Logo
শিরোনাম
শবে বরাত পালন মুসলিম জাতিকে একতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ করে। ৫৭ তম খোশরোজ শরীফ ও মইনীয়া যুব ফোরামের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন বাঙালি সাংস্কৃতিতে মাইজভাণ্ডারী ত্বরীকার সাথে সম্পর্ক রয়েছে সীমান্তে হত্যা বন্ধের দাবীতে প্রতীকী লাশ নিয়ে হানিফ বাংলাদেশীর মিছিল লক্ষ্মীপুরে কৃষক কাশেম হত্যা: স্ত্রী, শ্বশুরসহ গ্রেপ্তার ৫ কুমিল্লা সিটি’র উপনির্বাচন: মেয়র পদে প্রতীক বরাদ্দ অবৈধ মজুদকারীরা দেশের শত্রু : খাদ্যমন্ত্রী ফতুল্লায় সিগারেট খাওয়ার প্রতিবাদ করায় কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা বকশীগঞ্জে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা নোবিপ্রবিতে সিএসটিই এলামনাই এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠন

মির্জাগঞ্জে সমবায় দিবস উদ্যাপনে চাঁদা উত্তোলনের অভিযোগ

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

মির্জাগঞ্জ(পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে জাতীয় সমবায় দিবসে সরকারী বরাদ্দের টাকা পকেটস্থ করে সমবায় সমিতির নিকট থেকে চাঁদা আদায় করে আজ শনিবার জাতীয় সমবায় দিবস পালনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর সমবায় দিবস পালনে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ অকপটে স্বীকার করলেন মির্জাগঞ্জ উপজেলা সমবায় অফিসার মোঃ নুরুল ইসলাম। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে উপজেলার বিভিন্ন সমবায় সমিতির সভাপতি-সম্পাদক জানান,উপজেলায় নিবন্ধিত সমিতি রয়েছেতিন ধরনের। যে সমিতির মুলধন বেশী সে সকল সমিতি থেকে ২ হাজার টাকা এবং যে সমিতির মুলধন কম তাদের কাছ থেকে ১ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করেছে অফিস সহকারী পরিদর্শক মোঃ মাহাবুব আলম। মির্জাগঞ্জ উপজেলা সমবায় অফিসের অধীনে ১৭২টি সমবায় সমিতি রয়েছে। সমবায় দিবসে উপস্থিত অতিথিদেরকে সামান্য কিছু নাস্তা দিয়ে বাকী টাকা আত্মসাৎ করেছেন সমবায় অফিসার মোঃ নুরুল ইসলাম  ।  

উপজেলা সমবায় অফিসের অফিস সহকারী পরিদর্শক মোঃ মাহাবুব আলম বলেন, সমবায় দিবসের চিঠি বিতরণের সময় স্যারের কথায় সমবায় সমিতির সভাপতি-সম্পাদকের নিকট থেকে চাঁদা আদায় করেছি। 

উপজেলা সমবায় অফিসার মোঃ নুরুল ইসলাম চাঁদা আদায়ের অভিযোগ স্বীকার করে বলেন, সমবায় দিবস পালনের জন্য মির্জাগঞ্জে উপজেলা সমবায় অফিসকে ১০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। দিবসটি উদযাপনে ব্যয়ের চেয়ে সরকারী বরাদ্দ কম থাকায় তিনি সবার সাথে কথা বলে চাঁদা (সাহায্যে) আদায় করেছেন। সরকারি যে বরাদ্ধ পাওয়া গেছে তা দিয়ে দিবসের অনুষ্ঠান করা যায় না। বড় অনুষ্ঠান হওয়ায় সমিতির সভাপতি-সম্পাদক আমাদের সাহায্য করেছেন। সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককের কাছ থেকে মাহাবুব আলম টাকা আদায় করেছেন, তিনি সব কিছু বলতে পারে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোসাঃ তানিয়া ফেরদৌস মুঠো ফোনে বলেন, চাঁদা আদায় করে সরকারী দিবস পালনের কোন নিয়ম নেই। শুনেছি দিবসটি পালনে বরাদ্দ কম এসেছে। টাকা উত্তোলনের বিষয়টি আমার জানা নেই। 


আরও খবর



নওগাঁয় ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে র‌্যাব

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, সিনিয়র রিপোর্টার :

নওগাঁয় পরিত্যাক্ত অবস্থায় ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে র‌্যাব। 

বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ১১ টারদিকে নওগাঁ জেরা সদর থানা ও উপজেলার বক্তারপুর এলাকার একটি আলুর ক্ষেত থেকে ওয়ান শুটারগান গুলো উদ্ধার করে থানায় হস্তান্তর করেন র‍্যাব।

র‍্যাব জানান, নওগাঁ সদর মডেল থানার বক্তারপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনার সময়ে গোপনে মাদক ও অস্ত্র সরবরাহ সংক্রান্ত তথ্যের ভিত্তিতে বক্তারপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করার সময়ে অজ্ঞাত মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে চাকলা হতে শ্যামপুর রাস্তার মধ্যস্থলে রাস্তার পাশে আলুর ক্ষেতে ৩টি ওয়ান শুটারগান ফেলে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে সাক্ষীদের উপস্থিতিতে পরিত্যাক্ত অবস্থায় আগ্নেয়াস্ত্র গুলো উদ্ধার করা হয়। 

পরবর্তীতে উদ্ধারকৃত আগ্নেয়াস্ত্র গুলো নওগাঁ জেলা সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান র‍্যাব।


আরও খবর



ধামরাইয়ে বংশী নদী ভরাট চলছে আঁটো রাইছ মিলের ছাই দিয়ে

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

মাহবুবুল আলম রিপন (স্টাফ রিপোর্টার):

ধামরাই উপজেলার সোমভাগ ইউনিয়নের সোমভাগ কাটাখালী এলাকায় কেলিয়ার উত্তরপাশে বংশী নদী ভরাট চলছে ধানের চাতালের ছাই দিয়ে। নদী ভরাটের ফলে গতি পথে বাঁধা সৃষ্টি হচ্ছে। দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে ছাই দিয়ে ভরাটের কর্মযজ্ঞ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের কেলিয়া এলাকায় কে এন্ড কে অটোরাইস মিল, কাদের আটো রাইস মিল, সৌদিয়া অটো রাইস মিল,সুষমা অটো রাইস মিল মালিকরা নদী ভরাট করে পানি চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে।


আরও খবর



রাখাইনের সেনা সদরদপ্তর দখলে নিলো আরাকান আর্মি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

মিয়ানমারের পশ্চিমাঞ্চলের রাখাইন রাজ্যে দেশটির সেনাবাহিনীর সঙ্গে আরাকান আর্মির (এএ) তীব্র লড়াই চলছে। এরই মধ্যে রোববার (২৮ জানুয়ারি) রাখাইনের মিনবিয়া শহরে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ৩৮০ ব্যাটালিয়নের সদরদপ্তর দখলে নেওয়ার দাবি করেছে আরাকান আর্মি।

মিয়ানমারের ইংরেজি দৈনিক ইরাবতীর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, রাখাইনের ম্রাউক ইউ, কিয়াকতাও ও রাথেডং এলাকায় জান্তা বাহিনীর সঙ্গে এখনো আরাকান আর্মির লড়াই ব্যাপক লড়াই চলছে।

এক বিবৃতিতে আরাকান আর্মি বলেছে, জান্তা সৈন্যরা এখন আমাদের সঙ্গে মুখোমুখি লড়াই করতে পারছে না। তারা এখন আরও বেশি গোলাবর্ষণ ও বিমান হামলা চালাচ্ছে। ম্রাউক ইউ শহরে সেনাবাহিনীর ৩৭৭ ও ৫৪০ ব্যাটালিয়ন ও পুলিশের ৩১ ব্যাটালিয়ন থেকে গোলাবর্ষণ করা হচ্ছে। শনিবার (২৭ জানুয়ারি) জান্তা বাহিনীর গোলাবর্ষণে এই শহরের চার বাসিন্দা নিহত ও অন্ত ২০ জন আহত হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা বলেছেন, জান্তা সৈন্যরা রামরি শহরে এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে গোলাবর্ষণ ও বিমান হামলা চালিয়ে আসছে। তবে শহরটিতে আরাকান আর্মির বিদ্রোহীদের সঙ্গে সেনাবাহিনীর সম্মুখ লড়াইয়ের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

শনিবার বুথিডং শহরেও উভয়পক্ষের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ হয়েছে বলে জানা গেছে। এতে জান্তা সৈন্যরা আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে আরাকান আর্মি। পাশাপাশি সেনাবাহিনীর ২৩২ এবং ৩৪৪ ব্যাটালিয়ন সিত্তে ও মিনবিয়া শহরে গোলাবর্ষণ করেছে।

সেখানকার বাসিন্দারা বলেছেন, মিনবিয়া শহরের খোয়া সোন গ্রামে সেনাবাহিনীর গোলাবর্ষণে অন্তত তিন বাসিন্দা গুরুতর আহত হয়েছেন। এর আগে, আরাকান আর্মির যোদ্ধারা ২৪ জানুয়ারি পাকতাও শহরের দখল নেন। এরপর থেকেই সেনাবাহিনী এই শহরে বিমান হামলা ও গোলাবর্ষণ শুরু করে।

আরাকান আর্মি বলেছে, শনিবার রাতেও পাকতাও শহরে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ওয়াই-১২ সামরিক পরিবহন বিমান থেকে বোমা হামলা চালানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রাখাইন রাজ‌্যের বিদ্রোহীগোষ্ঠী আরাকান আর্মি মিয়ানমারের শাসনে থাকতে চায় না। তারা রাখাইন রাজ‌্যকে স্বীকার করে না। বিদ্রোহী গোষ্ঠী এই রাজ‌্যকে আরাকান বলে মনে করে। তাদের মতে, আরাকান একটি স্বাধীন রাজ‌্য ছিল। কিন্তু বার্মার রাজা আরাকান দখল করে রাজ‌্যটিকে দেশটির অন্তর্ভুক্ত করে।

আরাকানের স্বাধীন সত্ত্বা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে সশস্ত্র সংগ্রাম করে যাচ্ছে আরাকান আর্মি। সম্প্রতি তারা দখল করে নিয়েছে বাংলাদেশ ও ভারত সীমান্তের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা পালতোয়া, যেটি মিয়ানমারের চিন রাজ্যে অবস্থিত। বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে পালতোয়ার দূরত্ব মাত্র ১৮ কিলোমিটারের কাছাকাছি।

তাছাড়া গত বছরের নভেম্বরে রাখাইন রাজ্যে নতুন করে লড়াই শুরু হওয়ার পর থেকে দক্ষিণ চিন রাজ্যের পালেতওয়া ও উত্তর রাখাইনে জান্তা বাহিনীর ১৬০টিরও বেশি ঘাঁটির দখল নিয়েছে আরাকান আর্মি। সূত্র: দ্য ইরাবতী

 

 


আরও খবর

অনুমতি ছাড়া হজ করলে শাস্তি ঘোষণা

শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪




একটি জীর্ন বিবস্র শহীদ মিনারের কান্না !!

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

মাসুম খান :ঢাকা থেকে মাত্র ৩০ কি:মি: দুরত্বে অবস্থিত মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলার, টেঙ্গারচর ইউনিয়নের ১৩ নং টেংগারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার এটি।  এই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক,শিক্ষকবৃন্দ ম্যানেজিং কমিটি,স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, এলাকার বড় বড় রাজনৈতিক ব্যক্তিগন, সচেতন সমাজ কারোই কি এই বিবস্র শহীদ মিনারটি দেখে লজ্জা লাগে না? একটি সরকারি বিদ্যালয়ের পিছনে সরকার বছরে  ২০-২৫ লক্ষ টাকা খরচ  করে শিক্ষকদের বেতন-ভাতাদি,নির্মান সংস্কার,বই-পত্র,অবকাঠামো, শিক্ষা উপকরণ সহ বিভিন্ন খাতে। অথচ শহীদ মিনারের এই করুণ অবস্থা! এর দায় ভার কার?  প্রাথমিক শিক্ষাই হলো একজন মানুষের শিক্ষার মুল ভিত্তি। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে থেকে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা  আনুষ্ঠানিক শিক্ষা,ব্যক্তিগত,পারিবারিক,জাতীয়, আন্তর্জাতিক আচরণিক মূল্যবোধ, স্বদেশ প্রেম,মানবতাবোধ,পরিবেশ সচেতনতার,নান্দনিক সৌন্দর্য বোধের  মৌলিক  ভিত্তি অর্জন করে। মহান ২১ ফেব্রুয়ারী শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। ২১ ফেব্রুয়ারী আমাদের  স্বাধীন জাতি সত্ত্বার শিকড়ের কথা,সংগ্রামের কথা মনে করিয়ে দেয়। শহীদ নিনার ভাষা শহীদদের প্রতি আমাদের গভীর শ্রদ্ধা ও ভালবাসার প্রতিক। এই অবহেলিত   শহীদ মিনার কোমল মতি শিশুদের কি শিক্ষা দেয়?  কেন এই অবহেলা? 

আমার জানামতে গজারিয়ায় প্রত্যেক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সুন্দর ভবন আছে। কিন্তু শহীদ মিনার নেই।

প্রতিটি স্কুলে নান্দনিক শহীদ মিনার বাধ্যতামূলক করা উচিত বলে আমি মনে করি। শহীদ মিনারে সারা বছর ব্যাপী বিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষ্ঠান হবে। ২১ ফেব্রুয়ারিতে সজ্জিত করা হবে যথাযথ মর্যাদা ঈ গাম্ভিয্যের সাথে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকগন ৪০-২০ হাজার টাকা বেতন পান। অথচ সরকারি স্কুলে শিক্ষার্থী কমে যাচ্ছে, সবাই কিন্ডারগার্টেনে পড়তে যায়। ৬২ টি কিন্ডারগার্টেন আছে গজারিয়ায়। অথচ গজারিয়ায় ৮৬ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে ৭৮ টি ওয়ার্ডে। শহীদ মিনারের এই করুন দশা যেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সার্বিক পরিবেশ এবং শিক্ষার মানের প্রতিচ্ছবি। 

সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্ঠি আকর্ষণ করছি।


আরও খবর



টেকনাফ সীমান্তে পড়ে আছে মরদেহ

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ |

Image

বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকায় একাধিক মরদেহ পড়ে আছে। আরকান আর্মির সঙ্গে মিয়ানমারের জান্তা সরকারের সংঘর্ষের ঘটনায় এ মরদেহের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এতে আতঙ্কে রয়েছে টেকনাফ সীমান্তের বাসিন্দারা।

শুক্রবার সকালে এসব মরদেহ পড়ে থাকার দাবি করেছে স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা জানান, উখিয়া সীমান্তের রহমতের বিল এলাকায় কয়েকজনের মরদেহ পড়ে আছে। কয়েকজন কৃষক তিন থেকে চারটি মরদেহ সীমান্তের পাশে পড়ে থাকতে দেখেছেন।

স্থানীয় শিক্ষক নুরুল বশর বলেন, রহমতের বিল থেকে ওপারে মিয়ানমারের ঢেঁকিবুনিয়া সীমান্তের দূরত্ব আধা কিলোমিটার। সীমান্তের এপারে তিন থেকে চারটি মরদেহ পড়ে আছে।

উখিয়া থানার ওসি শামীম হোসেন বলেন, স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে এমন খবর পেয়েছি। শুক্রবার দুপুরে পুলিশ সেখানে যায়। কিন্তু সীমান্তের একেবারে কাছাকাছি লাশগুলো থাকায় নিরাপত্তা জনিত কারণে পুলিশ তা উদ্ধার করতে পারেনি। তবে তা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।


আরও খবর