Logo
শিরোনাম

রাজাপুরে দিনের বেলায় গ্রীল কেটে টাকাসহ ৩০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার চুরি

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ |

Image

রাজাপুর, হাসিবুর রহমান :

ঝালকাঠির রাজাপুরে একটি বাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরি হয়েছে। বাসার শিক কেটে ৩০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ ১২ হাজার টাকা চোরেরদল চুরি করে নিয়ে গেছে।

মঙ্গলবার (১৪ মে) দিনের বেলায় রাজাপুর উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের দুর্গাপুর এলাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী মোঃ মশিউর মেজবাহ কাজীর বসতঘরে এঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজাপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. আতাউর রহমান। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মশিউর মেজবাহ কাজী গালুয়া বাজারে মুদি দোকানের ব্যবসা থাকায় তিনি দুপুরের খাবার খেয়ে সেখানে চলে যায়। তার স্ত্রী ফাতেমাতুজ যোহরা ভান্ডারিয়া উপজেলায় আল-আরাফাত ব্যাংকে চাকুরী করেন। দিনের বেলায় বাসা ফাঁকা থাকায় চোরদের দল এই সুযোগে ঘরের জানালার শিক কেটে প্রবেশ করে। স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। সন্ধ্যার পরে মশিউর মেজবাহর স্ত্রী বাসায় এসে দেখে জানালার শিক কাটা। ঘরের বিভিন্ন মালামাল এলোমেলো অবস্থায় পরে আছে। রুমের মধ্যে স্ট্রিলের আলমিরা, অয়ারড্রোপ ভাঙ্গা, মাটির মধ্যে গর্তে হাড়িতে রাখা স্বর্ণালংকার নিয়ে গেছে। 

ব্যবসায়ী মোঃ মশিউর মেজবাহ কাজী বলেন, আমি প্রতিদিনের মতো দুপুরে খাবার খেয়ে দোকানে চলে এসেছি। আমার স্ত্রী ভান্ডারিয়া ব্যাংকে চাকুরী করায় তিনি সেখানে ছিলেন। আমার মা ঝালকাঠিতে চলে গেছেন। বাসা ফাঁকা ছিলো কেউ ছিলো না। এই সুযোগে চোরের দল শিক কেটে ঘরে প্রবেশ করে ৩০  ভরি স্বর্ণালংকার, ১১ ভরি রূপা ও নগদ ১২ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে গেছে।

এবিষয়ে রাজাপুর থানার ওসি মু. আতাউর রহমান বলেন, খবর শুনে ঘটনা স্থানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লিখিত অভিযোগ দিলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে এতিমখানায় খাবার দেবে আওয়ামী লীগের উপ-কমিটি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ |

Image

ডিজিটাল ডেস্কঃ


আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৪৪তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে ১৭ মে (শুক্রবার) দেশের বিভিন্ন এতিমখানায় খাবার বিতরণ করবে দলের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটি। 



বুধবার (১৫ মে) আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিনের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।


কর্মসূচির অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুর ১টায় তেজগাঁও ‘রহমতে আলম ইসলাম মিশন এতিমখানা’য় সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে সুষম খাবার বিতরণ করা হবে। 


এতে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।



এছাড়াও ওইদিন রাজধানী ঢাকায় আজিমপুর সলিমুল্লাহ মুসলিম এতিমখানা, মোহাম্মদপুর সলিমুল্লাহ রোডস্থ এতিমখানা, সোবহানবাগ মসজিদ সংলগ্ন এতিমখানা, বাড্ডা বেরাইদ রহিম উল্লাহ এতিমখানায় এতিম অসহায়দের মাঝে খাবার সামগ্রী বিতরণ করা হবে। 



একই সঙ্গে সিলেট হযরত শাহজালালের (র.) মাজার সংলগ্ন এতিমখানা এবং চট্টগ্রাম হযরত শাহ আমানতের (রহ) মাজার সংলগ্ন এতিমখানা ও গরীব উল্লাহ শাহের (রহ) মাজার সংলগ্ন এতিমখানাতেও খাবার সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে।


এছাড়াও ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্যদের উদ্যোগে দেশের বিভিন্ন জেলা সদরে অবস্থিত এতিমখানাগুলোতে সুষম খাবার পরিবেশন করা হবে।



পরের দিন শনিবার (১৮ মে) দুপুর ১টায় চট্টগ্রামের কদম মোবারক এতিমখানায় সুষম খাবার বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।


আরও খবর



লোকসভা নির্বাচন : শঙ্কা উড়িয়ে পশ্চিমবঙ্গে শক্ত অবস্থানে মমতার তৃণমূল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ |

Image



বিডি  রিপোর্ট:


সব ধরনের শঙ্কা কাটিয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ৪২ আসনে শক্ত অবস্থানে রয়েছেন রাজ্যটির ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস।


 মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেতৃত্বাধীন দলটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরোধী ইন্ডিয়া জোটে কাগজপত্রে রয়েছে। 


তবে, আসন ভাগাভাগি আলোচনায় ব্যর্থ হওয়ার পর রাজ্যটিতে রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বাধীন জাতীয় কংগ্রেসের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে নির্বাচনি লড়াইয়ে রয়েছে। 



বেলা ১২টা পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি মাত্র ৯টিতে এবং তৃণমূল কংগ্রেস ৩৩টি আসনে এগিয়ে রয়েছে বলে দেশটির সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা গেছে।



হেভিওয়েটদের মধ্যে কংগ্রেসের অধীররঞ্জন চৌধুরী বহরমপুরে এগিয়ে ছিলেন। জ্যেষ্ঠ তৃণমূল নেতা ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাতিজা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ডায়মন্ড হারবার আসন এগিয়ে রয়েছেন।


 দলটির মালা রায় কলকাতা দক্ষিণ আসন ধরে রেখেছেন, যা মমতা ব্যানার্জির ঘাঁটি এবং সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় তার কলকাতা উত্তর আসনে শক্ত অবস্থান ধরে রেখেছেন।  


অন্যদিকে, বিজেপির অগ্নিমিত্রা পাল মেদিনীপুর আসনে এগিয়ে রয়েছেন। কলকাতা হাইকোর্টের সাবেক বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় তমলুক আসনে এগিয়ে রয়েছেন। তিনি নির্বাচনের কয়েক সপ্তাহ আগে বিজেপিতে যোগ দেন।


তৃণমূলের মহুয়া মৈত্র কৃষ্ণনগর আসনে পিছিয়ে রয়েছেন। সেখানে বিজেপি স্থানীয় প্রভাবশালী পরিবারের অমৃতা রায়কে প্রার্থী করেছে। তিনি এ আসনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন।



এই লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গকে অন্যতম লড়াইয়ের ক্ষেত্র হিসেবে ধরা হয়েছে। বিজেপি মমতা ব্যানার্জি ও তৃণমূলের কাছ থেকে এটি ছিনিয়ে নিতে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা করছে৷ 


এ রাজ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে তাদের প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা ৩৭০ আসন পেতেও সহায়ক হবে। যদিও দলটি এবার সামগ্রিকভাবে ‘আবকি বার, ৪০০ পার’ স্লোগানে প্রচার চালিয়েছে।



আরও খবর



‘বেনজীরের ব্যক্তিগত অপরাধের দায় নেবে না পুলিশ বাহিনী' : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ |

Image



নিজস্ব প্রতিবেদকঃ


স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সাবেক আইজিপি বেন‌জীর দেশে নাকি বিদেশে সে বিষ‌য়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য নেই। 


তবে অপরাধ করলে বিচার হবে। অভিযোগের তদন্ত চল‌ছে। তার ব্যক্তিগত অপরাধের দায় পুলিশ বাহিনী নেবে না।



শনিবার (১ জুন) দুপুর দেড়টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক মিলনায়তনে (টিএসসি) ছাত্রলীগ কর্তৃক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে আয়োজিত 'আমাদের বঙ্গবন্ধু' শীর্ষক বক্তৃতা প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব তথ্য জানান।


এমপি আনার হত্যাকাণ্ড নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, মূল হত্যাকাণ্ড যেহেতু ভারতে হয়েছে সেহেতু মূল মামলাও ভারতে হয়েছে৷ ভারতের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বন্দী বিনিময় চুক্তি আছে।


 তাই ভারতই এ হত্যাকাণ্ডের মূল তদন্ত করবে। আমাদের দেশে এই হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হলে আমাদের পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করতো। তারা যদি আমাদের সম্পৃক্ত করে তাহলে আমরা তাদের সহযোগিতা করবো।


হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত একজন নেপালে পালিয়ে গেছেন এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একজন সংসদ সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে আর আমরা বসে থাকবো এমন হতে পারে না। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত এবং সহযোগিতাকারী সবাইকে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসা হবে। 


নেপালে একজন পালিয়ে গেছে। তবে সে কোথায় আছে সেটা সুনির্দিষ্টভাবে বলা যাচ্ছে না। তদন্ত হচ্ছে, তাকে ফিরিয়ে আনতে সব ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


আরও খবর



আদালতে দণ্ডপ্রাপ্ত তারেককে এ বছর দেশে ফেরত এনে রায় বাস্তবায়ন করা হবে: শেখ হাসিনা

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ |

Image



সদরুল আইন:


আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এবং বিভিন্ন মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি তারেক রহমানকে এ বছর এই দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।


 তিনি বলেন, এখন একটাই কাজ, ঐ কুলাঙ্গারটাকে ফেরত নিয়ে এসে রায় বাস্তবায়ন করা।


গতকাল রবিবার গণভবনে কোটালীপাড়া উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান, কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে দেওয়া এক বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন। এ সময় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও কাউন্সিলররা প্রধানমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।



প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা আমরা সরকারের পক্ষ থেকে নিব। ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলার আসামি, সাজাপ্রাপ্ত আসামি, গ্রেনেড হামলার আসামি সাজাপ্রাপ্ত, দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন সাজাপ্রাপ্ত আসামি সেজন্য আমরা নিয়ে আসব ব্রিটিশ গভর্নমেন্টের কাছ থেকে। 


সেই আবেদন করব আমরা সরকারের পক্ষ থেকে।’সরকারবিরোধী আন্দোলনের নামে বিএনপি-জামায়াতের অগ্নিসন্ত্রাসের প্রসঙ্গ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মানুষ অগ্নিসন্ত্রাসের হাত থেকে মুক্তি পাবে। 


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যে সব খুনি বাইরে আছে আমরা তাদের খোঁজ করছি। তাদের দেশে ফিরিয়ে এনে শাস্তিটা কার্যকর করা হবে।’


 প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের শান্তি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, অর্থনৈতিক মুক্তি এবং অগ্রগতি অব্যাহত রাখা এটাই আমাদের লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য নিয়ে আমাদের কাজ করতে হবে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।


আরও খবর



হজযাত্রীদের কাছ থেকে নেয়া যাবে না কোরবানির টাকা

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ |

Image

ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় হজ ফ্লাইট ডাটা যথাসময়ে এন্ট্রি করার জন্য হজ এজেন্সিগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে। একই সঙ্গে হজযাত্রীদের কাছ থেকে কুরবানির অর্থ না নেওয়ার জন্য তাদেরকে সতর্ক করা হয়েছে। এ ছাড়া হজযাত্রীদের মাধ্যমে জর্দার কার্টুন না পাঠানোসহ কতিপয় বিষয়ে হজ এজেন্সিগুলোকে হুঁশিয়ার করেছে। এ বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় একটি পত্র জারি করেছে।

পত্রে জানানো হয়, গত ১২ মে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় জুম প্ল্যাটফর্মে সৌদি হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের জেদ্দা এয়ারপোর্ট সার্ভিসের মহাপরিচালক আব্দুর রহমান ঘ্যানামের সঙ্গে সভা শেষে এসব নির্দেশনা জারি করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

ওই সভায় ধর্ম মন্ত্রণালয় ছাড়াও বাংলাদেশ হজ অফিস, মক্কা ও জেদ্দার কর্মকর্তা এবং হজ এজেন্সির মালিকেরা অংশগ্রহণ করেন।

ওই সভায় সৌদি আরবের পক্ষ থেকে হজ এজেন্সি কর্তৃক ফ্লাইট ডাটা সঠিকভাবে ও নিয়মিত সৌদি ই-হজ সিস্টেমে এন্ট্রি না দেওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়। এতে বলা হয়, হজ ফ্লাইট ডাটা এন্ট্রি না দেওয়ার কারণে মদিনা ও জেদ্দা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ হজযাত্রীদের প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে পারছে না সৌদি কর্তৃপক্ষ। ফলে কোন ফ্লাইটে কতজন হজযাত্রী আসছে, তারা কোন মোয়াল্লেমের হজযাত্রী এবং কোন হোটেল বা বাড়িতে তাদের আবাসন ইত্যাদি বিষয়ে সমস্যা হচ্ছে। এ ছাড়া হজযাত্রী ও তাদের লাগেজ পরিবহণের ক্ষেত্রেও সমস্যা হচ্ছে। মোয়াল্লেমের প্রতিনিধিও হোটেল বা বাড়িতে সার্ভিস দেওয়ার জন্য উপস্থিত থাকছে না। এ কারণে হজযাত্রীদের কাঙ্ক্ষিত সেবা দেওয়া যাচ্ছে না এবং রুট-টু-মক্কার সুবিধা থেকে হজযাত্রীরা বঞ্চিত হচ্ছেন।

এ সভায় হজ ফ্লাইট যাত্রা শুরুর পূর্বেই সঠিকভাবে ফ্লাইট ডাটা সৌদি ই-হজ সিস্টেমে এন্ট্রি করার অনুরোধ করা হয়। অন্যথায় সংশ্লিষ্ট এজেন্সির বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

হজ প্যাকেজে উল্লেখ থাকা সত্ত্বেও অনেক এজেন্সি হজযাত্রীদের কাছ থেকে হজে যাওয়ার আগে কুরবানি বাবদ অর্থ নিচ্ছেন। হজযাত্রী তার ইচ্ছা মাফিক সৌদি সরকারের ব্যাংকের কূপন ক্রয় করে বা তার নিজের ব্যবস্থাপনায় কুরবানি সম্পন্ন করবেন। এজেন্সি কোনোভাবেই কুরবানির টাকা নিতে পারবে না। এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট এজেন্সির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

ধর্ম মন্ত্রণালয় হজ এজেন্সিগুলোকে আরও কিছু ত্রুটি-বিচ্যুতি সম্পর্কে সতর্ক করেছে। কিছু এজেন্সি তাদের হজযাত্রীদের মাধ্যমে জর্দার কার্টুন পাঠিয়েছে, যা জেদ্দা বিমানবন্দরে আটক হয়েছে। এতে দেশের সম্মান নষ্ট হচ্ছে। অনেক এজেন্সি হজযাত্রীদের সঙ্গে হজ গাইড বা প্রতিনিধি না পাঠানোর কারণে হজযাত্রীরা বিড়ম্বনায় পড়ছেন।


আরও খবর