Logo
শিরোনাম

সিদ্ধিরগঞ্জে একই পরিবারের চার জনের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

ইসলাম ধর্মের আচার অনুষ্ঠান ও ধর্মীয় বিধি বিধান নিয়ম কানুন ভালো লাগা এবং ইসলাম শান্তির ধর্ম, আর এ ধর্মে রয়েছে মানুষের জন্য কল্যাণকর জীবনব্যবস্থা এমন আত্ম-উপলব্ধি থেকে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে একই পরিবারের চার জন হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। 

কোর্ট হলফনামার মাধ্যমে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে তারা শুক্রবার (২ আগস্ট) সিদ্ধিরগঞ্জের জেলেপাড়া পুল সংলগ্ন হজরত শাহজালাল (রহঃ) জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা কামরুজ্জামান নকশাবন্দীর হাতে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে জুম্মা নামাজের পূর্বে কলেমা পড়েন। 

জানাগেছে, সুবল চন্দ্র দাস ইসলাম ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে কোর্ট হলফনামার মাধ্যমে স্বপরিবারে নাম পরিবর্তন করে মো. রফিকুল আলম, স্ত্রী লক্ষী রানী দাস এর স্থলে মরিয়ম বেগম, মেয়ে অরদ্ধা দাস এর স্থলে আয়েশা আক্তার ও ছেলে  লিয়ন দাস এর স্থলে মো. বায়েজিদ নাম রেখে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। 

মো. রফিকুল আলম বলেন, ইসলাম হলো শান্তির বাণী। ইসলাম রয়েছে আল্লাহর অনেক রহমত। তাই আমি হিন্দু থেকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছি। পাশাপাশি আমার সাথে ও আমার পরিবারের সদস্যরাও ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। সকলের নিকট সহযোগিতা কামনা করছি।


আরও খবর



দুবাইয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় হাজীগঞ্জের মোহাম্মদ হোসেনের মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

কামরুজ্জামান টুটুল ঃ

 সোমবার সকালে দুবাইয়ের একটি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়েছে। এর আগে গত সপ্তাহে সে সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্বক আহত হয়। হোসেন উপজেলার ৬ নং বড়কুল ইউনিয়নের দক্ষিন রায়চোঁ গ্রামের জমিরা বাড়ির মফিজুল ইসলামের ছেলে। হোসেনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় বাসিন্দা মো: মোরশেদ আলম।

হোসেনের স্ত্রী  তানিয়া আক্তার জানান, তার স্বামী গত ৫ মাস আগে দুবাইতে শ্রমিক হিসাবে কাজ করতে যায়। গত ১ সপ্তাহ আগে সে বাইসাইকেল চালিয়ে রাস্তা পার হতে গিয়ে প্রাইভেট কারের ধাক্কায় গুরুতর আহত হয়। তখন পুলিশ তাকে উদ্ধার করে একটি হাসপাতালে ভর্তি করায়। ঘটনার প্রায় ১ সপ্তাহ পরে সোমবার সকালে সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। 

বাবা মফিজুল ইসলাম বলেন, ছেলেকে হারিয়েছি এখন তার লাশটা চাই। এ জন্য সরকারের সহযোগীতা কামনা করছি।

মোহাম্মদ হোসেন ২ ভাই ১ বোনের মধ্যে সবার ছোট।  তার  একটি শিশু সন্তান রয়েছে। 


আরও খবর



ব্যাংকে টাকা নেই বলে গুজব ছড়াচ্ছে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

তফসিলি ব্যাংক কিংবা আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ হলে আমানতের বিপরীতে গ্রাহকরা লাখ টাকা পাবে এই খবর গুজব বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ দ্বারা জনগণকে বিভ্রান্ত বা আতংঙ্কিত না হওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বলেন, ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানে টাকা রেখে সেই প্রতিষ্ঠান অবসায়ন হয়ে গেলে সকল আমানতকারী মাত্র এক লাখ টাকা পাবে এমন খবর গুজব। কোনো ব্যাংক যদি বন্ধ হয়ে যায় সেক্ষেত্রে মোট ১৮০ দিনের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক আমানতকারীকে এক লাখ টাকা দিয়ে দিবে। প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে আমানতকারীরা আবেদন করবেন। পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে টাকা বুঝিয়ে দেয়া হবে। পরবর্তীতে পুরো টাকা আইন অনুযায়ী ফেরত দেওয়া হবে। বিষয়ে শঙ্কিত হবার কোনো কারণ নেই।

সিরাজুল ইসলাম জানান, ২০১৯ সালের ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত আমানত বিমা ট্রাস্ট তহবিলে হাজার ৭৪৭ কোটি ৫৭ লাখ টাকা জমা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এর আগে শুধুমাত্র ব্যাংকের আমানতকারীরা বিমা সুবিধা পেতেন। কিন্তু নতুন করে আর্থিক প্রতিষ্ঠান আমানতকারীদের এখানে যুক্ত করা হয়েছে। এখন ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সকল আমানতকারীরা এই সুবিধা পাবেন। প্রথমে ব্যক্তি গ্রাহকের টাকা এবং পর্যায়ক্রমে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের টাকা ফেরত দেওয়া হবে। সবশেষে টাকা পাবেন প্রতিষ্ঠানের মালিক পক্ষ। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে আর কোনো ব্যাংক বন্ধ হবে না বলেও আশ্বাস দিয়েছেন মুখপাত্র।

সিরাজুল ইসলাম বলেন, মাত্র শতাংশ আমানতকারী হিসাব বিমাকৃত নয়, অর্থাৎ শতাংশ আমানতকারী ঝুঁকিতে আছে। এছাড়া বাকি ৯২ শতাংশ আমানতকারীর হিসাব সম্পূর্ণ বিমাকৃত।

তিনি বলেন, ১৯৮৪ সালে আমানতকারীদের স্বার্থ সুরক্ষায় যে আইন করা হয় সেখানে আমানতের অর্থ ফেরত দেওয়ার পরিমাণ ছিল ৬০ হাজার টাকা। পরবর্তীতে ২০০০ সালে আমানত বিমা আইন প্রবর্তন করে এক লাখ টাকা করা হয়। বর্তমানে এই আইনে আমানতকারীরা এক লাখ টাকা পর্যন্ত পাওয়ার নিশ্চয়তা আছে। তবে সংশোধিত আইনে এটি বাড়িয়ে লাখ টাকা করার প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২




ডায়াবেটিসকে জানুন...

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

যদি পরিবারে বাবা-মা কারো ডায়াবেটিস থাকে, তবে বয়স ৩০ পেরোলেই সচেতন হতে হবে।

ডায়াবেটিস হয় মাত্রা কত হলে : খালি পেটে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা ৭ মিলিমোললিটার বা তার বেশি হলে এবং খাবার দুই ঘণ্টা পর রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা ১১ দশমিক ১ মিলি মোললিটার বা তার বেশি হলে ডায়াবেটিস হয়েছে বলে ধরে নেওয়া হয়।

ধরন : ডায়াবেটিস মূলত দুই ধরনের। টাইপ-১ বা ইনসুলিন ডিপেনডেন্ট ডায়াবেটিস মেলাইটাস যা ইনসুলিন উৎপাদন কম হলে বা না হলে দেখা দেয়। টাইপ-২ বা নন ইনসুলিন ডিপেনডেন্ট ডায়াবেটিস মেলাইটাস যা ইনসুলিন ঠিকমতো কাজ না করলে বা উৎপাদন অনুপাতে রোগীর শরীরের ওজন বেশি হলে দেখা দেয়।

হাঁটা : ডায়াবেটিস রোগীর জন্য হাঁটা সবচেয়ে ভালো ব্যায়াম। সুবিধামতো একটি নির্দিষ্ট সময়ে অন্তত ৪৫ মিনিট একটু বেশি গতিতে হাঁটতে হবে।

খাবার : দইয়ে ক্যালোরি কম থাকে। ফলে দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণ করে এবং রক্তে সুগারের মাত্রা বাড়তে দেয় না। ডায়াবেটিসে আক্রান্তদের শুকনো শিম খাওয়া উচিত। অতিরিক্ত সোডিয়ামযুক্ত ক্যানজাত শিম নয়। শিমে গ্লুুকোজ উপাদান কম থাকে। ফলে এটি যেকোনো শ্বেতসার জাতীয় খাবারের চেয়ে রক্তে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে অনেক বেশি। শিমে উচ্চহারে আঁশ থাকে। ফলে তা রক্তে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করার পাশাপাশি কোলেস্টেরলের মাত্রাও কমিয়ে রাখে। তা ছাড়া সাদা আটা, সাদা চালের ভাত-রুটি রক্তে সুগারের মাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখেতে তাই লাল আটাও লাল চালের ভাত-রুটি খেতে হবে। খেজুর অনেক মিষ্টি কিন্তু এটা খেলে রক্তে সুগারের মাত্রা বাড়বে না। প্রতিদিন যেকোনো ধরনের নিজের হাতের একমুঠ পরিমাণ বাদাম খাওয়ার অভ্যাস করুন। 


সূত্র : বিএসএমএমইউ


আরও খবর

কী হয়, চোখের পাতা কাঁপলে ?

মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২

যোগাসনে ব্যায়াম হবে পুরো শরীরের

সোমবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২




আত্রাই-রাণীনগরে সমবায় দিবস পালিত

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) : 

নওগাঁর আত্রাই এবং রাণীনগর উপজেলায় সমবায় দিবস পালিত হয়েছে। “বঙ্গবন্ধুর দর্শণ,সমবায়ে উন্নয়”প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে এই দুই উপজেলায় পৃথক পৃথকভাবে দিবসটি পালন করা হয়। এলক্ষে পতাকা উত্তোলন,র‌্যালী ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

আত্রাই উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা সমবায় বিভাগের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ হলরুমে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইকতেখারুল ইসলাম। এসময় অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবাদুর রহমান,ভাইস চেয়ারম্যান শেখ হাফিজুর রহমান,উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা এসএম নিজাম উদ্দীন,উপজেলা সবুজ বাংলা সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমবায় সমিতির সভাপতি রনিকুজ্জামান প্রমূখ উপস্থি ছিলেন।অনুষ্ঠানে ৯টি শ্রেষ্ঠ সমবায় সমিতি এবং এক জন শ্রেষ্ঠ সমবায়ীকে সম্মাননা স্বারক দেয়া হয়। এছাড়া রাণীনগর উপজেলায় যথাযথভাবে দিবসটি পালন করা হয় 


আরও খবর



নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় মেয়ের মৃত্যু, মা- বাবা -বোন গুরুতর আহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

 শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ


নওগাঁয় ট্রাক ও মটরসাইকেল সংঘর্ষে জান্নাতুল ফেরদৌস (১১) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এদূর্ঘটনায় নিহত জান্নাতুল ফেরদৌস এর মা  মোসাঃ শান্তনা আক্তার (৩১) ও তার বাবা আবু সাইম সরকার (৩৮) ও ছোট বোন মোসাঃ লামিয়া জান্নাত (৫) মারান্তক আহত হয়েছেন।  আবু সাইম সরকার নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার উত্তর গ্রামের আব্দুল হামিদ সরকারের ছেলে।  

স্থানীয় ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার ১৮ নভেম্বর আবু সাইম সরকার তার স্ত্রী ও কন্যা শিশুকে নিয়ে একটি মোটরসাইকেল যোগে শশুর বাড়ী পত্নীতলা উপজেলার আমন্ত গ্রামে যাওয়ার পথে

পত্নীতলা উপজেলার  নজিপুর-সাপাহার  আঞ্চলিক সড়কের আত্রাই নদীর সেতুর উপর পৌছালে এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকের সাথে বিকাল ৫ টার দিকে  মটরসাইকেলের সাথে সংঘর্ষ ঘটলে মোটরসাইকেল আরোহীরা সবাই ছিটকে পরে। স্থানীয়রা তাদের ৪ জন কে  উদ্ধার করে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক শিশু  জান্নাতুল ফেরদৌস(১১) কে মৃত ঘোষনা করেন। এবং অপর ৩ জনের মধ্যে  সাইম ও শান্তনার অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় তাদের কে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে রেফার্ড করেন। 

সত্যতা নিশ্চিত করে পত্নীতলা থানার ওসি সেলিম রেজা বলেন

এক কন্যা  শিশু মারা গেছে এবং ৩ জন আহত হয়েছে তারা ৪ জনই একই মটরসাইকেলে ছিল।


আরও খবর