Logo
শিরোনাম
কুমিল্লা রিপোর্টার্স ইউনিটির কমিটি পুনঃগঠন

রনী- সভাপতি, আনোয়ার সাধারন সম্পাদক

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

কুমিল্লা ব্যুরো ঃ

কুমিল্লা রিপোটার্স ইউনিটি (সিআরইউ) এর পূর্ব ঘোষিত কমিটি গঠনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় না হওয়ায় ওই কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও চেতনা ধারণকারীদের নিয়ে পুনরায় এজিএম করে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি পুনঃগঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে নগরীর নজরুল এভিনিউস্থ একটি মিডিয়া সেন্টারে কমিটি গঠন নিয়ে আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন কুমিল্লা প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক তাওহিদ হোসেন মিঠু। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে সভায় সর্বসম্মতিক্রমে গ্লোবাল টেলিভিশনের কুমিল্লা প্রতিনিধি সাইফ উদ্দিন রনীকে সভাপতি, এসএ টিভির কুমিল্লা প্রতিনিধি আনোয়ার হোসাইন’কে সাধারন সম্পাদক ও দেশ টিভির কুমিল্লা প্রতিনিধি মোঃ সুমন কবির ভ‚ইয়াকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট ২ বছর মেয়াদি কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে। 

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, সহ-সভাপতি জাগরনী টিভি’র কুমিল্লা প্রতিনিধি আশিকুর রহমান আশিক, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক দৈনিক রূপসী বাংলার সাইফুল ইসলাম সুমন, অর্থ সম্পাদক দৈনিক শিরোনাম এর সালাউদ্দিন সুমন, দপ্তর সম্পাদক কুমিল্লা টুয়েন্টি ফোর টিভির হেড অব নিউজ তামজীদ হোসেন লিপু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বাংলা টিভির কুমিল্লা প্রতিনিধি আরিফুর রহমান মজুমদার, পাঠাগার সম্পাদক দৈনিক বাংলার আলোড়ন পত্রিকার বার্তা সম্পাদক হাবিবুর রহমান খান, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক- দৈনিক শ্রমিকের নির্বাহী সম্পাদক আরিফ সেলিম ওপেল, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক দৈনিক সকালের সময়ের কুমিল্লা প্রতিনিধি আমেনা বেগম শিউলী, প্রশিক্ষন ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক  দৈনিক আমাদের কণ্ঠের কুমিল্লা প্রতিনিধি মোঃ মনির হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক দৈনিক আজকের জীবন কুমিল্লা প্রতিনিধি নেকবর হোসেন, সমাজকল্যান সম্পাদক পথিকৃত কুমিল্লার স্টাফ রিপোর্টার জুয়েল খন্দকার, নির্বাহী সদস্য হিসেবে আছেন কুমিল্লার আলোর সম্পাদক ও প্রকাশক জসিম উদ্দিন কনক, প্রথম আলো’র এম সাদেক, মোহনা টিভির তাওহিদ হোসেন মিঠু, ডিবিসি নিউজের নাসির উদ্দিন চৌধুরী, দৈনিক বাংলা’র মাহফুজ নান্টু, দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিনের রফিকুল ইসলাম, আজকের পত্রিকার জহিরুল হক বাবু, ডেইলি স্টারের খালিদ বিন নজরুল, দৈনিক আজকের দর্পনের রবিউল বাশার খান।


আরও খবর



ঢাকায় ‘স্মার্ট পার্কিং’ চালু হচ্ছে

প্রকাশিত:শনিবার ১২ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকার সড়কে ইচ্ছামতো ব্যক্তিগত গাড়ি রাখা নিয়ন্ত্রণে পার্কিং সমস্যা সমাধানে অ্যাপভিত্তিক পার্কিং সেবা দিতে ‘স্মার্ট পার্কিং’-এর উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। প্রাথমিকভাবে গুলশানের ৯টি রাস্তার নির্দিষ্ট স্থানে ২০২টি ব্যক্তিগত গাড়ি রাখার সুবিধা দেওয়া হবে ‘স্মার্ট পার্কিং’-এর মাধ্যমে।

তিন মাসের পাইলট প্রকল্পের আওতায় এ মাসের শেষ থেকে অ্যাপভিত্তিক পার্কিংয়ের এ সেবা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। যেখানে সিটি করপোরেশনের সঙ্গে যুক্ত থাকবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ ও আইনশৃঙ্খলা সমন্বয় কমিটি (এলওসিসি)। ঢাকা উত্তর সিটি জানিয়েছে, স্মার্ট পার্কিংয়ের জন্য ব্যবহৃত ‘ডিএনসিসি স্মার্ট পার্কিং’ অ্যাপে রেজিস্ট্রেশন করলেই অ্যাপের মাধ্যমে দেখতে পাবেন গুলশান এলাকায় কোথায় পার্কিং খালি আছে। পার্কিং খালি থাকা অবস্থায় আগে থেকেই প্রি-বুকিং দিয়ে রাখতে পারবেন অ্যাপ ব্যবহারকারীরা। এতে প্রথম দুই ঘণ্টার জন্য পে (পরিশোধ) করতে হবে ৫০ টাকা, পরবর্তী ঘণ্টার জন্য লাগবে ৫০ টাকা এবং চতুর্থ ঘণ্টা থেকে প্রতি ঘণ্টায় ১০০ টাকা করে পে করতে হবে।

পার্কিংয়ের ক্ষেত্রে যাতে বেশি সংখ্যক মানুষ সুবিধা পায় তাই প্রথম দুই ঘণ্টার পরে টাকার পরিমাণ বেশি থাকবে বলে জানিয়েছে উত্তর সিটি করপোরেশন। এ ব্যবস্থাপনায় প্রাথমিক অবস্থায় কোনো ক্যাশ পেমেন্ট না নিয়ে অনলাইন মোবাইল ব্যাংকিং ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ফি পে করতে পারবেন। নির্ধারিত সড়কের পার্কিং এলাকার বাইরে অন্য কোথাও গাড়ি পার্ক করা হলে দিতে হবে মোটা অঙ্কের জরিমানা। এতে কেবল পার্কিংয়ে নয়, নগরে পরিবহন ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা ফিরবে বলে মনে করছেন ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ও বিশেষজ্ঞরা।

ঢাকা শহরে অধিকাংশ বহুতল ভবনে গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা নেই। অনেক ভবনে পার্কিংয়ের জায়গাও দোকান বা অফিসের জন্য ভাড়া দেওয়া হয়। এ কারণে এসব ভবনের সামনে গাড়ি পার্ক করেন চালক বা মালিকরা। এতে সড়কের জায়গা কমে যায়, যান চলাচলে সমস্যা হয়, যানজট হয়। উত্তর সিটি বলছে, রাস্তায় অবৈধভাবে রাখা গাড়ির বিরুদ্ধে ট্রাফিক পুলিশ মামলা করে রাজস্ব আয় করলেও ওই রাজস্বের কোনো ভাগ পায় না উত্তর সিটি। গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা চালু হলে তা থেকে যে ফি আদায় হবে, তা সিটি করপোরেশনের তহবিলে জমা হবে।

উত্তর সিটির ট্রাফিক ইঞ্জিনিয়ারিং সার্কেলের দেওয়া তথ্য মতে, গুলশানের ৬২, ৬৩, ৬৪, ৫৮ ও ১০৩ নম্বর রাস্তার পাশে প্যারালাল পার্কিং, গুলশান-২ এর আউটার সার্কুলার রোডে ৬০ ডিগ্রি পার্কিং, কাঁচাবাজার এলাকায় প্যারালাল পার্কিং এবং গুলশান-২-এর ৪ নম্বর রোডে ইনার সার্কুলার রোডে স্মার্ট পার্কিং ব্যবস্থা চালু হবে। এরই মধ্যে এসব এলাকার সড়কে প্রতিটি গাড়ির জন্য হলুদ রং দিয়ে মার্কিং ও গাড়ি পার্কিংয়ের সাইনবোর্ড লাগানো হয়েছে।



আরও খবর

ই-টিকেটিংয়ে কমেছে ভাড়ার নৈরাজ্য

মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২

ই-টিকেটিংয়ে বন্ধ অতিরিক্ত ভাড়া

শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২




সরকার মিথ্য বলে জনগণকে ভাউতা দিয়ে ক্ষমতায় টিকে আছে

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

সরকার মিথ্য বলে জনগণকে ভাউতা দিয়ে ক্ষমতায় টিকে আছে বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যর সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেছেন মানুষ এই সরকারের পরিবর্তন চায়। শুক্রবার বিকেলে নগরীর চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গনতন্ত্র মঞ্চ আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, দেশের ১৭ কোটি মানুষ। তার মধ্যে ৮ কোটি মানুষই গরিব, ২ কোটি শিক্ষিত যুবক বেকার। এই সরকারের পরিবর্তন চায় বলে  বিএনপির সামাবেশে মানুষ নানা ভাবে ছুটে গেছে। ঢাকায়ও মানুষকে আটকে রাখা যাবে না। 

রাজনৈতিক সভা-সমাবেশে বাধা, হামলা-মামলা, দমন-পীড়ন, গুলি-হত্যা বন্ধ করার দাবিতে ৭টি দলের রাজনৈতিক জোট ‘গণতন্ত্র মঞ্চ’ এ সমাবেশের আয়োজন করে।

সামবেশে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেছেন, আমরা সরকারের পদত্যাগ চাই। জনগন যদি চায় তাহলে কারো শক্তি নাই অবৈধ ভাবে নির্বাচন করার। সরকারের নানা সমালোচনা করে তিনি বলেন, বিদেশীরা এখন তাদের সাথে নেই। এ কারনে এখন সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই। এখন তারা ভয়ে আছে। কখন ক্ষমতা ছাড়তে হয়।

সমাবেশে আরও বক্ত্য রাখেন  বিপ্লবী ওয়াকার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহবায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী, হাসনাত কাউয়ুম। 

বক্তারা বলেন , সরকারি দলের নেতারা বলছেন ‘খেলা হবে’।  এই খেলার কথা বলতে- ক্ষমতাশীনরা মনে করে, গায়ের জোর ছারা ক্ষমতায় থাকার আর কোন পথ নাই।

কারণ এই সরকার ভোটে জিততে পারবে না। কেউ আর তাদের ভোট দিবেনা।


আরও খবর



ভারতে অবৈধ বাংলাদেশিদের সতর্কতা জারি

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 |
Image

ভারতে বাংলাদেশি নাগরিকদের অবৈধভাবে বসবাসের বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। রোববার দেশটির ক্ষমতাসীন নরেন্দ্র মোদির বিজেপি সরকার এই সতর্কতা জারি করে।

বলা হয়, দেশটিতে অবৈধভাবে বসবাসরত বাংলাদেশিরা চাকরি, পাসপোর্ট পেতে ভুয়া পরিচয়পত্র দিয়ে পাওয়া নথি ব্যবহার করছে। রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের পুলিশ মহাপরিদর্শককে বলা হয়েছে, অবৈধ অভিবাসীরা পশ্চিমবঙ্গের বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশ করে লুকিয়ে দেশটিতে বসতি স্থাপন করেছে। তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। নিরাপত্তা সংস্থাগুলোকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের স্থানীয় লোকজন এবং এজেন্টদের একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক সম্পর্কে জানানো হয়েছে। সতর্কতার কয়েকদিন আগে ১৯৫৫ সালের আইনে বাংলাদেশি সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেওয়ার ঘোষণা দেয় ভারত। গুজরাটের দুই জেলায় বসবাসকারী বাংলাদেশি সংখ্যালঘুরা এই সুবিধা পাবেন।


আরও খবর



রূপগঞ্জে র‌্যাবের উপর হামলার ঘটনায় তিনজন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের গত ২৭ সেপ্টেম্বর বিপুল পরিমান হেরোইন ও গাজাসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাবার সময়  র‌্যাবের উপর হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত সন্ত্রাসী মাল্টা রনি, বিল্লাল ও সাইজুদ্দিনকে আটক করেছে র‍্যাব-১১। শুক্রবার ভোররাতে উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের চনপাড়া বস্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

   র‍্যাব-১১ এর সহকারী পরিচালক এএসপি রেজওয়ান সাইদ জিকু জানান, ২৭ সেপ্টেম্বর  র‌্যাব-১ এর একটি অভিযানিক দল  চনপাড়া বস্তিতে মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান গাজা ও হেরোইনসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাবার সময় সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারিদের মূলহোতা ইউপি সদস্য বজলুর নেতৃত্বে ৪/৫'শ সন্ত্রাসী র‍্যাবের উপর হামলা করে। এসময় তারা কয়েকজন র‍্যাব সদস্যকে আহত এবং সরকারি গাড়ি ভাংচুর করে। এঘটনায় ২৮ সেপটেম্বর র‍্যাব বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। শুক্রবার ভোররাতে  র‍্যাব-১১ এর একটি দল চনপাড়া বস্তিতে অভিযান চালিয়ে উক্ত ঘটনায় অভিযুক্ত  ওই তিন সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করে। পরে গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের রূপগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন র‍্যাব। 


আরও খবর



বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি নিয়ে যা বললেন মন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর বিষয়ে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) যাচাই-বাছাই করে সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। বৃহস্পতিবার রাজধানীর ডিপিডিসির আওতাভুক্ত বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

রাজধানীর বেশিরভাগ বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা ভূগর্ভস্থ করা হবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আগামী দুই থেকে তিন বছরের মধ্যে রাজধানীর ধানমন্ডির বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা পুরোপুরি আন্ডারগ্রাউন্ড করা হবে। আর পাঁচ থেকে ছয় বছরের মধ্যে রাজধানী ঢাকার বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থার বড় অংশ আন্ডারগ্রাউন্ড করা হবে।

নসরুল হামিদ বলেন, জ্বালানি সরবরাহ বাড়াতে এরইমধ্যে ব্রুনাই, কাতার ও সৌদি আরবসহ বিভিন্ন দেশের সঙ্গে আলোচনা চলছে। আগামী বছরেও যেন লোডশেডিং না হয় সরকার সেই চেষ্টা করছে। আশা করছি লোডশেডিং সহনীয় পর্যায়ে থাকবে। তবে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার যে প্রভাব সেটা অস্বীকার করার উপায় নেই। এর মধ্যেও আমরা জনভোগান্তি কমাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো।

গত ২১ নভেম্বর পাইকারি পর্যায়ে ১৯.৯২ শতাংশ বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত জানায় বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন-বিইআরসি। সে সময় বিইআরসি চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের দর বৃদ্ধির ঘোষণা দেন। আগে পাইকারি পর্যায়ে ইউনিট প্রতি বিদ্যুতের দর ছিলো ৫ টাকা ১৭ পয়সা, এখন যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ টাকা ২০ পয়সা। 


আরও খবর