Logo
শিরোনাম

রানির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বিশ্ব নেতাদের ঢল

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

সোমবার অনুষ্ঠিত হবে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্য। বিদায় জানানো হবে শেষ বারের মতো। তার আগে ওয়েস্টমিনস্টার হলে রাখা রানির মরদেহের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে হাজার হাজার মানুষ অপেক্ষা করছেন। অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা লন্ডনে আসতে শুরু করেছেন।

রানির শেষকৃত্যে যোগ দিতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে পাঁচ শতাধিক রাষ্ট্রপ্রধান এবং বিভিন্ন বিশিষ্ট ব্যক্তিদের। শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে অতিথির সংখ্যা ধরা হয়েছে দুই হাজার ২০০।

অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ইতোমধ্যে ব্রিটেন পৌঁছেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ফার্স্টলেডি জিল বাইডেনও লন্ডনে অবস্থান করছেন। নিজের বিলাসবহুল লিমুজিন ‘দ্য বিস্ট’ ব্যবহারের অনুমতিও দেওয়া হয়েছে তাকে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ব্যতীত অন্য কোনো অতিথিকে ‘ভিভিআইপি’ সেবা দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সরকার।

বিশ্ব নেতাদের মধ্যে আরও আসছেন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, স্পেনের রাজা ফেলিপ ও রানি লেটিজিয়া। এ ছাড়াও আসবেন নরওয়ে, ডেনমার্ক, সুইডেন ও মোনাকো, জর্ডান, সার্বিয়া, রোমানিয়া, লুক্সেমবার্গ, টঙ্গা, বুলগেরিয়ার রাজা-রানিরা। আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ইউরোপের সব রাজপরিবারকে।

বুধবার রাজকীয় শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় এলিজাবেথের মরদেহ বাকিংহাম প্যালেস থেকে ওয়েস্টমিনস্টার হলে নিয়ে আসা হয়। রানির জ্যেষ্ঠ সন্তান ও যুক্তরাজ্যের বর্তমান রাজা তৃতীয় চার্লস, তার দুই ছেলে প্রিন্স উইলিয়াম ও প্রিন্স হ্যারিসহ রাজপরিবারের সদস্যরা সেই শোভাযাত্রায় নেতৃত্ব দেন।

রয়্যাল পতাকায় মোড়া রানির কফিনের ওপরেই রাখা হয় তার মুকুট। রাস্তার দুই পাশে ছিল হাজারও মানুষের ভিড়।

 সূত্র : বিবিসি


আরও খবর

জাতিসংঘে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

জাতিসংঘের ভূমিকায় হতাশ মালয়েশিয়া

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




বিদেশে উচ্চশিক্ষার খরচ বাড়ল

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল :  উন্নত ক্যারিয়ার ও উত্তম জীবনযাত্রার উৎকৃষ্ট নির্ণায়ক হলো বিদেশে উচ্চশিক্ষা। প্রতি বছর হাজার হাজার শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষার জন্য দেশ ছাড়েন। তবে উচ্চশিক্ষার জন্য দেশের বাইরে দেওয়ার ক্ষেত্রে খরচের বিষয়টিও এখন বিশেষভাবে মাথায় রাখতে হচ্ছে। কারণ কার্ডের মাধ্যমে বিনিময় করা ডলারের দাম প্রায় ১২ শতাংশ বেড়েছে। ইউনিফর্ম রেট চালু হওয়ার পর মার্কিন ডলারের দর ১৩ টাকা পর্যন্ত বেড়ে ১০৮ টাকায় পৌঁছেছে।

বিদেশে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে টিউশন ফি’র পাশাপাশি পরিষেবা এবং পণ্য কেনার জন্য কার্ডের মাধ্যমে কেনা প্রতি ডলারের বিনিমূল্য ছিল ৯৫ টাকা। অন্যদিকে, কার্ড ব্যবহার না করে নগদ সংগ্রহের ক্ষেত্রে প্রতি ডলারের জন্য গুণতে হয়েছে ১১১ টাকা।

ব্যাংকারদের ভাষ্য, বিদেশ ভ্রমণের সময়ে অধিকাংশই নিজেদের ডেবিট কার্ড এবং ক্রেডিট কার্ড থেকে বৈদেশিক মুদ্রা ব্যবহার করে থাকে। এক্ষেত্রে বৈদেশিক মুদ্রার বেশিরভাগই খরচ হয় বিমান ভাড়া, হোটেল বুকিং এবং কেনাকাটার পেছনে। হঠাৎ করে ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে পড়াশোনার ফি, সেমিনার ফি এবং অনলাইন কোর্স ফিসহ বিভিন্ন সেবা ও পণ্য ক্রয়ের খরচও প্রায় ১০ শতাংশ থেকে ১২ শতাংশ বাড়বে। যেসব অভিভাবক ইতোমধ্যেই তাদের সন্তানকে উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠিয়েছেন, তাদের জন্য ব্যাপারটি চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ বাংলাদেশ থেকে অর্থ পাঠানোর জন্য তারা সাধারণত কার্ড ব্যবহার করে থাকেন। এর আগে, উচ্চ হারে ডলারের দাম কমাতে নগদ বা ডলারের কাগুজে নোটের পরিবর্তে কার্ড ব্যবহার করতে গ্রাহকদের আহ্বান জানিয়েছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। গত ৩০ জুন থেকে ব্যাংকগুলোর কাছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডলার বিক্রি করছে। পরে ব্যাংকগুলো ওই হারে কার্ডগ্রাহকদের ডলার দিচ্ছে। যখন কার্ডের মাধ্যমে কেনা প্রতি ডলারের বিনিমূল্য ৯৫ টাকা ছিল, তখন খোলাবাজার এবং নগদ সংগ্রহের ক্ষেত্রে গ্রাহককে যথাক্রমে ১২১ টাকা এবং ১১১ টাকা গুণতে হয়েছিল। একপর্যায়ে ডলারের বিনিমূল্যের পার্থক্য কমে এলেও তা ১২ টাকার কম হয়নি।

বাড়ছে কার্ডভিত্তিক লেনদেন : করোনাভাইরাস মহামারির পর কার্ড থেকে বৈদেশিক মুদ্রার ব্যবহার দ্রুত কমেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত জুনে কার্ডভিত্তিক বৈদেশিক মুদ্রার লেনদেন ছিল ৩৯৭ কোটি টাকা, যা এ যাবৎকালে সর্বোচ্চ।


আরও খবর

বিশ্বজয় করে দেশে ফিরল ক্ষুদে হাফেজ

শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২




যুদ্ধে যাওয়া এড়াতে দেশ ছাড়ার হিড়িক রুশদের

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

সেনাদলে ডাক পাওয়ার ভয়ে রাশিয়া ছাড়ার হিড়িক পড়েছে। বৃহস্পতিবার  একদিনে প্রতিবেশী দেশ ফিনল্যান্ডে গেছেন চার হাজারের বেশি মানুষ।

ভিসা ছাড়া প্রবেশের সুযোগ থাকায় জর্জিয়া সীমান্তে দেখা গেছে যানবাহনের দীর্ঘ সারি। আশপাশের দেশগুলোতে প্রবেশে বিমানের টিকিটের দাম পাঁচ হাজার মার্কিন ডলার পর্যন্ত বেড়েছে।

এর আগে রিজার্ভের ৩ লাখ সেনা সমাবেশে পুতিনের ঘোষণায়, মস্কোসহ বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ হয়। আটক হন ১ হাজার ৩শ' বিক্ষোভকারী।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুতিনের সেনা সমাবেশের নির্দেশের পর রাশিয়া থেকে অনেকে দেশের বাইরে চলে যেতে চাচ্ছে। কারণ, ইউক্রেন যুদ্ধে তারা যোগ দিতে চায় না।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সার্গেই শোইগু বলেছেন, ইউক্রেনে যুদ্ধের জন্য তিন লাখ রিজার্ভ সৈন্যকে তলব করা হবে। তিনি বলেন, এই সংখ্যাটি রাশিয়ার মোট আড়াই কোটি রিজার্ভ সৈন্যদের মাত্র এক শতাংশ।


আরও খবর

জাতিসংঘে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

জাতিসংঘের ভূমিকায় হতাশ মালয়েশিয়া

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




পানিতে আর ভর্তুকি দেওয়া হবে না

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, ঢাকা ওয়াসার পানিতে ভর্তুকি দেওয়া হবে না। রাজধানীতে জোনভিত্তিক পানির দাম নির্ধারণ করে বস্তিতে বসবাসরত নিম্ন আয়ের মানুষকে কম দামে পানি দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, ঢাকা নগরীতে বসবাসরত বেশিরভাগ মানুষই বিত্তবান। দরিদ্র মানুষের কাছ থেকে রাজস্ব আদায় করে সে টাকা দিয়ে ধনীদের ভর্তুকি দেওয়া নৈতিকভাবে কতটা সমর্থনযোগ্য এ প্রশ্ন রয়ে যায়। গুলশান-বনানী এলাকায় বসবাসকারীরা যে হারে পানির বিল দেন বস্তিবাসী অথবা যাত্রাবাড়ী এলাকার বাসিন্দারা কেন তার সমান পানির মূল্য পরিশোধ করবেন।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ঢাকায় জোনভিত্তিক পানির দাম আলাদা করে বাড়ানো হবে। গুলশান-বনানীর মতো অভিজাত এলাকায় পানির দাম বেশি থাকবে। যে সব এলাকায় নিম্ন আয়ের মানুষের বাস সে সব এলাকায় পানির দাম অপেক্ষাকৃত কম থাকবে। তবে ঢাকা নগরীতে পানিতে ভর্তুকি দেওয়া হবে না। শুধু পানি নয়, হোল্ডিং ট্যাক্স, গ্যাস, বিদ্যুৎ ও অন্যান্য পরিষেবার মূল্য এলাকাভিত্তিক নির্ধারিত হওয়া উচিত।

বর্তমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের তুলনায় আমাদের দেশের মানুষ ভালো আছে এ কথা অস্বীকার করার সুযোগ নেই। করোনা মহাসংকটের পর ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে বিশ্বে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রভাব আমাদের দেশেও পড়েছে। জ্বালানির দাম বেড়ে যাওয়ায় খাদ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে, যে কারণে মানুষ অসুবিধার মধ্যে আছে। সরকার এটা অস্বীকার করছে না বরং মানুষকে ভালো রাখার জন্য যা যা করা দরকার তার সবই করছে।

ইউরোপসহ পৃথিবীর অনেক দেশ বর্তমানে খারাপ অবস্থায় আছে। এটা না বলে সরকারের ব্যর্থতার কারণে শুধু বাংলাদেশের মানুষ খারাপ আছে এটা বলা কতটা যৌক্তিক? এটা বলে কি মানুষের সামনে ভুল তথ্য উপস্থাপন করা হচ্ছে না?

মো. তাজুল ইসলাম বলেন, অনেক পরিশ্রমের ফলে ড্যাপ গেজেট প্রকাশ হয়েছে। এখন বাস্তবায়ন করতে হবে। এজন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। ঢাকাকে বাসযোগ্য, আধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন করে গড়ে তুলতে এটি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে অনেক দেশের তুলনায় আমরা সফল এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিটি করপোরেশনসহ সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা এবং সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণে এই সফলতা অর্জিত হয়েছে।


আরও খবর

ঢাকায় বাড়ছে বন্যার ঝুঁকি

শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন বাজেট ঘোষণা

মঙ্গলবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০22




পায়রা সেতুর টোল পয়েন্ট থেকে

৩ হাজার ৭শ' ৫৫ পিস ইয়াবাসহ যুবক আটক।

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার লেবুখালী পায়রা সেতুর টোল পয়েন্ট থেকে  ৩ হাজার ৭শ' ৫৫ পিচ ইয়াবাসহ  মোঃ রুবেল সরদার (৩০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে  দুমকি থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবদুস সালামের নেতৃত্বে এসআই সাকায়েত হোসেন, এএসআই মামুনসহ পুলিশের একটি টিম শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় উপজেলার লেবুখালী পায়রা সেতুর টোল প্লাজা এলাকায় অভিযান চালিয়ে রুবেলকে আটক করেন। পরবর্তীতে তার সাথে থাকা ব্যাগ তল্লাশি করে একটি প্যাকেটের মধ্যে ৩ হাজার ৭শ' ৫৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। রুবেল  বাউফল উপজেলার  দাসপাড়া  গ্রামের মোঃ রশিদ সরদারের ছেলে। 

দুমকি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবদুস সালাম ইয়াবাসহ একজন মাদক কারবারি  গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিৎ করে জানান, জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনা অনুযায়ী দুমকি উপজেলাকে মাদকমুক্ত করার লক্ষ্যে আমাদের নিয়মিত অভিযান অব্যাহত রয়েছে এবং মাদকসহ আটককৃত রুবেলকে  নিয়মিত মামলায় শনিবার কোর্টে সোপর্দ করা হবে। 

এদিকে গ্রেপ্তারকৃত রুবেল সর্দার একাত্তরকে জানায়,  ইয়াবার চালান সে শুধু বহন করে ঢাকা থেকে এনেছে,  মাল তার নয় ; ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে ৫ হাজার টাকার চুক্তিতে ইয়াবার প্যাকেটটি সে শুধু বহন করে বাউফল নিয়ে যাচ্ছিল।  তবে ইয়াবার প্রকৃত মালিক কে তা সে নিশ্চিত করতে পারেননি।   


আরও খবর



গজারিয়ায় ওএমএস কার্যক্রম শুভ উদ্বোধন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

গজারিয়া প্রতিনিধিঃ 

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলায় "শেখ হাসিনার বাংলাদেশ, ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ" স্লোগানে সারা দেশে ওএম এস সম্প্রসারণ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে গজারিয়ার আটটি ইউনিয়নের মধ্যে ইমামপুর ইউনিয়ন ও ভাবেরচর ইউনিয়নে খোলা বাজারে ত্রিশ টাকা কেজি মুল্যে চাল বিক্রি কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে । বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ ঘটিকায় ইমামপুর ইউনিয়ন রসুলপুর বাজার ডিলার তোফাজ্জল হোসেন সরকারের কেন্দ্রে এবং ভবেরচর ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স প্রাঙ্গনে ডিলার বোরহান উদ্দিন ফরাজীর কেন্দ্রে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  জিয়াউল ইসলাম চৌধুরী উদ্বোধন করেন । এসময় উপস্থিত ছিলেন ইমামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাফিজুজ্জামান খান জিতু উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা , মোহাম্মদ জাকির হোসেন । ট্যাগ অফিসার খাদিজা আক্তার ।

ভবেরচর ডিলার কেন্দ্রে উপস্থিত ছিলেন ট্যাগ অফিসার উপজেলা সহকারী কৃষি অফিসার বলরাম চন্দ্র রায়, খাদ্য পরিদর্শক মাহবুবা মুস্তফা । উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা মোহম্মদ জাকির হোসেন জানান সপ্তাহে ৫দিন সকাল ৯ হতে বিকাল ৫ পর্যন্ত প্রতিটি ডিলার কেন্দ্রে নির্ধারিত মূল্যে নিম্ন আয়ের মানুষ সপ্তাহে একদিন একজন গ্রাহক চাউল কেনার সুযোগ পাবে । এই কার্যক্রম এক সেপ্টেম্বর ২০২২ হতে ৩০ নভেম্বর ২০২২ পর্যন্ত ৩ মাস চলমান থাকবে ।


আরও খবর