংস খেলেছে। এ রকম একটা ইনিংস ম্যাচে প্রভাব ফেলতে বাধ্য। বিশেষত এ রকম টান টান উত্তেজনার ম্যাচে। ওর ইনিংস থেকেই আমাদের ওপর চাপ শুরু হয়।

ম্যাচের ১৯তম ওভারে লোপ্পা ক্যাচ ফেলায় গোটা দেশের কাছে খলনায়ক হয়ে গিয়েছেন অর্শদীপ সিংহ। নেটমাধ্যমে সমালোচনা চলছে তার। তবে সতীর্থের পাশে দাঁড়িয়েছেন কোহলি। বলেছেন, ‘চাপের মুখে যেকোনো খেলোয়াড়ই ভুল করে। এ রকম একটা বড় ম্যাচ, এত কঠিন পরিস্থিতি। আমার মনে আছে, একবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলতে নেমেছিলাম। সেই প্রথম পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলা। শহীদ আফ্রিদির বলে একটা খারাপ শট মেরেছিলাম। ভোর ৫টা পর্যন্ত জেগেছিলাম। 

ভারতের সাবেক এই অধিনায়কের মতে, ‘এখন আমাদের দলের পরিবেশ অনেক ভালো। আবার যখন সবাই একসঙ্গে হব, হাসাহাসি করব, সেটা দেখে অর্শদীপ নিশ্চয়ই অনেকটা চাপমুক্ত হবে। আমি দল পরিচালন সমিতিকে কৃতিত্ব দেব। ওরা এমন একটা পরিস্থিতি তৈরি করেছেন, যেখানে কেউই ব্যর্থতায় ডুবে যায় না। নতুন উদ্যমে ফিরে আসে। এ রকম পরিবেশে যেকোনো ক্রিকেটার চাইবে। আবার সুযোগ আসুক। তখন সে নিজের ক্ষমতা দেখিয়ে দেবে।

সূত্র : আনন্দবাজার


আরও খবর

বিশ্বকাপ নিশ্চিত নারী ক্রিকেট দলের

শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

মুকুট নিয়ে আজ ফিরছে বাঘিনীরা

বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২




লক্ষ্মীপুরে প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি নগদ টাকাসহ স্বর্ণলঙ্কার লুট

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি ঃ

লক্ষ্মীপুরে এক সৌদি প্রবাসীর বাড়িতে দুর্ধষ ডাকাতির ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতদল ৮ ভরি স্বর্ণসহ নগদ ১৮ হাজার টাকা লুটে নিয়ে যায়। সোমবার দিবাগত রাতে সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউপির আব্দুল্লাহ্পুর গ্রামের প্রবাসী নাছির উদ্দিনের ঘরে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। 

প্রবাসী শশুর আবু তাহের ও চাচা দলিল উদ্দিন দুলাল জানান,রাতে ডাকাত দল ঘরের ভেন্টিলেটর ভেঙে ঘরে ঢুুুকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে একটি রুমে আটকিয়ে রাখে প্রবাসীর স্ত্রী রীনা বেগম ও ৬ বছরের সন্তান ফাবিহাকে। এসময় তারা ঘরে থাকা নগদ ১৮ হাজার টাকা, ৮ ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ ঘরের মালামাল নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর থেকে তাদের মাঝে আতংক দেখা দিয়েছে। নিরাপ্তার জোরদার করতে টহল পুলিশের তৎপরতা বৃদ্ধির জোর দাবী জানিয়েছেন ভোক্তভোগীরা। 

সদর থানার ওসি মো :মোস্তফা কামাল জানান,ডাকাতি রোধে লক্ষ্মীপুর পৌর শহরসহ সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ কাজ করছে। তবে ভবানীগঞ্জ ইউপির আব্দুল্লাহ্পুর এলাকায় প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতির বিষয়ে তিনি শুনেছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছেন। তবে মামলা হয়নি বলে জানান এ কর্মকর্তা। 


আরও খবর