Logo
শিরোনাম

রাঙ্গাবালীতে অনলাইন হোল্ডিং এন্ট্রি বিষয়ক প্রশিক্ষণ

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

নিজস্ব সংবাদদাতা,রাঙ্গাবালীঃ

ডিজিটাল ভূমি ব্যবস্থাপনার অংশ হিসেবে অনলাইন ভিত্তিক ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ের জন্য  পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে অনলাইন হোল্ডিং ডাটা এন্ট্রি ও রেজিষ্ট্রেশন কার্যক্রম গতিশীল করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে । এ লক্ষ্যে রোববার সকাল ১০ টায় ডাটা এন্ট্রি অপারেটরদের জন্য প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়। 

উপজেলা ভূমি অফিস এ আয়োজন করেন। রাঙ্গাবালী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে রোববার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ডেটা এন্ট্রি অপারেটরদের প্রশিক্ষণ হয়। এতে অর্ধশতাধিক প্রশিক্ষণার্থী অংশ নেন।  

এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ডাটা এন্ট্রি অপারেটরদের  প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সালেক মূহিদ। তিনি ডাটা এন্ট্রি ও রেজিষ্ট্রেশন করার নিয়ম পদ্ধতি বিষয়ে সার্বিক নিকনির্দেশনা দেন প্রশিক্ষণার্থীদের। 

এ কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা ভূমি অফিসের নাজির আব্দুল লতিফ, রাঙ্গাবালী ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা মুরাদুল ইসলাম ও বড়বাইশদিয়া ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম ৷ 

সংশ্লিষ্টরা জানান,  জনগণের ভূমি বিষয়ক সেবা প্রাপ্তী সহজকরণ, ভূমি সেবা গ্রহীতাদের স্বল্প ব্যয়ে, স্বল্প সময়ে ও হয়রানিমুক্তভাবে সেবা প্রদানের লক্ষ্যে ভূমি সেবা অটোমেশনের অংশ হিসেবে অনলাইন ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ের জন্য এ উদ্যোগ নেওয়া হয়।


আরও খবর

ভ্যাট দেওয়ায় শীর্ষে ফেসবুক

মঙ্গলবার ২৩ আগস্ট ২০২২




শৃঙ্খলা ফেরাতে বাসে ই-টিকিটিং

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : গণপরিবহনে ভাড়া নিয়ে নৈরাজ্য দীর্ঘদিনের। সরকার ভাড়া নির্ধারণ করে দিলেও তা মানত না কোনো গণপরিবহন। আর এ বিষয়ে যাত্রীদের অভিযোগেরও অন্ত ছিল না। শুধু রাজধানী নয়, দেশজুড়েই একই অবস্থা। ছিল বাড়তি ভাড়া আদায়ের সীমাহীন নৈরাজ্য। যে যেভাবে পেরেছে জিম্মি করে যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করেছে দ্বিগুণ-তিনগুণ অতিরিক্ত ভাড়া। তবে এবার যাত্রীদের জন্য সুখবর নিয়ে এলো পরিবহন সংশ্লিষ্টরা। রাজধানীতে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধে চালু হয়েছে ই-টিকিটিং ব্যবস্থা। কয়েকটি রুটে মিরপুর সুপার লিংক, পরিস্থান, প্রজাপতি ও বসুমতিসহ বেশ কয়েকটি বাস পরীক্ষামূলকভাবে শুরু করেছে এ কার্যক্রম। এ ব্যবস্থা পুরোপুরি কার্যকর হলে সাধারণ যাত্রীদের গুনতে হবে না অতিরিক্ত ভাড়া। তাই নতুন এ সিস্টেমকে স্বাগত জানিয়েছেন যাত্রীরা।

টিকিট বিক্রেতারা বলছেন, ই-টিকিটিং চালু হওয়ায় যাত্রী হয়রানি কমার পাশাপাশি ভাড়ারও সমন্বয় করা হচ্ছে। জনসাধারণের সুবিধার্থে পর্যায়ক্রমে সব রুট ও বাসেই ই-টিকিটিং চালুর দাবি জানান যাত্রীরা।

এর আগে রাজধানীর অভ্যন্তরীণ পরিবহন ব্যবস্থায় যাত্রী ভোগান্তি নিরসনে চালু হচ্ছে ই-টিকিটিং ব্যবস্থা চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়। গত ১ সেপ্টেম্বর ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সঙ্গে ই-টিকিটিং সহযোগী প্রতিষ্ঠান যাত্রী সার্ভিসেস লিমিটেডের এ-সংক্রান্ত চুক্তি সই হয়।

সূত্র জানিয়েছে, এটি চালু হওয়ায় যাত্রীরা বাসের ভেতরে টাকা দিয়ে কন্ডাক্টরের কাছে থাকা মেশিন থেকে টিকিট সংগ্রহ করতে পারছেন। টিকিটের গায়ে যাত্রার বিবরণ থেকে টাকার পরিমাণ সবই উল্লেখ থাকায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের কোনো সুযোগ থাকল না।

এ পাইলট প্রকল্পে প্রজাপতি পরিবহন, পরিস্থান পরিবহন, অছিম পরিবহন, নূর-ই মক্কা পরিবহন ও বসুমতির বাসে ই-টিকিট সুবিধা চালু হলো। এর ফলে রাজধানীর সড়কে ফিরতে পারে শৃঙ্খলা।



আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরে ভ্রমণে সাহিত্যিকদের জলভোজন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

শফিউল আলম, স্টাফ রিপোর্টার :

সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলার কবি সাহিত্যিক সাংবাদিক লেখক কলামিস্ট গীতিকার শিল্পী সহ

জেলার তাহিরপুর উপজেলার টাঙ্গুয়ার হাওরে জলভোজনের আয়োজন করা হয়। ৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলী হায়দারের আমন্ত্রণে জলভোজন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 

ইসলামগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের বাংলা প্রভাষক সুরমার মোহনার সম্পাদক কবি ফজলুল হক দোলন,দিগেন্দ্র বর্মন সরকারি কলেজের ইংরেজি প্রভাষক কবি মোঃ মশিউর রহমান,

 জাগ্রত কন্ঠ সমাজকল্যাণ সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি কবি মোঃসহিদ মিয়া, কবি এস ডি সুব্রত,ডেল্টা লাইফ ইন্সুরেন্সের জেলা এজিএম মিসবাহ উদ্দিন রুমি, মইনুল হক কলেজের প্রভাষক কবি তৈয়ুবুর  রহমান, পল্লী চিকিৎসক কবি মো শফিক আহমদ, গীতিকার সামরান আহমদ মিলন,সাংবাদিক শফিউল আলম প্রমুখ। টাঙ্গুয়ার হাওর ভ্রমণের পরে শহীদ সিরাজ লেকে (নীলাদ্রি) 


বৈকালি আড্ডায় গান,কবিতা আবৃত্তি অনুষ্ঠিত। প্রভাষক কবি মোঃ মশিউর রহমান বলেন,

সকালে টাঙ্গুয়ার হাওরে বিশাল জলরাশির সৌন্দর্য উপভোগ করে, দুপুরে তাহিরপুর উপজেলার পাটলাই নদীর তীরে উত্তর শ্রীপুর বাজার ঘাটে নৌকায় স্থানীয় চেয়ারম্যান আলী হায়দার সাহেবের আমন্ত্রণে জল ভোজন শেষে বিকেলে তাহিরপুর উপজেলার টেকেরঘাটে শহিদ সিরাজ লেক ( নীলাদ্রি লেক) এ  গানে, আড্ডায় , কবিতা পাঠে চমৎকার সময় পার হলো।কবি ফজলুল হক দোলন বলেন,আজকের আয়োজন ছিল খুবই আনন্দদায়ক।এদিনটি কোন দিন ভুলা যাবে না।সময় পেলে যে কোন জন ভ্রমণে আসতে পারেন স্বপরিবারে! টাঙ্গুয়ার হাওর ভ্রমণের পরে শহীদ সিরাজ লেকে (নীলাদ্রি) 

প্রকাশ জনৈক কবি খালেদ বলেন,বনে ভ্রমণ করে খাওয়া দাওয়া করলে হয় বনভোজন। এভাবে জলে ভ্রমণ করে খাওয়া দাওয়া করলে হয় জলভোজন।


আরও খবর

বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনে ছুটছেন দর্শনার্থীরা

বৃহস্পতিবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২

বন্ধ কুয়াকাটার সব রেস্তোরাঁ

বুধবার ১৭ আগস্ট ২০২২




ইটনা উপজেলা কৃষকলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মোঃ মুজাহিদ সরকার কিশোরগঞ্জঃ

বৃষ্টি ও বৈরি আবহাওয়া উপেক্ষা করে ইটনা উপজেলা কৃষকলীগের বর্ধিত সভাপতি অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

১৩ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) দুপুরে ইটনা উপজেলা আ.লীগ কার্যালয়ে এ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ইটনা উপজেলা আ.লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান চৌধুরি কামরুল হাসান।ইটনা উপজেলা কৃষকলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পরিমল কুমার সাহার সভাপতিত্বে সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বাচ্চু। 

ইটনা উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক বজলু মিয়ার পরিচালনায় আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখেন ইটনা উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহরাব উদ্দিন ঠাকুর (খসরু),শহর কৃষকলীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন,জেলা কৃষকলীগের সম্পাদক এস এম আলমগীর,ইটনা উপজেলা কৃষকলীগের সহ-সভাপতি আবু বক্কর,শরিয়ত উল্লা,ইটনা সদর ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি মো:শাহজাহান প্রমুখ।

বর্ধিত সভায় ইটনা উপজেলা কৃষকলীগের সম্মেলনকে সামনে রেখে প্রতিটি ইউনিয়ন সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়।


আরও খবর



জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে মানবাধিকার লঙ্ঘন

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

জলবায়ু পরিবর্তন-স্বাস্থ্যঝুঁকিসহ জীবনযাত্রাকে দুর্বিষহ করে তুলছে। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে মানবাধিকার লঙ্ঘন, বেকারত্ব, উৎপাদনশীলতা হ্রাস, বাল্যবিবাহ, শিশুশ্রম ও স্বাস্থ্যঝুঁকি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে দাবি করছেন পরিবেশবিদরা।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিল বলেন, প্রকৃতিনির্ভর ব্যবস্থাপনা সঠিকভাবে ব্যবহার না হওয়ায় জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে। এ অধিকার যাদের লঙ্ঘন হচ্ছে তাদের কথাগুলো নীতি-নির্ধারকদের কাছে যাচ্ছে না। আমাদের দেশ পানি দুষ্প্রাপ্যের দেশ। শুকনো মৌসুমে মাত্র ২০ ভাগ পানি আসে।

শরীফ জামিল বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনে যাদের অবদান বেশি তাদের সমস্যা সমাধানে বেশি এগিয়ে আসতে হবে। ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে আমাদের বেশি ক্ষতি হচ্ছে। এজন্য আমাদের সচেতন হতে হবে। দেশ রক্ষা করা মানুষের মানবাধিকার। কিন্তু এটি রক্ষা করা হচ্ছে না।

 দেশের উন্নয়ন কার্যক্রমে স্বচ্ছতা না থাকা এবং ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ পর্যন্ত উন্নয়ন না পৌঁছানোর কারণে এ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব আরো বেশি ভোগান্তি সৃষ্টি করছে। এ পরিবর্তনের কারণে মানুষের জীবনযাত্রা ও জীবিকার পরিবর্তন আসছে। দুর্যোগে অধিকমাত্রায় বেশি বঞ্চনার শিকার হন নারীরা। দুর্যোগকালে নারীদের প্রাত্যহিক কাজের পাশাপাশি স্বামী বাইরের কাজেও সহায়তা করতে হয়।

বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তন ও এর প্রভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘনের গবেষণার ফলাফল বাংলাদেশে সফররত ইউএনএইচসিআরের জলবায়ু ও মানবাধিকার দূত ড. ইয়ান ফ্রাইকে এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণের আহ্বান জানান। বাংলাদেশে তিনটি অঞ্চল মোংলা, রাজশাহী ও শরীয়তপুর এ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিয়ে গবেষণা করা হয়।

গবেষণায় দেখা গেছে, আকস্মিক দুর্যোগ, লবণাক্ততার কারণে এসব অঞ্চলের ২০০টি পরিবার ৯ কোটি ২৪ লাখ ৯৮ হাজার প্রত্যক্ষ আর্থিক ক্ষতির শিকার হয়েছেন। এছাড়া তারা স্বাস্থ্য সংকট, বাস্তুচ্যুতি, সামাজিক ও যৌন হয়রানি, পানিসংকট, স্কুল থেকে ঝরে পড়া, শিশুশ্রম, বাল্যবিবাহ, সহিংসতা, মানসিক বিপর্যয়সহ নানা সংকটের মুখোমুখি হচ্ছে।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




৩২ ঘন্টার হরতাল ডেকেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন, রাঙ্গামাটি প্রতিনিধিঃ

রাঙ্গামাটি -  পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন আইন বাতিল,৭ দফা দাবী বাস্তবায়নসহ  ৭সেপ্টেম্বর রাঙ্গামাটিতে পার্বত্য ভূমি কমিশন চেয়ারম্যানের বৈঠক বাতিলের দাবিতে আগামীকাল ৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৬ টা থেকে ৭ সেপ্টেম্বর দুপুর ২টা পর্যন্ত রাঙ্গামাটি শহর এলাকায় টানা ৩৮ ঘন্টার হরতাল ডেকেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ।

সোমবার সকাল ১১টায় রাঙ্গামাটি স্থানীয় রেস্টুরেস্টে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে  এই কর্মসূচী ঘোষণা করে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত সকল নেতৃবৃন্দের পক্ষে বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী মুজিবুর রহমান।

এসময় সংবাদ সম্মেলনে,  পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলমগীর কবির,  কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আনিসুর জামান ডালিম,  যুগ্ম-সম্পাদক  রুহুল আমিন,  কেন্দ্রীয় কমিটির সহ- সাদারণ সম্পাদক এস এম মাসুম রানা,  রাঙামাটি জেলা কমিটির মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আসমা মল্লিক,  সাংগঠনিক সম্পাদক লাভলী আক্তার সহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের ৭দফা দাবী গুলো হচ্ছে ১. পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশনে জনসংখ্যা অনুপাতে সকল জাতি গোষ্ঠী থেকে সমান সংখ্যক সদস্য নিশ্চিত করতে হবে । ২. পার্বত্য চট্টগ্রামে ভূমি নিরোধ নিষ্পত্তি এর কার্যক্রম শুরুর পূর্বে , ভূমির বর্তমান অবস্থা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ভূমি জরিপ সম্পন্ন করতে হবে । ৩. জাতি - ধর্ম নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায়ের মানুষের ভূমির উপর ন্যায্যতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দেশের সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক ভূমি কমিশন সংশোধনী আইন ২০১৬ এর ধারা সমূহ বাতিল করতে হবে । ৪. পার্বত্য চট্টগ্রামের ভূমি ব্যবস্থাপনা দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী প্রবর্তন করতে হবে এবং সমতলের ন্যায় জেলা প্রশসকগণকে ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তির অধিকার দিতে হবে । ৫. কমিশন কর্তৃক ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তির কারনে কোন ব্যক্তি ক্ষতিগ্রস্থ হলে তাকে পার্বত্য চট্টগ্রামে সরকারী খাস জমিতে পূনর্বাসনের ব্যবস্থা করতে হবে । ৬. পার্বত্য চট্টগ্রামে তথাকথিত রীতি , প্রথা ও পদ্ধতির পরিবর্তে দেশে বিদ্যমান ভূমি আইন অনুসারে ভূমি ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম পরিচালনা কর হবে । ৭. বাংলাদেশ সরকারের আদেশ অনুযায়ী জেলা প্রশাসক কর্তৃক বন্দোবস্তীকৃত অথবা কবুলিয়ত প্রাপ্ত মালিকানা থেকে কাউকে উচ্ছেদ করা যাবে না 


আরও খবর