Logo
শিরোনাম

সৌদিতে প্রাইভেটকার খাদে পড়ে কুমিল্লার ৩ যুবক নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

 কুমিল্লা ব্যুরো ঃ

সৌদি আরবে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রাইভেটকার খাদে পড়ে কুমিল্লার মনোহরগঞ্জের দুই ভাইসহ তিন যুবক নিহত হয়েছেন। 

তাদের তিন জনই কুমিল্লা জেলারম নোহরগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা। 

বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টার দিকে আল কাসিম শহরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ফারুক খানের চাচাতো ভাই মো. ফরিদ জানান, ফারুক খান (২৩) ও মো. পারভেজ (২১) তারা সম্পর্কে ভাই। ফারুক ৩ বছর আগে ও পারভেজ ৬ মাস আগে সৌদি আরবে যায়। সৌদি আরবের তাইফ শহরে তারা এল্যেমোনিয়্যামের কাজ করতো। কাসিম শহর থেকে তাইফ শহরে কাজে যাওয়ার সময় বৃহস্পতিবার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রাইভেট খাদে পড়ে যায়। এসময় প্রাইভেট কারে থাকা ৫ জনের তিনজন মারা যায়। ও দুইজন একটি গুরুতর আহত অবস্থায় সেখানকার একটি হাসপাতালে ভর্তি আছে।


নিহতরা হলেন- মনোহরগঞ্জ উপজেলার ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে মো. ফারুক খান (২৩) ও মো. পারভেজ (২০) এবং একই এলাকার আবুল বাশারের ছেলে মো. সাদ্দাম (২১)। ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আশিকুর হিরণকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহতদের পরিবারের বরাতে চেয়ারম্যান বলেন, ‘তিন বছর আগে ফারুক সৌদি আরব যান। মাস তিনেক আগে তার ছোট ভাই পারভেজকেও নিয়ে যান। সাদ্দামও বছর তিনেক আগে সৌদিতে পাড়ি জমান। বৃহস্পতিবার তারা তিনজন আল কাসিম শহরের উদ্দেশ্যে প্রাইভেটকার নিয়ে বের হন। সেখানে পৌঁছার আগে গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পার্শ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান। তাদের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 এ বিষয়ে কুমিল্লা জনশক্তি রপ্তানি অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক দেবব্রত ঘোষ বলেন, ‘মরদেহ দেশে আনতে নিহতদের পরিবারকে আমাদের পক্ষ থেকে সব রকমের সহযোগিতা করা হবে।’


আরও খবর



রাণীনগরে চুরির ঘটনায় আরো ৬টি মোবাইল ফোন উদ্ধার সহ গ্রেপ্তার-১

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :

নওগাঁর রাণীনগরে মোবাইল শো-রুমে চুরির ঘটনায় নাইম শাহানা (৩০) নামে আরো একজনকে গ্রেপ্তার করেছে থানাপুলিশ । এসময় চুরি যাওয়া আরো ৬টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে গত ১১ নভেম্বর থানাপুলিশ আন্ত:জেলা চোর চক্রের ৫ জনকে গ্রেপ্তারসহ প্রাই আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের চুরি যাওয়া ১৪টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে।

থানাপুলিশ জানায়,গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে উপজেলা সদর হাসপাতাল এলাকায় সুফিয়া মার্কেটে হাসিবুল হাসানের মোবাইল শো-রুমের দোকানের তালা কেটে প্রায় আট লক্ষ টাকা মূল্যের ৪৭টি বিভিন্ন ব্রান্ডের মোবাইল চুরির ঘটনা ঘটে। এঘটনায় দোকান মালিক ১৯ সেপ্টেম্বর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার ও চোর চক্রকে ধরতে মাঠে নামে পুলিশ। গত ১১নভেম্বর ভোর রাত থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে আন্ত:জেলা চোর চক্রের ৫সদস্যকে গ্রেপ্তারসহ প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের ১৪টি চোরাই মোবাইল ফোন উদ্ধার করে। এর পর গ্রেপ্তারকৃতদের ৭দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে সোর্পদ করলে আদাল ৩দিনের রিমান্ড মুঞ্জুর করে। আসামীদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্য মতে,শুক্রবার রাতে নওগাঁ সদর উপজেলার গুমারদহ গ্রামে অভিযান চালিয়ে নাইম শাহানাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তার নিকট থেকে ৬টি চোরাই মোবাইল উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তার নাইম নওগাঁ সদর উপজেলার গুমারদহ গ্রামের শাহাদত শাহানার ছেলে। 

রাণীনগর থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন,চুরির ঘটনায় এপর্যন্ত ৬জনকে গ্রেপ্তারসহ মোট ২০টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। অবশিষ্ঠ চোরাই মালামাল উদ্ধারসহ জরিতদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গ্রেপ্তার নাইমকে শনিবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


আরও খবর



মালয়েশিয়ার সাধারণ নির্বাচন

প্রকাশিত:রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

মালয়েশিয়ার সাধারণ নির্বাচনে আনোয়ার ইব্রাহিম ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিনের নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোটের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে দেশটি ঝুলন্ত পার্লামেন্টের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

রবিবার ঘোষিত ফলাফলে দেখা যাচ্ছে নির্বাচনে পার্লমেন্টের ২২২টি আসনের মধ্যে আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান জোট ৮২টি আসন পেয়েছে আর এর ঠিক পেছনেই আছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিনের ন্যাশনাল এলায়েন্স। দলটি পেয়েছে ৭৩টি আসন। তবে একটি আসনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়নি আর দুটি আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি।
আনোয়ার ইব্রাহিম এবং মুহিদ্দিন দুজনই দাবি করেছেন যে সরকার গঠন করার মতো পর্যাপ্ত সমর্থন তাদের রয়েছে তবে দুজনের কেউই খোলাসা করেননি কাদের সঙ্গে তারা জোট করবেন।


আরও খবর

স্পেনে ইউক্রেন দূতাবাসে বোমা বিস্ফোরণ

বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২




বিনিয়োগ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে বিনিয়োগ করুন

প্রকাশিত:সোমবার ২১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

অধ্যাপক ড আল আমিন, শিক্ষক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ঃ

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা  নতুন যেই নির্দেশনা দিয়েছে, তাতে তারল্য কিছু বাড়বে বলে আমি মনে করি। এখানে ক্রেতা-বিক্রেতার পারস্পরিক সম্মতিতে  ব্লক মার্কেটে ফ্লোর প্রাইসের চেয়ে ১০% কম মূল্যে ক্রয়-বিক্রয় হবে,মূল বাজারে ফ্লোর প্রাইস বহাল থাকবে। এখানে  ১০% কমে যিনি ক্রয় করছেন তিনি যদি এক বছরও অপেক্ষা করেন,অন্যান্য যেকোন সঞ্চয় স্কিমের চেয়ে এটা কম লাভজনক হবে না। আর যিনি বিক্রয় করছেন,হয়তো তার খুব প্রয়োজন অথবা উনি তার বিনিয়োগ অন্য কোন শেয়ারে করতে পারেন,যেখানে তিনি হয়ত ১০% বেশি মুনাফা পাবেন বলে প্রত্যাশা করছেন। আমাদের দেশের পুঁজিবাজারের দুর্ভাগ্য ফেসবুক ভিত্তিক নানা গুজবে অনেকে বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন,এটাকেই কাজে লাগায় নানা প্রতারক চক্র। আপনি কি কখনো শুনেছেন,বড় কোন বিনিয়োগকারী,অথবা এমন কোন নির্ভরযোগ্য ফেসবুক পেইজ আছে,যেটা ফলো করে আপনি অনেক বেশি লাভবান হয়ে গেছেন? অবশ্যই না।কারণ ঐসব ফেসবুক গ্রুপ কারো কারো দালাল হিসাবে কাজ করে,যেসব বিনিয়োগকারী কম বুঝেন তাদের বেশি ক্ষতি হয় ঐসব গুজবে কান দিয়ে। তাই দোষটা কার?যিনি ফেসবুকের গুজব বিশ্বাস করেন,নাকি যিনি গুজব ছড়িয়ে থাকেন?আমি মনে করি যিনি গুজব বিস্বাস করেন,বেশি দোষ তার। ঐসব ফেসবুক গ্রুপের কি দায়,আপনাকে মুনাফা করিয়ে দেয়ার?আপনাকে মুনাফা অন্য কেউ কেন করিয়ে দিবে,কোন স্বার্থ ছাড়া? তাই ঐসব দালাল গ্রুপের খপ্পরে পড়ে, আপনি পুঁজি হারাবেন?নাকি বিনিয়োগ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে,সময় নিয়ে বিনিয়োগ করবেন,সম্পূর্ন আপনাদের সিদ্ধান্ত। আমরা খুব সহজেই অন্যের কথায় প্রভাবিত হয়ে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে,অন্যকে দোষারোপ করি,কখনো নিজের অজ্ঞতাকে দোষ দেই না। সবাইকে পুঁজিবাজারে কেন আসতে হবে? যারা বুঝবে শুধু তাদের আসা উচিৎ, না বুঝলে নানা দালাল গ্রুপ আপনাকে যা বুঝাবে আপনি তাই বুঝে নিজ দায়িত্বে নিজেদের ক্ষতি করতেই পারেন,কিন্তু কাউকে এটার জন্য দায়ী করা ঠিক হবে না। কারণ আপনার ঝুকি নেয়ার সক্ষমতার উপর নির্ভর করে,আপনার বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত। তাই কোন গুজবে কান না দিয়ে,কোন দালাল চক্রের হাতে না পড়ে, নিজের বুদ্ধিমত্তা দিয়ে বিনিয়োগ করুন আর নিজের পুঁজির নিরাপত্তা দিন।


আরও খবর

মূল্যস্ফীতি কমে এসেছে’

শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2




নারায়ণগঞ্জে ব্যবসায়ী স্বপন কুমার হত্যা মামলায়

পিন্টু দেবনাথকে মৃত্যুদন্ডের রায় ও রত্না রাণী চক্রবর্তীকে যাবজ্জীবন সাজা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল ঃ


নারায়ণগঞ্জ নগরের আলোচিত ব্যবসায়ী স্বপন কুমার সাহা ওরফে সাইদুল ইসলাম স্বপন হত্যা মামলায় স্বর্ণলংকার ব্যবসায়ী পিন্টু দেবনাথকে মৃত্যুদন্ডের রায় ও রত্না রাণী চক্রবর্তীকে যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছে আদালত। দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ-১ আদালতের বিচারক উম্মে সারাবান তহুরা এ রায় দেন। রায়ে সাজাপ্রাপ্ত দুই আসামীকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে আর অপর আসামী আব্দুল্লাহ আল মামুন মোল্লাকে খালাস দেয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় দুই আসামী আদালতে উপস্থিত ছিল।


অতিরিক্ত পিপি মাকসুদা আহম্মেদ জানান, নিহত স্বপন কুমার সাহা ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে সাইদুল ইসলাম স্বপন নাম ধারণ করে মুসলিম নারী বিয়ে করেন। স্বপন ও পিন্টু তারা দুইজন বন্ধু ছিলেন। ২০১৬ থেকে থেকে নিখোঁজ থাকে স্বপন।২০১৬ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে তাকে হত্যা পর মরদেহ সাত টুকরো করে শীতলক্ষ্যা নদীতে ফেলে দেয় আসামিরা। ২০১৮ সালের ১৬ জুলাই তিনজনকে অভিযুক্ত করে নিহতের বড় ভাই অজিত কুমার সাহা হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশি তদন্ত ও ষোল জন সাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণ প্রমানের ভিত্তিতে আদালত আজ পিন্টু দেবনাথকে মৃত্যুদন্ড ও রত্না রাণীকে যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছে। মামলার অপর আাসামী  আব্দুল্লাহ আল মামুনকে খালাসের আদেশ দেন।

নারায়ণগঞ্জ নগরের স্বর্ণপট্টি এলাকায় জুয়েলারী ব্যবসায়ী প্রবীর হত্যা মামলা তদন্ত করতে গিয়ে বেরিয়ে আসে স্বপন হত্যা মামলার রহস্য। ঘাতক পিন্টু দেবনাথ কে এর আগে প্রবীর হত্যা মামলায়ও মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়েছে। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত রত্না রাণী চক্রবর্তী ঘাতক পিন্টু দেবনাথের পরকীয়া প্রেমিকা ছিলেন।


আরও খবর



রাণীনগরে নারীর আচল থেকে ৩১০পিস ইয়াবা উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :

নওগাঁর রাণীনগর থানাপুলিশ অভিযান চালিয়ে হামিদা বিবি (৩৫) নামে এক নারীকে আটক করেছে। আটককালে হামিদার আচল থেকে ৩১০পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে পুলিশ। আটক হামিদা উপজেলার গোনা মধ্যপাড়াগ্রামের ইমদাদুল হকের স্ত্রী। তার বিরুদ্ধে রাতেই মাদক মামলা রুজু করে শুক্রবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

রাণীনগর থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন,বৃহস্পতিবার রাত অনুমান পৌনে ৮টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার গোনা মধ্যপাড়া গ্রামে অভিযান পরিচালনা করা হয়।এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হামিদা বিবি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় সন্দেহ হওয়ায় ওই নারীকে ধরে তল্লাশী করে পড়নের আচল থেকে প্রায় ৯৩ হাজার টাকা মূল্যের ৩১০পিস (অ্যামফিটামিন জাতীয় মাদক) ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ তাকে আটক করা হয়। রাতেই তার বিরুদ্ধে মাদক মামলা রুজু করে শুক্রবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


আরও খবর