Logo
শিরোনাম

রাঙ্গামাটির বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন পার্বত্য মন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন,রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি ঃ

পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর (উশৈসিং)  আজ শুক্রবার রাঙ্গামাটির কাপ্তাই উপজেলার রাইখালীতে ১ কোটি ৭৭লক্ষ টাকার মসজিদ, মন্দির ও বিহার সহ বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের নির্দেশনায়, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন করে। 

এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুই প্রু চৌধুরী, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস-চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল আলম চৌধুরী (অতিরিক্ত সচিব), পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সদস্য প্রশাসন ড.ইফতেকার আহমেদ (যুগ্ন সচিব), রাঙামাটি জেলা পরিষদ সদস্য অংসুই ছাইন চৌধুরী, দীপ্তিময় তালুকদার, কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মফিজুল হক, কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহান, কাপ্তাই সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রওশন আরা রব, চন্দ্রঘোনা থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরী, সাবেক জেলা পরিষদ সদস্য থোয়াইচিং মং মারমা, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল, ১নং চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন মিলন,  ২নং রাইখালী ইউপি চেয়ারম্যান মংক্য মারমা, ৩নং চিৎমরম ইউপি চেয়ারম্যান ওয়েশ্লি মং চৌধুরী, ৫নং ওয়াগ্গা ইউপি চেয়ারম্যান চিরঞ্জিৎ তনচংগা সহ গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।


উদ্বোধনকৃত প্রকল্পগুলো হচ্ছে ৯০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে কাপ্তাই উপজেলাধীন রায় সাহেবের বৌদ্ধ বিহার নির্মাণ, ৩৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে শ্রীশ্রী ত্রিপুরা সুন্দরী কালী বাড়ির গীতা শিক্ষা ভবন নির্মাণ, ৩২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নারানগিরিমুখ মসজিদুল আকসা ভবন নির্মাণ ও ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ড্রাগন স্পোটিং ক্লাব নির্মাণ করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড। 

এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত আন্তরিক। তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের বিভিন্ন সমস্যা সমাধান ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জাতি গোষ্টীর উন্নয়নে কাজ করে গেছেন বলেই আজ জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী বিশ্ব সেরা ২য় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত হয়েছেন। এটা আমাদের জন্য বড় প্রাপ্তি। 


আরও খবর



জামিনে মুক্তি পেলেন সাবেক সংসদ অ্যাডঃ নাদিম মোস্তফা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ


রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য ও রাজশাহী-৫ পুঠিয়া-দুর্গাপুর আসনের সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট নাদিম মোস্তফা।

শুক্রবার ২ ডিসেম্বর সকাল ১১টারদিকে কারা কর্তৃপক্ষ তাকে মুক্তি দেয়। রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগার এর জেলার কামাল তারেক সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বৃহস্পতিবার ১ ডিসেম্বর নাদিম মোস্তফার জামিন মঞ্জুর করেন বিজ্ঞ আদালত। সেই নির্দেশনা রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে এসে পৌছালে শুক্রবার সকালে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়।

এদিকে, করাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর নাদিম মোস্তফাকে ফুল দিতে বরণ করেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।

উল্লেখ্য- গত ২৩ নভেম্বর দুপুরে নগরীর পাঠানপাড়ার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার হোন তিনি। রাজশাহী জেলা গোয়েন্দা "ডিবি" একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করেছিলেন।


আরও খবর



রাঙ্গামাটি রিজার্ভ বাজার মহসিন কলোনীর অগ্নিকান্ডে ১২ টি বসতঘর পুড়ে ছাই

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন কায়েস, রাঙ্গামাটি ঃ 

রাঙ্গামাটি শহরের রিজার্ভ বাজার মহসিন কলোনী এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১২ টি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আজ দুপুরে সাড়ে ১২ টার দিকে মহসিন কলোনীর মিয়া সদাগরের ভাড়াটিয়ার বাড়ী থেকে অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত ঘটে। মুহুর্তের মধ্যে আগুন চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। প্রথমে স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করলেও আগুনের লেলিহান শিখা বেড়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিস এসে প্রায় ১ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। আগুনে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্থরা জানায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় আজ দুুপুর হঠাৎ আগুনের লাগার হইচই শোনা যায়। এ সময় সকলে তাৎক্ষনিক আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার চেস্টায় চালায়। পরবর্তীতে আগুন কোন ভাবে নিয়ন্ত্রনে না আসায় ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়া হয়। আগুন লাগার প্রায় ২০ মিনিট পর ফায়ার সার্ভিস ঘটনা স্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ চালায়। ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট ও সাধারণ জনগন প্রায় ১ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। আগুনের লেলিহান শিখা এতোই বেশী ছিলো যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে বেগ পেতে হয়েছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদেরকে। 

রাঙ্গামাটি জেলা ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল হোসেন জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে সাথে সাথে আমরা ঘটনাস্থলে এসে পৌছায় এবং আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ করি। প্রায় ঘন্টা খানেক ৩ টি ইউনিটি তিন দিক থেকে আগুনের নেভাতে প্রচেষ্টা চালায়। তিনি বলেন, তবে তাৎকক্ষনিক কিভাবে আগুন লেগেছে তা জানা সম্ভব হয়নি। আগুনে ১৫ টি বাড়ী পড়ে ছাই হয়ে গেছে। ক্ষয়ক্ষতি নিরূপন করে পরে তথ্য দেয়া হবে। 

তাৎক্ষনিক রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ সাইফুল ইসলাম, রাঙ্গামাটি পৌরসভার প্যানেল মেয়র মোঃ হেলাল উদ্দিন ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয়দের সাথে কথা বলেন এবং ক্ষয়ক্ষতি নিরুপন করে সহযোগিতার কথা উল্লেখ করেন। 


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জে অপহরণের ৪ দিন পর অপহহৃতাকে উদ্ধার,অপহরণকারী গ্রেফতার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থেকে ছাত্রীকে অপহরণ করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবীর ৪ দিন পর ফতুল্লা থেকে অপহহৃতাকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১১ সদস্যরা। গ্রেফতার করেছে অপহরণকারী সুজনকে। মঙ্গলবার রাতে ফতুল্লার হাজীগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে উদ্ধার ও গ্রেফতার করা হয়। বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ আদমজীনগর র‌্যাব-১১ মিডিয়া অফিসার সহকারী পরিচালক মোঃ রিজওয়ান সাঈদ জিকু স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান। তিনি বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, আড়াইহাজার থানার পুরিন্দা এলাকার সাদ্দেকুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০২৩ সালের এসএসসি পরিক্ষার্থীকে গত ১০ নভেম্বর অপহরণ করা হয়। ভিকটিম প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে স্কুলের সামনে গেলে অভিযুক্ত আসামী জোড়পূর্বক অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে ভিকটিমকে জিম্মি করে মোবাইল ফোনে ভিকটিমের পরিবারের কাছে ১০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এই ঘটনায় ভিকটিমের বাবা কে এম আহাদ (৩৯) র‌্যাব-১১, এর কাছে অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‌্যাব ১১ এর গোয়েন্দা টীম ছায়া তদন্ত শুরু করে। পরে নিশ্চিত হয়ে মঙ্গলবার রাতে ফতুল্লার হাজীগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণকারী  মোঃ হাসানুর রহমান সুজন (১৯) কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে আড়াইহাজার থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু করেছেন।


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে সহায়ক উপকরণ বিতরণ

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ,বাগেরহাট প্রতিনিধি:


৩১তম আন্তর্জাতিক ও ২৪তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে ৪৬ জন প্রতিবন্ধীকে চলাচলের জন্য সহায়ক উপকরণ দেওয়া হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে শনিবার বেলা ১১টায় প্রতিবন্ধী সমাবেশ প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. আমিরুল আলম মিলন।

প্রধান অতিথি সমাজকল্যাণ মন্ত্রনালয় থেকে পাওয়া ৩০টি হুইল চেয়ার, ২টি ক্র্যাচ ও ১৪টি স্মার্ট কেন (আধুনিক লাঠি) প্রতিবন্ধীদের মাঝে বিতরণ করেন। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম।

বক্তৃতা করেন উপজেলা প্রতিবন্ধী বিষয়ক কর্মকর্তা মো. কায়কোবাদ আকুঞ্জী, সমাজসেবা কর্মকর্তা গৌতম কুমার বিশ্বাস, মাধ্যমিক শিক্ষার একাডেমিক সুপারভাইজার মো. বাকি বিল্লাহ ও প্রতিবন্ধী সুবিধাভোগী মো. সোহেল শেখ।


আরও খবর



কুমিল্লায় বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশ

শেখ হাসিনার অধীনে এ দেশে নির্বাচন হবে না: মির্জা ফখরুল

প্রকাশিত:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

কুমিল্লা ব্যুরো ঃ

সকল রাজনৈতিক দল নিয়ে একটি জাতীয় সরকার গঠনের প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, শেখ হাসিনার হাসিনার পদত্যাগের আগে এ দেশে কোনো নির্বাচন হবে না। তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া কোন নির্বাচন হবে না। নির্বাচনের পূর্বে সংসদ ভেঙ্গে দিতে হবে। নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করে সে নির্বাচন কমিশনের অধিনে নির্বাচন হবে।

ফখরুল বলেন, অবৈধ প্রধানমন্ত্রী, জোর করে দুইবার নির্বাচন করেছে। ’১৪ সালে কেউ ভোট দিতে যায় নাই, নির্বাচনের আগে তাদের ১৫৪ জন জয়ী হয়ে গেছেন। ’১৮-তে রাতেই ভোট শেষ। তিনি নাকি আবার নির্বাচন করবেন। আপনারা কি আবার তা

দের ভোট দিবেন? তারাও জানে, ভোট হলে জামানত থাকবে না। তাই আবার আগের কৌশলে যেতে চান। কিন্তু তা হবে না। আপনাদেরকে সাথে নিয়ে আমরা আরো দুর্বার আন্দোলন তৈরি করে সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করবো। এরপর জনগণের একটি সরকার আমরা গঠন করবো।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) কুমিল্লা টাউন হল মাঠে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। ফখরুল আ‌রো বলেন, প্রধানমন্ত্রী যশোরে জনসভা করেছেন, রাষ্ট্রীয় সকল সুযোগ-সুবিধা গ্রহণ করে সেখানে মানুষের কাছে ভোট চেয়েছেন, বলেছেন আবার নৌকায় ভোট দেন। এ কথা শুনে আমার আব্বাস উদ্দিনের গানের কথা মনে পড়ে গেছে ‘আগে জানলে তোর ভাঙ্গা নৌকায় উঠতাম না।’ এ দেশের মানুষও এখন সেই গাইতে শুরু করেছেন। ভুলে যান, দেশের মানুষ আর চায় না। সময় থাকতে মানে মানে চলে যান। না হয় পরিণতি ভালো হবে না।

তিনি বলেন, জীবন বাজি রেখে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করা হয়েছে। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর আমাদের ভোটের অধিকারের জন্য লড়াই-সংগ্রাম করে জীবন দিতে হচ্ছে। তারা সরাসরি ভোট দিতে চায় না। কারণ ভোট হলে আমানত থাকবে না। এজন্য ফন্দি ফিকির শুরু করেছে। তারা থাকবে ক্ষমতায়, তারা মন্ত্রী-এমপি থাকবে, আর আমরা ভোট দিবে। এজন্য আবার সমস্যা শুরু করেছে। ফের গায়েবী মামলা হয়েছে। পত্রিকায় হেডলাইন হচ্ছে। বলা হচ্ছে ককটেল বিস্ফোরণের কথা। কিন্তু পাবলিক বলছে আমরা শুনিনি।


তাদের গন্ডারের মতো চামরা হয়েছে। বেশরম, বেহায়া হয়ে গেছে সরকার।

তিনি বলেন, ঢাকার গণসমাবেশ নস্যাৎ করতে আগে থেকেই মামলা দেওয়া হয়েছে। এসব করে আমাদের সমাবেশ বন্ধ করা যায়নি, যাবেও না। ঢাকা-রাজশাহীতেও সমাবেশ বন্ধ করা যাবে না। আমাদের কথা পরিস্কার। আমরা অধিকার আদায়ের জন্য শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করছি। অগ্নিসন্ত্রাস করে আপনারা বিরোধী দল- বিএনপির নাম দিচ্ছেন। চট্টগ্রামেও ছাত্রলীগের আগুন সন্ত্রাসের পর বিএনপির নামে মামলা দেওয়া হয়েছে। কুমিল্লায়ও একই ঘটনা ঘটেছে। কুমিল্লার হিরু-হুমায়ূনকে গুম করা হয়েছে। তাদের সন্তানেরা বাবাকে পায় না। সন্তানদের চোখ ছল ছল করে, আমরা সান্ত¦না দিতে পারি না। সিলেটের ইলিয়াসকে গুম করা হয়েছে।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, রিজার্ভ কি আমরা চিবিয়ে খেয়েছি? আমি বলি- রির্জাব আপনারা চিবিয়ে খাননি, গিলেই খেয়ে ফেলেছেন। সব খেয়ে ফেলেছেন, বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার পাচার করে বিদেশে পাঠিয়ে দিয়েছেন। বাংলাদেশ থেকে গত ১০ বছরে হাজার-হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়ে গেছে। বিদ্যুতের জন্য ৭৮ হাজার কোটি টাকা তারা ১ বছরে পাচার করেছে। বিদ্যুতের দাম কতো বাড়িয়েছে? দাম দিতে দিতে আমরা দিশেহারা হয়ে গেছি। অকটেন, ডিজেল পেঁয়াজের দাম বাড়িয়েছে। সবকিছুর বাদম বেড়ছে। আয় বাড়েনি। কিন্তু ওদের আয় বাড়ে। তারা ফুলে ফেঁপে যাচ্ছে। একজনের ৪টা বাড়ি থেকে ১০টা বাড়ি হয়েছে। আমাদের সাধারণ মানুষেরা দু’বেলা দু মুঠো খেতে পায় না। আমাদের মা-বোনেরা তাদের সন্তানকে একটি ডিমও খাওয়াতে পারছেন না।

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের নেতা ৮ হাজার মাইল দুর থেকে ডাক দিয়েছেন ট্যাক-ব্যাক বাংলাদেশ। কোন বাংলাদেশ? যে বাংলাদেশের স্বপ্ন আমরা দেখেছিলাম। যে স্বপ্ন দেখে দেশ স্বাধীন করেছিলাম। আমাদের দেশের মানুষ সুখে-শান্তিতে থাকতে পারে, সেই বাংলাদেশ।

কিন্তু এই সরকার কোথাও কিছু রাখেনি। ন্যায় বিচার পাপওয়া যায় না। মিথ্যা মামলা দিয়ে সাজা দিয়ে দেয়। এখানের উপস্থিত আমাদের নেতাদের বিরুদ্ধে ৫০/৬০টি করে মামলা রয়েছে। আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে আটকে রাখা হয়েছে। সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়েছে, তিনি দেশে আসতে পারছেন না।

একমাত্র খালেদা জিয়ার মাধ্যমে দেশের পরিবর্তন সম্ভব। আমরা সব দল নিয়ে জাতীয় সরকার গঠন করবো।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক ও কেন্দ্রীয় ত্রাণ ও পুনর্বাসন সম্পাদক হাজী আমিন উর রশিদ ইয়াছিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থাযী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লা বুলু, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সহ সম্পাদক এবং সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা, কুমিল্লা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়াসহ কুমিল্লা সাংগঠনিক বিভাগের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ।

গণসমাবেশ পরিচালনা করেন কুমিল্লা মহানগর বিএনপির আহবায়ক উদবাতুল বারী আবু এবং সদস্য সচিব ইউসুফ মোল্লা টিপু। এ‌দি‌কে সমা‌বে‌শে বিএন‌পি থে‌কে ব‌হিস্কৃত সা‌বেক মেয়র ম‌নিরুল হক সাক্কু ,নিজাম উ‌দ্দিন কায়সার ও অব‌্যহ‌তি প্রাপ্ত আ‌মিরুজ্জামান আ‌মির তা‌দের অনুসারী নেতাকর্মী‌দের নি‌য়ে উপ‌স্থিত ছি‌লেন।


আরও খবর