Logo
শিরোনাম

রাণীনগরে মাদক ব্যবসায়ীসহ তিন জন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:Friday ০৪ November ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ

নওগাঁর রাণীনগরে একজন মাদক ব্যবসায়ী এবং দুইজনকে জমির ধান নষ্ট করার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে।বৃহস্পতিবার রাতে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের শুক্রবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

রাণীনগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সেলিম রেজা বলেন,মাদক বিক্রি হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার আতাইকুলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে নুর ইসলাম (৩৮)কে ৪০গ্রাম গাঁজাসহ গ্রেপ্তার করা হয়। রাতেই তার বিরুদ্ধে মাদক মামলা রুজু করা হয়েছে। নুর ইসলাম আতাইকুলা গ্রামের আনছার আলীর ছেলে। এছাড়া একই রাতে উপজেলার বানিয়াপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে বানিয়াপাড়া গ্রামের শহিদুলের ছেলে জুয়েল হোসেন (৩৫) ও দসরত সোনারের ছেলে এমদাদুল সোনার (৪৭)কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে জমির ধান নষ্ট করার অভিযোগে মামলা রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের শুক্রবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


আরও খবর



ত্রিশালে ৬ যুদ্ধাপরাধীর মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ময়মনসিংহের ত্রিশালের মোখলেসুর রহমান মুকুলসহ পলাতক ছয় আসামিকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। ট্রাইব্যুনাল চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামসহ তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ রায় ঘোষণা করেন।

আটক, অপহরণ, নির্যাতন, হত্যাসহ ছয়টি অভিযোগে আসামিদের বিরুদ্ধে রায় দেয়া হয়। রায়ে পলাতকদের দ্রুত গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেয় ট্রাইব্যুনাল।তিনজনকে হত্যার অভিযোগে তাদের মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়। বাকি তিন অভিযোগে ৭ বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। বিচার শুরুতে এ মামলায় মোট নয় আসামি ছিলো। কারাগারে তিন আসামি মারা যায়। ২০১৭ সালের ২৬ জানুয়ারি এ মামলার তদন্ত শুরু হয়। ওই বছরের ৩১ ডিসেম্বর তদন্ত সংস্থা অনুসন্ধান কাজ শেষে প্রতিবেদন জমা দেয়।পরের বছর আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।  


আরও খবর



১৩‌ দি‌নেই রহস্য খুল‌লো অটোরিকশা চালক হত‌্যার

প্রকাশিত:Wednesday ০১ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

কুমিল্লা ব্যুরো :

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের উজিরপুর ইউনিয়নের শামুকসার গ্রামস্থ বোয়ালজুড়ি খালের পাড় থেকে অটোরিকশা চালক রাসেদ মিয়ার লাশ উদ্ধারের ঘটনায় ১৩ দিনের মধ্যেই ঘাতক খাইরুল ইসলাম শাকিলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শাকিল চৌদ্দগ্রামের ঘোলপাশা ইউনিয়নের ধনুসাড়া গ্রামের আবু বক্কর ছিদ্দিকের ছে‌লে। বুধবার দুপুরে চৌদ্দগ্রাম থানায় এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(চৌদ্দগ্রাম ও নাঙ্গলকোট সার্কেল) জাহিদুল ইসলাম। 

সংবাদ সম্মেলনে সহকারী পুলিশ সুপার(চৌদ্দগ্রাম ও নাঙ্গলকোট সার্কেল) জাহিদুল ইসলাম বলেন, গত ১৮ জানুয়ারি বুধবার বিকেলে মুন্সিরহাট ইউনিয়নের বাসন্ডা গ্রামের আবদুল মালেক মিয়ার ভাড়াটিয়া, লালমনিরহাট জেলার আদিতমারি থানার বারঘরিয়া গ্রামের মশিউর রহমানের ছেলে রাসেদ মিয়া অটোরিকশা নিয়ে ভাড়া বাসা থেকে বের হন। পরদিন বৃহস্পতিবার উজিরপুর ইউনিয়নের শামুকসার গ্রামের জনৈক মামুন চৌধুরীর মুরগির ফার্মের পশ্চিমে বোয়ালজুড়ি খালের পাশে রাজ্জাক মিয়ার জমিতে ভিকটিম রাসেদ মিয়ার নাকে মুখে জমাট বাধা রক্ত, নাভির উপরে ডান পাশে একটি গভীর ক্ষতচিহ্ন এবং বাম পায়ের গোড়ালীর উপরে ক্ষতচিহ্ন যুক্ত লাশ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার ও কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে লাশটি হস্তান্তর করে। ওই রাতেই রাসেদ মিয়ার বাবা মশিউর রহমান বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। এ ঘটনায় কুমিল্লার পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান, বিপিএম (বার) এর নির্দেশনায় আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার ও মুন্সিরহাট বাজার হইতে ঘটনাস্থলে গমনাগমনের বিভিন্ন রাস্তা ও বাজারে থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করে ঘাতক খাইরুল আলম শাকিলকে শনাক্ত করা হয়।                          মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি বিশেষ টিম মঙ্গলবার অভিযান চালিয়ে খাইরুল আলম শাকিলকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত একটি চাকুসহ তাঁর নিজ বসত বাড়ি হতে গ্রেপ্তার করে পু‌লিশ।  চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা জানান- গ্রেপ্তারকৃত শাকিলকে জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার ঘটনা স্বীকার করেছে। পু‌লি‌শের সাম‌নেই ‌গ্রেপ্তার শাকিল জানায়, সে রাশেদ মিয়ার অটো রিক্সায় উঠে। পরবর্তীতে কাদৈর বাজার হয়ে গুটি মার্কেট, এরপর চৌমুহনী বাজার থেকে কাশিনগর বাজার হয়ে অলিপুরের আকাবাকা রাস্তা দিয়ে শামুকসার গ্রামে জনৈক মামুন চৌধুরীর মুরগির ফার্মের নিকট নির্জন স্থানে বস্তা আনার কথা বলে খালের পাড়ে নিয়ে শাকিলের সাথে থাকা চাকু দিয়ে ভয় দেখিয়ে অটোরিকশা চালকের টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। তখন অটোরিকশা চালক টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করিলে তাঁর সাথে ধস্তাধ্বস্তি হলে একপর্যায়ে শাকিল তাঁর সাথে থাকা সুইচ গিয়ার চাকু দিয়ে চালক রাসেদ মিয়ার পেটে আঘাত করে টাকা নিয়ে পালিয়ে যান। 

 এ চৌদ্দগ্রাম থানার পরিদর্শক তদন্ত রাজিব চক্রবর্তী জানান ,অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে নির্জন স্থানে অসহায় অবস্থায় অটোরিকশা চালক রাশেদ মিয়ার মৃত্যু হয়। চৌদ্দগ্রামথানা পু‌লিশ মাত্র ১৩ দিনের মধ্যে ক্লু-লেস  রা‌শেদ হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন ক‌রে।


আরও খবর



বকশীগঞ্জে কোরআন প্রতিযোগীতা

প্রকাশিত:Monday ০৬ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

জামালপুর প্রতিনিধি :

জামালপুরের বকশীগঞ্জে হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার হুফফাজুল কুরআন ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ বকশীগঞ্জ শাখার উদ্যোগে এই প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। মসজিদে নূরে আয়োজিত কুরআন প্রতিযোগীতায়  উপজেলার বিভিন্ন মাদ্রাসার ছাত্ররা অংশ নেন। পরে প্রতিযোগীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। ৩০ পারা কুরআন প্রতিযোগীতায় প্রথম স্থান লাভ করেন উঠানোপাড়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষার্থী মোস্তাসিন। 

বকশীগঞ্জ নূর মসজিদের সভাপতি গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগর। বিশেষ অতিথি হিসেবে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বায়তুল আমান জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা সাইফুল্লাহ, ব্যাবসায়ী আলহাজ্ব আরিফ সিদ্দিকী ও প্যানেল মেয়র মিজানুর রহমান প্রমূখ। সঞ্চালক ছিলেন মফিজল হক সওদাগর হাফেজিয়া মাদ্রাসার মুফতী আব্দুর রশিদ। এ সময় হুফফাজুল কুরআন ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধিগন, ওলামায়ে কেরামগনসহ বিভিন্ন মাদ্রাসার হাফেজগণ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



যেসব অভ্যাসে মাইগ্রেনের ব্যথা বাড়ে

প্রকাশিত:Sunday ১৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

মাইগ্রেনের সমস্যায় ভোগেন অনেকেই। এমন সমস্যা হলে মাথায় যন্ত্রণার পাশাপাশি নানাবিধ শারীরিক সমস্যা হয়। প্রতিদিনের কিছু অভ্যাসে মাইগ্রেনের ব্যথা হতে পারে। তাই এই ব্যথা কমাতেই এসব অভ্যাস পরিত্যাগ করতে হবে।

ঘুমে অনিয়ম

প্রতিদিন অন্তত ৮ ঘণ্টা ঘুমাতেই হবে। যদি তা সম্ভব না হয় তবে ৬ ঘণ্টার কম ঘুমালে মাইগ্রেনের সমস্যা বাড়বেই। রাত জেগে ওয়েব সিরিজ দেখা কিংবা মোবাইল দেখার অভ্যাস নিয়ন্ত্রণে আনুন। সমাধান মিলবে।

চিনি

এমন খাবার এড়িয়ে চলুন যেগুলোতে অতিরিক্ত চিনি আছে। রক্তে সুগার বাড়লে মাইগ্রেনের ব্যথা বাড়ে। তাই পরিমিত বোধ রেখে মিষ্টি খান।

খালি পেট রাখা

দীর্ঘক্ষণ না খেয়ে থাকলে গ্যাস্ট্রিকের প্রকোপ বাড়বে। মাইগ্রেনের ব্যথা বাড়াতে গ্যাস্ট্রিকের জুড়ি মেলা ভার। তাই কখনও খালি পেটে থাকবেন না এবং প্রচণ্ড ব্যস্ততায় তো নয়ই।

কফি খাওয়ার অভ্যাস

যাদের ক্যাফেইন আসক্তি রয়েছে তাদের এই অভ্যাস কমাতে হবে। মাইগ্রেনের সমস্যা বাড়ানোর ক্ষেত্রে কফি একটি কারণ। কফির অভ্যাস সহসাই ছাড়ানো কঠিন। এক্ষেত্রে একজন পুষ্টিবিদের সঙ্গে আলাপ করে নিন। 


আরও খবর



এশিয়া কাপ হবে পাকিস্তানেই, ভারতের ম্যাচ আমিরাতে!

প্রকাশিত:Sunday ০৫ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

পাকিস্তানে গিয়ে কোনো টুর্নামেন্ট খেলেতে চাইছে না ভারত। এ কারণে আসন্ন এশিয়া কাপ অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। ভারত চাইছে সংযুক্ত আরব আমিরাত কিংবা শ্রীলংকার মতো নিরপেক্ষ কোনো ভেন্যুতে এই টুর্নামেন্ট হোক।

বিভিন্ন সূত্রের বরাত দিয়ে ক্রিকেট পাকিস্তানের খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তান যে করেই হোক এশিয়া কাপ আয়োজনের বিষয়ে অনড়। প্রয়োজনে ভারতের ম্যাচগুলো আমিরাতে হলেও দেশটির আপত্তি থাকবে না।

গত বছরই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সেক্রেটারি ও এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট জয় শাহ সাফ জানিয়ে দেন যে, ভেন্যু পরিবর্তন না হলে ভারত পাকিস্তানে গিয়ে এশিয়া কাপ খেলবে না। এর জবাবে পাকিস্তানের তৎকালীন বোর্ড প্রধান রমিজ রাজা বলেছিলেন, ভারত পাকিস্তানে এসে এশিয়া কাপ না খেললে আমরাও ভারতে অনুষ্ঠেয় ২০২৩ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ খেলব না।

দুই সপ্তাহ আগে পিসিবি প্রধান নাজাম শেঠি লাহোরে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এশিয়া কাপ নিয়ে ধোঁয়াশা কাটাতে বাহরাইনে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের সভা হবে।

শনিবার ওই সভা শুরু হয়। এতে ভারতের বোর্ড প্রধান সাফ জানিয়ে দেন যে, ভারত সরকার কিছুতেই খেলোয়াড়দের পাকিস্তানে যেতে রাজি করাতে পারছে না। নিরাপত্তার কারণে তারা খেলোয়াড়দের পাকিস্তানে পাঠাতে পারছেন না। তখন পিসিবি প্রধান বলেন, সম্প্রতি বিভিন্ন দেশের খেলোয়াড়েরা পাকিস্তানে এসে খেলে যাচ্ছে। কারো কোনো সমস্যা হয় নাই। ভারতের খেলোয়াড়রাও সর্বোচ্চ নিরাপত্তা পাবে। তবে ভারতের বোর্ড প্রধান এতেও রাজি হননি।

ওই বৈঠকে নিরপেক্ষ ভেন্যু হিসেবে তখন আমিরাত ও শ্রীলংকার কথা উঠে এসেছে। আবার এমন কথাও উঠে এসেছে, এশিয়ার কাপের আয়োজক পাকিস্তানই থাকবে। তবে ভারতের ম্যাচগুলো আমিরাতে হবে। পাকিস্তান যদি ফাইনালে উঠতে পারে সেক্ষেত্রে ফাইনাল হবে আমিরাতে।


আরও খবর