Logo
শিরোনাম

রোনালদো নৈপুণ্যে বড় জয়

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ এপ্রিল ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ |

Image

ইয়াশফি রহমান :সৌদি ক্লাব আল-নাসরের হয়ে শুরুটা মোটেও ভালো ছিল না ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর। তবে সেই ধাক্কা সামলে তিনি ছন্দে ফিরেছিলেন। পেয়েছিলেন হ্যাটট্রিক গোলের দেখাও। কিন্তু ক্যারিয়ারের পড়ন্ত বেলায় সিআর সেভেনের সময়টা কাটছে অম্লমধুর। এক ম্যাচ জেতেন তো, হোঁচট খান দুই ম্যাচে। ফলে শিরোপাহীন মৌসুম কাটানোরও দ্বারপ্রান্তে রয়েছেন তিনি। তবে যখনই সমালোচনার মুখে পড়েন, তখনই রোনালদো মাঠের পারফরম্যান্সে তার জবাব দেন। এই পর্তুগিজ সুপারস্টারের নৈপুণ্যের রাতে বড় জয় পেয়েছে আল-নাসর।

এর আগে রোনালদোর সঙ্গে বিরূপ সম্পর্কের কারণে ক্লাব কোচ রুডি গার্সিয়াকে বরখাস্ত করা হয়। কিন্তু তাতে কি আর দলের বাজে দশা ঢেকে রাখা যায়? সুপার কাপ ও কিং কাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পর তাদের এখন একমাত্র ভরসা প্রো লিগ। কিন্তু এই প্রতিযোগিতায়ও তারা শীর্ষস্থান হারিয়েছে। তাই তো লাগাতার ব্যর্থতার মুখে পদত্যাগপত্র জমা দেন আল-নাসর প্রেসিডেন্ট মুসাল্লি আল-মুয়াম্মার।

এমন বিষাদময় পরিস্থিতিতে শুক্রবার (২৮ এপ্রিল) দিবাগত রাতে মাঠে নামেন রোনালদোরা। প্রতিপক্ষ আল-রায়েদের বিপক্ষে সেই ম্যাচে জয় তাদের বিষাদে হয়তো খানিকটা প্রলেপ দেবে। এই জয়ে প্রো লিগের শীর্ষে থাকা আল-ইত্তিহাদের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান তিনে নামিয়ে আনলো রোনালদোর দল। যদি ইত্তিহাদের চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলেছে নাসর।

এদিন গোলের যাত্রাটা করেন রোনালদো নিজেই। ম্যাচের মাত্র ৪ মিনিটের মাথায় তিনি দলের লিড এনে দেন। সেই গোলে প্রধমার্ধ শেষ হয়। দ্বিতীয়ার্ধে আল-নাসরের লিড ব্যবধান দ্বিগুণ করেন আবদুলরাহমান গারিব। এরপর তৃতীয় ও চতুর্থ গোল করে বড় জয়ের উপলক্ষ এনে দেন মোহাম্মেদ মারান ও আবদুলমাজেদ আল সুলাইহিম।

তবে রোনালদোর এই অনন্য ফুটবলীয় প্রদর্শন এমন সময়ে হলো, যখন তাকে ক্লাবে সাইন করানো প্রেসিডেন্টই পদত্যাগ করে বসেছেন। একইসঙ্গে পর্তুগিজ তারকাকে দলে এনে প্রতারিত অনুভূত হওয়ার অভিযোগও করেন আল-মুয়াম্মার। যদিও আল-নাসর তার সেই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। সদ্য পদত্যাগ করা মুসাইলি আল-মুয়াম্মার বলছেন, ‌জীবনে আমি মাত্র দুবার প্রতারিত হয়েছি। প্রথমবার তিনটি কাবাব চাওয়ার পর তারা আমাকে দুটি দেয়, আর দ্বিতীয়টি হচ্ছে যখন আমি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে আল-নাসরে সাইন করাই।

সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকবার সমালোচনার মুখে পড়েছেন রোনালদো। একপর্যায়ে অশালীন অঙ্গভঙ্গির জন্য তাকে সৌদি আরব থেকে তাড়ানোরও দাবি ওঠে। যদিও তার ত্রাতা হয়ে এসেছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। এরপরই গুঞ্জন ওঠে বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজের সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক যাচ্ছে না পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের। সেই অভিযোগও উড়িয়ে দিয়েছেন সিআর সেভেনের বান্ধবী। গানের লাইন শেয়ার করে তিনি লেখেন, পরশ্রীকাতরদের কাজ গুজব তৈরি করা, রটনাকারীরা সেটা ছড়িয়ে দেয় আর বোকারা সেটা বিশ্বাস করে।

আগামী ৩ মে টেবিলের শীর্ষে থাকা আল-ইত্তিহাদ এবং ৮ মে আল খালিজের বিপক্ষে ম্যাচে মুখোমুখি হবে রোনালদোর আল-নাসর।


আরও খবর



দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় ব্যয়বহুল শহর ঢাকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ |

Image

দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষ ব্যয়বহুল শহরের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে জায়গা করে নিয়েছে ঢাকা আর প্রথম অবস্থানটি নিয়েছে ভারতের মুম্বাই সম্প্রতি প্রকাশিত যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কভিত্তিক অর্থনৈতিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান মার্সারেরমার্সার কস্ট অব লিভিং সার্ভে-২০২৪শীর্ষক প্রতিবেদন থেকে তথ্য জানা গেছে 

প্রতিবছর বিদেশিদের জন্য বিশ্বের কোন শহরগুলো কতটা ব্যয়বহুল, সেই তালিকা প্রকাশ করে মার্সার চলতি বছরের তালিকায় দেখা গেছে, বিশ্বে ব্যয়বহুল শহর হিসেবে শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে হংকং এই শহর ছাড়া বিশ্বের বাকি শীর্ষ ব্যয়বহুল শহরগুলো হলোসিঙ্গাপুর, সুইজারল্যান্ডের জুরিখ, জেনেভা, বাসেল, বার্ন, যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক, যুক্তরাজ্যের লন্ডন, বাহামা দ্বীপপুঞ্জের নাসাউ এবং যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস

তালিকায় ১৪০তম অবস্থানে আছে ঢাকা, যা দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে দ্বিতীয় শীর্ষ অবস্থান। গত বছর এই তালিকায় ঢাকার অবস্থান ছিল ১৫৪ নম্বরে। সেই হিোবে এবার ঢাকা ১৪ ধাপ এগিয়েছে। তালিকার ১৩৬ নম্বরে জায়গা করে নিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে প্রথম হয়েছে মুম্বাই। বছরের তালিকায় ভারতের আরও বেশ কয়েকটি শহর স্থান পেয়েছে। দিল্লির অবস্থান ১৬৫তম, চেন্নাই ১৮৯তম, বেঙ্গালুরু ১৯৫তম, হায়দরাবাদ ২০২তম, পুনে ২০৫তম, কলকাতা ২০৭তম 

ছাড়া দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের শহরের মধ্যে শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো ১৯০তম পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদের অবস্থান ২২৪তম তবে বিশ্বের ২২৬টি শহর নিয়ে করা এই তালিকায় নেই এশিয়ার আফগানিস্তান, ভুটান, মালদ্বীপ নেপালের কোনো শহরের নাম তালিকায় শীর্ষে রয়েছে হংকং শহরটি গত বছর এবং তার আগের বছরেও শীর্ষে ছিল আর দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সিঙ্গাপুর 

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, বিশ্বের ২২৬টি শহরের অন্তত ২০০ বিষয়কে বিবেচনায় নিয়ে এই তালিকা প্রস্তুত করেছে মার্কিন ফিন্যান্সিয়াল সার্ভে কোম্পানি মার্সার। বিবেচনার বিষয়গুলোর মধ্যে রয়েছেপরিবহন, খাদ্য, পোশাক, গৃহস্থালি সামগ্রী বিনোদনের পেছনে ব্যয়


আরও খবর

শেখ হাসিনার প্রশংসায় জয়শঙ্কর

শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪




দুদকের মামলায় ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিচার শুরু

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ |

Image



সদরুল আইনঃ


             অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের মামলায় নোবেলজয়ী প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। 


 ফলে মামলাটির বিচার আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হলো। একইসঙ্গে আগামী ১৫ জুলাই মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখও ধার্য করেছেন আদালত।



বুধবার (১২ জুন) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক সৈয়দ আরাফাত হোসেন এ আদেশ দেন।


এর আগে ২ জুন ড. ইউনূসসহ ১৪ আসামির অব্যাহতি চেয়ে করা আবেদন এবং অভিযোগ গঠন বিষয়ে আদেশের জন্য এদিন ধার্য হয়।


গত ২ মে দুদকের মামলায় ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ ১৪ জনকে জামিন দেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানির জন্য ২ জুন দিন ধার্য করা হয়। 


গত বছরের ৩০ মে দুদকের উপপরিচালক গুলশান আনোয়ার বাদী হয়ে মামলাটি করেন।


এ মামলার আসামিরা হলেন, গ্রামীণ টেলিকমের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ ইউনূস, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. নাজমুল ইসলাম, পরিচালক ও সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আশরাফুল হাসান, পরিচালক পারভীন মাহমুদ, নাজনীন সুলতানা, মো. শাহজাহান, নূরজাহান বেগম ও পরিচালক এস. এম হাজ্জাতুল ইসলাম লতিফী, অ্যাডভোকেট মো. ইউসুফ আলী, অ্যাডভোকেট জাফরুল হাসান শরীফ। 



এছাড়াও গ্রামীণ টেলিকম শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মো. কামরুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ মাহমুদ হাসান, শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের দপ্তর সম্পাদক কামরুল হাসান ও প্রতিনিধি মো. মাইনুল ইসলাম।


এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আসামিরা গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক কল্যাল তহবিল থেকে ২৫ কোটি ২২ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন। 



অবৈধভাবে অর্থ স্থানান্তর করা হয়েছে, যা মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে অপরাধ।


আরও খবর



ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে নিহত বেড়ে ১০

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ |

Image

নিজস্ব ডেস্ক:


  ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে নিহত বেড়ে ১০ জনে দাঁড়িয়েছে। নিহতদের মধ্যে রোববার (২৬ মে) দুইজন এবং সোমবার আটজনের মৃত্যু হয়েছে।


এরমধ্যে পটুয়াখালীতে তিনজন, ভোলা ও বরিশালে দুইজন করে এবং সাতক্ষীরা, চট্টগ্রাম ও কুমিল্লায় একজন করে রয়েছে।


প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যমতে, রোববার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার পথে শওকত মোড়ল নামে এক বৃদ্ধ মারা যান। একইদিন বিকেলে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলায় ঘূর্ণিঝডড়ের প্রভাবে প্লা‌বিত এলাকা থেকে বোনকে রক্ষা করতে গিয়ে মো. শরীফুল ইসলাম নামে একজনের মৃত্যু হয়।



এ ছাড়া সোমবার (২৭ মে) ভোরে বরিশাল নগরীর রূপাতলী এলাকায় বহুতল ভবনের দেয়াল ধসে ২ জনের মৃত্যু হয়। নিহতরা হলেন লোকমান ও মোকছেদুল।


ভোলায় ঝোড়ো বাতাসে টিনের ঘর ভেঙে চাপা পড়ে মনেজা খাতুন নামে এক নারী মারা যান। তিনি লালমোহন উপজেলার চর উমেদ গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল কাদেরের স্ত্রী। 



একই জেলার দৌলতখানে গাছ ভেঙে চাপা পড়ে মাইশা (৪) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়। মাইশা দৌলতখান পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের মো. ম‌নির হোসেনের মেয়ে।


চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ থানার টেক্সটাইল এলাকায় দেয়াল চাপায় সাইফুল ইসলাম হৃদয় নামে এক পথচারী মারা যান।


পটুয়াখালীতে ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে তিনজন মারা গেছেন। এর মধ্যে জেলার দুমকী উপজেলায় গাছচাপায় জয়নাল হাওলাদার নামে (৭০) এক বৃদ্ধ মারা যান। তিনি উপজেলার পাঙ্গা‌শিয়া ইউ‌নিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড নলদোয়া‌নি স্লুইসগেট এলাকার বাসিন্দা।


 জেলার বাউফলে উপজেলা পরিষদ গেটের সামনে একটি অফিস ভেঙে চাপা পড়ে মো. আব্দুল করিম (৬০) নামের এক পথচারীর মৃত্যু হয়।


এদিকে, ঘূর্ণিঝড় রেমাল দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। তবে, এর আগেই ঘূর্ণিঝড়টি তাণ্ডবে বহু ঘরবাড়ি ও দোকানপাট তছনছ হয়ে গেছে। বহু এলাকা বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।


এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। জলোচ্ছ্বাসে ভেসে গেছে গবাদি পশু, মাছের ঘের ও ফসলি ক্ষেত। বিভিন্ন এলাকায় সড়কে গাছ পড়ে যোগাযোগ বন্ধ হয়েছে।


আরও খবর

শেখ হাসিনার প্রশংসায় জয়শঙ্কর

শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪




প্লাটিনাম জয়ন্তীতে সব রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানাবে আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ |

Image

সদরুল আইনঃ

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীতে সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। কে প্রতিপক্ষ সেটা বিবেচ্য বিষয় নয়৷

আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সোমবার (১০ জুন) দুপুরে মহানগর ও  ঢাকা জেলার নেতা, মেয়র ও সংসদ সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের পর স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে যখন প্রস্তুত হচ্ছি ঠিক এই সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এসেছে। এবার আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী জাঁকজমকপূর্ণ করা হবে। 

তবে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে আমরা সাজসজ্জা করব না। এ বিষয়ে আমাদের নেত্রীর নির্দেশনা রয়েছে। তবে আমাদের দলের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদযাপন তৃণমূল ওয়ার্ড-ইউনিয়ন পর্যন্ত করা হবে।

তিনি বলেন, ২১ তারিখে ৩ টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন থেকে ধানমন্ডি ৩২ বঙ্গবন্ধু ভবন পর্যন্ত র‌্যালি বের করা হবে। ২৩ তারিখে সকালে বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে প্লাটিনাম জন্মজয়ন্তীর শুভ উদ্বোধন করবেন বঙ্গবন্ধুকন্যা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। 

২৩ তারিখ বিকাল ৩ টায় আলোচনা সভা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। শুরুতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান থাকবে। এছাড়া প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর রবীন্দ্র সরোবরে একটা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, হাতিরঝিলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে ও সাইকেল র‍্যালি অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সারাদেশে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত,  ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, দলের কার্যনির্বাহী সদস্য সাঈদ খোকন ও  ঢাকা ১০ আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌস আহমেদ।।

এছাড়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন চৌধুরী নিখিল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



সাঁতার প্রতিযোগিতায় রেকর্ড সৃষ্টিকরলেন গজারিয়ার মেয়ে মাইশা

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ |

Image

সাইফ পাওয়ারটেক ৩৬তম জাতীয় বয়সভিত্তিক সাঁতার ও ডাইভিং প্রতিযোগিতা ১০০মিটার ব্যাক ষ্ট্রোক নতুন  জাতীয় রেকর্ড সৃষ্টিকরলেন মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায়  মেয়ে ফাতিহা মাহতাব মাইশা


সাইফ পাওয়ারটেক ৩৬তম জাতীয় বয়সভিত্তিক সাঁতার ও 

ডাইভিং প্রতিযোগিতা-২০২৪ ও  ১০০মিটার ব্যাক ষ্ট্রোক নতুন  জাতীয় রেকর্ড সৃষ্টিকরলেন মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায়  মেয়ে ফাতিহা মাহতাব মাইশা,  রসুলপুর    

গ্রামের তার জন্ম, পিতাঃ মুহম্মদ মাহতাব উদ্দিন মাসুম(সংগীত শিক্ষক,কন্ঠ শিল্পী বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশন)  মাতাঃসামছুন নাহার পপি। গত ২০১০ সালে মোসাঃ নাজমা খাতুন বাংলাদেশ আনসার থেকে ১.২০.৭৭ সেকেন্ড তার রেকর্ড ছিল।  আজ ২৫.০৫.২০২৪ সালে সে রেকর্ড ভেঙে ১.২০:০৬ সেকেন্ড নুতুন জাতীয় রেকর্ড সৃষ্টি করলেন মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ার মেয়ে ফাতিহা মাহতাব মাইশা।পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন নৌবাহিনীর প্রধান এডমিরাল এম নাজমুল হাসান।

মাইশার  কৃতিত্ব অর্জনে গজারিয়া উপজেলার সম্মান আলোকিত করায় বাবা সংগীতশিল্পী মাহতাব উদ্দিন মাসুম দেশবাসীর কাছে দোয়া চান।


আরও খবর