Logo
শিরোনাম

ওয়েব ৩ : অর্থনৈতিক বড় পরিবর্তন আনবে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

ভবিষ্যৎ ইন্টারনেটের গতিপথ হলো ওয়েব ৩। ইথেরিয়াম এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা ওয়েব ৩ টার্মের উদ্ভাবক। যে কেউ ক্রিপ্টোকারেন্সি, এনএফটি এবং মেটাভার্স নিয়ে পড়তে গেলে ওয়েব ৩ সম্পর্কে জানতে পারবে।

ব্লকচেইন অথবা ক্রিপ্টোকারেন্সি এবং এনএফটি প্লাটফর্মকে ভিত্তি করে যে ইন্টারনেট সুবিধা গড়ে উঠবে সেটাই হলো ওয়েব ৩। তবে সহজ ভাষায় বলতে গেলে নিজের নিয়ন্ত্রাধীন ইন্টারনেট সুবিধাই হলো ওয়েব ৩।

বর্তমানে আমরা যে ইন্টারনেট ব্যবহার করছি তা নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা ফেসবুক, অ্যামাজন এবং গুগলের মতো টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানের কাছে। তবে ওয়েব৩ ইন্টারনেট ভার্সন চালু হলে সেখানে কোনো নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা থাকবে না। সবাই সমানভাবে এর সুবিধা ভোগ করবে। ওয়েব ৩ মাধ্যমে অর্থনৈতিক ব্যবসায় বড় ধরনের পরিবর্তন ঘটবে। এজন্য বিশ্বের বড় বড় অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান ওয়েব ৩ প্রযুক্তির জন্য কাড়ি কাড়ি টাকা বিনিয়োগ করছে।

গত বছর এ খাতে ১৮ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করা হয়। এছাড়া টুইটারের সাবেক সহ-প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডরসি বলেন ওয়েব৩ এর মাধ্যমে অনেক প্রতিষ্ঠান নিজেদের অবস্থান অনেক শক্ত করতে পারবে।


সূত্র : সিনেট নিউজ


আরও খবর

ভ্যাট দেওয়ায় শীর্ষে ফেসবুক

মঙ্গলবার ২৩ আগস্ট ২০২২




শিক্ষক রনির স্বীকারোক্তি

অদিতাকে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ অনুপ সিংহ,

নোয়াখালীর জেলা শহর মাইজদীর লক্ষীনারায়ণপুরে অষ্টম শ্রেণির স্কুল ছাত্রী তাসমিয়া হোসেন অদিতাকে (১৪) বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে প্রাইভেট শিক্ষক আবদুর রহিম রনি। এদিকে স্কুল ছাত্রী অদিতা হত্যার প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে নোয়াখালীর শিক্ষাঙ্গন ও রাজপথ।

অভিযুক্ত আবদুর রহিম রনি (৩০) নোয়াখালী পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ডের লক্ষীনারায়ণপুর মহল্লার লাতু কাউন্সিলরের বাড়ির খলিল মিয়ার ছেলে। 

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় আসামি। একই দিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নোয়াখালী পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম নিজ কার্যালয়ে প্রেস কনফারেন্সে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। 

এসপি নিজ কার্যালয়ে প্রেস কনফারেন্সে বলেন, রনি নামে এক যুবকের কাছে প্রাইভেট পড়ত নোয়াখালী সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী অদিতা। হঠাৎ করে অদিতা তার কাছে প্রাইভেট পড়তে অনীহা প্রকাশ করে এবং নতুন শিক্ষকের কাছে প্রাইভেট পড়তে শুরু করে। এতে রনি নাখোশ হয়। এ বিষয়সহ অদিতার ব্যাপারে আরো বিস্তারিত জানার জন্য তাৎক্ষণিক রনিকে প্রথমে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়। তখন তার তুথনি ও ঘাড়ে নখের আঁচড়ের তাজা দাগ দেখতে পায়। নখের আঁচড়ের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসা করা হলে সে একেক সময় একেক তথ্য দিয়ে পুলিশকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে। আঁচড়ের ব্যাপারে তার থেকে কোন সদুত্তর না পেয়ে তার বিষয়ে আরো সন্দেহ জোরালো হয়। তখন তাকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটনের লক্ষে আদালতে সোপর্দ করে ১০দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়। আদালত রিমান্ড আবেদনের প্রেক্ষিতে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করলে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় তাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়। রিমান্ডে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে রনি ঘটনার সাথে নিজের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেন।   

এসপি আরো বলেন, গত বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর ১২টার মধ্যে অদিতার বাসায় যায় সাবেক কোচিং শিক্ষক রনি। বাসায় গিয়ে বন্ধ দরজা নক করলে অদিতা বাসার দরজা খুলে দেয়। তখন সে বাসায় প্রবেশ করে অদিতার সঙ্গে গল্পগুজব করে। গল্পগুজবের একপর্যায়ে রনি অদিতাকে জড়িয়ে ধরে চুমু দেওয়ার চেষ্টা করে এবং বিভিন্ন কারণে ব্যর্থ হয়। এরপর রাগান্বিত হয়ে অদিতা বিষয়টি সবাইকে জানিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার ভয়ে রনি অদিতাতে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে।  পরবর্তীতে রান্না ঘর থেকে ছোরা এনে অদিতার বাম হাতের রগ এবং গলা কেটে মৃত্যু নিশ্চিত করে হাতের বাঁধন খুলে দেয়। এরপর আসামি রনি ঘটনাকে ভিন্ন খাতে রুপ দিতে ঘরের আলমিরা ও ওয়ারড্রবের জামা-কাপড়, কাগজপত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে রুমের দরজা লক করে এবং মূল ঘরের দরজা বাহির থেকে তালা লাগিয়ে পালিয়ে যায়। শনিবার দুপুরে ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে আসামি রনি এসব কথা বলেন। 

উলেখ্য, গত বৃহষ্পতিবার বিকেলে জেলা শহর মাইজদীতে নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী তাসমিয়া হোসেন অদিতাকে (১৪) গলাকেটে হত্যা করা হয়। নিহত শিক্ষার্থীর মৃতদেহ উদ্ধারের পরপর পুলিশের একাধিক দল পৃথক অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি সাবেক গৃহ শিক্ষক আবদুর রহিম রনিকে (২০), ইসরাফিল (১৪), তার ভাই সাঈদ (২০) গ্রেফতার করে। গতকাল আদালত রনির ৩ দিনের মঞ্জুর করে।


আরও খবর



বাংলাদেশ ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশ‌ন

কু‌মিল্লার সভাপতি ডা. আবুল কালাম, সেক্রেটারি ডা. শামীমুল

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো ঃ

কু‌মিল্লায় বাংলাদেশ ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশনের  সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হ‌য়ে‌ছে।

শুক্রবার বাংলাদেশ ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশন কুমিল্লা জেলা শাখার আয়োজনে সাধারণ সভা মহানগরীর কান্দির পাড় জাহাঙ্গীর জমজম টাওয়ারের অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন ডা. মোঃ আবুল কালাম আজাদ ভূইয়া এবং পরিচালনা করেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক  ডা. মোঃ সফিউল আলম চৌধুরী। এরিস্টো ফার্মার আয়োজনে শতাধিক ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশন ডাক্তার সংগঠনের সমন্বয়ে সাধারণ সভায় জেলায় কর্মরত অবস্থায় সংগঠনের  মৃত সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া সভায় ৪ জন মরণোত্তর এবং ২১ জন সদস্য কে অবসরোত্তর সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশন এর ডা. এ টি এম গোলাম কিবরিয়া, জেলা ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশন এর সাবেক সভাপতি ও উপদেষ্টা ডা. সরকার ফারুক আহমেদ, সাবেক সভাপতি ও উপদেষ্টা ডা মোঃ আলী আশ্রাফ, উপদেষ্টা ডা মোঃ ময়নাল হোসেন ভূইয়া, সাধারণ সম্পাদক ডা. মোঃ শামীমুল ইসলাম বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. দ্বীন মোহাম্মদ হোসেন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ডা. মহব্বত আলী, ডা.মোঃ গাজীউল হাসান আজগর।

অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এরিস্টো ফার্মা লিঃ এর  ঢাকা এরিয়া এজিএম বিশ্বজিৎ কুমার দেবনাথ, কুমিল্লা আর এস এম মোঃ জাকির হোসেন, আর এস এম মোঃ ফারুক আহমেদ, সিনিয়র এরিয়া ম্যানেজার বিকাশ চন্দ্র ধর, সিনিয়র এরিয়া ম্যানেজার মোঃ গোলাম সাদেক চৌধুরী, এরিয়া ম্যানেজার শিমুল দাশ

আর-ও বক্তব্য রাখেন ডা. গোলাম রব্বানী, ডা. জাকির হোসেন, ডা. ফারুক আহমেদ ও, ডা. ফরিদ উদ্দিন  প্রমুখ।

সভা শেষে সংগঠনের সাবেক সভাপতি ও উপদেষ্টা ডা সরকার ফারুক আহমেদ ৪১ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশ ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশন এর তিন বছর মেয়াদি একটি কার্যকরী কমিটি ঘোষণা করেন। কমিটির সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ডা.মোঃ আবুল কালাম আজাদ ভূইয়া , সহ-সভাপতি ডা. হুমায়ুন কবির মোল্লা, ডা. ফারুক আহমেদ, ডা. নাছরিন বেগম, ডা. শহীদ উল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন ডা. মোঃ শামীমুল ইসলাম বাবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. সফিউল আলম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. দ্বীন মোহাম্মদ হোসেন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. ইউনুস মিয়া, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ডা. মোঃ মোহাব্বত আলী, দপ্তর সম্পাদক ডা. মোঃ গোলাম রব্বানী, প্রচার সম্পাদক ডা. মোঃ আবুল হোসেন ।


আরও খবর



মোংলা বন্দরের জেটিতে ভিড়েছে এমভি ইউনিউইসডম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর রাশিয়া থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের তৃতীয় চালানের মালামাল নিয়ে সরাসরি মোংলা বন্দর জেটিতে এসে ভিড়েছে এম,ভি ইউনিউইসডম।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ জাহাজটি বন্দর জেটিতে ভিড়ে। রাত ১০টার পর থেকে এ জাহাজ থেকে এ মালামাল খালাসের কাজ শুরু হয়। মালামাল খালাসের পর আজ সকালে সড়ক পথে যাবে রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, সরাসরি রাশিয়া থেকে রুপপুর পারমাণবিক কেন্দ্রের মূল্যবান বৈদ্যুতিক মালামাল নিয়ে বিদেশি জাহাজ এম,ভি ইউনিউইসডম সোমবার সন্ধ্যায় মোংলা বন্দরের ৭ নম্বর জেটিতে এসে পৌঁছায়। এ চালানে রয়েছে ১৪২১ মেট্টিক টনের ২৮০ প্যাকেজ মেশিনারি পণ্য। এর আগে গত পহেলা আগস্ট এম,ভি কামিল্লা ও ৫ আগস্ট এম,ভি ড্রাগনবল রাশিয়া থেকে রুপপুর পারমাণবিক কেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মোংলা বন্দরে আসে। 


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




তিনশ আসনেই ইভিএম চায় জেপি

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

ইভিএমের প্রতি আস্থা জানিয়ে জাতীয় পার্টি- জেপির সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম বলেছেন, কমিশন আগামী নির্বাচন ইভিএম ব্যবহার করতে চাইলে তিনশ আসনেই করতে হবে। আপাতত, কমিশনের সেই সক্ষমতা না থাকলে সব আসনের ১০ শতাংশ কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করার পরামর্শ দেন তিনি।

সংলাপে দলটির পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনকে কাজ ও বক্তব্যের মাধ্যমে সবার আস্থা অর্জনের পরামর্শ দেয়া হয়। দলটির সাধারণ সম্পাদক বলেন, একটি অংশগ্রহণমূলক ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে চাইলে সব ধরনের বিতর্ক এড়িয়ে চলতে হবে কমিশনকে।

শহিদুল ইসলাম বলেন, বিচ্ছিন্নভাবে অল্প আসনে ইভিএম ব্যবহার হলে সবার প্রতি সমান আচরণ করা হবে না সুতরাং কমিশনের উচিত সব আসনের অন্তত ১০ বা ২০ শতাংশ কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা।


আরও খবর



১০ কোটি টাকা চেয়ে আদালতে সেই জজ মিয়া

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ |
Image

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ঢাকার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনার সমাবেশে গ্রেনেড হামলা মামলায় ফাঁসানো আসামি জজ মিয়া ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে এবার হাইকোর্টে রিট করেছেন। গত (১২ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. রিয়াজ উদ্দিন খানের হাইকোর্ট বেঞ্চ থেকে তার আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব এ বিষয়ে রিট করার অনুমতি নেন।

এর আগে ১১ আগস্ট জজ মিয়ার পক্ষে আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব ও আইনজীবী মোহাম্মদ কাউছার স্বরাষ্ট্র সচিব, আইজিপি, তৎকালীন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১১ জন বরাবরে এ বিষয়ে আইনি নোটিশ দেন। আরো যাদের কাছে নোটিশ পাঠানো হয়েছে, তারা হলেন- ঢাকার জেলা প্রশাসক, মতিঝিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি), নোয়াখালীর সেনবাগ থানার ওসি, পুলিশের অপরাধ ও তদন্ত বিভাগ (সিআইডি), তৎকালীন আইজিপি খোদা বক্স চৌধুরী, তৎকালীন এএসপি আব্দুর রশিদ, তৎকালীন এএসপি মুনশি আতিকুর রহমান এবং তৎকালীন বিশেষ পুলিশ সুপার মো. রুহুল আমিন।

নোটিশে ওই ঘটনার জন্য জড়িত ব্যক্তিদের দায় নির্ধারণের অনুসন্ধান কমিটি গঠন করতে বলা হয়েছে। যাদের দায় পাওয়া যাবে তাদের কাছ থেকে ওই ক্ষতিপূরণ আদায় করে জজ মিয়াকে দিতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি লুৎফুজ্জামান বাবরসহ জড়িত ব্যক্তিদের স্থাবর সম্পত্তি জব্দের আইনগত পদক্ষেপের উদ্যোগ নিতে বলা হয়েছে। নোটিশে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে ১৫ দিন সময় দেওয়া হয়েছে, অন্যথায় হাইকোর্টের রিট করা হবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী। তবে নোটিশে কোনো সাড়া না পেয়ে এবার হাইকোর্টে রিট করছেন জজ মিয়া।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ঢাকার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনার সমাবেশে গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। এতে দলের নেতাকর্মীসহ ২২ জন নিহত হন।


আরও খবর

পঞ্চগড়ে নৌকা ডুবে ২৪ জন নিহত

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

এবার ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা

রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২