Logo
শিরোনাম

ভুলত্রুটি সংশোধন করে গঠনতন্ত্রে পরিবর্তন আনা হবে: কাদের

প্রকাশিত:Wednesday ০৯ November ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

 দলের গঠনতন্ত্রে বড় ধরণের পরিবর্তন আসছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। যেসব ভুলত্রুটি আছে সেগুলো সংশোধনের চেষ্টা করা হবে বলেও জানান তিনি।

সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। কাদের আরো বলেন, বিএনপি তত্ত্বাবধায়ক ছাড়া নির্বাচনে যাবে না বললেও শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে আসবে। টাকার উৎস এবং কাকে কত দেয়া হবে সেই হিসেবও দলটি করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। দেশকে সঙ্কট থেকে বের করা বিএনপির লক্ষ্য নয়, বরং রাজনৈতিকভাবে ক্ষমতায় যাওয়াই দলটির লক্ষ্য বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের এই নেতা। 


আরও খবর



ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

মাজহারুল ইসলাম মাসুম, সিনিয়র সাংবাদিক, লেখক ও গবেষক :

ঐতিহাসিক ১০ জানুয়ারি আজ । জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস । ২৯০ দিন পাকিস্তানের কারাগারে থাকার পর ১৯৭২ সালের এইদিনে তিনি পাকিস্তানের বন্দীদশা থেকে মুক্তি পেয়ে সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে প্রত্যাবর্তন করেন। 

পাকিস্তানের মিয়ানওয়ালি কারাগারে দীর্ঘ ৯ মাস কারাভোগের পর মুক্তি লাভ করেন তিনি। পরে তিনি পাকিস্তান থেকে লন্ডনে যান। তারপর দিল্লি হয়ে ঢাকা ফেরেন মুক্তির মহানায়ক। সেদিন বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুকে প্রাণঢালা সংবর্ধনা জানানোর জন্য প্রাণবন্ত অপেক্ষায় ছিল। আনন্দে আত্মহারা লাখ লাখ মানুষ ঢাকা বিমানবন্দর থেকে রেসকোর্স ময়দান পর্যন্ত তাকে স্বতঃস্ফূর্ত সংবর্ধনা জানান। বিকেল ৫টায় রেসকোর্স ময়দানে প্রায় ১০ লাখ লোকের উপস্থিতিতে তিনি ভাষণ দেন। স্বয়ং জাতির জনক তার এই স্বদেশ প্রত্যাবর্তনকে আখ্যায়িত করেছিলেন ‘অন্ধকার হতে আলোর পথে যাত্রা’। সেই থেকে দিনটি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস হিসেবে পালিত হয়।

জীবনমৃত্যুর কঠিন চ্যালেঞ্জের ভয়ঙ্কর অধ্যায় পার হয়ে সারাজীবনের স্বপ্ন, সাধনা ও নেতৃত্বের ফসল স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে মহান এ নেতার প্রত্যাবর্তন স্বাধীনতা সংগ্রামের বিজয় পূর্ণতা পায়। এ কারণেই বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে এটি একটি অবিস্মরণীয় ও ঐতিহাসিক দিন হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে।

দিনটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তার বাণীতে বলেন, সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হলেও ১০ জানুয়ারি ১৯৭২ বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমে পূর্ণতা পেয়েছিল বাংলার বিজয়। তাই দিনটি বাঙালি জাতির জীবনে অত্যন্ত আনন্দের ও গর্বের।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, বাঙালির মুক্তি-সংগ্রামের ইতিহাসে এক কালজয়ী মহাপুরুষ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে ১৯৭২ সালের এই দিনে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেন। সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের মানুষ তাদের প্রাণপ্রিয় নেতাকে ফিরে পায়। আমাদের মহান নেতার আগমনে মুক্তিযুদ্ধের চূড়ান্ত বিজয়ের আনন্দ পরিপূর্ণতা লাভ করে।

১৯৭২ সালের ৮ জানুয়ারি পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তির পরপরই তিনি বাংলাদেশে ছুটে আসতে চান। ওই সময়ের প্রেসিডেন্ট জুলফিকার আলি ভুট্টো তাকে তেহরান বা অন্য কোনো এয়ারলাইন্স বেছে নিতে বললে তিনি ব্রিটিশ এয়ারওয়েজে আসার সিদ্ধান্ত নেন। লন্ডন পৌঁছে তিনি বিবিসিতে বিশ্ববাসীর উদ্দেশে একটি ভাষণ দেন। তিনি যখন ভরাট কণ্ঠে তার সুস্থতার কথা জানান, ঠিক সেই মুহূর্তটিতে লাখ লাখ বাঙালি আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়েন। তখনও যুক্তরাজ্য বাংলাদেশকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি না দিলেও তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী অ্যাডওয়ার্ড হিথ বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এ সময় ব্রিটিশ বিরোধী দলীয় নেতা হ্যারাল্ড উইলসনও তাকে স্বাগত জানাতে সাক্ষাৎ করেন। তাকে দেয়া হয় রাষ্ট্রীয় অতিথির মর্যাদা।

লন্ডন থেকে দিল্লিতে পৌঁছান অবিস্মরণীয় নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ভারতের রাষ্ট্রপতি ভিভি গিরি, প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী, সমগ্র দেশবাসী তাকে উষ্ণ সংবর্ধনা দেন। এ সময় তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে অনন্য ভূমিকার জন্য ভারতবাসী ও প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর কাছে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এরপর আসে সেই কাঙ্ক্ষিত মুহূর্ত। ১০ জানুয়ারি দুপুর ১টা ৪১ মিনিটে তিনি পা রাখেন স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের মাটিতে। অধীর আগ্রহে অপেক্ষারত লাখ লাখ বাঙালি সেই মুহূর্তে আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়েন প্রিয় নেতা, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ফিরে পেয়ে। পুরো দেশই তাকে বরণ করে নিতে প্রস্তুত ছিল, তার কিছুটা চিত্র ধরা পড়ে তেজগাঁও বিমানবন্দরে। জয় বাংলা ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠা বিমানবন্দর যেন বাংলার আকাশ-বাতাসকেই প্রতিনিধিত্ব করছিল। পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষ সেই মুহূর্তে অবিস্মরণীয় এই নেতাকে গ্রহণ করতে অংশ নিয়েছিলেন। মহান এই নেতাকে একটু ছুঁয়ে দেওয়ার জন্য সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে এক ধরনের ব্যাকুলতা কাজ করছিল। 

স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে পা রেখেই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন বঙ্গবন্ধু। দীর্ঘ ৯ মাস পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের এ দেশীয় দোসরদের গণহত্যার সংবাদ শুনে কান্নায় ভেঙে পড়েন। বঙ্গবন্ধু বিমানবন্দর থেকে সরাসরি চলে যান রেসকোর্স ময়দানে। সেখানে স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমবেত লাখো জনতার উদ্দেশে বঙ্গবন্ধু ভাষণ দেন। স্বাধীন বাংলাদেশে জনতার উদ্দেশে দেয়া প্রথম সেই ভাষণে বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের জন্য দেশবাসীকে অভিনন্দন এবং যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে গড়ে তোলার কাজে সবাইকে আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান। সেদিন রেসকোর্স ময়দানে লাখো জনতার উদ্দেশে বঙ্গবন্ধু ঘোষণা দেন, ‘রক্ত দিয়ে হলেও আমি বাঙালি জাতির এই ভালোবাসার ঋণ শোধ করে যাব। 


[email protected]


আরও খবর



স্মার্ট হবে বিচ্ছিন্ন দ্বীপ ‘রাঙ্গাবালী’-এমপি মহিব

প্রকাশিত:Friday ২০ January ২০23 | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

কামরুল হাসান,পটুয়াখালী :

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে নৌকায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী) আসনের সংসদ সদস্য মহিব্বুর রহমান মহিব। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ উন্নয়নের সরকার। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগের বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে ডিজিটাল থেকে ‘স্মার্ট বাংলাদেশে’ রূপান্তর করতে কাজ করে যাচ্ছে।

শুক্রবার দুপুর ২ টায় পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার চালিতাবুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদে দুস্থ-অসহায় পরিবারের মাঝে ব্যক্তিগত অর্থায়নে শীতবস্ত্র বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে  তিনি এ কথা বলেন। এসময় এমপি আরও বলেন, সরকারের এই উন্নয়ন স্রোতে  এগিয়ে যাচ্ছে দক্ষিণাঞ্চল। এই সরকারের আমলে পটুয়াখালীতে পায়রা সমুদ্র বন্দর, পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র, সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন, শেরে বাংলা নৌঘাটি, বড় বড় আরও মেঘা প্রকল্পসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ চলছে।    এসবের কৃতিত্ব বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার।

এমপি মহিব বলেন, পিছিয়ে নেই বিচ্ছিন্ন জনপদগুলোও। রাঙ্গাবালীকে থানা থেকে উপজেলায় উন্নিত করা হয়েছে। অসম্ভবকে সম্ভব করে সেখানে সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে বিদ্যুৎ দেওয়া হয়েছে।  আদালত অনুমোদন হয়েছে।  সারাদেশের সঙ্গে এই দ্বীপকে সংযুক্ত করতে ফেরি চালুর কাজ চলছে।  হাসপাতালের কাজ শুরু হয়েছে । সোনারচর, চরহেয়ার, জাহাজমারা ও তুফানিয়া নিয়ে পর্যটন জোন করার পরিকল্পনা সরকারের।  এছাড়া অনেক উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ হয়েছে এবং হচ্ছে।   আগামীতে সারাদেশের সঙ্গে তালমিলিয়ে বিচ্ছিন্ন এই রাঙ্গাবালীও স্মার্ট রাঙ্গাবালী হিসেবে রূপান্তরিত হবে। সে লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তাই নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করুন।  

এরআগে ওইদিন সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলার চরমোন্তাজ লঞ্চঘাট থেকে চরমোন্তাজ পুরাতন বাজারের রাস্তা পাকাকরণ এবং বিকেল ৪ টায় মৌডুবি বাজার থেকে মুখরবান্দা সাইক্লোন সেল্টার পর্যন্ত রাস্তা পাকাকরণ কাজের উদ্বোধন করেন এমপি। পাশাপাশি চরমোন্তাজ, মৌডুবি, বড়বাইশদিয়াসহ ৪ ইউনিয়নে দুস্থ-অসহায় দুই হাজার পরিবারের মাঝে ব্যক্তিগত অর্থায়ণে শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল বিতরণ করেছেন তিনি।

এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রাঙ্গাবালী সদর ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুজ্জামান মামুন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম ফকু, দপ্তর সম্পাদক সালাউদ্দিন আহমেদ, এমপির ব্যক্তিগত সহকারী তরিকুল ইসলাম মৃধা ও ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান শিবলী প্রমুখ।   


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন

প্রকাশিত:Friday ০৩ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদক :

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে ভ্যান শ্রমীক ও মাঝিমাল্লা অসহায় দরিদ্রদের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে সংসদ সদস্যের কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এ শীতবস্ত্র বিতরণ করেন প্রধান অতিথি বাগেরহাট-৪, মোরেলগঞ্জ-শরণখোলা আসনের সংসদ সদস্য কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য এ্যাডভোকেট আমিরুল আলম মিলন।  

ছোলমবাড়িয়া, ফেরিঘাট, সানকিভাঙ্গা খেয়াঘাটের মাঝি ও বারইখালীর বিভিন্ন স্ট্যান্ডের ভ্যান চালক দেড়শতাধিক শ্রমীকদের মাঝে কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এ্যাড. তাজিনুর রহমান পলাশ, থানা অফিসার ইনচার্জ মো. সাইদুর রহমান, পৌর যুবলীগের আহবায়ক আসাদুজ্জামান বিপু,  উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মহিদুজ্জামান মহিদ, সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মো. শফিক কাজীসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ।

 সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট আমিরুল আলম মিলন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা সমাজের অসহায় মানুষের কথা সার্বক্ষনিক ভাবেন। তিনি আপনাদের কাছে এ উপহার পাঠিয়েছেন পুনরায় আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকে শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে বিজয় করতে হবে। তাহলেই অসহায় মানুষ ভালো থাকবেন আপনারা প্রধানমন্ত্রীর জন্য সকলে দোয়া করবেন। 


আরও খবর



এমপি মৃনাল কান্তি দাসের মাতার শ্রাদ্ধে সর্বস্তরের মানুষের ঢল

প্রকাশিত:Sunday ১৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক, মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, মুন্সীগঞ্জের মাটি ও মানুষের নেতা এড. মৃণাল কান্তি দাসের মাতা গীতা রানী দাসের শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে।

গত শনিবার মুন্সীগঞ্জ আইনজীবী সমিতির প্রাঙ্গণে আয়োজিত শ্রাদ্ধের অনুষ্ঠানে অংশ নেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান,  বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়ুয়া, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শামিম ওসমান, বরিশাল-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ,  ও মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপিকা সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য মাহী বি চৌধুরী, গাজীপুরের সাবেক মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম, মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চন্দনশীল, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাঈনুল হোসেন খান নিখিল, বাংলাদেশ আওয়ামী সেচ্ছা সেবকলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গাজী মেজবাহ্উল আলম সাচ্চু ও সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক কাজী নাহিদ রসুল, পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান আল মামুন, পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ লুৎফর রহমান, গজারিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রেফায়েত উল্লাহ খান তোঁতা, বাসস ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, মুন্সীগঞ্জ পৌর মেয়র হাজী মোঃ ফয়সাল বিপ্লব, মিরকাদিম পৌর মেয়র হাজ্বী আব্দুস সালাম, মুন্সীগঞ্জ জেলার বর্তমান ও সাবেক সকল জনপ্রতিনিধিসহ নানা শ্রেণিপেশার মানুষ।


আরও খবর



নবম-দশম শ্রেণির তিনটি বইয়ে ভুল চিহ্নিত

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

নতুন শিক্ষাবর্ষে নবম-দশম শ্রেণির তিনটি বিষয়ের বইয়ে ভুল চিহ্নিত করে সংশোধনী দিয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড, এনসিটিবি। পাঠ্যপুস্তকের ভুল নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই এই সংশোধনী দেয়া হলো।

নবম ও দশম শ্রেণির বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা, বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়, পৌরনীতি ও নাগরিকতা এই তিন বইয়ের বিভিন্ন পৃষ্ঠায় মোট নয়টি ভুল মিলেছে।সেসব ভুল চিহ্নিত করে, নতুন করে সংশোধনী দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে, এই তথ্য জানিয়েছে এনসিটিবি। বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা বইটিতে মোট চারটি ভুল চিহ্নিত করা হয়েছে। আর বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বইয়ে তিনটি ভুল পাওয়া গেছে ।এছাড়া পৌরনীতি ও নাগরিকতা বইয়ে ভুল পাওয়া গেছে দুটি।


আরও খবর