Logo
শিরোনাম

যুবলীগের মহাসমাবেশের প্রস্তুতি

প্রকাশিত:Monday ৩১ October ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

১০ ডিসেম্বর বিএনপিকে প্রতিহত করতে যুবলীগের সব কর্মী রাস্তায় থাকবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ।বলেন, বিএনপিকে রাজনৈতিক শিষ্টাচার শেখাবে যুবলীগ।

দুপুরে, বঙ্গবন্ধু এভিনউয়ে এক সভায় এসব কথা বলেন তিনি। পরশ বলেন, স্বাধীনতার শত্রুরা ব্যর্থ হয়ে আজ আবারও দেশকে অস্থির করার পায়তারা করছে। তবে তাদের যুবলীগ সফল হতে দেবে না বলে হুশিয়ারি দেন তিনি। সর্বোচ্চ নেতাকর্মীদের নিয়ে আগামী ১১ নভেম্বর মহাসমাবেশ করবে যুবলীগ। এই মহাসমাবেশের মাধ্যমে যুবলীগ প্রমাণ করবে বিএনপি জামাতকে রুখতে যুবলীগই যথেষ্ট। নিজেদের মধ্যে ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বাধীনতা বিরোধী চক্রকে প্রতিহত করার আহ্বান পরশ।


আরও খবর



র‌্যাবের অভিযানে ৩১০ বোতল ফেন্সিডিল সহ যুবক আটক

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার  :

র‌্যাবের অভিযানে ৩১০ বোতল ফেন্সিডিল সহ মাদক কারবারি যুবক আটক।

সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, কাম্প থেকে প্রতিবেদক কে জানানো হয়, র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পের একটি চৌকশ অপারেশনাল দল কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোঃ মোস্তফা জামান এর নেতৃত্বে সোমবার ১৬ জানুয়ারি ভোর সকালে জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার করিয়া বর্ডার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৩১০ বোতল ফেন্সিডিল সহ মাদক কারবারি বেলাল হোসেন (৩২) নামে এক যুবককে হাতেনাতে আটক করেন। আটককৃত বেলাল হোসেন পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম করিয়া গ্রামের সায়েম উদ্দিন এর ছেলে।

র‌্যাব আরো জানান, আটককৃত বেলাল হোসেন কোরিয়া সীমান্ত এলাকার একজন বড় মাদক ব্যবসায়ী। সে ওই এলাকায় ফেন্সিডিলের ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করত। আজ আমরা খবর পেয়েছি যে, আসামিরা সীমান্ত এলাকা থেকে ফেন্সিডিলের একটি বড় চালান আনতে যাচ্ছে। আর ভোরবেলা সেই মাদক অন্য পার্টিকে পৌঁছে দেওয়া হবে। এমন গোপন খবরের ভিত্তিতে কোরিয়া সীমান্ত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করা হয়। এব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছে র‌্যাব।


আরও খবর



এককভাবে নির্বাচন করতে চায় জাতীয় পার্টি

প্রকাশিত:Friday ২০ January ২০23 | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে এককভাবে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় পার্টি। এজন্য ঐক্যবদ্ধভাবে দলের নেতাকর্মীদের প্রস্তুতি নেওয়ার নিদের্শ দিয়েছেন বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ। 

বৃহস্পতিবার সংসদ ভবনে চলছিল জাপার সংসদীয় দলের বৈঠক। রওশনের সভাপতিত্বে বৈঠকে বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদেরসহ দলটির ১৮ জন সংসদ সদস্য উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে দলের অভ্যন্তরে গত সাড়ে তিন মাস ধরে চলা বিবাদ ইস্যুতে খোলামেলা আলোচনা করেছেন সবাই। আলোচনা শেষে ‘অনৈক্য, ভুল বোঝাবুঝি ও মান-অভিমান’ ভুলে দলে ঐক্য ধরে রেখে এককভাবে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে প্রস্তুতি গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে। দলে কয়েক দফা বিবাদের পর গতকালই প্রথমবারের মতো রওশনের ডাকে সাড়া দিয়ে সংসদীয় দলের বৈঠকে যান জিএম কাদেরসহ দলটির এমপিরা। রওশন নিজের স্বাক্ষরে চিঠি দিয়ে সবাইকে বৈঠকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন বলে জানান জাপা মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

সংসদীয় দলের বৈঠক শেষে রওশন এরশাদ বলেন, ‘সবাইকে এক থাকতে বলেছি। ঐক্যবদ্ধ থেকে সবাইকে কাজ করতে বলেছি। আগামী নির্বাচনে আমরা এককভাবেই অংশ নিব, সেভাবে সবাইকে এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে বলেছি। সংসদেও সবাই যেন উপস্থিত থেকে গঠনমূলক আলোচনা করেন, রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনায় গঠনমূলক কথা বলেন- সেই নির্দেশনা দিয়েছি।

বৈঠক শেষে জিএম কাদের বলেন, যে ঝামেলা সৃষ্টি হয়েছিল সেটি কেটে গেছে। আজকের বৈঠকেও কয়েক দফায় কথা বলার আগে কী বলবেন, সেবিষয়ে কানে-কানে উনি আমার মতামত জানতে চেয়েছেন। এর আগে ব্যক্তিগতভাবেও উনি আমাকে বলেছিলেন- তুমি দল চালাও, আমার দিক থেকে কোনো সমস্যা নেই। আসলে যে ঘটনাগুলো ঘটেছে সেগুলো উনি যে নিজ বিবেচনায় করেছেন সেটি আমার মনে হয়নি। যাক, বৈঠকে সবাই দলের ঐক্যের উপরই জোর দিয়েছেন।

তবে এই বৈঠকে রওশনপুত্র সাদ এরশাদ এমপি উপস্থিত ছিলেন না। দলের দুই কো-চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশীদ ও সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা জানান, বৈঠকে তারা সবাই একদম খোলামেলা কথা বলেছেন। কার কী ভুল ছিল, কেন দলে বিবাদ- এনিয়ে তারাও সরাসরি কথা বলেছেন, দেশের চলমান রাজনৈতিক বাস্তবতার নিরিখে জাপার পথচলার ওপর তারা গুরুত্ব দিয়েছেন। দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ফখরুল ইমাম এমপি বলেন, ‘বৈঠকের মূল সিদ্ধান্ত হল- সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকবো।

জিএম কাদেরের কাছে ক্ষমা চাইলেন রাঙ্গা : বৈঠক শেষে সবাই অধিবেশনে যোগ দেওয়ার কিছুক্ষণ পর জিএম কাদের, ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, কাজী ফিরোজ রশীদ, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলাসহ দলের কয়েকজন এমপি বেরিয়ে আসেন। এসময় তাদের সঙ্গে বেরিয়ে আসেন দল থেকে বহিষ্কৃত ও সংসদের বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গাও। পরে তারা সবাই বিরোধীদলীয় উপনেতার (জিএম কাদের) কার্যালয়ে যান। কয়েক মিনিট পর জিএম কাদেরের কক্ষ থেকে বেরিয়ে জাপার এমপি অধ্যাপিকা রওশন আরা মান্নান জানান, ভেতরে জিএম কাদেরের কাছে রাঙ্গা ক্ষমা চেয়েছেন। 

এ দিকে চেয়ারম্যান হিসেবে দল পরিচালনা এবং দলীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণে জিএম কাদেরের ওপর আদালতের ‘অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা’ বহালই থাকলো। ঢাকার প্রথম যুগ্ম জেলা জজ মাসুদুল হক নিষেধাজ্ঞা খারিজের আবেদন নাকচ করেছিলেন আগেই। সেই আবেদন খারিজের বিরুদ্ধে জেলা জজ আদালতে জিএম কাদের যেই মিস আপিল করেছিলেন, সেটিও বৃহস্পতিবার খারিজ হয়ে গেছে। ফলে, জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা বহাল থেকে গেল।


আরও খবর



বাড়তে শুরু করেছে প্রবাসী আয়

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

নতুন বছরের শুরুতেই বাড়তে শুরু করেছে প্রবাসী আয়। জানুয়ারি মাসের প্রথম ১৩ দিনে রেমিটেন্স এসেছে ৯২ কোটি ৮৬ লাখ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা।

এদিকে গেল বছরের ডিসেম্বরে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৫৯ কোটি ৪৭ লাখ মার্কিন ডলার। যা ২০২১ সালের ডিসেম্বরের চেয়ে প্রায় ৭ কোটি ডলার বেশি। সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক তাদের প্রকাশিত হালনাগাদ প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানায়। প্রতিবেদন বলছে এ সময় প্রবাসীরা সবচেয়ে বেশি ৭৭ কোটি ১৩ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে। অন্যদিকে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ১২ কোটি ৯২ লাখ মার্কিন ডলার। তবে এ সময়ে সাত ব্যাংক থেকে আসেনি কোনো প্রবাসী আয়। 


আরও খবর

কমছে আয়, বাড়ছে ব্যয়

Saturday ০৪ February ২০২৩




কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ও চা‌ন্দিনায়

মডেল মসজিদের উদ্বোধন কর‌লেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

কুমিল্লা ব্যুরো : 

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে প্রায় ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নব-নির্মিত মডেল মসজিদের উদ্বোধন ।

  সোমবার সক‌াল ১১ট‌ায় সারাদেশের জেলা উপজেলায় নির্মাণাধীন ৫৬৪টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের মধ্যে ২য় পর্যায়ে কু‌মিল্লার চৌদ্দগ্রাম ও চা‌ন্দিনা উপ‌জেলাসহ ৫০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এম‌পি

উদ্বোধনী অনুষ্ঠা‌নে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা ব‌লেন নারী মুসল্লি উম্মে আরা কুলসুম বেগম ও ইমাম মুফ‌তি আবদুর র‌হিম। 

উম্মে আরা কুলসুম  বেগম উদ্বোধনকৃত  চৌদ্দগ্রামের মস‌জি‌দে প্রধানমন্ত্রীকে একসা‌থে এককাতা‌রে নামাজ আদায় করার আমন্ত্রণ জানান । 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছি‌লেন সাবেক রেলপথ মন্ত্রী ও স্থানীয় সংসদ সদস্য মুজিবুল হক মুজিব এমপি, চট্রগ্রাম বিভাগের (ভারপ্রাপ্ত)বিভাগীয় কমিশনার ড. প্রকাশ কান্তি চৌধুরী, চট্টগ্রাম রেঞ্জের পুলিশের এডিশনাল ডিআইজি ‌মোঃ মাহফুজুর রহমান , কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম, জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান বিপিএম(বার), চট্টগ্রাম গণপূর্ত বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আবুল খায়ের, ইসলামী ফাউন্ডেশনের চট্রগ্রাম বিভাগের পরিচালক বোরহান উদ্দিন মোঃ আবু আহসান।          

সাবেক রেলপথ মন্ত্রী ও স্থানীয় সংসদ সদস্য মুজিবুল হক মুজিব এমপি ব‌লেন,‌চৌদ্দগ্রা‌মে  ম‌ডেল মস‌জিদ উদ্বোধন করায় বঙ্গবন্ধুকণ‌্যা প্রধানমন্ত্রী‌কে ধন‌্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।তিনি বলেন প্রধানমন্ত্রী যা বলেন তাই করেন। এ দেশে  যত উন্নয়ন প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার দ্বারাই হয়েছে আগামীদিনেও হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এই মডেল মসজিদটিতে ৮৫০জন পুরুষ ও ৩০০জন মহিলাসহ মোট সাড়ে ১১শত মুসল্লি একসঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারবেন।

আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত মসজিদটিতে রয়েছে ইসলামিক সাংস্কৃতিক কমেেপ্লক্স পাঠাগার, গবেষণা কেন্দ্র, ইসলামিক বই বিক্রয় কেন্দ্র, পবিত্র কোরআন হাফেজ বিভাগ, অর্টিজম কর্নার, মাস এডুকেশন প্রজেক্ট রুম, শিশুশিক্ষা, প্রতিবন্ধীদের প্রার্থনা কক্ষ, অতিথিশালা, মৃতদেহ গোসলের ব্যবস্থা, সাব-স্টেশন, হজযাত্রীদের নিবন্ধন ও প্রশিক্ষণ, ইমামদের প্রশিক্ষণ, গণশিক্ষা কেন্দ্র ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র হিসেবে একটি পূর্ণাঙ্গ কমপ্লেক্স।

দ্বিতীয় তলায় মূল নামাজ কক্ষ, কনফারেন্স রুম, ওজুখানা, টয়লেট, হিসাব কক্ষ। ৩য় তলায় মহিলাদের জন্য নামাজ কক্ষ, মক্তব কক্ষ, ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার, ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেম, শিক্ষক ও সাধারণ কর্মচারীদের কক্ষ, অতিথি কক্ষ। এছাড়াও মেহেরাব, সিঁড়ি ও একটি সুউচ্চ দৃষ্টিনন্দন মিনার রয়েছে।

স্থানীয়রা  জানান মডেল মসজিদটি আমা‌দের উপজেলায় এটি সর্বপ্রথম সব সুযোগ সুবিধা সমৃদ্ধ দৃষ্টিনন্দন মসজিদ। শুধু চৌদ্দগ্রাম নয় ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়‌কে দি‌য়ে যাত‌ায়াত করা সকল মুসলমানরাই চৌদ্দগ্রাম দি‌য়ে যাওয়ার সময় নামাজ আদায় কর‌তে পার‌বেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানভীর আহম্মেদ জানান, চৌদ্দগ্রাম উপজেলার পরিষদের নব নির্মিত দৃ‌ষ্টিনন্দন মডেল মসজিদ সোমবার প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধনের পর মসজিদটি জোহরের নামাজ আদায় করেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। মসজিদটি সর্ব সাধারণ মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।         

এদিকে সোমবার  কু‌মিল্লার চা‌ন্দিনা উপ‌জেলায়ও একই ডিজাইনের নান্দ‌নিক ম‌ডেল মস‌জিদ উদ্বোধন করা হ‌য়ে‌ছে।উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য প্রাণ গোপাল দত্তসহ উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা।        

সারাদেশে নির্মাণাধীন ৫৬০‌টি মডেল মসজিদের অবকাঠামো গণপূর্ত অধিদপ্তরের মাধ্যমে বাস্তবায়িত হচ্ছে। বাস্তবায়নকারী সংস্থা ইসলামিক ফাউন্ডেশন। ২০২১ সালে ৩০ মার্চ দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জেটিসি বিল্ডার্স মুসজিদের নির্মাণ কাজ শুরু করে। কু‌মিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র বি-ক্যাটাগরি হিসেবে ৪০ শতাংশ জমির ওপর নির্মিত। তিন তলা বিশিষ্ট মডেল মসজিদ (টাইপ-বি) যেখানে নিচের ফ্লোরের আয়তন ১১হাজার ৫০০বর্গফুট, ২য় ও ৩য় ফ্লোরের আয়তন ৭ হাজার ৮০০ বর্গফুট। ভবনের মোট আয়তন ২৭ হাজার১০০ বর্গফুট। বাস্তবায়নে ব্যয় ১৪ কোটি ৪২ লাখ টাকা।


আরও খবর



দশমিনায় বিতর্কিত শিক্ষা সিলেবাস বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত:Sunday ২৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ |
Image

মোঃ নাঈম হোসাইন,দশমিনা (পটুয়াখালী) :

গত ২৬শে জানুয়ারী বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় দশমিনা উপজেলা পরিষদের  সামনে মানববন্ধন করে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ দশমিনা থানা শাখা। 

দশমিনা থানা শাখার সভাপতি মোঃ বাহাউদ্দীন নোমান এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবুবকর সিদ্দিক এর সঞ্চালনায় কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন   বাংলাদেশ দশমিনা উপজেলা শাখার  জয়েন্ট সেক্রেটারী মোঃ রুহুল আমীন রুহানি। 

তিনি বলেন, আমাদের প্রথম পরিচয় আমরা মুসলিম এরপর আমরা বাঙালী, আমরা ইসলাম ধর্মে বিশ্বাসী, আমরা জানি আমাদের সৃষ্টি কর্তা মহান আল্লাহ। বর্তমানে শিক্ষা সিলেবাসে কুরআন সুন্নাহ বিরোধী, অযৌক্তিক ডারউইনের বিবর্তনতত্ত্ব যুক্ত করার মাধ্যমে আমাদের ঈমানের উপর আঘাত করা হয়েছে।

ইসলাম ও মুসলমানদের ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে। 

একটি মুসলিম অধ্যুষিত দেশে হিন্দুত্ববাদী সিলেবাস মেনে নেয়া যায় না। 

যাঁরা এই সিলেবাস রচনা করেছে তাঁদের তদন্ত সাপেক্ষ বিচারের দাবী জানাচ্ছি। 

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ দশমিনা থানা শাখার সাবেক সভাপতি মোঃ ইমাম হোসাইন।  সহ-সভাপতি বনিউল আমিন, সাংগঠনিক মোঃ ফয়সাল আহমেদ, কওমী মাদ্রাসা বিষয়ক সম্পাদক মোঃ মাহফুজুর রহমান, তথ্য গবেষণা ও প্রচার সম্পাদক  মোঃ আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।


আরও খবর