Logo
শিরোনাম

খালি পেটে কাঁচা রসুন কেন খাবেন

প্রকাশিত:Saturday ০৩ September ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

সকালে উঠে অনেককেই উষ্ণ জলে লেবু খেতে দেখেছেন। অনেকেই আবার লেবু-মধুর ফর্মুলায় বিশ্বাসী। কেউ গ্রিন টি খান। অনেকে আবার খালি পেটে (Empty Stomach) রসুনের (Garlic) খাওয়ার পরামর্শ দেন। এর অনেক উপকারিতাও আছে। বলা হয় কয়েকশো রোগ সারিয়ে তুলতে পারে রসুন। সকালে খালি পেটে কাঁচা রসুন অব্যর্থ ওষুধ। এর উপকারিতা কী কী তা অনেকেরই অজানা। বহু রোগ নিরাময় করে কাঁচা রসুন। আর ভাজা রসুন ঠিক ততটাই ক্ষতিকর।

জেনে নিন প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক এই কাঁচা রসুনের কী কী উপকারিতা। রোজ সকালে এক কাপ চা দিয়ে দিন শুরু না করে রসুন দিয়ে করুন। তাহলে কী কী উপকারিতা পাবেন? স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরাও সকালে কাঁচা রসুন খাবার পরামর্শ দেন, কেন জানেন?


১. পেট পরিষ্কার করতে
রসুনে শরীর থেকে টক্সিন পরিষ্কার করার বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এর পাশাপাশি এটি পাকস্থলীতে উপস্থিত ব্যাকটেরিয়া দূর করতেও সহায়ক। বিশেষ করে যখন এটি খালি পেটে খাওয়া হয়।

২. হাত ঝনঝন করলে
অনেক রিপোর্টে বলা হয়েছে যে খালি পেটে রসুন খেলে হাতের শিরায় ঝনঝন করার সমস্যা চলে যায়।


৩. উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় উপশম
স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, যাদের উচ্চ রক্তচাপ আছে তাদের জন্য খালি পেটে রসুন খাওয়া খুবই উপকারী। এটি রক্ত ​​সঞ্চালন বাড়াতে কাজ করে। এর পাশাপাশি রসুন খাওয়া হার্টের স্বাস্থ্যের জন্যও উপকারী।


৪. কোলেস্টেরলের জন্য
খালি পেটে রসুন খেলে তবে এটি কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

৫. ইমিউনিটি বাড়ায়
হ্যাঁ, রসুন খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ে। এর ফলে আমাদের শরীর আরও ভালোভাবে রোগ মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়।

 


আরও খবর



বান্দরবানে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান, ৫ জঙ্গি আটক

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

রোকসানা মনোয়ার :বান্দরবানের পাহাড়ে নতুন জঙ্গি সংগঠন ‘জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া’র আস্তানায় একাধিক অভিযান চালালেও শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তার করা যায়নি। সেখানে নানারকম প্রশিক্ষণ চললেও তাদের লক্ষ্য সম্পর্কে স্পষ্ট কোনো তথ্য পায়নি র‌্যাব । তবে, বান্দরবান ক্যাম্পের অভিযানে আটক পাঁচজনের কাছে মিলেছে নিখোঁজ ৫৫ ব্যক্তির তথ্য।

গেল বৃহস্পতিবার বান্দরবানের থানচি ও রোয়াংছড়ি উপজেলার দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলে র্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তার জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়ার ৫ সদস্যকে ছয় দিনের রিমান্ড দেয় রাঙ্গামাটি আদালত।এই রিমান্ডে তারা ঐ নব্য জঙ্গি সংগঠন সম্পর্কে নানা তথ্য দিয়েছে বলে জানায় র‌্যাব।

তারা জানিয়েছে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাকিঁ দিয়ে নতুনভাবে জঙ্গীবাদকে সংগঠিত করতে চেয়েছিল নতুন এই সংগঠনটি। তবে তাদের লক্ষ্য সম্পর্কে স্পষ্ট তথ্য পায়নি র‌্যাব ।

এদিকে এখন পর্যন্ত র্যা বের হাতে দেশব্যপী নিখোঁজ তালিকার ৫৫ জনের মধ্যে ৭ জন গ্রেফতার আছে, মারা গেছে ২ জন। কেএনএফের প্রশিক্ষণদাতা ১৪ জন এবং নতুন জঙ্গী সংগঠনটির মোট ৩৫ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। তবে এখনো ধরা পড়েনি কোন সর্বোচ্চ নেতা।

পার্বত্য জেলা বান্দরবানের রুমা, রোয়াংছড়ি, থানচি এবং রাঙামাটির বিলাইছড়ি সীমান্তবর্তী পাহাড়ের গহীন অরণ্যে অর্থের বিনিময়ে এই জঙ্গীদের প্রশিক্ষণ দেয়া ‘কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট’ (কেএনএফ)-এর সর্বোচ্চ পর্যায়ের নেতাদেরও এখনো ধরা যায়নি।


আরও খবর



সদরপুরে ঘটনা স্থলে উপস্থিত না থেকেও হত্যা মামলার আসামী মোঃ রফিকুল ইসলাম

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

সদরপুর (ফরিদপুর) প্রতিনিধি

ফরিদপুরের সদরপুরে গত (১৭ নভেম্বর) বৃহস্পতিবার দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় রফিকুল ইসলাম ঢাকা অবস্থান করার পরেও তাকে মিথ্যে হত্যা মামলার আসামী করা হয়েছে।

ফরিদপুরের সদরপুরে কৃষ্টপুর ইউনিয়নের হাটকৃষ্ণপুর বাজারে গত বুধবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে সাবেক চেয়ারম্যানের সমর্থক গিয়াস তালুকদার নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হাতের কবজি বিচ্ছিন্ন করে বর্তমান চেয়ারম্যান আকতারুজ্জামান তিতাসের সমর্থকরা পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে তার শারিরীক অবস্থায় অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আহত গিয়াস উদ্দিন তালুকদার একই ইউনিয়নের যাত্রাবাড়ি গ্রামের নয়ন তালুকদারের পুত্র।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিকেলে উভয় গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পাল্টাপাল্টি হামলা ও সংঘর্ষের সময় বেশ কিছু বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়। এতে আহত হন কমপক্ষে ১৫ জন।

পরে গত (১৭ নভেম্বর) বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর পযর্ন্ত সদরপুর উপজেলার যাত্রাবাড়ী এালাকায় কৃষ্টপুর ইউনিয়নের সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ হয় । এ সময় সংঘর্ষে জালাল ফকির নামে এক ব্যক্তি নিহত হন। পরবতিতে নিহত জালালের ফকিরের ভাই দেলোয়ার ফকির বাদী হয়ে ৫১ জনকে আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

কিন্তু ঘটনা স্থলে উপস্থিত না থেকেও বর্তমান চেয়ারম্যান তিতাসের নিদেশে মামলার ৩৯ নং আসামী করা হয় রফিকুল ইসলামকে । যিনি ঐসময়ে ঢাকার কদমতলী সাদ্দাম মার্কেট এলাকার এন, আর, বি, সি, কমার্শিয়াল ব্যাংকে লেনদেন অবস্থায় ছিলেন। যা ব্যাংকের সিসি টিভি ফুটেজে স্পষ্ট ফুটে উঠেছে।

অথচ ঘটনার দিন রফিকুল ইসলামের ঘটনাস্থলে উপস্থিত না থাকার বিষয়টা সদরপুর থানার ওসি ও মামলার তদন্ত অফিসার কৃষ্ণ বিশ্বাসকে জানানো হলেও এই মিথ্যা মামলা থেকে রেহাই পায়নি।

এ বিষয়ে রফিকুল ইসলাম দৈনিক বর্তমান দেশবাংলাকে বলেন, আমি ঘটনার দিন ঢাকার কদমতলী সাদ্দাম মার্কেট এলাকার এন আর বি সি কমার্শিয়াল ব্য্রংকে লেনদেন অবস্থায় ছিলাম। কিন্তু আমাকে বর্তমান চেয়ারম্যান তিতাসের নির্দেশে জালাল হত্যা মামলার মিথ্যা আসামি করা হয়েছে । আমি প্রশাসনের নিকট এই হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলার সুষ্ট তদন্ত দাবি করছি। সেই সাথে আমাকে এই মিথ্যা মামলা থেকে অব্যহতি দেওয়ার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।

 


আরও খবর



রাণীনগরে সাবেক এমপির স্ত্রীর দখলে রাখা জমি ফেরতের দাবিতে মানব বন্ধন

প্রকাশিত:Sunday ০৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Thursday ২৬ January ২০২৩ |
Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :


নওগাঁ-৬,(রাণীনগর-আত্রাই) আসনের সাবেক এমপি মরহুম ইসরাফিল আলমের স্ত্রী সুলতানা পারভিন বিউটির দখলে থাকা জমি ফেরৎ পেতে এবং মামলা হামলা থেকে মুক্তি পেতে মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ভুক্তভোগীরা। রোববার দুপুরে উপজেলার কাশিমপুর এলাকায় নওগাঁÑআত্রাই সড়কে এই মানব বন্ধন করা হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানব বন্ধনে ভুক্তভোগীরা বলেন, গত ২০১৫ সালে ইসরাফিল আলম এমপি কাশিমপুর মৌজায় প্রায় ৪০বিঘা জমি জবর দখল করে প্রাচীর দিয়ে “পল্লী শ্রী সম্বনিত কৃষি প্রদর্শনী খামার” গড়ে তোলেন। ওই সময় এলাকার গরীব অসহায়দের টাকা না দিয়ে জমি জোরপূর্বক দখলে নেয়। এছাড়া জমির মালিকরা জমি ছাড়তে না চাওয়ায় এলাকার সাদেকুল ইসলামসহ কয়েকজনকে কে “মিথ্যে”মামলায় হয়রানি ও নির্যাতন করে। এছাড়া জমি হারানোর শোকে বেশ কয়েকজন মারা গেছেন বলে দাবি করা হয়। এবিষয়ে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছেননা দাবি করে উল্লেখিত জবর দখলে রাখা জমি ফেরত পেতে এবং “মিথ্যা” মামলা,হত্যার হুমকিসহ সকল হয়রানী বন্ধে, প্রশাসনের ন্যায় বিচার এবং হকদারের নিকট জমি ফেরতের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানব বন্ধন করে ভুক্তভোগীরা। কাশিমপুর ইউনিয়নের ভুক্তভোগী পরিবারের আয়োজনে এবং ভুক্তভোগী সাদেকুল ইসলামের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন,মারিয়া বিবি,সুফিয়া বিবি,এবাদুল হক,আজিজার রহমান ও আব্দুস ছাত্তারসহ ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

এব্যাপারে মরহুম এমপি ইসরাফিল আলমের স্ত্রী সুলতানা পারভিন বিউটি বলেন,গড়ে তোলা খামারে সাদেকুলের জমি নিয়ে একটু ঝামেলা ছিল। গত ২জানুয়ারী একজন মন্ত্রীর উপস্থিতীতে বৈঠকে তা নিরসন হয়েছে। এর পরেও সে কেন এমন ঝামেলা করছে বুঝতে পারছিনা 


আরও খবর



মিস ইউনিভার্স হলেন যুক্তরাষ্ট্রের আর’বনি

প্রকাশিত:Sunday ১৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

এ বছর সুন্দরী প্রতিযোগিতা মিস ইউনিভার্সের সেরার মুকুট মাথায় পরেছেন যুক্তরাষ্ট্রের আর’বনি গ্যাব্রিয়েল। তাকে মুকুট পরিয়ে দিয়েছেন গতবারের মিস ইউনিভার্স হারনাজ সান্ধু।

এ বছর মিস ইউনিভার্সের মঞ্চে সেরা তিনে জায়গা করে নিয়েছেন ভেনেজুয়েলা ও দ্য ডমিনিকান রিপাবলিকের প্রতিযোগী। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ অরলিন্সের আরনেস্ট এন. মোরিয়াল কনভেনশন সেন্টারে প্রতিযোগিতাটির আয়োজন করা হয়।

এ বছর মিস ইউনিভার্সের শীর্ষ তিন প্রতিযোগী। দ্বিতীয় রানারআপ হয়েছেন দ্য ডমিনিকান রিপাবলিকের প্রতিযোগী।

ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন দেখেছেন মিস ইউনিভার্স হওয়ার। গত বছর সেই স্বপ্ন সত্যি হয়েছিল। এ বছর আরও একবার মিস ইউনিভার্সের মঞ্চে হেঁটেছেন ভারতের মডেল ও অভিনেত্রী হারনাজ সান্ধু। এসময় তিনি আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।


আরও খবর



নেত্রকোনায় ২৮ লাখ টাকার ইলিশের চালান সহ চোর আটক

প্রকাশিত:Friday ২৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ২৭ January ২০২৩ |
Image

মির্জা হৃদয় সাগর, জেলা প্রতিনিধি (নেত্রকোনা) :

নেত্রকোনায় ২৮ লাখ টাকার চোরাই ইলিশসহ এক গাড়ি চালককে আটক করেছে পুলিশ।  বুধবার সকালে জেলার কলমাকান্দার বিষমপুর গ্রামে থেকে ইলিশ মাছের ৫৬ টি ককশিট বক্স জব্দ করে এবং হাসান মিয়া(২৮) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে সিধলী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। 

বুধবার বিকেলে জেলা পুলিশের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজের মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করে জেলা পুলিশ। 

আটককৃত হাসান মিয়া কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুর উপজেলার গনমানপুরুরা গ্রামের আব্দুল মোতালেবের ছেলে। 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার রাতে চিটাগাং এর একটি মাছের আড়ত থেকে প্রতিবারের মত বাজার জাত করার জন্য ইলিশ মাছের একটি চালান নিয়ে যাত্রাবাড়ীর উদ্দেশ্যে রওনা দেন হাসান মিয়া। পথে হাসানের সহযোগী শান্ত মিয়া, হক মিয়া ও তাহের মিয়ার সাথে মেবাইলে যোগাযোগ করে মাছের চালান চুরির পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা মাফিক মাছের চালান যাত্রাবাড়ীর পরিবর্তে গাজীপুরে এসে গাড়ি পরিবর্তন করে মাছগুলো নিয়ে চলে আসেন সীমান্তবর্তী উপজেলা কলমাকান্দার বিষমপুর গ্রামে তাহের মিয়ার বাড়িতে। লোক চোখ আড়াল করতে রাতের আঁধারে বাড়ির পাশে মাছের বক্সগুলো লুকিয়ে রাখেন হাসান মিয়া। সকালে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে সেখান থেকে মাছের বক্সগুলো জব্দ করে। জব্দকৃত মাছের বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ২৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা বলে জানায় পুলিশ। বুধবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কলমাকান্দার বিষমপুর গ্রামে প্লাস্টিক টেপ পেপারে মোড়ানো বেশকিছু ককশিট বক্সের সন্ধান পায় পুলিশ। পরে ওই গ্রামের হক মিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ বাক্সগুলো জব্দ করে। এ সময় বক্সগুলো খুলে প্রতিটি বক্সেই ইলিশ মাছ পাওয়া যায়। পরে ওই বাড়িতে অবস্থানরত স্থানীয় এক মহিলাকে জিজ্ঞাসাবাদে একপর্যায়ে মাছগুলো হাসান মিয়ার বলে জানান। এদিকে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ঐগ্রাম অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত হাসান মিয়াকে আটক করে সিধলী তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। 

সিধলী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ এনামুল হক জানান, আমরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষমপুর গ্রামে তাহের মিয়ার বাড়ির পিছনে কিছু সন্দেহজনক ককশিটে বক্সের সন্ধান পাই। পরে ওই অভিযান চালিয়ে বাক্স গুলো জব্দ করে, তার ভিতরে ইলিশ মাছে দেখতে পাই। তারপর তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় হাসান মিয়া নামে এক গাড়ি চালককে আটক করা সম্ভব হয়। আটককৃতকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে জানায় মাছগুলো তিনি চট্টগ্রাম থেকে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে পৌঁছে দেওয়ার কথা থাকলেও মাছের চালান তিনি কলমাকান্দার বিষমপুর গ্রামে নিয়ে আসে। আমরা ইতিমধ্যে মাছের যে প্রকৃত মালিকের সাথে কথা বলেছি। অভিযুক্ত হাসান মিয়া নিয়মিতই মাছের চালান নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় যাতায়াত করতেন এরই মাঝে তিনি মাছগুলি চুরির পরিকল্পনা করেন। 

তিনি আরো জানান, আটককৃত হাসান মিয়া আমাদের হেফাজতে রয়েছে। মাছের যে প্রকৃত মালিক তিনি গাজীপুরের কালিয়াকৈর থানায় মাছ চুরির বিষয়ে একটি অভিযোগ করেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্তা নেওয়া হচ্ছে। আমরা আসামি এবং আলামত তাদের কাছে হস্তান্তর করব।


আরও খবর