Logo
শিরোনাম
মুম্বাইয়ের রেডিসন এমআইডিসিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল

মিস্টার মিস এন্ড ইন্টারন্যাশনাল আইকন ২০২২ সিজন থ্রি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শাহ আলম ইসলাম নিতুলঃ 

গত ৯ নভেম্বর মুম্বাইয়ের রেডিসন এমআইডিসিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল মিস্টার মিস এন্ড ইন্টারন্যাশনাল আইকন ২০২২ সিজন থ্রি। বাংলাদেশসহ মালয়েশিয়া, ইউএসএ এবং ইন্ডিয়া অংশ গ্রহন করে।

এই প্রোগ্রামটির কোরিওগ্রাফি করেছিলেন বাংলাদেশের ছেলে (স্পারকেল রেমো) এবং মালয়েশিয়ার কোরিও গ্রাফার মালা।

বাংলাদেশের ছেলে হিসেবে কোরিওগ্রাফি করে সবাইকে মুগ্ধ করেছেন, এবং কোরিওগ্রাফার হিসেবে অ্যাওয়ার্ড নিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী আমিশা পেটেলের হাত থেকে, অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী আমিশা প্যাটেল।

রেমো বলেন একটি প্লাটফর্মে কাজ করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত ভারতের সব নামিদামি মডেলরা উপস্থিত ছিলেন এবং আমার কাজ দেখে সবাই মুগ্ধ হয়েছেন। স্পার্কেল রেমো এর মধ্যে দেশে বিদেশে কর্পোরেট শো বিভিন্ন অ্যাওয়ার্ড শো গুলোতে কোরিওগ্রাফি করে বেশ সুনাম অর্জন করেছেন। বিনোদন ধারা পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ড বাবিসাস অ্যাওয়ার্ড মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৯,মিস্টার এন্ড মিস ফটোজোনিক অ্যাওয়ার্ড, face of Asia অ্যাওয়ার্ড শো  গুলোতে সুনামের সাথে কোরিওগ্রাফি করেছেন।

বর্তমানে মিরপুর ১১ এবং নিকেতনে একটি  মডেল গ্রুমিং  এবং ডান্স ইনস্টিটিউট রয়েছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় মিডিয়াতে রিমনের স্কুল থেকে অনেক ছেলে মেয়েরা কাজ করছে।

স্পার্কেল রেমো হিসাবে মিডিয়াতে পরিচিত,ডাক নাম রিমন কাউসার, রিমন এর বেড়ে ওঠা মিরপুর ১০ নম্বর সেনপাড়া পর্বতা, স্কুল  আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় এবং কলেজ ঢাকা স্টেট কলেজ, নিউ মডেল ডিগ্রী কলেজ থেকে মার্কেটিং বিভাগ থেকে স্নাতক পাস করেছেন। ছোটবেলা থেকেই রিমনের ক্রিকেট খেলা  এবং মিডিয়ার পতি ফ্যাসিনেশন ছিল। ধীরে ধীরে মডেলিং  এবং ডান্সের প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজেকে কোরিওগ্রাফি  হিসেবে গড়ে তোলেন।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হিসাবে ইন্টারন্যাশনাল প্লাটফর্মে আরো বড় বড় কাজ করা।


আরও খবর

মঞ্চ মাতালেন নোরা ফাতেহি

শনিবার ১৯ নভেম্বর ২০২২




কথাসাহিত্যিক ইজাজ আহমেদ মিলনের লেখা

ভাওয়াল বীরের জন্মদিনে ‘জীবনালেখ্য’

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ |
Image

শ্রমিক নেতা ও গাজীপুর-টঙ্গী-২ আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ৭২তম জন্মদিনে তার যাপিত জীবন নিয়ে কথা সাহিত্যিক ইজাজ আহাম্মদ মিলনের লেখা ‘জীবনলেখ্য’ বইটি প্রকাশ হয়েছে।

আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবনে বইটির মোরক উন্মোচন করেন।

৯ নভেম্বর ১৯৫০ সালে জন্ম নেওয়া আহসান উল্লাহ মাস্টার ২০০৪ সালের ৭ মে মাত্র ৫৪ বছর বয়সে ঘাতকের বুলেটে নিভে যায় তার জীবন প্রদ্বীপ। 

শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত ‘ভাওয়াল বীর’ খ্যাত আহসান উল্লাহ মাস্টার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান থেকে মানুষের ভালোবাসাকে পুঁজি করে ১৯৯৬ ও ২০০১ সালের নির্বাচনে দুবার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। সংসদ সদস্য থাকাকালেই ঘাতকরা তাকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করে।

জাতির পিতার আদর্শ বুকে ধারণ করে ’৬৬-এর ৬ দফা, ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, ১৯৭০-এর নির্বাচনে ভূমিকা রাখা, ’৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণসহ বাংলাদেশের প্রায় প্রতিটি আন্দোলনেই সরাসরি অংশ নিয়েছেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর আশীর্বাদ পাওয়া আহসান উল্লাহ মাস্টার শ্রমিকদের অধিকার রক্ষায় আজীবন আন্দোলন করেছেন। তাদের পক্ষে কথা বলেছেন। মাদকের বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু করেছিলেন ’৯০-এর দশকের গোড়ার দিকেই। তুমুল জনপ্রিয় এক নেতৃত্বে পরিণত হন তিনি।

রাজনীতির মাঠে আহসান উল্লাহ মাস্টারের আলোয় আলোকিত হয়েছিল গাজীপুর। কিন্তু কেমন ছিল আপদমস্তক এ রাজনীতিকের জীবন? গ্রাম থেকে উঠে এসে কীভাবে জাতীয় রাজনীতিতে জায়গা করে নিয়েছিলেন? তার জন্ম, শৈশব, কৈশোর, যুদ্ধের ময়দানে মৃত্যুর খুব কাছ থেকে ফিরে আসা- এমন নানা অজানা অধ্যায় নিয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষক সাংবাদিক ও কথাসাহিত্যিক ইজাজ আহমেদ মিলন লিখেছেন ‘আহসান উল্লাহ মাস্টার : জীবনালেখ্য’। এই বইটি তরুণ প্রজন্মের কাছে আহসান উল্লাহ মাস্টারের আদর্শকে তুলে ধরতে সহায়ক হবে মনে করেন লেখক ও সংশ্লিষ্টরা।


আরও খবর



শি জিনপিং-জো বাইডেন ঐকমত্য

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ |
Image

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংএর মধ্যে এক মুখোমুখি বৈঠক সোমবার (১৪ নভেম্বর) ইন্দোনেশিয়ার বালিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। হোয়াইট হাউস জানিয়েছে দুই নেতাই ইউক্রেন যুদ্ধে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের বিরুদ্ধে তাদের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন।

জি-টুয়েন্টি শীর্ষ সম্মেলনের জন্য বালিতে আগত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং চীনা প্রেসিডেন্ট শি’র মধ্যে এই বৈঠক তিন ঘণ্টা ধরে চলে। সাক্ষাতের শুরুতে দুই নেতা সাংবাদিকদের সামনে হাসিমুখে করমর্দন করেন। এ বৈঠকের ফলে দুই পরাশক্তির মধ্যে সম্প্রতি শীতল হয়ে পড়া সম্পর্ক অন্তত কিছুটা উষ্ণ হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

হোয়াইট হাউস জানিয়েছে যে বাইডেন এ বৈঠকের সময় চীনা প্রেসিডেন্টকে বলেন, দু দেশের মধ্যে প্রতিযোগিতা চলবে, কিন্তু তা সংঘাতে পরিণত হতে দেয়া উচিত নয়। প্রেসিডেন্ট শি এ বৈঠকে জো বাইডেনের সঙ্গে একমত হন যে, ইউক্রেনের যুদ্ধে পরমাণু অস্ত্রের ব্যবহার কখনোই হওয়া উচিত নয়।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে কোন নতুন ঠাণ্ডা যুদ্ধ শুরু হবার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, তিনি ও শি জিনপিং পরস্পরকে বোঝেন এবং বেজিং বর্তমান বিশ্বব্যবস্থা পাল্টে দিতে চায় না।

বৈঠকের সময় তিনি চীনের শিনজিয়াং ও তিব্বত অঞ্চলে সংখ্যালঘুদের প্রতি আচরণ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তাইওয়ানের ব্যাপারে চীন যে ‘জবরদস্তিমূলক এবং আক্রমণাত্মক পদক্ষেপ’ নিচ্ছে তারও বিরোধিতা করেন মি. বাইডেন। চীনা প্রেসিডেন্ট বলেন, তারদেশের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক যেন যথাযথভাবে রক্ষিত হয় তা সারা বিশ্ব প্রত্যাশা করে।

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, প্রেসিডেন্ট শি সতর্ক করে দিয়েছেন যে তাইওয়ানের অবস্থান চীনের স্বার্থের কেন্দ্রস্থলে- যে দ্বীপটিকে চীন তার নিজের অংশ বলে মনে করে।

 এ বৈঠকে আদৌ কতটা অগ্রগতি হবে : প্রেসিডেন্ট বাইডেন ২০২১ সালে প্রেসিডেন্ট হবার পর এটিই দুই নেতার প্রথম মুখোমুখি সাক্ষাৎ। তবে এর আগে তারা পাঁচবার ফোন ও ভিডিও কলে কথা বলেছেন এবং প্রেসিডেন্ট বাইডেন যখন ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন তখনও তাদের মধ্যে একাধিকবার সাক্ষাৎ হয়েছে।

সেপ্টেম্বর মাসে তাদের মধ্যে শেষবার যখন কথা হয় তখন তারা ইউক্রেন, কোভিড এবং তাইওয়ান ইস্যু নিয়ে কথা বলেছিলেন।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি আগস্ট মাসে তাইওয়ান সফর করার পর চীন অত্যন্ত ক্ষুব্ধ হয় এবং প্রেসিডেন্ট শি সেসময় ওয়াশিংটনের সমালোচনা করেছিলেন। এর পর চীন জলবায়ু এবং কোভিড মহামারী সংক্রান্ত কিছু বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সহযোগিতা বন্ধ করে দেয়।

সোমবারের বৈঠকের পর এগুলোর কয়েকটি আবার শুরু করতে পারলে তাকে একটি ইতিবাচক অগ্রগতি হিসেবেই দেখা হবে – সংবাদমাধ্যমকে এমন কথা বলেছেন একজন মার্কিন কর্মকর্তা।

দুই নেতার আলোচনায় বাণিজ্য, উত্তর কোরিয়ার উস্কানিমূলক আচরণ, তাইওয়ান নিয়ে উত্তেজনা এবং ইউক্রেনে রাশিয়ার চালানো অভিযানের মত প্রসঙ্গগুলো ছিল ।

সংবাদ মাধ্যমের খববে বলা হয়, চীনা নেতাকে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন , যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে কোন সংঘাত বেধে যাওয়া ঠেকানোটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন আরো বলেন, দু দেশের মধ্যে যোগাযোগের পথগুলো খোলা রাখার ব্যাপারে তিনি অঙ্গীকারবদ্ধ – যার ফলে দু দেশ জরুরি বৈশ্বিক ইস্যু – যেমন জলবায়ু পরিবর্তন বা নিরাপত্তাহীনতা – এগুলোর ব্যাপারে একসাথে কাজ করতে পারে।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও চীন এক সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করবে তা সারা বিশ্বই প্রত্যাশা করে।

শি জিনপিং যা বললেন বাইডেনকে : চীনা প্রেসিডেন্ট বলেন, তিনি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সাথে একসঙ্গে কাজ করতে চান। গোটা বিশ্ব প্রত্যাশা করে যে যুক্তরাষ্ট্র ও চীন এই সম্পর্ককে যথাযথভাবে রক্ষা করবে । আমাদের এ বৈঠক বিশ্বের মনোযোগ আকর্ষণ করেছে। বিশ্বশান্তির জন্য আমাদেরকে সবদেশের সাথে মিলে কাজ করতে হবে।

আমাদের এ বৈঠকে কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর ওপর খোলাখুলি মতামত বিনিময় করা প্রয়োজন- বলেন তিনি।

প্রেসিডেন্ট শি বলেন, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক এখন এমন একটি অবস্থায় আছে যা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং এখানে দু-দেশের নেতা হিসেবে তাদের সঠিক গতিপথ নির্ধারণ করতে হবে।

আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আগামী দিনে সামনে এগিয়ে নেয়া এবং উন্নত করার জন্য সঠিক দিকনির্দেশনা পেতে হবে। এ বৈঠকের ফলে চীন-মার্কিন সম্পর্ক কতটা স্বাভাবিক হতে পারে?

সম্প্রতি বাণিজ্য, তাইওয়ান প্রশ্ন, ইউক্রেন যুদ্ধ, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা ইত্যাদি একাধিক বিষয়কে কেন্দ্র করে চীন-মার্কিন সম্পর্কের অবনতি হয়েছে।

বিবিসির বিশ্লেষক স্টিফেন ম্যাকডনেল বলছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও চীন উভয় সরকারই উপলব্ধি করছে যে দুদেশের মধ্যেকার উত্তেজনা অত্যন্ত গভীর এবং কোন যাদুমন্ত্রবলে এর সমাধান হয়ে যাবে এটা কোন পক্ষই মনে করছে না।

তবে এই দুই দেশের মধ্যে আকস্মিকভাবে বড় কোন সংঘাত বেধে যাওয়া ঠেকানো যায় এমন কিছু পদক্ষেপের ব্যাপারে দু'নেতা একমত হতে পারলে সেটাই হবে এক বড় অগ্রগতি, বলছেন স্টিফেন ম্যাকডনেল।

তিনি বলছেন, এক দেশ আরেক দেশের কোন আচরণকে ভুল বোঝার ফলে একটা যুদ্ধ বেধে যাক – এটা কোন পক্ষই চাইছে না।

যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে যে এরকম কিছু ঠেকানোর ব্যবস্থা ইতোমধ্যেই নেয়া হয়েছে– যার মধ্যে ‘স্পষ্ট যোগাযোগের চ্যানেল’ এবং ‘কিছু লাল রেখা অতিক্রম না করার নীতিথাকতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

একজন বিশেষজ্ঞ বলছেন, তৃতীয় কোন দেশে বড় সম্মেলনের ফাঁকে দুই নেতার এ ধরনের বৈঠক যদিও কিছুটা 'মিডিয়াতে দেখানোর জন্যই' আয়োজন করা হয়, তবে এগুলো সম্পূর্ণ অর্থহীন নয়।

হংকং-এর চীনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক পিয়ের ল্যান্ড্রি বলেন, এসব বৈঠকেও কখনো কখনো রাজনৈতিক অচলাবস্থা কেটে গেছে এমন নজির আছে।


সূত্র: বিবিসি বাংলা


আরও খবর

থাইল্যান্ডে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ

মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২

হেরে গেলেন মাহাথির

রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22




প্রতি ঘণ্টায় পরিবারে খুন পাঁচ নারী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

প্রতি ঘণ্টায় পাঁচজনের বেশি নারী পরিবারের কোনো সদস্যের হাতে খুন হচ্ছেন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। যদিও বাস্তবে এ সংখ্যাটি আরো বেশি হতে পারে। সংস্থাটির হিসাব মতে, ২০২১ সালে ৪৫ হাজার নারী খুন হয়েছিলেন তাদের সঙ্গী বা পরিবারের সদস্যদের হাতে। জাতিসংঘের অফিস অন ড্রাগস অ্যান্ড ক্রাইম ও ইউএন উইমেনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে ডয়েচে ভেলে।

জাতিসংঘের এক কর্মকর্তা বলেছেন, এসব হিসাবের মাধ্যমে বোঝা যাচ্ছে যে নারীদের কাছে ঘর খুব নিরাপদ জায়গা নয়। বিশ্বজুড়ে যত মানুষ খুন হন, তার ৮১ শতাংশই পুরুষ। কিন্তু লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতার সবচেয়ে বেশি শিকার হয়েছেন নারীরাই। ২০২১ সালে এশিয়ায় নারীরা সবচেয়ে বেশি খুন হয়েছেন। ওই সালে মোট ১৭ হাজার ৮০০ নারী খুন হয়েছেন এশিয়ায়।

জাতিসংঘের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নারী হত্যা বন্ধে খুব বেশি অগ্রগতি নেই। ইউরোপে পরিবারের সদস্যদের হাতে নারী হত্যার পরিমাণ গত শতকে ১৯ শতাংশ কমেছে। যুক্তরাষ্ট্রে কমেছে মাত্র ৬ শতাংশ।

জাতিসংঘের জানায়, লিঙ্গভিত্তিক অপরাধ বন্ধে সব দেশ যেন ব্যবস্থা নেয়। নারীর ওপর অত্যাচার বন্ধ করতে প্রতিটি দেশের সরকার যেন যথেষ্ট পরিমাণ অর্থ ব্যয় করে।


আরও খবর

কর্মবিরতিতে নৌযান শ্রমিকরা

রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২




রাঙ্গামাটিতে ক্রীড়াবিদদের মাঝে করোনাকালীন অনুদানের চেক বিতরণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন কায়েস, রাঙ্গামাটি ঃ

রাঙ্গামাটি - বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন হতে জেলার ৮০জন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়াসেবীদের মাঝে করোনাকালীন বিশেষ আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়েছে।

আজ সকাল ১১ টায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এই আর্থিক অনুদানের  চেক বিতরণ করা হয়।

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার এমপি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গামাটি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ সাইফুল ইসলাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কামাল উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মারুফ আহমেদ , জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক মোঃ শফিউল আজম, প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে জেলার ৮০ জন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়াসেবীকে ৫ হাজার টাকা করে মোট ৪লক্ষ টাকার অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়।


আরও খবর



হেরে গেলেন মাহাথির

প্রকাশিত:রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ |
Image

৫৩ বছরের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে প্রথমবার নির্বাচনে পরাজিত হয়েছেন আধুনিক মালয়েশিয়ার রূপকার বর্ষীয়ান নেতা ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ।

স্থানীয় সময় শনিবার মালয়েশিয়ার সাধারণ নির্বাচনে লংকাউয়ে নিজের আসনে মোহাম্মদ সুহাইমি আবদুল্লাহর কাছে হেরে গেছেন ৯৭ বছর বয়সী দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী। এ পরাজয়কে তার সাত দশকের রাজনৈতিক জীবনের ইতি হিসেবে দেখা হচ্ছে। ১৯৬৯ সালের পরে প্রথমবারের মতো মাহাথির প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর কাছে হেরে গেছেন। এর আগে গত মাসে মাহাথির বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, নির্বাচনে হারলে তিনি রাজনীতি থেকে অবসরে যাবেন।


আরও খবর

থাইল্যান্ডে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ

মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২

মালয়েশিয়ার সাধারণ নির্বাচন

রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22