Logo
শিরোনাম

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে কোকোর মৃত্যু

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

বিএনপি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিএনপির চলমান আন্দোলন সফল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, আন্দোলনের মাধ্যমেই সরকারের পতন ঘটানো হবে।

খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুবার্ষিকীতে, বনানীতে তার কবরে শ্রদ্ধা জানিয়ে এসব কথা বলেন ফখরুল। এ সময় বিশেষ দোয়ায় অংশ নেন দলের নেতারা। ফখরুল বলেন, কোকো কোন রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন না, তারপরও প্রতিহিংসার শিকার হয়েছেন। দেশের মানুষ গণতন্ত্র উদ্ধারে আন্দোলন করে যাচ্ছে। আন্দোলনের মাধ্যমেই সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করা হবে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই নেতা।  


আরও খবর



নওগাঁয় ২০ পিস ইয়াবা সহ একজন কে আটক করেছে পুলিশ

প্রকাশিত:Saturday ০৪ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :

নওগাঁর রাণীনগরে ২০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ পলাশ চন্দ্র ওরফে পলান (৪০) নামে এক ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতকে শনিবার দুপুরে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে নওগাঁ জেল-হাজতে প্রেরন করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত পলাশ চন্দ্র ওরফে পলান রানীনগর উপজেলার গুঠনিয়া গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত সুবল চন্দ্র প্রামানিকের ছেলে।

সত্যতা নিশ্চিত করে রাণীনগর থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, উপজেলার ভান্ডারগ্রাম বাজার এলাকায় মাদক বেচা-কেনা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে তিন মাথার মোড় সংলগ্ন ব্রিজের উপর থেকে মাদক ব্যবসায়ী পলাশ চন্দ্র ওরফে পলানকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকালে তার কাছ থেকে ২০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে পুলিশ। রাতেই পলানের বিরুদ্ধে থানায় মাদক মামলা রুজু করা হয় এবং শনিবার দুপুরে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে নওগাঁ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।


আরও খবর



পঞ্চগড়ে তাপমাত্রা নামলো ৬ ডিগ্রিতে

প্রকাশিত:Saturday ১৪ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে পঞ্চগড়ে। তাপমাত্রা নেমে এসেছে ৬ ডিগ্রিতে। বইছে কনকনে শীত। এর আগে গত ১০ জানুয়ারি রেকর্ড করা হয়েছিল ৬ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। টানা এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বয়ে যাওয়া শৈত্যপ্রবাহের শীতের দাপটে নাজেহাল হয়ে পড়েছে উত্তরের এ জেলা।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, গত তিনদিন তাপমাত্রা বাড়লেও আজ নেমে এসেছে ৬ দশমিক ১ ডিগ্রিতে। গতকাল শুক্রবার রেকর্ড করা হয়েছিল ৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে এ জেলায় স্মরণকালে এ জেলায় ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছিল। সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হওয়ার বিষয়টি জানিয়েছেন জেলার প্রথম শ্রেণির আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ।

সকাল থেকেই দেখা মিলেছে সূর্যের মুখ। তবে অনুভূত হচ্ছে প্রচন্ড শীত। সুর্যের মুখ দেখা গেলেও মিলছে না রোদের উষ্ণতা। শীত দুর্ভোগে পড়েছে নানান শ্রমজীবী-কর্মজীবী গরীব অসহায় মানুষ। পাথর শ্রমিক, চা শ্রমিক, দিনমজুর থেকে শুরু করে ছোটখাটো যানবাহন ভ্যান চালক মানুষগুলো পড়েছেন বিপাকে। তীব্র শীতের কারণে কাজে যেতে পারছেন না অনেকে। তবে জীবিকার তাগিদে কাউকে নদীতে পাথর তুলতে, কাউকে চা-বাগানে আবার কাউকে দিনমজুরের কাজ করতে যেতে দেখা গেছে। শীতের দুর্ভোগ বেড়েছে শিশু ও বয়স্কদের মধ্যে। এসব মানুষের কষ্ট লাঘবের জন্য সরকার যে ত্রাণ দিয়েছে তা একেবারেই অপ্রতুল বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।


আরও খবর

সুখবর নেই বাজারে

Saturday ০৪ February ২০২৩




আসাদুর রহমান এখন মমতাজ আলী

প্রকাশিত:Sunday ২৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি :

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন অফিসে ৪র্থ শ্রেণীর এক অবসর প্রাপ্ত কর্মচারীর জাতীয় সনদ পত্রে দুই নাম পাওয়ার অভিযোগ উঠছে।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে দীর্ঘদিন থেকে তার জাতীয় সনদ পত্র অনুযায়ী তার নাম ছিল মোঃ আসাদুর রহমান কিন্তু পরবর্তীতে সংশোধনী   এনআইডি কার্ড পাওয়া গেছে মোঃ মমতাজ আলী।  


সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায় তার চাকরি মমতাজ আলী নামে করে আসছিল তার এনআইডি কার্ডে আগে কি ছিল তা বোধগম্য নয়।  

অপরদিকে মমতাজ আলীর সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে ফোন রিসিভ না করায় এ বিষয়ে তার মতামত পাওয়া যায়নি। তবে বিষয়টি সঠিক তদন্ত করা দরকার বলে মনে করেন নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক অভিযোগকারি।


আরও খবর



লালমনিরহাটে পুলিশ পরিচয়ে শিক্ষককে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত:Sunday ০৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

নিজস্ব  প্রতিনিধি:


লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার পলাশী ইউনিয়নের নামুড়ী গ্রামে পুলিশ পরিচয়ে বাড়িতে ঢুকে এক ব্যক্তিকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করছেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। বাধা দিতে গেলে দুজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়। তবে থানা পুলিশ জানিয়েছে, পুলিশের পরিচয়ে অন্য কেউ এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে।

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে পলাশী ইউনিয়নের নামুড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অপহরণের শিকার শিক্ষক নুরুল আমিন (৫৪) দোলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

শনিবার (৭ জানুয়ারি) নুরুল আমিনের পরিবারের সদস্যরা বলেন, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সাদা রঙের একটি প্রাইভেট কার ও কালো রঙের একটি মাইক্রোবাস বাড়ির বাইরে এসে দাঁড়ায়। প্রধান দরজা ভেতর থেকে বন্ধ থাকায় দেয়াল টপকে একজন বাড়িতে ঢুকে সেটা খুলে দেয়। এরপর ১২-১৫জনের একটি দল তাঁদের উঠানে ঢুকে নুরুল আমিনের নাম ধরে ডাকতে থাকে। তাদের পরনে প্যান্ট-শার্ট ছিল।

এ সময় নুরুল আমিনের বাবা আজিজার রহমান ও ছোট ভাই রুহুল আমিন ঘর থেকে বের হন। এরপর বহিরাগত ব্যক্তিরা নুরুল আমিনের ঘরে ঢুকে তাঁকে বের করে আনে। গাড়িতে তোলার সময় পরিবারের সদস্যরা তাঁদের পরিচয় জানতে চান এবং বাধা দেন। এ সময় তারা নিজেদের পুলিশ বলে পরিচয় দেয়। তাদের নানা প্রশ্ন করলে ওই লোকজন নুরুল আমিনের চাচা আবু তালেব (৭০) এবং রুহুল আমিনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এরপর তারা নুরুল আমিনকে গাড়িতে উঠিয়ে নিয়ে চলে যায়।

তখন বাড়ির লোকজন চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আহত ব্যক্তিদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। বর্তমানে আহত আবু তালেব ও রুহুল আমিন সেখানে চিকিৎসাধীন।

আজিজার রহমান বলেন, ওরা নিজেদের ডিবি পুলিশের পরিচয় দেয়, কিন্তু পরিচয়পত্র দেখায় নাই। নুরুল আমিনকে ঘর থেকে বাহির করে ৫ থেকে ১০ মিনিটের মধ্যে গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। আমি আমার ছেলেকে ফেরত চাই।

তবে আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোক্তারুল ইসলাম বলেন, তিনি ঘটনাটি শুনেছেন। পুলিশ নয়; বরং পুলিশের পরিচয়ে অন্য কেউ এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে। এ ঘটনায় শনিবার (৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তদন্ত করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নুরুল আমিনের স্ত্রী রওশন আরা বেগম বলেন, তিনি তাঁর স্বামীর নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত। তাঁকে উদ্ধারে সবার সহায়তা চান।


আরও খবর



যেসব অভ্যাসে মাইগ্রেনের ব্যথা বাড়ে

প্রকাশিত:Sunday ১৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

মাইগ্রেনের সমস্যায় ভোগেন অনেকেই। এমন সমস্যা হলে মাথায় যন্ত্রণার পাশাপাশি নানাবিধ শারীরিক সমস্যা হয়। প্রতিদিনের কিছু অভ্যাসে মাইগ্রেনের ব্যথা হতে পারে। তাই এই ব্যথা কমাতেই এসব অভ্যাস পরিত্যাগ করতে হবে।

ঘুমে অনিয়ম

প্রতিদিন অন্তত ৮ ঘণ্টা ঘুমাতেই হবে। যদি তা সম্ভব না হয় তবে ৬ ঘণ্টার কম ঘুমালে মাইগ্রেনের সমস্যা বাড়বেই। রাত জেগে ওয়েব সিরিজ দেখা কিংবা মোবাইল দেখার অভ্যাস নিয়ন্ত্রণে আনুন। সমাধান মিলবে।

চিনি

এমন খাবার এড়িয়ে চলুন যেগুলোতে অতিরিক্ত চিনি আছে। রক্তে সুগার বাড়লে মাইগ্রেনের ব্যথা বাড়ে। তাই পরিমিত বোধ রেখে মিষ্টি খান।

খালি পেট রাখা

দীর্ঘক্ষণ না খেয়ে থাকলে গ্যাস্ট্রিকের প্রকোপ বাড়বে। মাইগ্রেনের ব্যথা বাড়াতে গ্যাস্ট্রিকের জুড়ি মেলা ভার। তাই কখনও খালি পেটে থাকবেন না এবং প্রচণ্ড ব্যস্ততায় তো নয়ই।

কফি খাওয়ার অভ্যাস

যাদের ক্যাফেইন আসক্তি রয়েছে তাদের এই অভ্যাস কমাতে হবে। মাইগ্রেনের সমস্যা বাড়ানোর ক্ষেত্রে কফি একটি কারণ। কফির অভ্যাস সহসাই ছাড়ানো কঠিন। এক্ষেত্রে একজন পুষ্টিবিদের সঙ্গে আলাপ করে নিন। 


আরও খবর