Logo
শিরোনাম

যথাসময়ে আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

রোকসানা মনোয়ার ঃ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন নির্বাচনে আসা না আসা যে কোন দলের নিজস্ব সিদ্ধান্তের ব্যাপার, কিন্তু নির্বাচন হতে না দেওয়ার আস্ফালন করে লাভ নেই । 

তিনি বলেন যতই বাধা আসুক সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ওবায়দুল কাদের আজ সকালে তাঁর বাসভবনে ব্রিফিংকালে বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে একথা বলেন।

সরকার নাকি আন্দোলনে ভীত, বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্য কমেডি ক্লাবের জন্য যুৎসই হতে পারে কিন্তু দেশের বাস্তবতার সাথে কোন মিল নেই এমন মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন দেশে কোথায় তাদের আন্দোলন?  কোথায় তাদের উত্তাপ?  জনগণতো কিছু দেখছে না।

তিনি আরও বলেন একবার শুনি রাজপথ দখলে নিবে,আবার শুনি সরকারকে টেনে নামাবে,কখনো শুনি নির্বাচন হতে দিবে না।আসলে বিএনপির সক্ষমতা কতটুকু তা আমাদের জানা আছে।

বিএনপি নেতাদের প্রতিদিন অভিন্ন বক্তব্য, হুমকি-ধামকি শুনতে শুনতে জনগণ এখন হাসে বলেও মনে করেন তিনি।

বৈশ্বিক সংকটের নেতিবাচক প্রভাবের কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির সরবরাহে অস্থিতিশীলতা ও মূল্যের অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন এ সংকট কোন দেশের নয়,এ সংকট সারা বিশ্বের। 

মন্ত্রী বলেন এ বাস্তবতা অনুধান না করে বিএনপি ও তার দোসররা শুধু বাংলাদেশ সরকারকে দায়ী করছেন।

বিএনপি নেতাদের কথায় কথায় দুর্নীতি আর লুটপাটের কথা বলা বিষয়ে ওবায়দুল কাদের তাদের উদ্দেশে বলেন  অন্ধকারে ঢিল না ছুঁড়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ দিয়ে বলুন, কোথায়,কারা, কে দুর্নীতি করছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন দুর্নীতির প্রশ্নে শেখ হাসিনা সরকারের শূন্য সহিষ্ণুতা নীতির কোন নড়চড় হয়নি।

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে পরিবহন ভাড়া সমন্বয় করা হয়েছে কিন্তু কোন কোন পরিবহন বাড়তি ভাড়া আদায় করছে এ প্রসঙ্গে  সড়ক পরিবহন মন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করে  বলেন পরিবহন মালিক শ্রমিকগণ সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকছেন,তারাসহ বৈঠক করে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা বাস্তবে প্রয়োগ করবেন।

মন্ত্রী বলেন যারা সমন্বয়কৃত ভাড়ার বেশি আদায়ের চেষ্টা করছেন - আমাদের মনিটরিং এর আওতায় তারা রয়েছেন, তাই আবারো তাদের সহযোগিতা  চাচ্ছি, অন্যথায় আইনগত ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবো।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের পরিবহনে যারা পরিকল্পিত ভাবে ধর্ষণ ও ডাকাতির মত ঘটনা ঘটায় তাদের গণশত্রু আখ্যায়িত করে বলেন তারা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করছে। এদের কঠোর হস্তে দমন করতে হবে।


আরও খবর



বিলকিস বানুর ধর্ষকদের মুক্তির প্রতিবাদে ভারতে বিক্ষোভ

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

সারা ভারতে বিক্ষোভ করছে বিভিন্ন নারীবাদি ও মানবাধিকার সংগঠন। বিলকিস বানুকে ধর্ষণকারী ১১ জনকে মুক্তি দেয়ার প্রতিবাদেই এই বিক্ষোভ।

১৫ বছর কারাভোগের গত স্বাধীনতা দিবসে ১১ আসামিকে মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। ২০০২ সালে বিলকিস বিনুকে ধর্ষণের পাশাপাশি হত্যা করা হয় তার পারিবারের ১৪ সদস্যকে। বিক্ষোভে অভিনেত্রী ও মানবাধিকার কর্মী শাবানা আজমী বলেন, বিলকিস বানু ও তার পরিবারের সাথে যা হয়েছে, তা সহ্য করা যায় না। সেই আসামিরা মুক্ত ঘুরে বেড়াতে পারে না। এদিকে, ধর্ষকদের মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্তকে অবৈধ ঘোষণার জন্য সুপ্রিম কোর্টে লিখিত আবেদন করেছেন একশোরো বেশি সরকারি কর্মকর্তা।


আরও খবর

জাতিসংঘে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

জাতিসংঘের ভূমিকায় হতাশ মালয়েশিয়া

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




খাজা মঈনুদ্দীন চিশতির মাজার জিয়ারত করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

ভারত সফরের শেষ দিনে আজমীর শরীফে খাজা মঈনুদ্দীন চিশতির মাজার জিয়ারত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

আজ বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তিনি মাজার জিয়ারত করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী দেশ, জনগণ এবং সমগ্র মুসলিম উম্মাহর উন্নয়ন, সমৃদ্ধি ও কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করেন। 

খাজা মঈনুদ্দীন চিশতির মাজার জিয়ারত করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর আগে, ফ্লাইটটি নয়াদিল্লির পালাম বিমানবন্দর থেকে জয়পুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশে সকাল ৯টা ১২ মিনিটে ছেড়ে আসে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) দিল্লি যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং উপ-রাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনকড় এর সঙ্গে বৈঠক করেন। এসব বৈঠকে ব্যবসা-বাণিজ্য, জ্বালানি, অভিন্ন নদ-নদীর পানিবণ্টন, সীমান্তে হত্যা ও রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সহযোগিতার বিষয়গুলো বেশি গুরুত্ব পায়। খাজা মঈনুদ্দীন চিশতির মাজার জিয়ারত করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নরেন্দ্র মোদি-শেখ হাসিনার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শেষে দুই দেশের মধ্যে সাতটি সমঝোতা স্মারক সই হয়। দুই প্রধানমন্ত্রী দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ইস্যুতে এক সঙ্গে কাজ করতে সম্মত হন।

সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী, ভারতের উত্তর পূর্ব অঞ্চলের উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী কিষাণ রেড্ডি, ভারতের আদানি গ্রুপের চেয়ারম্যান গৌতম আদানি।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




যেসব কারণে রক্ত ওঠানামা করে

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

রক্ত উঠানামা একটি জটিল স্বাস্থ্যগত সমস্যা। কারো কারো ক্ষেত্রে রক্তচাপ খুব অস্বাভাবিক বেড়ে যায়, আবার কখনও রক্তচাপ অস্বাভাবিক কমে যায়। এমনটি কোনো কোনো সময় বিপজ্জনক।

রক্তচাপ উঠানামা করার কারণ ও প্রতিকার নিয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন মেডিনোভা হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. মো. তৌফিকুর রহমান 

রক্তচাপ কেন ওঠানামা করে, রক্তচাপ অনেক কারণে ওঠানামা করতে পারে। কিছু রোগীর কারণে, কিছু খাবারের কারণে, কিছু রক্তচাপ মাপার মেশিনের কারণে, কিছু রক্তচাপ মাপার পদ্ধতিগত সমস্যার কারণে ও পরিবেশগত কারণে রক্তচাপ ওঠানামা করতে পারে।

রোগীর কী কী কারণে রক্তচাপ ওঠানামা করে

রোগী দুশ্চিন্তা করলে রক্তচাপ হঠাৎ খুব বেড়ে যেতে পারে আবার দুশ্চিন্তা কমে গেলে বা নিয়ন্ত্রণে এলে রক্তচাপ স্বাভাবিক হতে পারে। যদিও প্রাথমিকভাবে এই বাড়তি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য সাময়িকভাবে কিছু উচ্চ রক্তচাপের ওষুধ ও দুশ্চিন্তা নিয়ন্ত্রণের ওষুধ লাগতে পারে, পরবর্তীকালে সাধারণত উচ্চ রক্তচাপের ওষুধের আর প্রয়োজন নাও হতে পারে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে দুশ্চিন্তা বেশি করলে রক্তচাপ স্বাভাবিকের চেয়ে কমেও যেতে পারে। রোগী যদি দীর্ঘদিন ধরে শরীরের ব্যথা কমানোর ওষুধ বিশেষ করে এনএসএআইডি জাতীয় ওষুধ সেবন করে রোগীর রক্তচাপ বাড়তে পারে বা ওঠানামাও করতে পারে। রোগী যদি নিয়মিত ওষুধ না খায় বা মাঝেমাঝে ওষুধ বাদ দেয় তবে রক্তচাপ ওঠানামা করতে পারে। রোগী যদি দীর্ঘদিন জন্মনিয়ন্ত্রণের ওষুধ খান তবে রক্তচাপ বাড়তে পারে বা ওঠানামা করতে পারে। রোগীর যদি কিডনিতে সমস্যা থাকে তাহলেও রক্তচাপ ওঠানামা করতে পারে। রোগীর যদি কিছু হরমোনজনিত রোগ যেমন হাইপারথাইরয়েডিজম (থাইরয়েড গ্লান্ড থেকে বেশি বেশি থাইরয়েড হরমোন বের হওয়া রোগ) বা ফিওক্রোমোসাইটোমা (কিডনির উপরে অবস্থিত এড্রেনাল গ্লান্ডের টিউমার রোগ) জাতীয় রোগ হয় তবে রক্তচাপ ওঠানামা করতে পারে।

কী কী খাবারের কারণে রক্তচাপ ওঠানামা করে? অতিরিক্ত কফি পান, চা পান ও ধূমপান করলে রক্তচাপ বাড়তে পারে। রক্তচাপ মাপার মেশিনের তারতম্যের কারণে কি রক্তচাপ ওঠানামা করতে পারে হ্যাঁ, বিভিন্ন প্রকারের রক্তচাপ মাপার মেশিন বিভিন্ন সময়ে ব্যবহারের কারণে রক্তচাপের মান ভিন্ন ভিন্ন হতে পারে। আবার দেখা যায় অটোমেটিক মেশিনে রক্তচাপ মাপার কয়েক মিনিট পরে আবার রক্তচাপ মাপলে আগের মাপের থেকে ভিন্নতা পাওয়া যায়।

রক্তচাপ মাপার কী পদ্ধতিগত সমস্যার কারণে ও পরিবেশগত কী কী কারণে রক্তচাপ ওঠানামা করে

রক্তচাপ মাপার মেশিনের সঠিক সাইজ ব্যবহার না করলে, রক্তচাপ মাপার সময় কথা বললে, অনেক পরিশ্রম বা ব্যায়ামের পর রক্তচাপ মাপলে বা হোয়াইট কোট হাইপারটেনশনের কারণে রক্তচাপের মান বেশি আসতে পারে।

হোয়াইট কোট হাইপারটেনশন কী? অনেক রোগী চিকিৎসকের চেম্বারে আসার পর অতিরিক্ত ও অপ্রয়োজনীয় টেনশন বা দুশ্চিন্তায় ভোগেন, ফলে রক্তচাপ অনেক বেড়ে যায়, কিন্তু এসব রোগীর বাসায় বা অন্য সময় রক্তচাপ স্বাভাবিক বা কম থাকে, যেহেতু ডাক্তাররা সাদা এপ্রোন বা কোট পরিধান করে তাই এ সমস্যাকে হোয়াইট কোট হাইপারটেনশন বলে।


সুত্র:  যুগান্তর


আরও খবর

অক্টোবরের ৪ থেকে টিকার প্রথম ডোজ বন্ধ

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

করোনায় এক দিনে ৫ জনের মৃত্যু

বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২




স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা: প্রাইভেট শিক্ষক তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ অনুপ সিংহ ঃ

নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীতে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর গলাকেটে হত্যার ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত প্রাইভেট শিক্ষককে তিনদিনের রিমান্ড এবং অন্য তিন আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে আদালত।

শুক্রবার(২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা স্পেসল্যাব চৌধুরী প্রমোজ নোয়াখালী মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতে প্রধান অভিযুক্ত আবদুর রহিম রনির দশদিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম মোহাম্মদ এমদাদ রনির তিনদিনে রিমান্ড ও অন্য আসামিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

দুপুরে নিজ কার্যালয়ের সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম জানান, নিহত স্কুলছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধারের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন সময়ে ওই ছাত্রীকে উত্যাক্তকারী কিশোর ইসরাফিল, তার ভাই সাঈদ ও সাবেক প্রাইভেট শিক্ষক আবদুর রহিম রনিকে আটক করা হয়। সাবেক প্রাইভেট শিক্ষক রনির মাথা, ঘাড়, গলাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে নখের আঁচড় দেখে তাকে এঘটনার সাথে জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, কিছুদিন আগে ওই স্কুলছাত্রী রনির কাছে প্রাইভেট পড়া বন্ধ করে দিয়ে অন্যস্থানে প্রাইভেট শুরু করে। এতে ক্ষিপ্ত হলেও রনি ওই স্কুলছাত্রীর বাসায় আসা যাওয়া করতো। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টা থেকে ২টার মধ্যে কোন একসময় ওইছাত্রীর বাসায় গিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ ও পরে ঘটনা দামাচাপা দেওয়ার জন্য ঘরে থাকা ছোরা দিয়ে গলা ও হাতের রগ কেটে হত্যা করে। ঘটনা ভিন্ন খাতে নেওয়ার জন্য ঘরের আলমারিতে থাকা জিনিসপত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে রাখে। কিন্তু ঘরে কোন মূল্যবান জিনিস বা স্বর্ণালংকার নেয়নি।

এসপি আরো বলেন, এ হত্যাকান্ডের সাথে পারিবারিক বা অন্যকোন বিষয় আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।  রনি ও ইসরাফিলকে হত্যা মামলা ও সাঈদ ও ইমামকে বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত, ডিএনএ ও ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। রিপোর্ট পাওয়ার পর বিস্তারিত জানা যাবে।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নোয়াখালী জেলা শহরের লক্ষ্মীনারায়নপুর এলাকার জাহান মঞ্জিলের একটি কক্ষ থেকে স্থানীয় একটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রীর তালাবদ্ধ নিজঘরে গলাকাটা ও অর্ধনগ্ন অবস্থায়  মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।  ঘটনায় জড়িত থাকা সন্দেহে পুলিশ তাৎক্ষনিক ৪জনকে আটক করে।


আরও খবর



রাঙ্গামাটির জুরাছড়িতে ১৪৪ ধারা জারি,আওয়ামীলীগ বিএনপির সমাবেশ বন্ধ

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন কায়েস রাঙ্গামাটি :

রাঙ্গামাটির জুরাছড়ি উপজেলায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন। আজ

বুধবার জুরাছড়ি উপজেলায় একই স্থানে বিএনপি ও আওয়ামীলীগ একই স্থানে

সমাবেশের ডাক দেয়ায় গতকাল উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারাজারী করা

হয়।

সকাল থেকে জুরাছড়ি উপজেলায় প্রতিটি পয়েন্টে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত

পুলিশ। সকাল থেকে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি কাউকে সমাবেশ স্থলে আসতে দেখা যায়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিতেন্দ্র

কুমার নাথ স্বাক্ষরিত অবহিত পত্রে বলা হয়, জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি,

পরিবহন ভাড়া এবং নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির

ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে জুরাছড়ি  উপজেলা বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী

সংগঠনের উদ্যোগে রোববার (৩১ আগস্ট) সকালে বিক্ষোভ সমাবেশ করবে।

অপরদিকে একইদিনে একইস্থানে ক্ষমতাসীন দল উপজেলা ছাত্র লীগ ও যুবলীগের

উদ্যোগে ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদ ও বিএনপি নেতা তারেক জিয়ার

ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল এবং সমাবেশ করবে ।

পত্রে আরও জানানো হয়, একই সময়ে দেশের দুটি বৃহত্তর রাজনৈতিক দলের

সমাবেশের কারণে উপজেলার স্বাভাবিক শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘিœত হওয়ার সম্ভাবনা

রয়েছে। তাই আজ সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত  উপজেলা সদর এবং এর

আশেপাশের এলাকায় সকল প্রকার মিছিল-মিটিং, সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ থাকবে।

পাশাপাশি চার বা তার ততোধিক ব্যক্তি একত্রে চলাচল এবং আইন, শৃঙ্খলা

পরিপন্থী সব অবৈধ কার্যক্রম নিষিদ্ধ থাকবে।

এদিকে জুরাছড়ি উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা জানান, দেশে জ¦ালানী তেলের দাম

বৃদ্ধি, পরিবহন ভাড়া ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মুল্যে বৃদ্ধির প্রতিবাদে

সমাবেশ আহবান করি। কিন্তু আওয়ামীলীগ সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে

উপজেলা প্রশাসন আমাদের অনুমতি না দিয়ে ১৪৪ ধারা জারী করে তিনি বলেন,

এই অবস্থায় অবৈধ সরকারকে ক্ষমতা থেকে নামাতে আমাদের আন্দোলনের কোন বিকল্পবনেই।

তার পরও আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমরা আমাদের প্রোগ্রাম স্থগিত করেছি।


এদিকে আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ জানান, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মুল হোতা

তারেক জিয়ার ফাঁসির দাবীতে আমরা পূর্ব নির্ধারিত সমাবেশের আহবান করি।

কিন্তু একই স্থানে বিএনপিও সমাবেশের ডাক দেয়। তাই প্রশাসন ১৪৪ ধারা জারী

করেছে। তাই আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমরা সমাবেশ স্থগিত করেছি। আগামী

দিনে আবারো সমাবেশের আহবান করবো।


আরও খবর