Logo
শিরোনাম

রামগঞ্জে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি বাতিলে সাংবাদিক সম্মেলন

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি ঃ

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি বাতিলের দাবীতে সাবেক সাংসদ নাজিম উদ্দিন নেতৃত্বে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সোমবার  বেলা ১১ টার দিকে তিনি রামগঞ্জ স্থানীয় আলীয়া মাদ্রাসার মাঠে সংবাদ সম্মেলনে আহবায়ক কমিটি বাতিলের দাবী করেন। 

সংবাদ সম্মেলনে সাবেক সাংসদ ও উপজেলা বিএনপির আহবায়ক নাজিম উদ্দীন আহমেদ বলেন, হাইব্রিড ও এলডিপি নেতা শাহাদাত হোসেন সেলিমেরকর্মি সমর্থকদের দলে অর্ন্তভুক্ত করতে কোটি টাকা বানিজ্য করে জেলা বিএনপি নেতারা। পরে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে আরো বলেন, নতুন কমিটির আহবায়ক পদে তিনি থাকলেও স্থান পায়নি যারা বিগত আন্দোলন সংগ্রামে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে হামলা ও মামলার শিকার অসংখ্য বিএনপির নেতাকর্মী। এ কমিটিতে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন না করায় তিনি এ পদ নিয়ে কমিটিতে থাকতে চান না। 

এ সময় পৌর বিএনপি সাবেক আহবায়ক জাকির হোসেন মোল্লার সভাপতিত্বে উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম ভিপি‘র সঞ্চালনায় এসময় আরো বক্তব্য রাখেন, ঢাকা মহানগর বিএনপি নেতা এলরহমান, মাহমুদুল আলম মন্টু, উপজেলা বিএনপির সাবেক সিনিয়রসহ-সভাপতি সাহাব উদ্দিন তুর্কি,পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন বাচ্চু,উপজেলা বিএনপি নেতা ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল, রফিক উল্যাহ পাটোয়ারী,অধ্যাপক হারুন অর রশিদ, বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান মিরন, মোঃ লিটন এভিন,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নুরনবী,যুবদল নেতা জামাল পাটোয়ারী,কাউছার পাঠান,ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ওমর ফারুক, সাধারণ সম্পাদক এমরান হোসেন রাসেল হবি এনপি অঙ্গসংগঠনের নেতারা। এসময় উপজেলা বিএনপির পদবঞ্চিত নেতাকর্মীদের স্লোগানে স্লোগানে সংবাদ সম্মেলনটি সমাবেশে রুপ নেয়। তারা বলেন,বিগত দিনে যারা রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন না, তাদেরকে গুরুত্বপূর্ণ পদ দিয়ে সরকার বিরোধী আন্দোলনকে গতিহীন করতে এ কমিটি গঠন করা হয়েছে। আমরা এ কমিটি মানি না। অনতি বিলম্বে উপজেলা ও পৌর বিএনপির আহবায়ক কমিটি বাতিল না করলে গণপদত্যাগ ও অনশনের হুমকি দেয়া বক্তারা।


দলীয় সূত্রে জানাগেছে, গত ২৯ অক্টোবর ২০২২ ইং তারিখে সাবেক সাংসদ ও উপজেলা বিএনপির সভাপতি নাজিম আহাম্মেদ রায়গঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ও সাবেক উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান সদস্য সচিব, উপজেলা যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ কামরুজ্জামানকে পৌর বিএনপির আহবায়ক ও সাবেক সদস্য সচিব মিয়া আলমগীরকে সদস্য সচিব করে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। উক্ত আহবায়ক কমিটিতে স্বাক্ষর করে অনুমোদন দেয় জেলা বিএনপির আহবায়ক ও কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, যুগ্ন আহবায়ক অ্যাডভোকেট হাছিবুর রহমান ও সদস্য সচিব সাহাব উদ্দিন সাবু।

এদিকে কয়েকদিন ধরে কমিটির ঘোষণার পর উপজেলা ও পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক বিএনপি দলীয় সাংসদ নাজিমউদ্দিন আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম ভিপি, ঢাকা মহানগর বিএনপি নেতা এল রহমান, সাহাব উদ্দিন তুর্কী, মতিঝিলের সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর হারুন অর রশিদ, চট্টগ্রামস্থ বিএনপি নেতা লায়ন নুরুল আলম বাচ্চুসহ উপজেলা ও পৌর বিএনপির পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে আসছেন। 

এছাড়া একই দিন দুপুরে সদ্য কমিটির উদ্যেগে রামগঞ্জ পৌর নন্দনপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবসের আলোচনা সভা করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব মাহাবুবুর রহমান বাহার, পৌর বিএনপির আহবায়ক শেখ কামরুজ্জামানসহ দলের আরেকটি গ্রুপ।


আরও খবর



ঝলকের আশায় স্পেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

ইয়াশফি রহমান : 


স্পেনের দেখা তো গত বিশ্বকাপেও মেলেনি। গত বিশ্বকাপ কেন ২০১০ সালের পর একাধিক তারকার অবসরে ভেঙে খানখান দলটা। সবশেষে বার্সেলোনার অন্যতম সফল কোচ লুইস এনরিকের হাতে তুলে দেওয়া হলো দায়িত্ব। তিনি দলটাকে গড়ে তোলার চেষ্টা করছেন। তবে অভিজ্ঞ আর তারকাশূন্যতায় ভোগা স্পেনকে এবার আশা দেখাচ্ছে নতুনরা। যেখানে গাভি, পেদ্রি কিংবা নিকো উইলিয়ামসরাই ভরসার নাম।

এবারের দলটা কেমন : বিধাতা বোধহয় এমনই বারবার কাউকে সুযোগ দেন না। আবার যারা সুযোগ পেয়ে কাজে লাগান, তাদের মনে হয় সুযোগ দিতেই থাকেন। স্পেনের সেই সোনালি প্রজন্ম এখন অতীত। ইনিয়েস্তা, পুয়োল, জাভিদের দলটাকে স্পেনের মানুষও খুব মিস করে। তবে যুগে যুগে তো এমন তারকাদের পাওয়া যায় না। একটা সময় যে স্পেনে ছিল তারকার ছড়াছড়ি, এখন তাদের তারকার বড্ড অভাব। তবু কয়েক মাস ধরে এনরিকের দেখানো পথে এগিয়ে যাচ্ছে তারা। চেষ্টা করছে ভুলগুলো শুধরে কাতারে জয়ের ফুল ফোটাতে। দলটি তারুণ্যনির্ভর হলেও অভিজ্ঞও আছেন কয়েকজন। আক্রমণভাগে আস্থার নাম আলভারো মোরাতা। মাঝমাঠে আছেন অভিজ্ঞ সার্জিও বুসকেটস, আবার রক্ষণভাগে জর্ডি আলবা, কারভাজলের মতো চেনা মুখ। সে ক্ষেত্রে একেবারে যে উড়ে যাবে তেমন দল নয় স্পেন। যদি গতিময় ফুটবলের সঙ্গে তাল মিলিয়ে লড়তে পারে তাহলে এবার স্পেনও হতে পারে ভয়ংকর প্রতিপক্ষ।

আশার প্রদীপ : মাঝমাঠই স্পেনের আশার নাম। এই একটা জায়গায় আর দশটা দলের চেয়ে এগিয়ে থাকবে স্পেন। দুর্দান্ত পরিশ্রমী দুজন ফুটবলার গাভি পেদ্রিকে তারা পাচ্ছে নিয়মিত। সেই সঙ্গে দলনেতা বুসকেটস তো আছেনই। নেপথ্যে নায়ক : স্পেনের এবারের বিশ্বকাপে নেপথ্যের নায়ক হতে পারেন কোচ এনরিকে। বার্সেলোনা সোনালি দিনের এই কোচ বেশ বুঝে-শুনে ঠাণ্ডা মাথায় খুনেন সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

একনজরে স্পেন দল :

অবস্থান -

প্রথম বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ-১৯৩৪

বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ-১৬ বার

সর্বোচ্চ অর্জন-২০১০ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন

বেশি ম্যাচ : সার্জিও রামোস (১৮০)

বেশি গোল : ডেভিড ভিয়া (৫৯)

গ্রুপ পর্বের তিন প্রতিপক্ষ জার্মানি, কোস্টারিকা জাপান

ফিকশ্চার

২৩ নভেম্বর রাত ১০টা স্পেন-কোস্টারিকা

২৭ নভেম্বর রাত ১টা স্পেন-জার্মানি

ডিসেম্বর রাত ১টা স্পেন-জাপান

 


আরও খবর

ডু অর ডাই ম্যাচ মেসিদের

শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২

আর্জেন্টিনাকে মাটিতে নামাল সৌদি

বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২




রাঙ্গামাটিতে ক্রীড়াবিদদের মাঝে করোনাকালীন অনুদানের চেক বিতরণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন কায়েস, রাঙ্গামাটি ঃ

রাঙ্গামাটি - বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন হতে জেলার ৮০জন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়াসেবীদের মাঝে করোনাকালীন বিশেষ আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়েছে।

আজ সকাল ১১ টায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এই আর্থিক অনুদানের  চেক বিতরণ করা হয়।

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার এমপি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গামাটি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ সাইফুল ইসলাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কামাল উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মারুফ আহমেদ , জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক মোঃ শফিউল আজম, প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে জেলার ৮০ জন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়াসেবীকে ৫ হাজার টাকা করে মোট ৪লক্ষ টাকার অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়।


আরও খবর



কু‌মিল্লায় বিজিবি ফায়ারিং প্রতিযোগিতায়

চট্টগ্রাম রিজিয়ন চ্যাম্পিয়ন ও সরাইল রিজিয়ন রানার আপ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো ঃ

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর সকল স্তরের সৈনিকদের ফায়ারিং এর মানোন্নয়ন তথা পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিজিবি’র সেক্টর সদর দপ্তর, কুমিল্লার ক্ষুদ্রাস্ত্র ফায়ারিং রেঞ্জে ‘বিজিবি ফায়ারিং প্রতিযোগিতা-২০২২’ সম্পন্ন হয়েছে।                                    এ‌তে বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাকিল আহমেদ, এসপিপি, এনএসডব্লিউসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব উপভোগ করেন এবং চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ দলের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। 

তিনদিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ ফায়ারিং প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রাম রিজিয়ন চ্যাম্পিয়ন এবং সরাইল রিজিয়ন রানার আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। এছাড়া ফায়ারিং এ ব্যক্তিগত নৈপূণ্য প্রদর্শন করে সরাইল রিজিয়নের সিপাহী মোঃ ঈশা ইবনে লেমন ১ম শ্রেষ্ঠ ফায়ারার এবং ল্যাঃ নাঃ মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন ২য় শ্রেষ্ঠ ফায়ারার নির্বাচিত হয়।  

বিজিবি’র উত্তর-পূর্ব রিজিয়ন, সরাইল এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং কুমিল্লা সেক্টরের ব্যবস্থাপনায় গত ৩০ অক্টোবর   বিজিবি ফায়ারিং প্রতিযোগিতা শুরু হয়। প্রতিযোগিতায় বিজিবি’র ৫টি রিজিয়ন ও ০২টি স্বতন্ত্র সেক্টর থেকে আগত মোট ৭টি দলের সর্বমোট ৮৪ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে।                 

          

সমাপনী বক্তব্যে বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, ফায়ারিং হচ্ছে প্রশিক্ষিত সৈনিকদের কর্মক্ষেত্রে পেশাগত দক্ষতা নিরূপণের মাপকাঠি। ‘সীমান্তের অতন্দ্র প্রহরী’ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ দেশের প্রতিরক্ষার প্রথম বেষ্টনী। দেশের সীমান্ত সুরক্ষার পাশাপাশি যুদ্ধকালীন শত্রুকে মোকাবিলায় বিজিবিকেই সর্বপ্রথম অগ্রনী ভুমিকা পালন করতে হবে। এজন্য বিজিবি’র প্রতিটি সৈনিককে অস্ত্র চালনায় দক্ষতা অর্জন করতে হবে। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে এই দক্ষতা অর্জনের মূলমন্ত্র হচ্ছে ‘এক বুলেট এক শত্রু’। তাই বিজিবিতে প্রচলিত সকল প্রতিযোগিতার মধ্যে ফায়ারিং প্রতিযোগিতাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও অত্যাবশ্যক। এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী প্রতিযোগীদের মধ্য হতে বাছাইকৃত ফায়ারাদের সমন্বয়ে গঠিত ‘বিজিবি ফায়ারিং দল’ জাতীয় পর্যায়ে আরও ভালো ফলাফল অর্জন করবে বলে বিজিবি মহাপরিচালক আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বিজিবি ফায়ারিং প্রতিযোগিতা-২০২২ আয়োজন ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সরাইল রিজিয়ন কমান্ডার ও কুমিল্লা সেক্টর কমান্ডারসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠানে বিজিবি সদর দপ্তর, সরাইল রিজিয়ন, কুমিল্লা সেক্টর ও ব্যাটালিয়নের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ, সকল স্তরের বিজিবি সদস্য এবং বিভিন্ন রিজিয়ন ও সেক্টর থেকে আগত ফায়ারিং প্রতিযোগীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ফায়ারিং প্রতিযোগিতা শেষে বিজিবি মহাপরিচালক কুমিল্লা সেক্টর সংলগ্ন স্থানে ‘এ্যাডহক বর্ডার গার্ড ইন্টেলিজেন্স স্কুল’ উদ্বোধন করেন। এসময় বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, বাহিনীতে এ ধরণের একটি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানের সংযোজন বাহিনীর গোয়েন্দা কার্যক্রমে পেশাদারিত্ব আনয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার পাশাপাশি সার্বিক সক্ষমতায় নতুন মাত্রা যোগ করবে। ভবিষ্যতে এই এ্যাডহক স্কুলকে পূর্ণাঙ্গ রূপ দেয়া হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।


আরও খবর



নওগাঁর মহাদেবপুরে জাতীয় যুব দিবস পালিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ

‘প্রশিক্ষিত যুব উন্নত দেশ-বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে নওগাঁর মহাদেবপুরে যুব ঋণের চেক ও প্রশিক্ষিত যুবকদের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণের মধ্য দিয়ে "জাতীয় যুব দিবস" পালিত হয়েছে।

মঙ্গলবার ১ নভেম্বর সকাল ১১টায় এ উপলক্ষে মহাদেবপুর উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে উপজেলা চেয়ারম্যান আহসান হাবীব ভোদন প্রধান অতিথি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শ্রী অনুকুল চন্দ্র সাহা বুদু বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু হাসান এতে সভাপতিত্ব করেন। উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা হারুন অর রশিদের সঞ্চালনায় ১২ জন প্রশিক্ষিত যুবক ও যুবতীর মধ্যে ৮ লাখ ৪০ হাজার টাকার যুব ঋণের চেক ও নার্সারী বিষয়ে প্রশিক্ষণ নেয়া ৩০ জন যুবকের মধ্যে সার্টিফিকেট বিতরণ উদ্বোধন করা হয়।

শেষে ঢাকায় জাতীয় পর্যায়ে জাতীয় যুব দিবস পালনের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য বড় পর্দায় দেখানো হয়।


আরও খবর



ফরিদপুরে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশ

প্রকাশিত:শনিবার ১২ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

বিএনপির লাগাতার কর্মসূচির অংশ হিসাবে, আজ ফরিদপুরের আব্দুল আজিজ ইনস্টিটিউশন মাঠে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিভাগীয় গণসমাবেশ।

এরই মধ্যে গণসমাবেশের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি শেষ করেছে বিএনপি। এ সমাবেশে যোগ দিতে এর মধ্যেই দলের কেন্দ্রীয় নেতারা ফরিদপুরে এসেছেন। সব বাধা উপেক্ষা করে সমাবেশে যোগ দিতে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসছেন নেতা-কর্মীরা। তবে জেলায় পরিবহন ধর্মঘট চলায়, নেতা-কর্মীদের ফরিদপুর আসতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। সমাবেশকে বানচাল করতেই এই ধর্মঘট ডাকা হয়েছে বলে দাবি করেন তারা। তবে সব বাধা উপেক্ষা করে একটি বড় জনসমাগম ঘটবে বলেই আশা করছেন তারা। 


আরও খবর