Logo
শিরোনাম

র‌্যাবের অভিযানে ৩১০ বোতল ফেন্সিডিল সহ যুবক আটক

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার  :

র‌্যাবের অভিযানে ৩১০ বোতল ফেন্সিডিল সহ মাদক কারবারি যুবক আটক।

সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, কাম্প থেকে প্রতিবেদক কে জানানো হয়, র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পের একটি চৌকশ অপারেশনাল দল কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোঃ মোস্তফা জামান এর নেতৃত্বে সোমবার ১৬ জানুয়ারি ভোর সকালে জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার করিয়া বর্ডার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৩১০ বোতল ফেন্সিডিল সহ মাদক কারবারি বেলাল হোসেন (৩২) নামে এক যুবককে হাতেনাতে আটক করেন। আটককৃত বেলাল হোসেন পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম করিয়া গ্রামের সায়েম উদ্দিন এর ছেলে।

র‌্যাব আরো জানান, আটককৃত বেলাল হোসেন কোরিয়া সীমান্ত এলাকার একজন বড় মাদক ব্যবসায়ী। সে ওই এলাকায় ফেন্সিডিলের ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করত। আজ আমরা খবর পেয়েছি যে, আসামিরা সীমান্ত এলাকা থেকে ফেন্সিডিলের একটি বড় চালান আনতে যাচ্ছে। আর ভোরবেলা সেই মাদক অন্য পার্টিকে পৌঁছে দেওয়া হবে। এমন গোপন খবরের ভিত্তিতে কোরিয়া সীমান্ত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করা হয়। এব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছে র‌্যাব।


আরও খবর



তীব্র শীতে আগুনের তাপনিতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

প্রকাশিত:Wednesday ১১ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :


নওগাঁয় তীব্র শীতে আগুনের তাপনিতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। 

৬ দিন আগে তীব্র শীতে আগুনের তাপ নেওয়ার সময় শান্তনা রানী সাহা (৪৪) নামের গৃহবধূ অগ্নিদগ্ধ হলে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার তার মৃত্যু হয়।

নিহত গৃহবধূ শান্তনা রাণী সাহা নওগাঁর রানীনগর উপজেলার জল-কৈ রায়পুর গুচ্ছগ্রামের বাবলু চন্দ্র সাহার স্ত্রী।

শান্তনা রাণীর ছেলে পুস্কর কুমার সাহা বলেন, 

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে শীত নিবারণের জন্য আমার মা সহ পাড়ার কয়েকজন বাড়ির পাশে খড়ে আগুন লাগিয়ে আগুনের তাপ নিচ্ছিলো।  এক আগুনের তাপ নেওয়ার সময় মায়ের শাড়িতে আগুন লেগে শরীরের বিভিন্ন স্থানে পুরে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়। এ সময় সেখানে থাকা স্থানিয় লোকজন সহ পরিবারের লোকজন মাকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুরের পূর্বে  শান্তনা রাণীর মৃত্যু হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রাণীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, এ ঘটনায় থানায় নিহতের পরিবার বা স্বজনরা কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করেনি।


আরও খবর



ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

মাজহারুল ইসলাম মাসুম, সিনিয়র সাংবাদিক, লেখক ও গবেষক :

ঐতিহাসিক ১০ জানুয়ারি আজ । জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস । ২৯০ দিন পাকিস্তানের কারাগারে থাকার পর ১৯৭২ সালের এইদিনে তিনি পাকিস্তানের বন্দীদশা থেকে মুক্তি পেয়ে সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে প্রত্যাবর্তন করেন। 

পাকিস্তানের মিয়ানওয়ালি কারাগারে দীর্ঘ ৯ মাস কারাভোগের পর মুক্তি লাভ করেন তিনি। পরে তিনি পাকিস্তান থেকে লন্ডনে যান। তারপর দিল্লি হয়ে ঢাকা ফেরেন মুক্তির মহানায়ক। সেদিন বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুকে প্রাণঢালা সংবর্ধনা জানানোর জন্য প্রাণবন্ত অপেক্ষায় ছিল। আনন্দে আত্মহারা লাখ লাখ মানুষ ঢাকা বিমানবন্দর থেকে রেসকোর্স ময়দান পর্যন্ত তাকে স্বতঃস্ফূর্ত সংবর্ধনা জানান। বিকেল ৫টায় রেসকোর্স ময়দানে প্রায় ১০ লাখ লোকের উপস্থিতিতে তিনি ভাষণ দেন। স্বয়ং জাতির জনক তার এই স্বদেশ প্রত্যাবর্তনকে আখ্যায়িত করেছিলেন ‘অন্ধকার হতে আলোর পথে যাত্রা’। সেই থেকে দিনটি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস হিসেবে পালিত হয়।

জীবনমৃত্যুর কঠিন চ্যালেঞ্জের ভয়ঙ্কর অধ্যায় পার হয়ে সারাজীবনের স্বপ্ন, সাধনা ও নেতৃত্বের ফসল স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে মহান এ নেতার প্রত্যাবর্তন স্বাধীনতা সংগ্রামের বিজয় পূর্ণতা পায়। এ কারণেই বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে এটি একটি অবিস্মরণীয় ও ঐতিহাসিক দিন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে।

দিনটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তার বাণীতে বলেন, সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হলেও ১০ জানুয়ারি ১৯৭২ বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমে পূর্ণতা পেয়েছিল বাংলার বিজয়। তাই দিনটি বাঙালি জাতির জীবনে অত্যন্ত আনন্দের ও গর্বের।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, বাঙালির মুক্তি-সংগ্রামের ইতিহাসে এক কালজয়ী মহাপুরুষ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে ১৯৭২ সালের এই দিনে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেন। সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের মানুষ তাদের প্রাণপ্রিয় নেতাকে ফিরে পায়। আমাদের মহান নেতার আগমনে মুক্তিযুদ্ধের চূড়ান্ত বিজয়ের আনন্দ পরিপূর্ণতা লাভ করে।

১৯৭২ সালের ৮ জানুয়ারি পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তির পরপরই তিনি বাংলাদেশে ছুটে আসতে চান। ওই সময়ের প্রেসিডেন্ট জুলফিকার আলি ভুট্টো তাকে তেহরান বা অন্য কোনো এয়ারলাইন্স বেছে নিতে বললে তিনি ব্রিটিশ এয়ারওয়েজে আসার সিদ্ধান্ত নেন। লন্ডন পৌঁছে তিনি বিবিসিতে বিশ্ববাসীর উদ্দেশে একটি ভাষণ দেন। তিনি যখন ভরাট কণ্ঠে তার সুস্থতার কথা জানান, ঠিক সেই মুহূর্তটিতে লাখ লাখ বাঙালি আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়েন। তখনও যুক্তরাজ্য বাংলাদেশকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি না দিলেও তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী অ্যাডওয়ার্ড হিথ বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ সময় ব্রিটিশ বিরোধী দলীয় নেতা হ্যারাল্ড উইলসনও তাকে স্বাগত জানাতে সাক্ষাৎ করেন। তাকে দেয়া হয় রাষ্ট্রীয় অতিথির মর্যাদা।

লন্ডন থেকে দিল্লিতে পৌঁছান অবিস্মরণীয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ভারতের রাষ্ট্রপতি ভিভি গিরি, প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী, সমগ্র দেশবাসী তাকে উষ্ণ সংবর্ধনা দেন। এ সময় তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে অনন্য ভূমিকার জন্য ভারতবাসী ও প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর কাছে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এরপর আসে সেই কাঙ্ক্ষিত মুহূর্ত। ১০ জানুয়ারি দুপুর ১টা ৪১ মিনিটে তিনি পা রাখেন স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের মাটিতে। অধীর আগ্রহে অপেক্ষারত লাখ লাখ বাঙালি সেই মুহূর্তে আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়েন প্রিয় নেতা, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ফিরে পেয়ে। পুরো দেশই তাকে বরণ করে নিতে প্রস্তুত ছিল, তার কিছুটা চিত্র ধরা পড়ে তেজগাঁও বিমানবন্দরে। জয় বাংলা ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠা বিমানবন্দর যেন বাংলার আকাশ-বাতাসকেই প্রতিনিধিত্ব করছিল। পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষ সেই মুহূর্তে অবিস্মরণীয় এই নেতাকে গ্রহণ করতে অংশ নিয়েছিলেন। মহান এই নেতাকে একটু ছুঁয়ে দেওয়ার জন্য সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে এক ধরনের ব্যাকুলতা কাজ করছিল। 

স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে পা রেখেই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন বঙ্গবন্ধু। দীর্ঘ ৯ মাস পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের এ দেশীয় দোসরদের গণহত্যার সংবাদ শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন। বঙ্গবন্ধু বিমানবন্দর থেকে সরাসরি চলে যান রেসকোর্স ময়দানে। সেখানে স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমবেত লাখো জনতার উদ্দেশে বঙ্গবন্ধু ভাষণ দেন। স্বাধীন বাংলাদেশে জনতার উদ্দেশে দেয়া প্রথম সেই ভাষণে বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের জন্য দেশবাসীকে অভিনন্দন এবং যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে গড়ে তোলার কাজে সবাইকে আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান। সেদিন রেসকোর্স ময়দানে লাখো জনতার উদ্দেশে বঙ্গবন্ধু ঘোষণা দেন, ‘রক্ত দিয়ে হলেও আমি বাঙালি জাতির এই ভালোবাসার ঋণ শোধ করে যাব। 


[email protected]


আরও খবর



খাবারের অভাবে, আহত ঈগল কৃষকের বাড়ীতে

প্রকাশিত:Friday ০৩ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি :

খাবারের অভাবে, আহত ঈগল লালমনিরহাটের কৃষকের বাড়ীতে লালিত পালিত হচ্ছে।  

জেলা সদরের কালমাটি নামক গ্রামে  খাবারের অভাবে শারিরিক অসুস্থ ও আহত ঈগল  তিস্তা নদী পারের তামাক ক্ষেতে বসে থাকা দেখে নিজ বাড়ীতে নিয়ে এসে গেলো দুদিন ধরে লালন পালন করছে কৃষক হাছেন আলী।  

হাছেন আলী জানান, নিত্যদিনের মতো নিজন

 তামাক  ক্ষেত পরিচর্যার জন্য গিয়ে দেখে একটা ঈগল বসে আছে।  কাছে গেলেও উড়তে না পারায় তাকে ধরে নিয়ে আসে বাড়ীতে।  তাকে বেকারির বিভিন্ন প্রকার খাবার দিলে সে না খাওয়ায় ভেঙে পরেন হাছেন।  আজ শুক্রবার সকালে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে, ঈগল দেখতে ভীড় জমায় বিভিন্ন এলাকার নানান বয়সী মানুষ।  

পরে তাকে একটি মুরগী ছিলে খেতে দিলে এক পা দিয়ে টেনে ধরে খাওয়া শুরু করে।  কয়েক মিনিটের মধ্যে মুরগির অর্ধেক খেয়ে নেয় ওই ঈগল। তার একটি পা কে বা কাহারা কেটে দেয়ায়  নিজে শিকার করতে না পাওয়ায় হয়তো কদিন থেকে সেই কারণে শারীরিক দূর্বল হয় এবং পাখিটি ক্ষুধার্ত হয়ে পরলে চলাফেরায় দেহ না চলায় মাটিতে লুটিয়ে পরেছে। তাই এই কৃষক তাকে ধরতে পেরেছে।  অনেকের ধারণা পাখিটি হয়তো ইউক্রেনের যুদ্ধপর সময় একটি পা হারিয়ে উড়িয়ে এখানে এসে পরেছে।


আরও খবর



আপাতত হচ্ছে না ইভিএম প্রকল্প

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

ইভিএম প্রকল্পটি আপাতত হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব জাহাঙ্গীর আলম। পরিকল্পনা কমিশন ইভিএম প্রকল্পটি ফেরত পাঠিয়েছে বলেও জানান তিনি।

নির্বাচন কমিশনে এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন সচিব। বর্তমানে যতগুলো ইভিএম আছে সেগুলো দিয়েই সংসদ নির্বাচন হবে বলেও জানান তিনি।এর আগে, নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান জানান, কতগুলো আসনে ইভিএম বা ব্যালটে নির্বাচন হবে তা নিয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেবে কমিশন। একই সাথে বর্তমানে থাকা ইভিএমগুলো দিয়ে কতগুলো নির্বাচন করা যাবে তাও যাচাই করবে ইসি।এ সময় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রসঙ্গে কমিশনার জানান, এ বিষয়ে দুএকদিনের মধ্যেই স্পিকারের সাথে দেখা করবেন সিইসি। 


আরও খবর

সুখবর নেই বাজারে

Saturday ০৪ February ২০২৩




গণধর্ষণের শিকার কিশোরী থানায় মামলা

প্রকাশিত:Wednesday ১১ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Saturday ০৪ February ২০২৩ |
Image

অনুপ সিংহ,নোয়াখালী প্রতিনিধি :


নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক কিশোরীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে।  

আসামিরা হলেন,উপজেলার আলাইয়াপুর ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের আপ্তারামপুর গ্রামের মুন্সি বাড়ির মৃত মো.সাহাব উদ্দিনের ছেলে জুয়েল (২৪) এবং একই ইউনিয়নের হীরাপুর গ্রামের পাটোয়ারী বাড়ির মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে ইমন (২৩)।  


মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে গ্রাম পুলিশ মিজানুর রহমান বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন।


মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,ওই কিশোরীর বাবা পাঁচ বছর আগে মারা যায়। মা বিয়ে করে অন্যত্র চলে যায়। এরপর থেকে ভিকটিম ও তার এক প্রতিবন্ধী বোনসহ তাদের ঘরে বসবাস করে আসছে। তার প্রতিবন্ধী বোন অসুস্থতার কারণে খালার বাড়ি চলে যায়। এই সুযোগে আসামি জুয়েল গত ৫ জানুয়ারি ও ৬ জানুয়ারি রাত সাড়ে নয়টা ও ১০টার দিকে কৌশলে বসত ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক কিশোরীকে ধর্ষণ করে। গত ৮ জানুয়ারি রাত সাড়ে ১০টার দিকে প্রধান আসামির সহযোগীতায় ইমন কিশোরীকে মুঠোফোনে কল দিয়ে দরজা খুলতে বলে। ভিকটিম ভয়ে দরজা খুললে তাকে মুখ চেপে ধরে বসত ঘর থেকে তুলে নিয়ে রান্না ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। বিষয়টি জানাজানি হলে ভিকটিমের নিকটতম কোন আত্মীয় না থাকায় গ্রাম পুলিশ মিজানুর রহমান বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।  

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি বলেন,এই ঘটনায় নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দুজনকে আসামি করে মামলা হয়েছে।  পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছে।


আরও খবর