Logo
শিরোনাম

রোনালদো নৈপুণ্যে বড় জয়

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ এপ্রিল ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ জুন ২০২৩ | ১৬১জন দেখেছেন

Image

ইয়াশফি রহমান :সৌদি ক্লাব আল-নাসরের হয়ে শুরুটা মোটেও ভালো ছিল না ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর। তবে সেই ধাক্কা সামলে তিনি ছন্দে ফিরেছিলেন। পেয়েছিলেন হ্যাটট্রিক গোলের দেখাও। কিন্তু ক্যারিয়ারের পড়ন্ত বেলায় সিআর সেভেনের সময়টা কাটছে অম্লমধুর। এক ম্যাচ জেতেন তো, হোঁচট খান দুই ম্যাচে। ফলে শিরোপাহীন মৌসুম কাটানোরও দ্বারপ্রান্তে রয়েছেন তিনি। তবে যখনই সমালোচনার মুখে পড়েন, তখনই রোনালদো মাঠের পারফরম্যান্সে তার জবাব দেন। এই পর্তুগিজ সুপারস্টারের নৈপুণ্যের রাতে বড় জয় পেয়েছে আল-নাসর।

এর আগে রোনালদোর সঙ্গে বিরূপ সম্পর্কের কারণে ক্লাব কোচ রুডি গার্সিয়াকে বরখাস্ত করা হয়। কিন্তু তাতে কি আর দলের বাজে দশা ঢেকে রাখা যায়? সুপার কাপ ও কিং কাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পর তাদের এখন একমাত্র ভরসা প্রো লিগ। কিন্তু এই প্রতিযোগিতায়ও তারা শীর্ষস্থান হারিয়েছে। তাই তো লাগাতার ব্যর্থতার মুখে পদত্যাগপত্র জমা দেন আল-নাসর প্রেসিডেন্ট মুসাল্লি আল-মুয়াম্মার।

এমন বিষাদময় পরিস্থিতিতে শুক্রবার (২৮ এপ্রিল) দিবাগত রাতে মাঠে নামেন রোনালদোরা। প্রতিপক্ষ আল-রায়েদের বিপক্ষে সেই ম্যাচে জয় তাদের বিষাদে হয়তো খানিকটা প্রলেপ দেবে। এই জয়ে প্রো লিগের শীর্ষে থাকা আল-ইত্তিহাদের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান তিনে নামিয়ে আনলো রোনালদোর দল। যদি ইত্তিহাদের চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলেছে নাসর।

এদিন গোলের যাত্রাটা করেন রোনালদো নিজেই। ম্যাচের মাত্র ৪ মিনিটের মাথায় তিনি দলের লিড এনে দেন। সেই গোলে প্রধমার্ধ শেষ হয়। দ্বিতীয়ার্ধে আল-নাসরের লিড ব্যবধান দ্বিগুণ করেন আবদুলরাহমান গারিব। এরপর তৃতীয় ও চতুর্থ গোল করে বড় জয়ের উপলক্ষ এনে দেন মোহাম্মেদ মারান ও আবদুলমাজেদ আল সুলাইহিম।

তবে রোনালদোর এই অনন্য ফুটবলীয় প্রদর্শন এমন সময়ে হলো, যখন তাকে ক্লাবে সাইন করানো প্রেসিডেন্টই পদত্যাগ করে বসেছেন। একইসঙ্গে পর্তুগিজ তারকাকে দলে এনে প্রতারিত অনুভূত হওয়ার অভিযোগও করেন আল-মুয়াম্মার। যদিও আল-নাসর তার সেই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। সদ্য পদত্যাগ করা মুসাইলি আল-মুয়াম্মার বলছেন, ‌জীবনে আমি মাত্র দুবার প্রতারিত হয়েছি। প্রথমবার তিনটি কাবাব চাওয়ার পর তারা আমাকে দুটি দেয়, আর দ্বিতীয়টি হচ্ছে যখন আমি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে আল-নাসরে সাইন করাই।

সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকবার সমালোচনার মুখে পড়েছেন রোনালদো। একপর্যায়ে অশালীন অঙ্গভঙ্গির জন্য তাকে সৌদি আরব থেকে তাড়ানোরও দাবি ওঠে। যদিও তার ত্রাতা হয়ে এসেছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। এরপরই গুঞ্জন ওঠে বান্ধবী জর্জিনা রদ্রিগেজের সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক যাচ্ছে না পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের। সেই অভিযোগও উড়িয়ে দিয়েছেন সিআর সেভেনের বান্ধবী। গানের লাইন শেয়ার করে তিনি লেখেন, পরশ্রীকাতরদের কাজ গুজব তৈরি করা, রটনাকারীরা সেটা ছড়িয়ে দেয় আর বোকারা সেটা বিশ্বাস করে।

আগামী ৩ মে টেবিলের শীর্ষে থাকা আল-ইত্তিহাদ এবং ৮ মে আল খালিজের বিপক্ষে ম্যাচে মুখোমুখি হবে রোনালদোর আল-নাসর।


আরও খবর



বাসে আগুন দিলে খবর আছে: কাদের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ জুন ২০২৩ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

আন্দোলনের নামে বাসে আগুন দিলে তাদের খবর আছে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার (২৫ মে) তার সমাধিতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, স্পষ্ট করে আমরা একটা বলতে চাই, যারা আন্দোলনের নামে নির্বাচনকে সামনে রেখে বাসে আগুন দেয়, বাস ভাঙচুর করে, তারা পলিটিক্যাল ভায়োলেন্সে আছে। কাজেই তাদের খবর আছে।

তিনি বলেন, আমরা একটা কথা বারবার বলে আসছি। আমরা আগামী জাতীয় নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে, অবাধ সুষ্ঠুভাবে করব। একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজনে নির্বাচন কমিশনকে আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করব।

কবি নজরুলের চেতনা সম্পর্কে সেতুমন্ত্রী বলেন, কবি কাজী নজরুল ইসলামের অসাম্প্রদায়িক মানবতাবাদী চেতনায় আমরা উজ্জীবিত হতে চাই। আজ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে গড়ে তোলার পথে অন্তরায় সৃষ্টিকারী সাম্প্রদায়িক বিশ্বাস, সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষ এখনো বাংলাদেশে শাখা প্রশাখা বিস্তার করে আছে। আজকের এই দিনে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠন করব।

আওয়ামী লীগের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় উপস্থিত ছিলেন দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, এস এম কামাল হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।


আরও খবর



ঝিনাইগাতীতে মৃত বন্যহাতি উদ্ধার

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ জুন ২০২৩ | ৯০জন দেখেছেন

Image

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে একটি মৃত বন্যহাতি উদ্ধার করেছে বন বিভাগ। শনিবার (৬ মে) সকালে উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের পশ্চিম বাকাকুড়া গ্রামের নুহু মিয়ার ধানখেত থেকে ওই মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ফসল বাঁচাতে স্থানীয় কৃষকের দেওয়া বৈদ্যুতিক তারের সঙ্গে জড়িয়ে হাতিটি মারা গেছে বলে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন বন বিভাগের রাংটিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা।

বন বিভাগের রাংটিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মকরুল ইসলাম বলেন, মৃত হাতিটি পুরুষ। এর বয়স সাড়ে তিন থেকে চার বছর। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ফসল বাঁচাতে স্থানীয় কৃষকের দেওয়া বৈদ্যুতিক তারের সঙ্গে জড়িয়ে হাতিটি মারা গেছে। তবে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে। ঘটনাস্থল থেকে কিছু পরিমাণ বৈদ্যুতিক ও জিআই তার জব্দ করা হয়েছে।

উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. এটিএম ফায়েজুর রাজ্জাক আকন্দ বলেন, সুরতহাল প্রতিবেদনে হাতিটির দেহে কোন ধরণের আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি। তবে পরীক্ষার জন্য কয়েকটি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় রোগ অনুসন্ধাান গবেষণাগারে (সিডিআইএল) ল্যাবে পরীক্ষার পর হাতিটির মৃত্যুর প্রকৃত কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফারুক আল মাসুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে বলেন, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর এ ব্যাপারে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



র‌্যাবের অভিযানে ৬৫ লিটার বাংলা মদ সহ একজন আটক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ জুন ২০২৩ | ৯২জন দেখেছেন

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট কাম্পের অভিযানে ৬৫ লিটার চোলাই মদ সহ এক মাদক কারবারী আটক। 

সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব কাম্প থেকে জানানো হয়,

র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পের একটি চৌকস অপারেশনাল দল ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী অধিনায়ক সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মোঃ রফিকুল ইসলাম এর নেতৃতে বুধবার জয়পুরহাট জেলা সদর থানাধীন সুগারমিল এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৬৫ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার সহ মাদক ব্যবসায়ী শ্রী কাঞ্চন হরিজন (৩৬) নামে একজন কে আটক করা হয়। আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী হলেন, জয়পুরহাট জেলা সদর উপজেলার বিশ্বাসপাড়া রেলকলোনীর মৃত মদন হরিজন এর ছেলে শ্রী কাঞ্চন হরিজন।

র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত আসামী দীর্ঘদিন যাবৎ নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য চোলাই মদ অবৈধভাবে সংগ্রহ পূর্বক জয়পুরহাট জেলার বিভিন্ন স্থানে মাদকসেবী ও মাদক কারবারীদের নিকট সরবরাহ করে আসছিল বলে শিকার করেছেন বলেও জানিয়েছেন র‌্যাব।

এব্যাপারে জয়পুরহাট জেলা সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুযায়ী মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব।


আরও খবর



কেরালায় পর্যটকবাহী নৌকাডুবিতে ২২ জন নিহত

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ জুন ২০২৩ | ১৫১জন দেখেছেন

Image

ভারতের কেরালায় দোতলা একটি হাউসবোট উল্টে ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (৭ মে) সন্ধ্যায় রাজ্যটির মালাপ্পুরম জেলার উপকূলীয় শহর তানুরের সৈকতের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, থুভালথিরাম সৈকতের কাছে নোঙর করা হাউসবোটটি স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার দিকে উল্টে যায়, অতিরিক্ত মানুষের ভারে এ ঘটনা ঘটে।

বোটটিতে টিকিটধারী ৪০ জন থাকলেও টিকিট ছাড়া অনেকে ছিলেন। তবে ঠিক কতজন ছিলেন, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বোটটির নিরাপত্তা ছাড়পত্রও ছিল না বলে খবর ভারতীয় গণমাধ্যমের।

মালাপ্পুরম জেলার সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল নজর বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, অতিরিক্ত যাত্রীর ভারেই বোটটি ডুবে গেছে। উদ্ধার করার পর ১০ জনের মতো যাত্রীকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে এবং আরো অনেককে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

কেরালার মৎস ও বন্দর উন্নয়নমন্ত্রী ভি. আব্দুর রহমান সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বোটটি ঘোলা পানিতে আটকা পড়ে। এর ভেতরে যারা আটকা পড়ে আছেন তাদের উদ্ধার করতে বোটটিকে টেনে আনা হয়। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

হাসপাতালে ভর্তি থাকা যাত্রীদের মধ্যে অন্তত চারজনের অবস্থা সঙ্কটজনক বলে জানিয়েছেন তিনি।

কেরালার রাজ্যের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের (কেএসডিএমএ) মুখপাত্র রয়টার্সকে জানিয়েছেন, জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনীর একটি দল ঘটনাস্থলে কাজ করে। তারা পানির নিচে ক্যামেরা ব্যবহার করে উদ্ধারকাজ চালান।

বেঁচে যাওয়া যাত্রীরা জানিয়েছেন, ঘটনার সময় যাত্রীদের অনেকেই লাইফ জ্যাকেট পরা ছিলেন না।

এ ঘটনায় ঠিক কতজন নিখোঁজ রয়েছেন, তাৎক্ষণিকভাবে তা পরিষ্কার হয়নি। দুর্ঘটনার কারণ তদন্ত করে দেখছে কর্তৃপক্ষ।

এ ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করে মৃতদের প্রত্যেকের পরিবারকে দুই লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।


আরও খবর



কূটনীতিকদের বাড়তি নিরাপত্তার প্রয়োজন নেই

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ জুন ২০২৩ | ৮০জন দেখেছেন

Image

রোকসানা মনোয়ার : বাংলাদেশে বিদেশি কূটনীতিকদের বাড়তি নিরাপত্তা না দেওয়ার সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয় বলছে, বর্তমানে বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং নিয়ন্ত্রণাধীন আছে। তাই কূটনীতিকদের বাড়তি নিরাপত্তা দেওয়ার কোনো আবশ্যকতা নেই।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সেহেলী সাবরীনের দপ্তর থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সরকারের সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা দেওয়া হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, কিছু কিছু গণমাধ্যমে ডিপ্লোম্যাটিক সিকিউরিটি বা বাংলাদেশে বিদেশি কূটনীতিকদের নিরাপত্তা প্রদান নিয়ে কিছু বিভ্রান্তিকর তথ্য আমাদের নজরে এসেছে। প্রতিটি দূতাবাসেই পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা নিরাপত্তা বিধান অব্যাহত রেখেছেন এবং রাষ্ট্রদূতদের নিরাপত্তায় পুলিশ প্রদত্ত গানম্যান নিয়োজিত আছেন। এ কারণে নিরাপত্তা প্রত্যাহার সম্পর্কিত এ বিভ্রান্তকর খবরটি সঠিক নয়।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, বাংলাদেশ বিদেশি কূটনীতিকদের নিরাপত্তা বিধানের জন্য আন্তর্জাতিক আইন ও প্রচলিত রীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। সাধারণত বাংলাদেশ পুলিশ বিদেশি কূটনীতিকদের নিরাপত্তার গুরু দায়িত্বটি সবসময় পালন করে থাকে। কিন্তু বাংলাদেশের কয়েক বছর আগের একটি ঘটনা পরবর্তী সময় থেকে কয়েকজন বিদেশি কূটনীতিককে অলিখিতভাবে গাড়িসহ মূলত নিয়মিত ট্রাফিক মুভমেন্টে সহায়তার জন্য বাড়তি কিছু লোকবল দেওয়া হয়েছিল।

বর্তমানে বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং নিয়ন্ত্রণাধীন আছে। তাই তাদের বাড়তি নিরাপত্তা প্রদানের কোনো আবশ্যকতা নেই। পাশাপাশি বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর কার্যপরিধি বৃদ্ধির জন্য এই বাড়তি সুবিধাটি এখন অব্যাহত রাখা যাচ্ছে না। এখানে স্মরণ করা যেতে পারে যে, পৃথিবীর কোনো দেশেই বাংলাদেশের কোনো রাষ্ট্রদূতকে বাড়তি নিরাপত্তা ও চলাচলের ক্ষেত্রে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণের জন্য কোনো সুবিধা প্রদান করা হয় না।

বিবৃতিতে আরো উল্লেখ করা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু দূতাবাস থেকে একই ধরনের সুবিধার জন্য অনুরোধ করার একটি প্রবণতা আমরা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে তাদের সবার সুবিধার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ আনসার বাহিনীতে একটি চৌকস দল তৈরি করেছে। বিদেশি কূটনীতিকরা তাদের খরচে এ সুবিধাটি গ্রহণ করতে পারবেন।

কোনো দূতাবাস আনসার সদস্যদের এ সুবিধা অব্যাহত রাখতে চাইলে বা বাড়তি সুবিধা নিতে চাইলে আমাদের লিখিতভাবে জানালে আমরা সেই ব্যবস্থাটি গ্রহণ করব। খুব শিগগিরই সরকারের এ সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের সব বিদেশি দূতাবাসকে জানিয়ে দেওয়া হবে।


আরও খবর

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় তেজ

রবিবার ০৪ জুন ২০২৩